পাখি খাঁচায় আটকে রেখে বিজ্ঞাপন: গ্রামীণফোনের বিরুদ্ধে মামলা
পাখি খাঁচায় আটকে রেখে বিজ্ঞাপন: গ্রামীণফোনের বিরুদ্ধে মামলা

পাখি খাঁচায় আটকে রেখে বিজ্ঞাপন: গ্রামীণফোনের বিরুদ্ধে মামলা

অনলাইন ডেস্ক

টিয়া পাখি খাঁচায় বন্দী রেখে বিজ্ঞাপন নির্মাণ করে  প্রচার করায় জনপ্রিয় মোবাইল অপারেটর গ্রামীণফোনের বিরুদ্ধে মামলা করেছে বন বিভাগের বন্যপ্রাণী অপরাধ দমন ইউনিট।  

বিজ্ঞাপনটি নিয়ে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ব্যাপক সমালোচনা ও প্রতিবাদের ঝড় বয়ে যায়। এরপর এমন পদক্ষেপ নিল বন বিভাগ।

গতকাল বুধবার (৩০ জুন) বিকেলে চিফ মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেটের আদালতে মামলাটি দায়ের করেন বন্যপ্রাণী অপরাধ দমন ইউনিটের পরিদর্শক নার্গিস সুলতানা।

তিনি বলেন, গ্রামীণফোনের ওই বিজ্ঞাপনে টিয়া পাখি প্রদর্শন করে বন্যপ্রাণী অপরাধে উৎসাহ দেওয়া হয়েছে; যা বন্যপ্রাণী সংরক্ষণ ও নিরাপত্তা আইন-২০১২ অনুযায়ী দণ্ডনীয় অপরাধ। বন্যপ্রাণী অপরাধ দমন ইউনিটের পক্ষ থেকে আইনটির ৩৮(২), ৪১ ও ৪৬ নম্বর ধারায় গ্রামীণফোনকে অভিযুক্ত করে মামলাটি দায়ের করা হয়েছে।

গ্রামীণফোনের  বিজ্ঞাপনটিতে দেখা যায়, এক বাবা তার শিশুর জন্য খাঁচায় আটকানো একটি টিয়া পাখি নিয়ে আসেন। পাখিটির সঙ্গে প্রথমে বাসার পালিত কুকুরের বৈরী সম্পর্ক তৈরি হয়। পরে মেয়েটি প্রাণী দুটির মাঝে সম্পর্ক ঠিক করে দেয়। এখানে দুটি প্রাণীর সঙ্গে মেয়েটির কথা বলাকে কেন্দ্র করে প্রতি সেকেন্ডে এক পয়সায় কথা বলার অফার প্রচার করে গ্রামীণফোন।
এর আগে এই বিজ্ঞাপনটি প্রচার হলে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে প্রতিবাদ জানাতে দেখা গেছে অনেক প্রাণীপ্রেমীকে। তাদের অভিযোগ, বিজ্ঞাপনে আইন লঙ্ঘন করে টিয়া পাখিকে আটকে রাখা হয়েছিল; যা  প্রচারের মাধ্যমে সাধারণ মানুষকে আইন না মেনে করে বন্যপ্রাণী শিকার বা আটকে রাখায় উৎসাহ দিচ্ছে।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে দ্বান্দ্বিকতার কোনো সুযোগ নাই

খালেদা জিয়ার চিকিৎসার ক্ষেত্রে সরকারের প্রতিবন্ধকতা ইচ্ছাকৃত

বিয়েবাড়িতে ফুটন্ত স্যুপে পড়ে রাঁধুনির মৃত্যু

উলভসের পর এবার টটেনহামের দায়িত্ব নুনোর কাঁধে

news24bd.tv/এমিজান্নাত