বিয়ের অনুষ্ঠানে গিয়ে উল্টো বাসন মাজতে হলো অতিথিদের

অনলাইন ডেস্ক

বিয়ের অনুষ্ঠানে গিয়ে উল্টো বাসন মাজতে হলো অতিথিদের

প্রতীকী ছবি

বিয়ের অনুষ্ঠানে গিয়ে খাবার তো জুটলই না, উল্টে এঁটো বাসন মাজতে হল বহু অতিথিকেই। তিন বছর আগে তার সঙ্গে এমনটাই ঘটেছিল বলে নেটমাধ্যমে দাবি করলেন এক নারী। এতোদিন পর নেটমাধ্যমে তার সে অভিজ্ঞতার কথা তুলে ধরতেই তা ভাইরাল হয়েছে।

ভারতীয় সংবাদমাধ্যম আনন্দবাজার জানায়, কোথায় বা কার বিয়েতে গিয়ে এমন অভিজ্ঞতা হয়েছিল ওই মহিলার, তা অবশ্য খোলসা করেননি তিনি। তবে তার দাবি, বিয়ের অনুষ্ঠানের আয়োজনে এতটাই খরচ করেছিল নবদম্পতির পরিবার, যে সমস্ত অতিথির জন্য যথেষ্ট খাবারের বন্দোবস্ত পর্যন্ত করতে পারেননি তারা। এমনকি, নববধূর বিয়ের ডিজাইনার পোশাক কিনতেও পকেট ফাঁকা করে দিয়েছিলেন। ফলে বিয়ের ওই অনুষ্ঠানে যে সমস্ত অতিথিরা আগে পৌঁছেছিলেন, শুধুমাত্র তাদেরই নাকি খাবার জুটেছিল।


আরও পড়ুন:

কোপার সেমিফাইনালে কোন দল খেলছে কাদের বিপক্ষে

পরীমণির ‘অভিনয়ে’ বড় রকমের ভিকটিম হলাম: নাসির

উবানের ভাষায় তোফায়েল আহমেদ জন্মগতভাবেই অকৃত্রিম

গেল ২৪ ঘণ্টায় রাজশাহী মেডিকেলের করোনা ওয়ার্ডে ১২ জনের মৃত্যু


খাবার না পেয়ে ওই নারীর বয়ফ্রেন্ডও খালি প্লেট হাতে ফিরে আসেন। কেন এমনটা হল, তা জানতে বধূর মায়ের কাছে গেলে ওই মহিলা-সহ ১০ জনকে কিচেনে নিয়ে যান বধূর সঙ্গীসাথীরা। সেখানে রাখা ছিল এঁটো বাসন। সবই তাদের মাজতে হয়েছিল। মহিলার দাবি, অতিথিদের এক-তৃতীয়াংশের জন্যই খাবার ছিল। বাকিদের অভুক্ত থাকতে হয়েছে। যাদের খাবার জুটেছিল, তাদের এঁটো বাসনই ধুতে হয়েছিল বহু অতিথিকে।

তিন বছর পর ওই দম্পতির ছাড়াছাড়ি হয়ে যায়। ফের বিয়ের সিদ্ধান্ত নেন সে দিনের ওই বধূ। তবে আমন্ত্রিত হলেও এ বার আর তার বিয়ের অনুষ্ঠানে পা রাখেননি ওই নারী।

news24bd.tv / নকিব

পরবর্তী খবর

এক বছর ধরে একই নম্বরের টিকেট কেটে অবশেষে লটারি জয়!

অনলাইন ডেস্ক

এক বছর ধরে একই নম্বরের টিকেট কেটে অবশেষে লটারি জয়!

অধ্যাবসায়ের চরম দৃষ্টান্ত স্থাপন করলেন এক আমেরিকান তরুণী। টানা এক বায়ান্ন সপ্তাহ ধরে একই নম্বরের টিকিট কেটে অবশেষে মিলল পুরষ্কার। খবর আনন্দবাজার পত্রিকার।

ঘটনা যুক্তরাষ্ট্রের মিশিগান রাজ্যের। ওই তরুণীর নাম জানা যায়নি। তবে তিনি ওকল্যান্ড কাউন্টির বাসিন্দা। মিশিগানলটারি.কম নামের একটি লটারি সংস্থা থেকে অনলাইনে টিকিট কিনতেন তিনি। 

সংবাদমাধ্যমকে তরুণী বলেন, ‘‘এক বছর আগে থেকে প্রতি সপ্তাহে আমি টিকিট কিনি। প্রতি বার একই নম্বরের টিকিট কিনি। অনলাইনেই খেলা হয়। এই সপ্তাহে জ্যাকপটে আমার টিকিটের নম্বর দেখে প্রথমে বিশ্বাস করতে পারিনি। সঙ্গে সঙ্গে সংস্থায় ফোন করি। ওরা জানায়, আমি জ্যাকপট পেয়েছি।’’

রও পড়ুন:

জন্মদিনে সৃজিতের কাছে কী চাইলেন মিথিলা?

বায়ু দূষণের তালিকায় বাংলাদেশ প্রথম, ঢাকা তৃতীয়

৪৫ মিনিট পর হাসপাতালে অলৌকিকভাবে বেঁচে উঠলেন নারী!

গাড়ি সাইড দেয়ায় ব্যবসায়ীকে মারধর করলেন এমপি রিমন!


ইতিমধ্যেই তার ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্টে টাকা জমা পড়েছে বলে জানিয়েছেন তরুণী। সেই টাকা দিয়ে কী করবেন তা এখনও ঠিক করে না উঠতে পারলেও পরিবারের সঙ্গে বেড়াতে যেতে চান বলেই সংবাদমাধ্যমকে জানিয়েছেন তিনি।

news24bd.tv/ নকিব

পরবর্তী খবর

'হানি' বা 'সুইটি' ডাকলে চাকরি থাকবে না

অনলাইন ডেস্ক

'হানি' বা 'সুইটি' ডাকলে চাকরি থাকবে না

আপনার পরিচিত কারো অফিসের নারী সহকর্মীকে নিজের দেয়া কোন নাম কিংবা আদরের কোন ডাক দেয়ার অভ্যাস থাকলে তাকে সতর্ক করে দিন। কারণ এই অভ্যাস বিপদ ডেকে আনতে পারে। এমনকি হারাতে হতে পারে চাকরিও। 

এমনই এক ঘটনা ঘটেছে ইংল্যান্ডের ম্যানচেষ্টারে। মাইক হার্টল নামে ওই ব্যক্তি তার নারী সহকর্মীদেরকে প্রায়ই 'সুইটি', 'হানি', 'বেবস' ইত্যাদি বলতেন। ফলে তার বিরুদ্ধে অভিযোগ জমা পড়ে। আর এই অপরাধে তাকে চাকরিচ্যুত করে কর্তৃপক্ষ। খবর আনন্দবাজার পত্রিকার।

মাইক আদালতের দ্বারস্থ হলেও তিনি যা করেছেন তা যে অপরাধের পর্যায়ে পড়ে সেটিই তাকে মনে করিয়ে দেয়া হয়েছে। আদালত জানিয়ে দেয় সংস্থার সিদ্ধান্তই বহাল থাকবে।

রও পড়ুন:

জন্মদিনে সৃজিতের কাছে কী চাইলেন মিথিলা?

বায়ু দূষণের তালিকায় বাংলাদেশ প্রথম, ঢাকা তৃতীয়

৪৫ মিনিট পর হাসপাতালে অলৌকিকভাবে বেঁচে উঠলেন নারী!

গাড়ি সাইড দেয়ায় ব্যবসায়ীকে মারধর করলেন এমপি রিমন!


তবে মাইক কোন খারাপ উদ্দেশ্য নিয়ে ওই নামে ডাকতেন না বলে আদালতে আত্মরক্ষার চেষ্টা করেন। তিনি অভিযোগ করেন তাকে অন্যায়ভাবে চাকরি থেকে বের করে দেওয়া হয়েছে। তিনি শুধু নারীদের নন, পুরুষ সহকর্মীদেরকেও মেট, প্যাল ইত্যাদি বলে ডাকেন। তবে তার কোন কথাই কানে নেয়নি আদালত।

news24bd.tv/ নকিব

পরবর্তী খবর

এক ডালে সবচেয়ে বেশি টমেটো ফলানোর বিশ্বরেকর্ড!

অনলাইন ডেস্ক

এক ডালে সবচেয়ে বেশি টমেটো ফলানোর বিশ্বরেকর্ড!

এক ডালে সর্বোচ্চ সংখ্যক টমেটোর চাষ করে রেকর্ড গড়েছেন ৪৩ বছর বয়সীব্রিটিশ নাগরিক ডগলাস স্মিথ। পেশায় তথ্যপ্রযুক্তি সংস্থার কর্মকর্তা ডগলাস টমেটো গাছের একটি ডালে টমেটো ফলিয়েছেন ৮৩৯টি। খবর আনন্দবাজার পত্রিকার।

প্রতিবেদনে বলা হয়, বীজ থেকে প্রথমে টমেটো গাছের চারা বানান স্মিথ। পরে সেই চারাগাছের যত্ন নিয়েই সাফল্য অর্জন করেন তিনি। তার সাফল্যের রাস্তায় পৌঁছনোর কথা পড়তে যতটা সহজ মনে হচ্ছে, বাস্তবে তা ছিল না।

শুধুমাত্র ছুটির দিনেই গাছের দেখভাল করার সময় পেতেন তিনি। প্রতি সপ্তাহে ওই ছুটির দিনে তিন থেকে চার ঘণ্টা বাঁধা থাকত গাছের জন্য। টমেটোগুলো তোলার সময় স্থানীয় পুলিশকেও খবর দিয়েছিলেন স্মিথ। যাতে সত্যিই যে গাছের একটি ডালে এতগুলো টমেটো ফলেছিল, তার প্রমাণ থেকে যায়।

রও পড়ুন:

লালন শাহ সেতুতে বাসচাপায় শ্রমিকের মৃত্যু

বায়ু দূষণের তালিকায় বাংলাদেশ প্রথম, ঢাকা তৃতীয়

৪৫ মিনিট পর হাসপাতালে অলৌকিকভাবে বেঁচে উঠলেন নারী!

গাড়ি সাইড দেয়ায় ব্যবসায়ীকে মারধর করলেন এমপি রিমন!

স্মিথের আগে টমেটো ফলানোর রেকর্ড ছিল গ্রাহাম ট্যান্টার নামে এক ব্যক্তির। ১১ বছর আগে গাছের এক ডালে তিনি টমেটো ফলিয়েছিলেন ৪৪৮টি। তার রেকর্ড প্রায় দ্বিগুণ ব্যবধানে ভাঙলেন ডগলাস। তবে এর আগে ব্রিটেনের সবচেয়ে বড় টমেটো গাছ বানানোর রেকর্ডও রয়েছে ডগলাসের ঝুলিতে।

news24bd.tv/ নকিব

পরবর্তী খবর

১৭ বছর পর বিচ্ছেদ, আনন্দে ডিভোর্স পার্টি দিলেন নারী!

অনলাইন ডেস্ক

১৭ বছর পর বিচ্ছেদ, আনন্দে ডিভোর্স পার্টি দিলেন নারী!

বিয়ে নামক সামাজিক প্রথা ক্ষেত্রবিশেষে ভিন্ন আচরণ করতে পারে। ৪৫ বছর বয়সী যুক্তরাষ্ট্রের বাসিন্দা সোনিয়া গুপ্তের জীবনে হয়তো বিয়েটা বিভীষিকার মতোই ছিলো। না হলে কী তিনি বিচ্ছেদের আনন্দে ডিভোর্স পার্টি দিয়ে বসেন!

১৭ বছরের বিবাহিত জীবনের শেষ উপলক্ষে পরিবারের সদস্য ও বন্ধুদের আমন্ত্রণ জানিয়ে পার্টি দিয়েছেন সোনিয়া। ব্যক্তিগত জীবনে তিনি দুই সন্তানের জননী। পার্টিতে তাকে ঝলমলে রঙিন পোশাকের ওপর 'ফাইনালি ডিভোর্স' লেখা সাটিন স্যাশ পরতে দেখা গেছে। পার্টিতে আসা সবাইকেই ঝলমলে পোশাক পরে আসতে বলেন তিনি।

২০০৩ সালে ভারতে বিয়ে হয় সোনিয়ায়। বিয়ের পরই তিনি অনুধাবন করেন, তার বিবাহিত জীবন সুখের নয়। এরপর বহু বছর ধরে বিয়ে টিকিয়ে রাখার চেষ্টা করেন তিনি। 

বিয়ে ভাঙার ব্যাপারে সোনিয়া বলেন, আমি যখন ডিভোর্সের সিদ্ধান্তের ব্যাপারে আমার পরিবারকে জানাই, তারা আমার এই সিদ্ধান্ত একদমই মেনে নেয়নি। কিন্তু আমার দুই ছেলে আর বন্ধুরা আমাকে সব সময় সমর্থন জানিয়েছেন।

রও পড়ুন:

লালন শাহ সেতুতে বাসচাপায় শ্রমিকের মৃত্যু

বৃহস্পতিবার ঢাকার যে এলাকায় মার্কেট বন্ধ

মাল্টা চাষে মডেল উজিরপুরের কৃষক শ্যামল, বছরে লাখ টাকা আয়

গাড়ি সাইড দেয়ায় ব্যবসায়ীকে মারধর করলেন এমপি রিমন!


নিজের ব্যক্তিত্বের আঙ্গিকেই পার্টির থিম ঠিক করেছিলেন সোনিয়া। তিনি নিজেকে একজন খোলামনের মানুষ হিসেবে অভিহিত করেছেন। কিন্তু তার স্বামী ছিলেন পুরোপুরি তার বিপরীত।  বিয়ের শুরু থেকেই ভীষণ মনমরা থাকতেন সোনিয়া। তিনি জানতেন তাদের জুটি একদম মানায় না। 

news24bd.tv/ নকিব

পরবর্তী খবর

বৃহস্পতিবার ঢাকার যে এলাকায় মার্কেট বন্ধ

অনলাইন ডেস্ক

বৃহস্পতিবার ঢাকার যে এলাকায় মার্কেট বন্ধ

রাজধানীর বিভিন্ন এলাকার মার্কেট সপ্তাহের ভিন্ন ভিন্ন দিনে বন্ধ থাকে। তাই কোথাও যাওয়ার পরিকল্পনা থাকলে আগে জেনে নিন। আজ বৃহস্পতিবার (২৩ সেপ্টেম্বর) রাজধানীর কোন কোন এলাকার দোকানপাট ও মার্কেট বন্ধ থাকবে।

বন্ধ যেসব এলাকা:

মোহাম্মদপুর, আদাবর, শ্যামলী, গাবতলী, মিরপুর স্টেডিয়াম, টেকনিক্যাল, কল্যাণপুর, আসাদগেট, ইস্কাটন, মগবাজার, বেইলি রোড, সিদ্ধেশ্বরী, মালিবাগের একাংশ, শাজাহানপুর, শান্তিনগর, শহীদবাগ, শান্তিবাগ, ফকিরাপুল, পল্টন, মতিঝিল, টিকাটুলি, আরামবাগ, কাকরাইল, বিজয়নগর, সেগুনবাগিচা, হাইকোর্ট ভবন এলাকা, রমনা শিশু পার্ক, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় এলাকা, নিউমার্কেট এলাকা।

বন্ধ যেসব মার্কেট:

মোহাম্মদপুর টাউন হল মার্কেট, কৃষি মার্কেট, আড়ং, বিআরটিসি মার্কেট, শ্যামলী হল মার্কেট, মুক্তিযোদ্ধা সুপার মার্কেট, মাজার করপোরেট মার্কেট, মুক্ত বাংলা শপিং কমপ্লেক্স, শাহ্ আলী সুপার মার্কেট, মিরপুর স্টেডিয়াম মার্কেট, মৌচাক মার্কেট, আনারকলি মার্কেট, আয়েশা শপিং কমপ্লেক্স, কর্ণফুলি গার্ডেন সিটি, কনকর্ড টুইন টাওয়ার, ইস্টার্ন প্লাস, সিটি হার্ট, জোনাকি সুপার মার্কেট, গাজী ভবন, পল্টন সুপার মার্কেট, স্টেডিয়াম মার্কেট-১, এবং ২, গুলিস্তান কমপ্লেক্স, রমনা ভবন, খদ্দর মার্কেট, পীর ইয়ামেনি মার্কেট, বায়তুল মোকাররম মার্কেট, আজিজ কো-ওপারেটিভ মার্কেট, সাকুরা মার্কেট।

news24bd.tv এসএম

আরও পড়ুন


মাল্টা চাষে মডেল উজিরপুরের কৃষক শ্যামল, বছরে লাখ টাকা আয়

গাড়ি সাইড দেয়ায় ব্যবসায়ীকে মারধর করলেন এমপি রিমন!

দল হারলেও মন জিতলেন ‘সুন্দরী সমর্থক’, ছবি ভাইরাল

হালখাতার কার্ডে নামের আগে আলহাজ্ব না লেখায় ৫ জনকে কুপিয়ে জখম


 

পরবর্তী খবর