সিরিয়ায় মার্কিন ঘাঁটিতে ধারাবাহিক বিস্ফোরণ
সিরিয়ায় মার্কিন ঘাঁটিতে ধারাবাহিক বিস্ফোরণ

সিরিয়ায় মার্কিন ঘাঁটিতে ধারাবাহিক বিস্ফোরণ

অনলাইন ডেস্ক

সিরিয়ায় যুক্তরাষ্ট্রের সর্ববৃহৎ সামরিক ঘাঁটিতে ধারাবাহিক কয়েকটি ‘বিশাল’ বিস্ফোরণ হয়েছে। সিরিয়ার পূর্বাঞ্চলীয় দেইর আজ-জোর প্রদেশের আল-ওমর তেলক্ষেত্রের কাছে ওই মার্কিন সেনা ঘাঁটি অবস্থিত।

সিরিয়ার একাধিক সূত্রের উদ্ধৃতি দিয়ে ইয়েমেনের আল-মাসিরা টেলিভিশন নেটওয়ার্ক জানিয়েছে, ‘ধারাবাহিক’ কয়েকটি বিস্ফোরণে মার্কিন ঘাঁটি কেঁপে উঠেছে।

লন্ডন-ভিত্তিক কথিত মানবাধিকার পর্যবেক্ষক সংস্থা- সিরিয়ান অবজারভেটরি ফর হিউম্যান রাইটস সৌদি আরবের সরকারি নিউজ চ্যানেল আল-আরাবিয়া টিভিকে বলেছে, তেলক্ষেত্রটিতে একাধিক রকেট আঘাত হেনেছে।

সিরিয়ায় অবস্থানরত মার্কিন সমর্থিত কুর্দি সশস্ত্র গোষ্ঠী এসডিএফ’র গণমাধ্যম শাখার প্রধান ফরহাদ শামির উদ্ধৃতি দিয়ে রাশিয়ার নিউজ চ্যানেল ‘রাশা টুডে’ জানিয়েছে, তেল ক্ষেত্রটির পশ্চিম প্রান্তে দু’টি রকেট আঘাত হেনেছে।

তবে অন্যান্য সূত্র বলেছে, তেলক্ষেত্রটির কাছে মোতায়েন বিদেশি সেনাদের প্রশিক্ষণ চলার সময় ওই বিস্ফোরণ ঘটেছে। এসব বিস্ফোরণে কেউ হতাহত হয়েছে কিনা তা জানা যায়নি।


আরও পড়ুনঃ

ছেলের সাবেক স্ত্রীকে বিয়ে করেছেন তারই বাবা!

কুষ্টিয়ায় করোনায় মৃত হিন্দু ব্যক্তির লাশ সৎকার করলেন মুসলিমরা

১২ দিনের মাথায় অন্যের হয়ে জেল খাটা সেই নারীর মৃত্যু

গোরক্ষার দোহাই দিয়ে মুসলিমদের আক্রমণ হিন্দুত্বের বিরোধী: আরএসএস প্রধান


২০১৪ সালে উগ্র জঙ্গি গোষ্ঠী আইএস’র (দায়েশ) বিরুদ্ধে যুদ্ধ করার অজুহাতে সিরিয়া ও ইরাকে অবৈধভাবে সেনা মোতায়েন করে যুক্তরাষ্ট্র। কিন্তু নির্ভরযোগ্য বিভিন্ন সূত্র এবং দুই দেশের কর্মকর্তাদের বরাত দিয়ে গণমাধ্যমে এ খবর প্রকাশিত হয়েছে যে, ইরানের সহযোগিতায় সিরিয়া ও ইরাকের সেনাবাহিনী যখন আইএস জঙ্গিদের বিরুদ্ধে সাড়াশি অভিযান চালাচ্ছিল তখন এসব জঙ্গিকে নিরাপদ স্থানে সরিয়ে নিতে ভূমিকা পালন করেছে মার্কিন সেনারা। সিরিয়া সরকারের অনুমতি বা জাতিসংঘের অনুমোদন ছাড়াই দেশটিতে জোর করে সেনা মোতায়েন করে রেখেছে যুক্তরাষ্ট্র।

news24bd.tv / নকিব