করোনার ভয়াবহতা দেখছে দেশ (ভিডিও)

করোনার ভয়াবহতা দেখছে দেশ (ভিডিও)

Other

ভয়াবহ হয়ে উঠছে দেশের করোনা পরিস্থিতি। টানা আট দিন শতাধিক মৃত্যুর হিসেবে করোনায় প্রাণ হারিয়েছেন এক হাজারের বেশি মানুষ। এর মধ্যে সোমবার একদিনে সর্বোচ্চ ১৬৪ জনের মৃত্যুর খবর জানিয়েছে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর।

আক্রান্তের সংখ্যা ৯৯৬৪ আর শনাক্তের হার প্রায় ৩০ শতাংশ।

জনস্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞরা বলছেন, কঠোন বিধিনিষেধ নিশ্চিত করা না গেলে মৃত্যুর হার কমানো সম্ভব হবে না। একই সঙ্গে দ্রুত সময়ের মধ্যে মোট জনগোষ্ঠীর বড় অংশকে টিকার আওতায় আনার পরামর্শ তাদের।

করোনা সংক্রমণ শুরুর পর থেকে বর্তমানে সবচেয়ে কঠিন সময় পার করছে বাংলাদেশ। হাসপাতাল গুলোতে বাড়ছে রোগীর চাপ। তৈরি হচ্ছে আই সি ইউ সংকট।

স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের হিসেরে গেল আট দিনে মৃত্যুর সংখ্যা ১ হাজার ৫৮। সবশেষ ২৪ ঘণ্টায় মৃত্যু হয়েছে রেকর্ড ১৬৪ জনের। শনাক্ত প্রায় দশ হাজার।   

ঈদুল ফিতেরের পর থেকে সীমান্তবর্র্তী জেলা‍গুলোয় রোগীর সংখ্যা হঠাৎই বাড়তে থাকে। পরে আশপাশের জেলাতেও তা ছড়িয়ে পরে। এর ফলে মৃত্যুর সংখ্যাও বাড়তে থাকে লাফিয়ে লাফিয়ে। আক্রান্তের সংখ্যা আর সনাক্তের হার প্রতিদিনই গড়ছে নতুন রেকর্ড।

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার মানদণ্ড অনুযায়ী, কোনো দেশে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আছে কি না, নির্ণয় হয় শনাক্তের হার বিবেচনায়। টানা দুই সপ্তাহের বেশি সময় পরীক্ষার বিপরীতে রোগী শনাক্ত ৫ শতাংশের নিচে থাকলে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আছে বলে ধরা যায়। সেখানে কয়েক দিন ধরে বাংলাদেশে রোগী শনাক্ত ২০ শতাংশের বেশি। সবশেষ ২৪ ঘণ্টায় শনাক্ত হার ২৯ দশমিত তিন-শূন্য শতাংশ।

বর্তমানে দেশের অধিকাংশ জেলা করোনার ভয়াবহতার ঝুঁকিতে। নমুনা পরীক্ষা ও রোগী শনাক্তের হার বিবেচনায় নিয়ে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার সাপ্তাহিক রোগতাত্ত্বিক বিশ্লেষণে বলা হয়েছে, বাংলাদেশের ৬৪ জেলার মধ্যে ৪০টিই সংক্রমণের অতি উচ্চ ঝুঁকিতে।

আরও পড়ুনঃ

ঈদে অবশ্যই বিধিনিষেধ থাকবে: প্রতিমন্ত্রী

আপনি তো বাংলাদেশের মাল, তো আপনি কি বাদ কোয়ালিটির?

টিকা পাওয়ার অগ্রাধিকার তালিকায় যুক্ত হতে যাচ্ছেন আইনজীবীরা

ভয়াবহ ভবিষ্যতের দিকে যাচ্ছে করোনা পরিস্থিতি

news24bd.tv/এমিজান্নাত