বাংলাদেশী খাদ্যপণ্যের জন্য ভারত সুযোগ-সুবিধা দিচ্ছে : দোরাইস্বামী
বাংলাদেশী খাদ্যপণ্যের জন্য ভারত সুযোগ-সুবিধা দিচ্ছে : দোরাইস্বামী

বাংলাদেশী খাদ্যপণ্যের জন্য ভারত সুযোগ-সুবিধা দিচ্ছে : দোরাইস্বামী

অনলাইন ডেস্ক

ভারতের বিশাল ভোক্তা বাজার বাংলাদেশ থেকে মান সম্পন্ন খাদ্যপণ্যের ক্ষেত্রে ব্যাপক সুযোগ-সুবিধা প্রদান করে। এ ব্যাপারে প্রতিবেশী দুই দেশের বাণিজ্য সংগঠনগুলোর মধ্যে সংযোগ অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ বলে জানিয়েছেন বাংলাদেশে নিযুক্ত ভারতীয় হাইকমিশনার বিক্রম দোরাইস্বামী।

এ ধরণের বাণিজ্য জোরদারে তিনি খাদ্য নিরাপত্তার মান এবং দ্রুত লজিস্টিক সামর্থ উন্নয়নে পারস্পরিক ব্যবস্থা চূড়ান্ত করার ওপর গুরুত্বারোপ করেন। হাইকমিশনার সমন্বিত অর্থনৈতিক অংশীদারিত্ব চুক্তির ওপর গুরুত্বারোপ করেন, যা উভয় দেশের সরকারের সক্রিয় আলোচনাধীন রয়েছে।

এটি দ্বিপাক্ষিক বাণিজ্য অংশীদারিত্বের ক্ষেত্রে বিরাট পরিবর্তন আনবে।  

দোরাইস্বামী বুধবার রাতে কৃষিপণ্য নিয়ে ভারত-বাংলাদেশ বাণিজ্য মেলার বিষয়ে একটি ভার্চুয়াল সম্মেলনে বক্তৃতা করছিলেন। এখানে ভারতীয় হাইকমিশন এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে একথা জানায়।   বাংলাদেশ ফ্রেশ ফ্রুটস ইমপোর্টার্স অ্যাসোসিয়েশন এবং ভারত বাংলাদেশ চেম্বার অফ কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রির সহযোগিতায় কৃষি ও প্রক্রিয়াজাত খাদ্যপণ্য রফতানি উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ (এপিইডিএ) ভারত-বাংলাদেশ কৃষি ও প্রক্রিয়াজাত খাদ্যপণ্য বাণিজ্যের ওপর গুরুত্বারোপ করে এই অনুষ্ঠানের আয়োজন করে।
 
কৃষি খাদ্য খাতে ভারত ও বাংলাদেশের মধ্যে কৌশলগত সহযোগিতা জোরদার করার জন্য সংশ্লিষ্ট বাণিজ্য সংস্থা এবং সরকারের পক্ষ থেকে স্টেকহোল্ডাররা অভিন্ন প্লাটফরম তৈরিতে এই বৈঠকে যোগ দেন।  

ভার্চুয়াল ট্রেড ফেয়ার বি২বি বৈঠকে ক্রেতা-বিক্রেতাদের মধ্যে যোগাযোগের জন্য একটি ই-ক্যাটলগ প্রকাশ করা হয়েছে। দুই দেশের ২০০ বেশী ব্যবসায়িক সংগঠন এতে অংশ নিয়েছে।

news24bd.tv/আলী