দুই হাজার অসহায় পরিবার পেল বসুন্ধরা গ্রুপের ত্রাণ
দুই হাজার অসহায় পরিবার পেল বসুন্ধরা গ্রুপের ত্রাণ

দুই হাজার অসহায় পরিবার পেল বসুন্ধরা গ্রুপের ত্রাণ

Other

বসুন্ধরা গ্রুপের অর্থায়নে কালের কণ্ঠ শুভ সংঘের আয়োজনে ঠাকুরগাঁও জেলার ৫ উপজেলায় দুই দিনে ২ হাজার হতদরিদ্র, অসহায় মানুষের কাছে ত্রাণ পৌঁছে দেওয়া হয়েছে।

ঠাকুরগাঁও সদর উপজেলা, হরিপুর, রানীশংকৈল, পীরগঞ্জ ও বালিয়াডাঙ্গি উপজেলায় এই ত্রাণ সামগ্রী বিতরণ করা হয়।

স্বাস্থ্যবিধি মেনে অসহায় মানুষদের হাতে বসুন্ধরা গ্রুপের ত্রাণ তুলে দেওয়ার জন্য ওই উপজেলাগুলোর নির্বাহী কর্মকর্তা, অফিসার্স ইনচার্জ, মেয়র, চেয়ারম্যান সহ আওয়ামী লীগের নেতা কর্মীরা স্বতস্ফুর্তভাবে অংশগ্রহণ করেন।

এছাড়াও ঢাকা থেকে কালের কণ্ঠ শুভ সংঘের পরিচালক জাকারিয়া জামান, কেন্দ্রীয় কমিটির সাধারণ সম্পাদক শামীম আল মামুন, সদস্য শরীফ মাহ্দী আশরাফ জীবন উপস্থিত ছিলেন।

ঠাকুরগাঁও জেলা শুভসংঘের সহসভাপতি তাপস দেবনাথ, কালের কণ্ঠ ঠাকুরগাঁও জেলা প্রতিনিধি পার্থ সারথি দাস, বাংলাদেশ প্রতিদিন ও নিউজ২৪ চ্যানেল এর জেলা প্রতিনিধি আব্দুল লতিফ লিটু উপস্থিত ছিলেন ত্রাণ বিতরণ অনুষ্ঠানে।

ত্রাণ বিতরণ অনুষ্ঠানে হরিপুর উপজেলায় উপস্থিত ছিলেন- জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্মসাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট মোস্তাক আলম টুলু, হরিপুর উপজেলা চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক জিয়াউল হাসান মুকুল, উপজেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক অ্যাডভোকেট মোজাফফর আহমেদ মানিক, উপজেলা শুভসংঘের সভাপতি পাভেল তালুকদার।

রাণীশংকৈলে উপস্থিত ছিলেন, রাণীশংকৈল সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও ভারপ্রাপ্ত উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) প্রীতম শাহা, উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও রাণীশংকৈল ডিগ্রি কলেজের ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ সইদুল হক, উপাধ্যক্ষ জামাল উদ্দিন, পৌর মেয়র মুস্তাফিজুর রহমান, উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান সোহেল রানা, রাণীশংকৈল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা এসএম জাহিদ ইকবাল, রাণীশংকৈল উপজেলা শুভসংঘের প্রধান উপদেষ্টা অ্যাডভোকেট মোস্তাক আলম টুলু, সভাপতি মহাদেব বসাব, উপজেলা কালের কণ্ঠ প্রতিনিধি সফিকুল ইসলাম শিল্পী।

পীরগঞ্জে উপস্থিত ছিলেন উপজেলা চেয়ারম্যান আলহাজ্ব আকতারুল ইসলাম, উপজেলা নির্বাহী অফিসার রেজাউল করিম, পৌর মেয়র বীরমুক্তিযোদ্ধা ইকরামুল হক, পীরগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ প্রদীপ কুমার রায়, উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক রেজাওয়ানুল হক বিপ্লব, উপজেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক ও সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান জিয়াউল ইসলাম জিয়া।

উপকারভোগী মাজেদুল ইসলাম জানান, লকডাউনে গাড়ি চলাচল বন্ধ থাকায় কঠিন সময় পার করছেন তিনি। করতে পারছেন না কোনো আয় রোজগার। ছেলেমেয়ে নিয়ে খুব কষ্টে মানবেতর জীবনযাপন করছেন তিনি।

বসুন্ধরা গ্রুপের ত্রাণ সহায়তা পেয়ে মাজেদুল বলেন, লকডাউনে গাড়ি চালাতে না পারায় টাকা-পয়সা নাই। বসুন্ধরা গ্রুপের ত্রাণ পেয়ে খুব উপকার হলো।

আরেক বৃদ্ধ রশিদুল আলম জানালেন করোনার সময়ে বৃদ্ধ বয়সে এসে তাদের নুন আনতে পান্তা ফুরায় অবস্থার কথা। বসুন্ধরা গ্রুপের ত্রাণ পেয়ে স্বস্থির নিঃশ্বাস ফেলে তিনি বলেন, হামার বউ মাইনষের বাড়িত কাজ করে যেইডা পাও তা দিয়ে কোনোমতে সংসার চলিছিল। এলা বসুন্ধরা গ্রুপের ত্রাণ পায়া খুব উপকার হইল।

হরিপুর উপজেলা চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক জিয়াউল হাসান মুকুল উপকারভোগীদের করোনা প্রতিরোধে স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলার পরামর্শ দিয়ে তিনি বলেন, দেশে করোনার ভয়াবহ পরিস্থিতি বিরাজ করছে। এই সময় আপনারা সবাই মাস্ক ব্যবহার করবেন। নিয়মিত সাবান দিয়ে হাত ধোবেন। কেউ ঘর থেকে বের হবেন না। বসুন্ধরা গ্রুপের এই ত্রাণ দিয়ে আপনারা কমপক্ষে ৭ থেকে ১০ দিন খেতে পারবেন। অন্তত এই সময়ের মধ্যে কেউ বাইরে বের হবেন না।

ত্রাণ বিতরণ কার্যক্রমে পীরগঞ্জ উপজেলা পৌর মেয়র বীরমুক্তিযোদ্ধা ইকরামুল হক বলেন, আমাদের ঠাকুরগাঁয়ে করোনা পরিস্থিতি ভয়াবহ রূপ ধারণ করছে। এই সময় আপনারা অবাধ চলাফেরা করলে করোনা মোকাবেলা সম্ভব হবে না। আপনাদের ত্রাণ দেওয়ার একমাত্র উদ্দেশ্য আপনারা যেন ঘরে থাকেন। আমি বসুন্ধরা গ্রুপকে ও শুভসংঘকে ধন্যবাদ জানাই।

news24bd.tv / তৌহিদ