কাশ্মীরে পৃথক ৩ বন্দুকযুদ্ধে দুই ভারতীয় সেনাসহ নিহত ৮
কাশ্মীরে পৃথক ৩ বন্দুকযুদ্ধে দুই ভারতীয় সেনাসহ নিহত ৮

কাশ্মীরে পৃথক ৩ বন্দুকযুদ্ধে দুই ভারতীয় সেনাসহ নিহত ৮

অনলাইন ডেস্ক

ভারত নিয়ন্ত্রিত কাশ্মীরে তিনটি আলাদা বন্দুকযুদ্ধের ঘটনায় দুই ভারতীয় সেনা সদস্যসহ আটজন নিহত হয়েছেন। পুলিশ ও সেনাবাহিনীর বরাত দিয়ে এ খবর জানিয়েছে দ্য হিন্দু। এদিকে এনডিটিভির খবরে বলা হয়েছে, নিহত দুইজন পাকিস্তানভিত্তিক সন্ত্রাসী সংগঠন লস্কর-ই-তৈয়বার সদস্য।

খবরে বলা হয়েছে, দীর্ঘ দিন পর এই পাকিস্তানি সন্ত্রাসীদের সঙ্গে বন্দুকযুদ্ধের ঘটনা ঘটল।

বৃহস্পতিবার এ তিনটি বন্দুকযুদ্ধের ঘটনা ঘটে।

রাজৌরিতে নিয়ন্ত্রণ রেখার (লাইন অব কন্ট্রোল) কাছে বন্দুকযুদ্ধে ২ ‘জঙ্গির’ পাশাপাশি ৬ সেনাও নিহত হয়েছে বলে জানান সেনাবাহিনীর এক মুখপাত্র।

হিন্দুর প্রতিবেদনে বলা হয়, সেনাবাহিনীর একটি টহল দল সুন্দারবানি সেক্টরের দাদাল বন এলাকায় সন্ত্রাসীদের মুখোমুখি হয়। সন্ত্রাসীরা গুলি ও হাতবোমা ছুড়লে শুরু হয় গোলাগুলি। পাকিস্তান থেকে আসা ২ বিদেশি জঙ্গি নিহত হয়েছে। ২টি একে ৪৭ বন্দুক, গুলি উদ্ধার করা হয়েছে।

প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্রের বরাত দিয়ে জানানো হয়, এতে নায়েব সুবেদার শ্রীজিথ এম এবং সিপাহি মারুপ্রোলু জসওয়ান্ত রেড্ডিরও মৃত্যু হয়েছে।  

এ ছাড়া বৃহস্পতিবার দক্ষিণ কাশ্মীরে পুলওয়ামা ও কুলগামে আরও দুটি অভিযানে ৪ ‘সন্ত্রাসী’ নিহত হয়েছে বলে জানিয়েছে পুলিশ।

পুলিশের মহাপরিদর্শক (আইজিপি) ভিজয় কুমার বলেন, কুলগাম ও পুলওয়ামায় নিহত ৪ জঙ্গির সবাই স্থানীয়। কুলগামে যে দুজন নিহত হয়েছে তারা জাতীয় মহাসড়কে বড় ধরনের হামলার পরিকল্পনা করছিল, ওই মহাসড়কের খুব কাছেই বন্দুকযুদ্ধটি হয়েছে।   

সেনাবাহিনী নিহতদের নাম জানিয়েছে। তারা হলেন, শাহবাজ আহমেদ শাহ, নাসির আইয়ুব পণ্ডিত, কিফায়াত সোফি ও ইনায়েত আহমেদ দার।  

খবরে বলা হয়, এর মধ্যে শাহবাজ জইশ ই-মোহাম্মদের সদস্য, বাকিরা লস্কর ই-তৈয়বার।

দুটি অভিযান থেকে ২টি একে ৪৭ বন্দুক, ২টি পিস্তল, বিপুল পরিমাণ গুলি ও সরঞ্জাম উদ্ধার করা হয়েছে।

আরও পড়ুন:


দুই হাজার অসহায় পরিবার পেল বসুন্ধরা গ্রুপের ত্রাণ

সুন্দরবনে তিন হরিণ শিকারী আটক


news24bd.tv / তৌহিদ