ধর্ষণের ভিডিও মোবাইলে ধারণ করে ধর্ষণ, পরে ফেসবুকে ভাইরাল
ধর্ষণের ভিডিও মোবাইলে ধারণ করে ধর্ষণ, পরে ফেসবুকে ভাইরাল

ধর্ষণের ভিডিও মোবাইলে ধারণ করে ধর্ষণ, পরে ফেসবুকে ভাইরাল

অনলাইন ডেস্ক

ধর্ষণের পর চিত্র ধারণ করে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে কলেজছাত্রীকে ব্ল্যাকমেইল করায় আমিরুল মিয়া (২৪) নামের এক যুবককে গ্রেপ্তার করেছে মদন থানার পুলিশ। বৃহস্পতিবার রাতে অভিযান চালিয়ে গাজীপুর জেলা গাছা থানার জয়বাংলা নামক স্থান থেকে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়।

শুক্রবার বিকেলে তাকে নেত্রকোনা আদালতে পাঠানো হয়েছে। আমিরুল মিয়া নেত্রকোনা জেলার আটপাড়া উপজেলার তেলিগাতি ইউনিয়নের গৌরিনগর গ্রামের আনজু মিয়ার ছেলে।

পুলিশ সূত্রে জানা যায়, আমিরুলের মামা বাড়ি মদন উপজেলার জয়পাশা গ্রামে। সেখানে বেড়াতে আসার সুবাধে স্থানীয় কলেজছাত্রীর সাথে ২০১৮ সালে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে। পরে বিয়ের প্রলোভন দিয়ে মেয়েটিকে বিভিন্ন গেস্ট হাউজে নিয়ে একাধিকবার ধর্ষণ করে। ধর্ষণের স্থিরচিত্র ও ভিডিও মোবাইলে ধারণ করে ভয়ভীতি দেখিয়ে তাকে প্রায় সময় ধর্ষণ করতে থাকে। গত ১ মাস আগে তা সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে ছড়িয়ে দেয় কিছু ভিডিও। পরে গত (২৫ জুন) মেয়েটির মা বাদী হয়ে আমিরুলকে আসামি করে মদন থানায় মামলা দায়ের করেন।

মদন থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) ফেরদৌস আলম বলেন, কলেজছাত্রীর মায়ের দায়ের করা মামলার প্রেক্ষিতে আমিরুল মিয়াকে গ্রেপ্তার করা হয়। আমিরুলের মোবাইল ফোন জব্দ করা হয়েছে। শুক্রবার বিকেলে তাকে নেত্রকোনা আদালতে পাঠানো হয়েছে।

আরও পড়ুন:


দুই হাজার অসহায় পরিবার পেল বসুন্ধরা গ্রুপের ত্রাণ

সুন্দরবনে তিন হরিণ শিকারী আটক


news24bd.tv / তৌহিদ