বৃহস্পতিবার, ২৪ অক্টোবর, ২০১৯ | আপডেট ৩১ মিনিট আগে

কোর্টে ফেরা নিয়ে যা বললেন অন্তঃসত্ত্বা সানিয়া

নিউজ টোয়েন্টিফোর ডেস্ক

কোর্টে ফেরা নিয়ে যা বললেন অন্তঃসত্ত্বা সানিয়া

টেনিসে ভারতীয় গ্লামার কুইন ও পাকিস্তানের পুত্রবধূ সানিয়া মির্জা অন্তঃসত্ত্বা। এ খবর পুরনো। মা হতে যাওয়ার খবর দিয়ে লাখো ভক্তের শুভেচ্ছায় সিক্ত হয়েছেন টেনিস কুইন। তবে দুঃশ্চিন্তার ভাজও পড়েছে অনেক ভক্তের কপালে। ফিরবেন তো সানিয়া! নাকি এখানেই অবসর! তবে সেই সব প্রশ্নের উত্তর দিয়েছেন সানিয়া নিজেই। জানিয়েছেন, এখনই অবসরে যাওয়ার কোন ইচ্ছাই তার নেই। তবে সন্তানের দিকটা অবশ্যই গুরুত্বপূর্ণ।

কয়েকমাস পরেই সানিয়া-শোয়েবের সংসারে আসছে নতুন অতিথি। সেই আনন্দে আছে দুই পরিবার। তবে মাতৃত্বের পর সানিয়া কি আগের মতো পারফর্ম করতে পারবেন, এমন প্রশ্ন উঠেছিল বিভিন্ন মহলে।

এক ভারতীয় সংবাদমাধ্যমের সাক্ষাৎকারে আত্মবিশ্বাসী সানিয়া জানিয়ে দিয়েছেন, ‘‘জানি না ডেলিভারির পর কোন অবস্থায় থাকব। আশা করছি, সফলভাবে ফিরতে পারব।’’

আরও পড়ুন

সন্তানের নামের সঙ্গে নিজের পদবি রাখতে চান সানিয়া


সন্তান জন্মের পর মরতে বসেছিলেন সেরেনা!


এক নম্বর সেরেনার এখন কোন র‌্যাঙ্কিং নেই!

এছাড়া তিনি এখন ভারী ব্যায়াম ও টেনিস চর্চা চালাতে না পারলেও সাতার ও যোগাসন করে শরীর ঠিক রাখার চেষ্টা করছেন বলেও জানান।

সানিয়া বলেন, ‘‘গর্ভবতী হওয়াটা একজন নারীর ঈশ্বরের সবথেকে বড় উপহার। অনুভব করার ক্ষমতা শব্দে প্রকাশ করা মুশকিল।’’ 

মাতৃত্ব একজন ক্রীড়াবিদের কাছে কতটা চ্যালেঞ্জিং- এমন প্রশ্নের জবাবে সানিয়া বলেন, ‘‘সবথেকে চ্যালেঞ্জিং হল নিশ্চুপ হয়ে থাকাটা। সাধারণত, দিনের ৭-৮ ঘণ্টা টেনিস, ফিটনেস— এর উপর ফোকাস করেই কাটে। এখন আগের মতো এতটা সক্রিয় থাকতে পারি না। তবে যোগা, সুইমিং করে নিজেকে ব্যস্ত রাখার কাজ করি। শারীরিকভাবে একজন নারী ক্রীড়াবিদের কাছে এটা খুবই গুরুত্বপূর্ণ।’’

নিজের গর্ভাবস্থা নিয়ে বলতে গিয়ে সানিয়া জানান, ‘‘তখন দুবাইতে আমরা ছিলাম পরিবারের সঙ্গে। সেই সময় শোয়েব একটা ম্যাচ সদ্য শেষ করেছিল। ওঁকে যখন বিষয়টা জানাই, ও ভীষণ উত্তেজিত হয়ে পড়েছিল। কয়েক সপ্তাহ পরে হায়দরাবাদে ফিরে স্ক্যান করেছিলাম।’’

ভারতীয় টেনিসের গ্ল্যাম গার্লের এরপরে সংযোজন, ‘‘ভীষণ আবেগী হয়ে পড়েছিলাম। একজন অ্যাথলেট হিসেবে শরীরের সমস্ত খেয়াল রাখতে হয় আমাকে। চোট আঘাত কিংবা শারীরিক অবস্থার উন্নতি ঘটানোর জন্য সবকিছু খেয়াল রাখতে হয়। কিন্তু কখনই ভাবিনি শরীরের মধ্যে অন্য কেউ বড় হয়ে উঠবে।’’

সন্তান হওয়ার পরেও টেনিস কোর্টে ফিরে এসেছেন কিম ক্লিস্টার্স। কেরিয়ারের মধ্য গগনে থাকার সময়ে গর্ভবতী হয়ে সরতে হয়েছিল বেলারুশের তারকা আজারেঙ্কাকে। গর্ভে সন্তান নিয়েই গ্র্যান্ড স্ল্যাম জিতেছিলেন সেরিনা উইলিয়ামস। সানিয়া কি পারবেন সফল প্রত্যাবর্তন ঘটাতে, সেটাই এখন দেখার।

মন্তব্য