কী দিয়ে তৈরি রুটি বেশি উপকারী?
কী দিয়ে তৈরি রুটি বেশি উপকারী?

কী দিয়ে তৈরি রুটি বেশি উপকারী?

অনলাইন ডেস্ক

শরীর সুস্থ রাখতে প্রতিদিন খাদ্য তালিকায় রুটি রাখার পরামর্শ দেন পুষ্টিবিদরা। বাঙালির খাদ্যাভ্যাসে রুটি প্রচলিত। কিন্তু কী দিয়ে তৈরি রুটি সবচেয়ে বেশি উপকারী? কোন রুটিতে পুষ্টি কেমন, সেটা এবার জেনে নেওয়া যাক।

গম: গমের আটার রুটি অনেকেই খেয়ে থাকেন।

এতে ভিটামিন বি, ই, ফসফরাস থাকে প্রচুর পরিমাণে। কিন্তু এতে কিছুটা গ্লুটেন থাকে।

ভুট্টা: এই আটায় ফাইবার থাকে প্রচুর পরিমাণে আর এটিও গ্লুটেনফ্রি। ‘‘ভুট্টার আটায় ক্যালরির কনটেন্ট প্রায় অন্য আটার মতোই। তবে এতে ফসফরাস, অ্যান্টি-অক্সিড্যান্টস ভিটামিন বি সিক্স বেশি পরিমাণে থাকে। তাই মাঝে মাঝে স্বাদ বদলে ভুট্টার রুটি রাখতে পারেন,’’ বললেন কোয়েল। তবে ভুট্টার রুটি খুব মোটা হয়। হজম করতেও সময় লাগে।

কোন রুটি বেশি উপকারী?

ডায়াটিশিয়ানদের মতে, ময়দা বাদ দিয়ে যে কোনও আটার রুটিই উপকারী। বাজরা, জোয়ার, রাগি, গম, ভুট্টার আটার রুটি ঘুরিয়ে ফিরিয়ে খাওয়া যায়। তবে গমের আটার রুটি খেয়ে অনেকে অভ্যস্ত। তাই হজমও হয় সহজে।  

মনে রাখবেন-

রুটির গুণ ও স্বাদ বাড়াতে অন্যান্য উপাদানও মেশাতে পারেন। ‘‘আটার সঙ্গে ছাতু মিশিয়ে রুটি তৈরি করলে তার স্বাদ বাড়ে, পুষ্টিগুণও বৃদ্ধি পায়। ’’ একই ভাবে পালং শাকও মেশাতে পারেন আটার মণ্ডে। আটা কেনার সময়েও লেবেল দেখে কিনবেন। কারণ, আটা তৈরির প্রক্রিয়ায় কিছুটা পুষ্টিগুণ নষ্ট হয়ে যায়। পলিশড আটার চেয়ে চাকিতে পেষানো আটায় খাদ্যগুণ বেশি।

আরও পড়ুন:


ভূমধ্যসাগরে ডুবে যাওয়া নৌকা থেকে ৪৯ বাংলাদেশি অবৈধ অভিবাসী উদ্ধার

টানা এক বছরের জন্য ঘুমোতে চাই, কেন বললেন পূজা?

তবে প্রত্যেক ধরনের রুটি তৈরির পদ্ধতি আলাদা এবং স্বাদও ভিন্ন। তাই রুচি ও প্রয়োজন অনুযায়ী ঠিক করুন কীসের রুটি খাবেন। সব রকম রুটি ঘুরিয়ে ফিরিয়ে খেলেই উপকার বেশি।

news24bd.tv রিমু