কখনোই এদেশে লকডাউন সফল হবেনা : জিএম কাদের

অনলাইন ডেস্ক

কখনোই এদেশে লকডাউন সফল হবেনা : জিএম কাদের

কখনোই এদেশে লকডাউন সফল হবেনা মন্তব্য করে জাতীয় পার্টি চেয়ারম্যান ও বিরোধী দলীয় উপনেতা জনবন্ধু গোলাম মোহাম্মদ কাদের বলেছেন, টিকা কুটনীতিতে সরকার সম্পূর্ণ ব্যর্থ হয়েছে।

জিএম কাদের বলেন, বিশ্বের সকল দেশ যখন করোনা টিকা দিয়ে পরিস্থিতি স্বাভাবিক করে ফেলেছে, তখনো আমাদের করোনা টিকার পূর্ণ নিশ্চয়তা মেলেনি। মাস্ক পড়ে আর সাবান দিয়ে হাত ধুয়ে করোনা মোকাবেলা করা সম্ভব হবেনা। 

আজ দুপুরে জাতীয় পার্টি চেয়ারম্যান এর কার্যালয়ে জাতীয় পার্টি ঢাকা মহানগর উত্তর এর বিভিন্ন থানা কমিটির নেতৃবৃন্দের সাথে পল্লীবন্ধুর মৃত্যু বাষির্কী উপলক্ষ্যে এক মতবিনিময় সভায় প্রধান অতিথির বক্তৃতায় গোলাম মোহাম্মদ কাদের এসব কথা বলেন।

তিনি বলেন, করোনা পরিস্থিতি ভয়াবহ অবস্থা ধারণ করেছে। বিশেষজ্ঞদের মতে ভবিষ্যতে এই অবস্থা আরো খারাপ হতে পারে। সময় মত মানুষকে করোনার টিকা দিতে ব্যার্থ হওয়ায় করোনা পরিস্থিতি এতটা খারাপ হয়েছে। 

এ প্রসঙ্গে তিনি বলেন, কখনোই এদেশে লকডাউন সফল হবেনা। কারন, দেশের বেশির ভাগ মানুষেরই ঘরে খাদ্য নেই, পকেটে পয়সা নেই। তাই খাদ্য সহায়তা না দিলে ক্ষুধার্ত মানুষ ঘরের বাইরে বের হবেই। 

জাতীয় পার্টি চেয়ারম্যান আরো বলেন, শুরু থেকেই আমরা লকডাউনের আগে দরিদ্র মানুষকে খাদ্য সহায়তা দিতে বলেছি। সদিচ্ছার অভাবে সরকার হত দরিদ্র মানুষের জন্য খাদ্য সহায়তা দেয়নি।  

জাতীয় পার্টি ঢাকা মহানগর উত্তর এর সাধারণ সম্পাদক ও জাতীয় পার্টির প্রেসিডিয়াম সদস্য  শফিকুল ইসলাম সেন্টুর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় জাতীয় পার্টি চেয়ারম্যান গোলাম মোহাম্মদ কাদের সাধারণ মানুষের প্রতি আহবান জানিয়ে বলেছেন, মুদ্রার এপিঠ-ওপিঠ দেখেছেন। দেশের কল্যাণে তারা কিছুই করতে পারেনি। তাই পল্লীবন্ধু হুসেইন মুহম্মদ এরশাদের জাতীয় পার্টির পতাকাতলে সামিল হোন। 

তিনি বলেন, ৯০ সালের পর থেকে দুটি দলের ব্যবহারে মানুষ বিরক্ত হয়ে পড়েছে। তারা এক বুক আশা নিয়ে জাতীয় পার্টির দিকে তাকিয়ে আছে। দেশের মানুষ আবারো পল্লীবন্ধু হুসেইন মুহম্মদ এরশাদের জাতীয় পার্টিকে রাষ্ট্র ক্ষমতায় দেখতে চায়। তিনি বলেন, ৯০ সালের পর প্রতিটি সরকারই জাতীয় পার্টির ওপরে আঘাত করেছে। কিন্তু মানুষের আস্থা ও ভালোবাসায় জাতীয় পার্টি এখনো মানুষের মাঝে টিকে আছে।

এসময় বিশেষ অতিথির বক্তৃতায় জাতীয় পার্টি মহাসচিব জিয়াউদ্দিন আহমেদ বাবলু বলেছেন, করোনা পরিস্থিতি মোকাবেলায় বর্তমান সরকার ব্যর্থতার পরিচয় দিয়েছে। করোনা মোকাবেলায় দেশে লকডাউন হচ্ছেনা, মানুষের জীবন ও জীবিকাও হচ্ছেনা। স্বাস্থ্যমন্ত্রনালয় থেকে উদ্ভট কথা বলা হচ্ছে, যার সাথে বাস্তবতার কোন মিল নেই। মানুষের জীবন ও জীবিকা নিয়ে পরিহাস করছে সরকার। প্রতিটি মানুষের জীবন ও জীবিকার দায়িত্ব নিতে হবে সরকারকেই। দেশের অধিকাংশ গ্রামেই করোনা ছড়িয়ে পড়েছে, কোন নিয়ন্ত্রণ নেই। 

অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন- প্রেসিডিয়াম সদস্য মীর আব্দুস সবুর আসুদ, শফিকুল ইসলাম সেন্টু, উপদেষ্টা- মনিরুল ইসলাম মিলন, আমানত হোসেন আমানত, ভাইস চেয়ারম্যান জাহাঙ্গীর আলম পাঠান, যুগ্ম মহাসচিব- মোঃ সামসুল হক, সাংগঠনিক সম্পাদক নাসির উদ্দিন সরকার, সৈয়দ মঞ্জুর হোসেন মঞ্জু, আনোয়ার হোসেন তোতা, আনিস উর রহমান খোকন, প্রচার সম্পাদক মাসুদুর রহমান মাসুম, দফতর সম্পাদক-২ এম.এ. রাজ্জাক খান, তথ্য ও গবেষণা বিষয়ক সম্পাদক জহিরুল ইসলাম মিন্টু, সমাজ কল্যাণ সম্পাদক গোলাম মোস্তফা, যুগ্ম সাংগঠনিক সম্পাদক জাকির হোসেন মিলন, কেন্দ্রীয় সদস্য হাওলাদার মহিদুল ইসলাম, এলাহান উদ্দিন, মোঃ আলমগীর হোসেন ও ঢাকা মহানগর উত্তর-এর সকল থানার সভাপতি এবং সাধারণ সম্পাদকবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।  

এর আগে জাতীয় পার্টি চেয়ারম্যান এর বনানী কার্যালয় মিলনায়তনে পার্টির যুগ্ম সাংগঠনিক সম্পাদক মোঃ মামুনুর রহিম সুমন আয়োজনে পল্লীবন্ধু হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ এর দ্বিতীয় মৃত্যু বার্ষিকী উপলক্ষ্যে দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়েছে। 

news24bd.tv/আলী

পরবর্তী খবর

টিকা প্রাপ্তির নিশ্চয়তা ছাড়া মাসে কোটি ডোজ দেওয়ার ঘোষণা প্রতারণা: ফখরুল

অনলাইন ডেস্ক

টিকা প্রাপ্তির নিশ্চয়তা ছাড়া মাসে কোটি ডোজ দেওয়ার ঘোষণা প্রতারণা: ফখরুল

বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল বলেন, সরকার এখন পর্যন্ত টিকা সংগ্রহ, সংরক্ষণ ও বিতরণের সুনির্দিষ্ট রোডম্যাপ জনগণের সামনে দিতে পারেনি। টিকা প্রাপ্তির কোনো নিশ্চয়তা ছাড়াই প্রতি মাসে এক কোটি ডোজ দেওয়ার ঘোষণা দিয়েছে সরকার, যা জনগণের সঙ্গে প্রতারণা ছাড়া কিছুই নয়। 

রোববার (১ আগস্ট) এক সংবাদ সম্মেলনে এ কথা বলেন বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। শনিবার (৩১ জুলাই) বিএনপির স্থায়ী কমিটির সভার সিদ্ধান্ত জানাতে আজ এ সংবাদ সম্মেলন করেন দলটির মহাসচিব।

মির্জা ফখরুল বলেন, স্বাস্থ্যমন্ত্রীর এসব উক্তি এখন হাস্যকর হয়ে উঠেছে। এগুলো যে ফাঁকা বুলি, এটা বুঝতে আর জনগণের বাকি নেই।

মির্জা ফখরুল জানান, দেশে করোনার  উর্ধ্বমুখী করোনা সংক্রমণ পরিস্থিতি নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করেছে বিএনপির স্থায়ী কমিটির সভা। তারা বলেছে, সরকারের নীতি ও অব্যবস্থাপনার কারণে বেশির ভাগ আক্রান্ত মানুষ পরীক্ষা করতে পারছে না। মানুষ হাসপাতালে কোনো শয্যা পাচ্ছে না। অক্সিজেন পাচ্ছে না। আইসিইউ পাচ্ছে না। জেলা হাসপাতালগুলোর পরিস্থিতি উন্নত করার কোনো চেষ্টা সরকারের নেই।

বিএনপির অভিযোগ, সরকার উদ্দেশ্যমূলকভাবে সংক্রমণ ও মৃত্যুর সংখ্যার প্রকৃত চিত্র না দিয়ে অসত্য তথ্য দিচ্ছে। হাসপাতালে সংবাদকর্মীদের তথ্য সংগ্রহের ক্ষেত্রে বাধা-নিষেধ আরোপ করেছে। ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মামলার ভয়ে সংবাদকর্মীরা প্রকৃত তথ্য তুলে ধরতে পারছেন না। 

এছাড়া ডেঙ্গুর প্রাদুর্ভাব বেড়ে যাওয়ায় সরকারকে কার্যকর ব্যবস্থা নেওয়ার আহ্বান জানিয়েছে বিএনপি। 

আরও পড়ুন:


সঙ্কটে মানুষের পাশে দাঁড়ালে বঙ্গবন্ধুর আত্মা শান্তি পাবে: কাদের

৪১তম বিসিএস প্রিলিমিনারির ফল প্রকাশ

বিশ্বাস করতে হবে আমরা টি-টোয়েন্টিতেও ভালো দল: ডমিঙ্গো


সরকারের পদত্যাগ দাবি করে বিএনপির স্থায়ী কমিটির সভা বলেছে, অপরিকল্পিত লকডাউনে জনগণের ভোগান্তি চরমে পৌঁছেছে। দুর্গত মানুষের কাছে সরকারের সহযোগিতা পৌঁছাচ্ছে না। লকডাউনের মধ্যে রপ্তানিমুখী কলকারখানা খুলে দেওয়ার সিদ্ধান্তে শ্রমিকেরা মারাত্মক ভোগান্তিতে পড়েছে। সরকারের এ ধরনের সিদ্ধান্তকে প্রহসন বলে উল্লেখ করেছে বিএনপি। করোনা পরিস্থিতি মোকাবিলায় চরম ব্যর্থতার জন্য সরকারের পদত্যাগ করা উচিত বলে মনে করে বিএনপির স্থায়ী কমিটির সভা।

news24bd.tv নাজিম

পরবর্তী খবর

ইতিহাসের নিষ্ঠুরতম রাজনৈতিক হত্যাকাণ্ড ১৫ আগস্ট: কাদের

অনলাইন ডেস্ক

ইতিহাসের নিষ্ঠুরতম রাজনৈতিক হত্যাকাণ্ড ১৫ আগস্ট: কাদের

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের জানিয়েছেন, বঙ্গবন্ধুকন্যা শেখ হাসিনার নেতৃত্বে মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় অসাম্প্রদায়িক ধারায় বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের সোনার বাংলা গড়ে তুলতে হবে। চলমান করোনা সঙ্কটে অসহায়, দুঃখী মানুষের পাশে দাঁড়ালেই বঙ্গবন্ধুর প্রতি সঠিক সম্মান প্রদর্শন হবে এবং তার আত্মা শান্তি পাবে।

রোববার (১ আগস্ট) ওবায়দুল কাদের তার বাসভবনে ব্রিফিংকালে তিনি এসব কথা বলেন।

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বলেন, ইতিহাসের নিষ্ঠুরতম রাজনৈতিক হত্যাকাণ্ড ছিল ১৫ আগস্ট। নির্মমতার দিক থেকে এমন রাজনৈতিক হত্যাকাণ্ডের নজির পৃথিবীতে আর নেই। 

জগতে অন্যান্য হত্যাকাণ্ডে নিষ্পাপ শিশুকে হত্যা করা হয়নি। টার্গেট করা হয়নি অবলা নারীকে, অন্তঃসত্ত্বা নারীকে। সেদিন শুধু বঙ্গবন্ধুই নন, তার সহধর্মিণী মহীয়সী নারী বঙ্গমাতা বেগম মুজিবসহ নৃশংসভাবে নিহত হন পরিবারের অন্য সদস্যরা। 

১৫ আগস্টের নির্মম হত্যাযজ্ঞ ঘটিয়ে ষড়যন্ত্রকারীরা থেমে থাকেনি, তারা পরবর্তীতে ৩ নভেম্বর জাতীয় চার নেতাকে জেলের অভ্যন্তরে কারাকক্ষে হত্যা করে। ২১ আগস্টের গ্রেনেড হামলা ছিল একই ষড়যন্ত্রের ধারাবাহিকতা।

তিনি আরও বলেন, ১৫ আগস্ট প্রাইম টার্গেট ছিল বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান আর ২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলার প্রাইম টার্গেট ছিল বঙ্গবন্ধুকন্যা শেখ হাসিনা।

১৫ ও ২১ আগস্টের হত্যাকাণ্ডের কুশীলবরা এখনো সক্রিয়, তারা উন্নয়ন, শান্তি ও স্বস্তির বাংলাদেশ চায় না। শেখ হাসিনার নেতৃত্বে সমৃদ্ধ আগামীর পথে এগিয়ে যাওয়া তাদের গাত্রদাহ। তারা চায় সংঘাতে জর্জরিত রক্তময় প্রান্তর। আগস্ট এলেই বঙ্গবন্ধু কন্যার নিরাপত্তা নিয়ে উদ্বিগ্ন থাকি।

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আরও বলেন, ১৯৮১ সালে তিনি দেশে ফিরে আসার পর তাকে প্রায় ২০ বার হত্যার চেষ্টা করা হয়। যারা খুনের কুশীলব ছিল তাদের অপমৃত্যু হয়েছে। ইতিহাস কাউকে ক্ষমা করেনি, ক্ষমা করেও না। 

আরও পড়ুন:


বাড়ানো হয়েছে লঞ্চ চলাচলের সময়

এবার পর্নোগ্রাফি শুটিংয়ের অভিযোগে অভিনেত্রী গ্রেপ্তার

সাকিবের সামনে রেকর্ড গড়ার হাতছানি, যেখানে তিনিই হবেন প্রথম

চিত্রনায়িকা একার বিরুদ্ধে হাতিরঝিল থানায় দুই মামলা


news24bd.tv / কামরুল 

পরবর্তী খবর

এই সঙ্কটে অসহায় মানুষের পাশে দাঁড়ালে বঙ্গবন্ধুর আত্মা শান্তি পাবে: কাদের

অনলাইন ডেস্ক

এই সঙ্কটে অসহায় মানুষের পাশে দাঁড়ালে বঙ্গবন্ধুর আত্মা শান্তি পাবে: কাদের

শোকের মাস আগস্টের এই শোককে শক্তিতে রূপান্তরিত করার আহ্বান জানিয়ে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের বলেছেন, বঙ্গবন্ধুকন্যা শেখ হাসিনার নেতৃত্বে মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় অসাম্প্রদায়িক ধারা বজায় রেখে বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের সোনার বাংলা গড়ে তুলতে হবে। চলমান করোনাভাইরাসের এই সঙ্কটের সময় অসহায়, দুঃখী মানুষের পাশে দাঁড়ালেই বঙ্গবন্ধুর প্রতি সঠিক সম্মান প্রদর্শন হবে এবং তার আত্মা শান্তি পাবে।


আরও পড়ুন

পোশাক কারখানা খুলে দেওয়ায় সংক্রমণ আরও বাড়বে : স্বাস্থ্যমন্ত্রী

বাড়ানো হয়েছে লঞ্চ চলাচলের সময়

এবার পর্নোগ্রাফি শুটিংয়ের অভিযোগে অভিনেত্রী গ্রেপ্তার

সাকিবের সামনে রেকর্ড গড়ার হাতছানি, যেখানে তিনিই হবেন প্রথম


আজ রোববার ওবায়দুল কাদের তার বাসভবনে ব্রিফিং এর সময় এসব কথা বলেন।

news24bd.tv/এমিজান্নাত 

 

পরবর্তী খবর

সঙ্কটে মানুষের পাশে দাঁড়ালে বঙ্গবন্ধুর আত্মা শান্তি পাবে: কাদের

অনলাইন ডেস্ক

সঙ্কটে মানুষের পাশে দাঁড়ালে বঙ্গবন্ধুর আত্মা শান্তি পাবে: কাদের

আগস্টের শোককে শক্তিতে রূপান্তরিত করার আহ্বান জানিয়ে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের বলেছেন, বঙ্গবন্ধুকন্যা শেখ হাসিনার নেতৃত্বে মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় অসাম্প্রদায়িক ধারায় বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের সোনার বাংলা গড়ে তুলতে হবে। চলমান করোনা সঙ্কটে অসহায়, দুঃখী মানুষের পাশে দাঁড়ালেই বঙ্গবন্ধুর প্রতি সঠিক সম্মান প্রদর্শন হবে এবং তার আত্মা শান্তি পাবে।

আজ সকালে তার রাজধানীর সরকারি বাসভবনে ব্রিফিংকালে এ কথা বলেন তিনি। 

আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক বলেন, ইতিহাসের নিষ্ঠুরতম রাজনৈতিক হত্যাকাণ্ড ছিলো ১৫ আগস্ট,নির্মমতার দিক থেকে এমন রাজনৈতিক হত্যাকান্ডের নজির পৃথিবীতে আর নেই। জগতে অন্যান্য হত্যাকাণ্ডে নিষ্পাপ শিশুকে হত্যা করা হয়নি,টার্গেট করা হয়নি অবলা ও  অন্তঃসত্ত্বা নারীকে। সেদিন শুধু বঙ্গবন্ধুই নন,তার সহধর্মিণী মহিয়সী নারী বঙ্গমাতা বেগম মুজিবসহ নৃশংসভাবে নিহত হন পরিবারের অন্যান্য সদস্যরা।

তিনি বলেন, ১৫ আগস্টের নির্মম হত্যাযজ্ঞ ঘটিয়ে ষড়যন্ত্রকারীরা থেমে থাকেনি, তারা পরবর্তীতে তিন নভেম্বর জাতীয় চার নেতাকে জেলের অভ্যন্তরে কারাকক্ষে হত্যা করে। একুশে আগস্টের গ্রেনেড হামলা ছিল একই ষড়যন্ত্রের ধারাবাহিকতা। 

শেখ হাসিনার নেতৃত্বে সমৃদ্ধ আগামীর পথে এগিয়ে যাওয়া তাদের গাত্রদাহ উল্লেখ করে ওবায়দুল কাদের বলেন, তারা চায় সংঘাতে জর্জরিত রক্তময় প্রান্তর।

news24bd.tv নাজিম

পরবর্তী খবর

শোকাবহ আগস্টের প্রথম প্রহরে সেচ্ছাসেবক লীগ ও ছাত্রলীগের মোমবাতি প্রজ্জালন

অনলাইন ডেস্ক

শোকাবহ আগস্টের প্রথম প্রহরে সেচ্ছাসেবক লীগ ও ছাত্রলীগের মোমবাতি প্রজ্জালন

শোকাবহ আগস্টের প্রথম প্রহরে (১২টা ১ মিনিটে) জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধা নিবেদন, মোমবাতি প্রজ্জ্বলন ও আলোর মিছিল করেছে আওয়ামী সেচ্ছাসেবক লীগ ও বাংলাদেশ ছাত্রলীগ। প্রতি বছরের মতো এবারও ধানমন্ডি ৩২ নম্বরে ১৫ আগস্টে নিহত জাতির পিতা বঙ্গবন্ধুসহ সকল শহিদের স্মরণে এই কর্মসূচি পালন করেছে সংগঠন দুটির নেতাকর্মীরা।

সেচ্ছাসেবক লীগের অনুষ্ঠানে নেতৃত্ব দেন সংগঠনের সভাপতি নির্মল রঞ্জন গুহ ও সাধারণ সম্পাদক এ কে এম আফজালুর রহমান বাবু। এ সময় সহ-সভাপতি গাজী মেজবাহুর হোসেন সাচ্ছু, ঢাকা মহনগর দক্ষিণ সেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি কামরুল হাসান রিপন, সাধারণ সম্পাদক তারিক সাইদসহ কেন্দ্রীয় নগরের নেতারক উপস্থিত ছিলেন।

আরও পড়ুন:


বিএনপি-জামায়াত-হেফাজত করোনার মতো বারবার রূপ পরিবর্তন করছে: বাহাউদ্দিন নাছিম

টিকা নেয়ার পরেও করোনা পজিটিভ ফারুকী

স্বামীর পর্নকাণ্ড: মানহানির মামলা নিয়ে শিল্পাকে আদালতের ভর্ৎসনা


 

অন্যদিকে ছাত্রলীগের কর্মসূচির নেতৃত্ব দেন সংগঠনের সভাপিত আল নাহিয়ান খান জয় ও সাধারন সম্পাদক লেখক ভট্টাচার্য। এ সময় ছাত্রলীগর কেন্দ্রীয়, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় এবং ঢাকা মহানগর উত্তর ও দক্ষিণের শীর্ষ নেতারা উপস্থিত ছিলেন।

news24bd.tv/আলী

পরবর্তী খবর