মোংলায় মাদকের রানীর সাড়ে ৩ মাসের কারাদণ্ড

শেখ আহসানুল করিম, বাগেরহাট

মোংলায় মাদকের রানীর সাড়ে ৩ মাসের কারাদণ্ড

বাগেরহাটের মোংলায় এক নারী মাদক ব্যবসায়ীকে সাড়ে তিন মাসের কারাদন্ড দিয়েছে ভ্রাম্যমাণ আদালত। মঙ্গলবার দুপুরে পৌর শহরের মুরগী বাজার সংলগ্ন এলাকায় আইনশৃঙ্খলারক্ষাকারী বাহিনীর যৌথ অভিযানে মাদকসহ মাদকের রানী বেবীকে আটকের পর ভ্রাম্যমাণ আদালত তার বিরুদ্ধে এ রায় দেয়।

পুলিশ জানায়, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে মঙ্গলবার দুপুরে শহরের মুরগী বাজার এলাকায় অভিযান চালায় নৌবাহিনী, কোস্টগার্ড, মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তর ও পুলিশ। এ সময় ওই এলাকার চিহ্নিত মাদকের রানী বেবী’র (৩২) বসত ঘরে তল্লাশী চালিয়ে অভিযানকারীরা আড়াইশ গ্রাম গাঁজা জব্দসহ তাকে গ্রেফতার করে। পরে উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট নয়ন কুমার রাজবংশী মোবাইল কোর্টের মাধ্যমে ওই মাদক ব্যবসায়ী বেবীকে তিন মাসের কারাদণ্ড ও নগদ ২০ হাজার টাকা জরিমানা করেন।

নগদ টাকা দিতে না পারায় আরো পনের দিনের সাজা বাড়িয়ে সাড়ে তিন মাসের বিনাশ্রম কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে।

এর আগেও একাধিকবার গাঁজা ও ইয়াবাসহ আইনশৃঙ্খলারক্ষাকারী বাহিনীর হাতে আটক হয় এলাকায় মাদকের রানী হিসেব খ্যাত বেবী। তার বিরুদ্ধে থানায় ৭টি মাদকের মামলা রয়েছে। সম্প্রতি মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তর মাদকসহ তাকে আটক করে জেলহাজতে পাঠায়। সেই মামলায় জামিন নিয়ে এসে বেবী আবারো মাদকের কারবার শুরু করে বলে জানিয়েছে মোংলা থানার সেকেন্ড অফিসার মো. জাহাঙ্গীর হোসেন।

আরও পড়ুন:


অক্সফোর্ডের দ্বিতীয় ডোজের টিকা আগস্ট থেকে: সেব্রিনা ফ্লোরা

বাগেরহাটে ৫০০ কর্মহীন পরিবারকে পুনাকের খাদ্য সহায়তা

রূপগঞ্জে সেই কারখানার সামনে বিএনপির দুপক্ষের সংঘর্ষ, আহত ২৫


news24bd.tv / তৌহিদ

পরবর্তী খবর

শৈলকূপায় আওয়ামী লীগের দুপক্ষের সংঘর্ষে নিহতের ঘটনায় আটক ৪

শেখ রুহুল আমিন, ঝিনাইদহ

শৈলকূপায় আওয়ামী লীগের দুপক্ষের সংঘর্ষে নিহতের ঘটনায় আটক ৪

ঝিনাইদহের শৈলকুপায় সামাজিক আধিপত্য বিস্তার নিয়ে স্থানীয় আওয়ামী লীগের দুপক্ষের সংঘর্ষে একজন নিহতের ঘটনায় আজ সোববার চারজনকে আটক করেছে পুলিশ। গত রোববার রাত সাড়ে ৯ টার দিকে উপজেলার মনোহরপুর ইউনিয়নের দামুকদিয়া গ্রামে এ সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। সে সময় রাশেদুল ইসলাম উকিল মৃধা (৪৫) নামে একজন নিহত ও উভয় পক্ষের ৫জন আহত হয়।

স্থানীয়রা জানায়, ইদের পর দিন থেকে সামাজিক আধিপত্য বিস্তার নিয়ে দামুকদিয়া সহ আশপাশের কয়েক গ্রামে বিরোধ ও সহিংসতা চলে আসছিল। এক পক্ষে ৯নং মনোহরপুর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান ও থানা আওয়ামীলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক মোস্তফা আরিফ রেজা মন্নু সমর্থিত ও অপর পক্ষে বকুল মোল্লা
সমর্থিত গ্রামবাসী রয়েছে। গতকাল সন্ধ্যায় থানায় দামুকদিয়া গ্রামের বিবাদমান এ দুপক্ষের ভেতরে একটি সমঝোতা বৈঠক হয়। বৈঠক শেষে বাড়ি ফেরার পথে মাথায় আঘাতপ্রাপ্ত ও হামলার শিকার হয় মন্নু সমর্থিত রাশিদুল ইসলাম উকিল সহ কয়েকজন। এতে ঘটনাস্থলেই নিহত হয় কৃষক রাশিদুল ইসলাম উকিল। তাকে হাসপাতালে আনা হলে ডাক্তার মৃত ঘোষণা করে।

এব্যাপারে শৈলকুপা থানার অফিসার ইনচার্জ জাহাঙ্গীর আলম জানান, এখনও থানায় মামলা দায়ের হয়নি। তবে পুলিশ অভিযান চালিয়ে ঘটনার সাথে জড়িত সন্দেহে চারজনকে আটক করা হয়েছে। পরিস্থিতি শান্ত রাখতে ওই এলাকায় অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করে রাখা হয়েছে।

আরও পড়ুন:


বিভিন্ন জেলায় করোনা ও উপসর্গে মৃত্যুর তথ্য

গার্মেন্টস খোলার ব্যাপারে যা জানালেন জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী

কখন লকডাউন বাড়ানো লাগবে না জানালেন তথ্যমন্ত্রী

ময়মনসিংহ মেডিকেলে করোনায় ‍মৃত্যুর রেকর্ড


 news24bd.tv তৌহিদ

পরবর্তী খবর

বাল্যবিয়ে মুক্ত উপজেলায় বাল্যবিয়ের চেষ্টা, জরিমানা-মুচলেকায় রক্ষা

জুবাইদুল ইসলাম, শেরপুর

বাল্যবিয়ে মুক্ত উপজেলায় বাল্যবিয়ের চেষ্টা, জরিমানা-মুচলেকায় রক্ষা

শেরপুরের নকলায় উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) জাহিদুর রহমানের হস্তক্ষেপে বাল্যবিয়ে থেকে রক্ষা পেল দশম শ্রেণির এক স্কুলছাত্রী। ২৫ জুলাই রোববার রাতে বাল্যবিয়ের কাজ পরিচালনা করার অপরাধে ভ্রাম্যমাণ আদালত বসিয়ে বাল্যবিয়ে বর ও কনের বাবাকে ২৫ হাজার টাকা করে মোট ৫০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়।

জানা যায়, নকলা ইউনিয়নের ছত্রকোনা গ্রামের মো. আব্দুল হাইয়ের অপ্রাপ্তবয়স্ক মেয়েকে পার্শ্ববর্তী উরফা ইউনিয়নের লয়খা গ্রামের মো. ছাহের আলীর ছেলে মোবাইল ব্যবসায়ী মো. খলিলুর রহমানের সাথে বিয়ের আয়োজন চলছে- এমন সংবাদের ভিত্তিতে নকলার ইউএনও এবং নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট জাহিদুর রহমান কনের বাবা মো. আব্দুল হাইয়ের বাড়িতে গিয়ে ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করেন। তবে ভ্রাম্যমাণ আদালতের টিম বিয়ে বাড়িতে পৌঁছার আগেই বরযাত্রীদের খাওয়ানোসহ বিয়ের বেশ কিছু আনুষ্ঠানিকতা শেষ হয়ে যায়। ওই অবস্থায় বর ও কনের বাবাকে ২৫ হাজার টাকা করে মোট ৫০ হাজার জরিমানা করার পাশাপাশি ছেলে-মেয়েদের প্রাপ্ত বয়স্ক না হওয়া পর্যন্ত বিয়ে দেবেন না মর্মে উভয় পরিবারের অভিভাবকদের কাছে মুচলেকা নেওয়া হয়।

আদালত পরিচালনাকালে নকলা থানা পুলিশসহ প্রশাসনের অন্যান্য কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

এ ব্যাপারে ইউএনও জাহিদুর রহমান বলেন, ২০১৮ সালের এপ্রিল মাসের ৩০ তারিখে নকলাকে জেলার প্রথম বাল্যবিয়ে মুক্ত উপজেলা হিসেবে ঘোষণা করা হয়েছে। তাই এ উপজেলায় বাল্যবিয়ে কোনোভাবেই মেনে নেওয়া হবে না। নকলা উপজেলায় বাল্যবিবাহের কোনো ঘটনা ঘটলে সংশ্লিষ্ট পরিবারের অভিভাবক, বর, আয়োজক ও নিকাহ রেজিস্ট্রার বা কাজীদেরকে আইনের আওতায় আনা হবে।

এক্ষেত্রে আইনিভাবে কোনো প্রকার আপোষ নেই। বাল্যবিবাহ নিরোধ ও বন্ধে উপজেলা প্রশাসন ও পুলিশ বিভাগসহ বাল্যবিবাহ নিরোধ কমিটির সংশ্লিষ্টরা সদা তৎপর রয়েছেন বলেও জানান তিনি।

 

পরবর্তী খবর

ফুলবাড়িয়ায় হাতকড়াসহ পালানো আসামি সাড়ে পাঁচ ঘণ্টা পর গ্রেপ্তার

সৈয়দ নোমান, ময়মনসিংহ

ফুলবাড়িয়ায় হাতকড়াসহ পালানো আসামি সাড়ে পাঁচ ঘণ্টা পর গ্রেপ্তার

ময়মনসিংহের ফুলবাড়িয়ায় হাতকড়াসহ ছিনিয়ে নেওয়ার সাড়ে পাঁচ ঘণ্টা পর মিজানুর রহমান ভুট্রো (৪৫) নামে এক আসামিকে গ্রেপ্তার করেছে ফুলবাড়িয়া থানা-পুলিশ। শনিবার সন্ধ্যা সাড়ে ৬টার দিকে স্থানীয় এলাকাবাসী ধস্তাধস্তি করে ওই আসামিকে ছিনিয়ে নেয়। উপজেলার পুটিজানা ইউনিয়নের বিড়ালশাখ বুইদ্দা গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

ফুলবাড়ীয়া থানার ওসি মোল্লা জাকির হোসেন বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, ভুট্রো একটি হত্যা মামলার ওয়ারেন্টভুক্ত আসামি ছিলেন।

ঘটনার বর্ণনা দিয়ে ওসি আরও জানান, ভুট্রোকে গ্রেফতার করার জন্য পুলিশ সোর্সকে নিয়ে এসআই এ.এইচ.এম মোকতাদেরুল হাসান সিভিল পোশাকে আসামি গ্রেপ্তার করতে যান। আসামিকে বাড়ির দক্ষিণের পুকুরপাড় থেকে গ্রেপ্তার করে হাতকড়া পড়ালে পুকুরে লাফ দেয়। এ সময় মিজানের বাম পা ভেঙ্গে
যায়। খবর পেয়ে এলাকাবাসী পুলিশের সাথে ধস্তাধস্তি করে হ্যান্ডকাপসহ আসামি ছিনিয়ে নিয়ে যায়। পরে আসামিকে গ্রেপ্তার জন্য অভিযানে নামে পুলিশ। সাড়ে ৫ ঘণ্টা পুলিশী অভিযান শেষে রাত সাড়ে ১০ টার দিকে পুটিজানা ইউপি চেয়ারম্যান ময়েজ উদ্দিন তরফদার ও সাবেক চেয়ারম্যান সাইদুর রহমান রয়েলের
মধ্যস্ততায় ছিনিয়ে নেওয়া আসামিকে হাতকড়াসহ পুলিশের কাছে হস্তান্তর করা হয়।

news24bd.tv তৌহিদ

পরবর্তী খবর

পিরোজপুরে প্রতিবন্ধী কিশোরীকে গণধর্ষণ, গ্রেপ্তার ২

ইমন চৌধুরী, পিরোজপুর

পিরোজপুরে প্রতিবন্ধী কিশোরীকে গণধর্ষণ, গ্রেপ্তার ২

পিরোজপুরের স্বরূপকাঠিতে প্রতিবন্ধী এক কিশোরীকে গণধর্ষণের অভিযোগ পাওয়া গেছে। জানা যায়, বুদ্ধি প্রতিবন্ধী ১৫ বছরের কিশোরীকে নানা প্রলোভন দেখিয়ে সুটিয়াকাঠি ইউনিয়নের বাররা গ্রামের প্রতিবেশী উজ্জল হোসেন ও মকবুল হোসেন সহ ছয়জন বিভিন্ন সময় ধর্ষণ করে আসতো। এক পর্যায়ে কিশোরী গর্ভবতী হয়ে পড়লে এলাকায় জানাজানি হয়। বর্তমানে মেয়েটি ৫ মাসের অন্তঃসত্ত্বা। এক পর্যায়ে জিজ্ঞাসাবাদে ছয়জনের নাম প্রকাশ করেন তিনি।

এঘটনায় দুজনকে গ্রেপ্তার করেছে থানা-পুলিশ। আজ রোববার সকালে ধর্ষিতার বাবা বাদী হয়ে ছয়জনকে আসামি করে নেছারাবাদ থানায় মামলা দায়ের করেছেন। পুলিশ মামলা রুজু করেই ওসি আবীর মোহাম্মদ হোসেনের নেতৃত্বে পুলিশের কয়েকটি টিম বিভিন্ন এলাকায় অভিযান চালিয়ে ওই মামলার আসামি উজ্জল হোসেন(১৯) ও মকবুল হোসেনকে (২০) গ্রেপ্তার করে।

নেছারাবাদ থানার ওসি আবীর মোহাম্মদ হোসেন জানান, অভিযোগ পেয়ে অভিযানে দুজনকে গ্রেপ্তার করে আসামিদের আদালতে পাঠানো হয়েছে। ধর্ষণের শিকার কিশোরীকে মেডিকেল করানোর জন্য পিরোজপুর সিভিল সার্জন অফিসে পাঠানো হয়েছে।

news24bd.tv তৌহিদ

পরবর্তী খবর

আগামীকাল থেকে চলবে ই-হাইকোর্ট

অনলাইন ডেস্ক

আগামীকাল থেকে চলবে ই-হাইকোর্ট

আগামী ২৫ জুলাই থেকে ৩১ জুলাই পর্যন্ত হাইকোর্টের অবকাশকালীন সময় এবং আগামী ৫ আগস্ট পর্যন্ত লাকডাউনেও ভার্চুয়ালি ই-হাইকোর্ট চলবে বলে জানিয়েছে সুপ্রিমকোর্ট প্রশাসন।

বিস্তারিত আসছে…

পরবর্তী খবর