কানাডায় নজর কাড়ছে বাংলাদেশি ক্রিকেট, চায় পৃষ্ঠপোষকতা

লায়লা নুসরাত, কানাডা

কানাডায় নজর কাড়ছে বাংলাদেশি ক্রিকেট, চায় পৃষ্ঠপোষকতা

কোন ধরনের প্রাতিষ্ঠানিক পৃষ্ঠপোষকতা ছাড়াই টরন্টোয় বাংলাদেশিদের ৬টি টিম মূলধারার ক্রিকেট লীগে অংশ নিয়ে ইতিমধ্যে নজর কেড়েছে। টেপ বল, ক্রিকেট বল মিলিয়ে বাংলাদেশিদেরই ২০টির মতো ক্রিকেট টিম গড়ে উঠেছে বলে জানিয়েছেন টরন্টোর ক্রিকেট অঙ্গনের সংশ্লিষ্টরা।

তারা জানান, নিয়মিত অনুশীলনের জন্য একটি মাঠ আর পৃষ্ঠপোষকতা পেলে বাংলাদেশি খেলায়াড়রা কানাডার জাতীয় দলে প্রতিনিধিত্ব করতে সক্ষম হবে।

স্থানীয় সময় বুধবার রাতে কানাডার বাংলা পত্রিকা ‘নতুনদেশ’ এর প্রধান সম্পাদক শওগাত আলী সাগর এর সঞ্চালনায় ‘শওগাত আলী সাগর লাইভ’ অনুষ্ঠানে আলোচনায় প্রবাসী বাংলাদেশি ক্রিকেটাররা এ কথা বলেন।

এতে আলোচনায় অংশ নেন স্বাধীন ক্রিকেট ক্লাবের প্রেসিডেন্ট ইত্তেজা আহমেদ টিপু, বাংলা ওয়ারিয়র ক্রিকেট টিমের ভাইস ক্যাপ্টেন মোস্তফা দাউদ এবং টিম টাইগার ক্রিকেট টিমের ক্যাপ্টেন তানিম চৌধুরী।

ইত্তেজা আহমেদ টিপু কানাডায় বিশেষ করে টরন্টোয় বাংলাদেশিদের ক্রিকেট চর্চার ইতিবৃত্ত তুলে ধরে বলেন, প্রবাসের কঠিন জীবনে নিয়মিত খেলাধূলার চর্চা করা রীতিমতো কঠিন কাজ। কিন্তু ক্রিকেটামোদী বাংলাদেশিরা ভাড়া করা মাঠে অনুশীলন করেই এখন মূলধারার বিভিন্ন লীগে অংশ নিচ্ছে।

তিনি বলেন, অনুশীলনের মাঠ ভাড়া থেকে শুরু করে যাবতীয় খরচ ক্রিকেটারদের বহন করতে হয়। ব্যক্তিগতভাবে কেউ কেউ স্পন্সরশীপ নিয়ে এগিয়ে এলেও প্রাতিষ্ঠানিক সহযোগিতা অভাব রয়েছে বলে তিনি উল্লেখ করেন। 

ক্রিকেটার মোস্তফা দাউদ ক্রিকেটারদের নিয়মিত অনুশীলনের জন্য একটি মাঠের প্রয়াজনীয়তা তুলে ধরে বলেন, ক্রিকেটারদের অনুশীলনের জন্য মাঠের অভাব একটি বড় সমস্যা হয়ে দেখা দিয়েছে আমাদের জন্য। সিটি কর্পোরেশনের কাছ থেকে মাঠ ভাড়া নিয়ে আমাদের অনুশীলন করতে হয়। তিনি বলেন, কানাডায় বাংলাদেশি ক্রিকেটের বিকাশের জন্য দরকার একটি মাঠ। এ ব্যাপারে কমিউনিটির সবার এগিয়ে আসা দরকার।

ক্রিকেটার তানিম চৌধুরী অন্যান্য কমিউনিটিতে থাকা অবকাঠামোগত সুবিধা তুলে ধরে বলেন, পর্যাপ্ত অবকাঠামোগত সুবিধা নিশ্চিত করা গেলে আমাদের ক্রিকেটাররা কানাডার জাতীয় দলে বাংলাদেশের প্রতিনিধিত্ব নিশ্চিত করতে সক্ষম হবে। নতুন প্রজন্মের ছেলে মেয়েরাও ক্রিকেটের ব্যাপারে উৎসাহী হবে।

তিনি বলেন, বহু সংখ্যক মেধাবী বাংলাদেশি ক্রিকেটার কানাডায় বসবাস করেন। অবকাঠামোগত সুবিধা তৈরি হলে নতুন প্রজন্মকে সম্পৃক্ত করে কানাডায় বাংলাদেশিরা জাতীয় ক্রিকেটে নেতৃত্ব দিতে সক্ষম হবে বলে তিনি মনে করেন।

তিনি প্রবাসী বাংলাদেশিদের নিজ নিজ সামর্থ অনুসারে টরন্টোর বাংলাতেশি ক্রিকেটকে সহযোগিতার আহ্বান জানান।


আরও পড়ুনঃ

মুর্শিদাবাদের মেসি বিড়ি

যে ধরণের পশু ছাড়া কোরবানি হবে না

‘শিথিল লকডাউনে’ গণপরিবহনে মানতে হবে যেসব নির্দেশনা

আজ থেকে শিথিল হচ্ছে লকডাউন, খুলছে গণপরিবহন-শপিংমল


আলোচনায় অংশ নিয়ে নতুনদেশ এর প্রধান সম্পাদক শওগাত আলী সাগর বলেন, অথচ তাদের সম্পর্কে কমিউনিটিতে তেমন একটা আলোচনা শোনা যায় না, তাদের নিয়ে তেমন উচ্চ্বাস দেখা যায় না। অনেকটা আড়ালেই যেন পড়ে আছে বিদেশের মাটিতে বাংলাদেশিদের মর্যাদার আসনে বসানোর অসাধারন এক উদ্যোগ। তিনি টরন্টোর বাংলাদেশি ক্রিকেটারদের সহযোগিতায় এগিয়ে আসার জন্য সবার প্রতি আহ্বান জানান।

 

পরবর্তী খবর

নয়াদিল্লীতে বাংলাদেশ হাই কমিশনে শেখ কামালের জন্মদিন পালিত

অনলাইন ডেস্ক

নয়াদিল্লীতে বাংলাদেশ হাই কমিশনে শেখ কামালের জন্মদিন পালিত

জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জ্যেষ্ঠ ছেলে, বীর মুক্তিযোদ্ধা শহিদ ক্যাপ্টেন শেখ কামালের ৭২তম জন্মদিন পালন করেছে নয়াদিল্লীস্থ বাংলাদেশ হাই কমিশন। দিবসটি পালন উপলক্ষ্যে আজ দুপুরে দূতাবাসের বঙ্গবন্ধু হল প্রাঙ্গণে দূতাবাসের হাই কমিশনার মোহাম্মদ ইমরান দূতাবাস কর্মকর্তা ও কর্মচারীরা দূতাবাসের বঙ্গবন্ধু কর্নারে বঙ্গবন্ধু ও শেখ কামালের প্রতিকৃতিত্বে শ্রদ্ধাঞ্জলি নিবেদন করেন।

পরে শেখ কামালের জীবনী নিয়ে এক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। দূতাবাসের হাই কমিশনার মোহাম্মদ ইমরানের সভাপতিত্বে অন্যান্যের মধ্যে আলোচনায় অংশ নেন মিনিস্টার (কনস্যুলার) সেলিম মোহাম্মদ জাহাঙ্গীর।

সভাপতির বক্তব্যে ভারতে নিযুক্ত বাংলাদেশের হাই কমিশনার মোহাম্মদ ইমরান বলেন, শেখ কামাল ছিলেন প্রজন্মের অহংকার। তিনি পরিবার থেকেই একটি আদর্শ নিয়ে বড় হয়েছিলেন। অত্যন্ত মেধাবী, ক্রীড়াবিদ, সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব, ব্যক্তি জীবনে ছিলেন বিনয়ী, পরোপকারী এবং ভিশনারি।

ছাত্রলীগের রাজনীতিতে একজন সক্রিয় কর্মী হিসেবে তিনি বঙ্গবন্ধুর আদর্শের এই সংগঠনকে শুধু সংগঠিতই করেননি। দেশ গঠনের লক্ষ্যে ছাত্রলীগকে প্রগতিশীল এবং মেধাবী সংগঠনে পরিনত করতে সাধ্যমত কাজ করেছিলেন। বঙ্গবন্ধুর সন্তান হয়েও তিনি কখনো ক্ষমতার অপব্যবহার করেননি। তিনি বলেন, একজন মানুষের মাত্র ২৬ বছরের জীবন কত কর্মময়, গতিশীল, গঠনমূলক ও প্রানবন্ত হতে পারে শেখ কামাল তার জ্বলন্ত উদাহরণ।

আরও পড়ুন:


পরীমনি কাণ্ডে থমথমে ‘সুনসান এফডিসি’

প্রজ্ঞাপন জারি, রোববার ব্যাংক বন্ধ


 

পরিশেষে যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রণালয় কর্তৃক নির্মিত শেখ কামালের ওপর নির্মিত প্রামান্যচিত্র প্রদর্শন এবং তার আত্মার শান্তি কামনা করে দোয়া অনুষ্ঠিত হয়। 

news24bd.tv/আলী

পরবর্তী খবর

লিসবনে শেখ কামালের ৭২তম জন্মবার্ষিকী উদযাপন

অনলাইন ডেস্ক

লিসবনে শেখ কামালের ৭২তম জন্মবার্ষিকী উদযাপন

বাংলাদেশ দূতাবাস লিসবনে যথাযথ মর্যাদায় বৃহস্পতিবার জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জ্যেষ্ঠ পুত্র বীর মুক্তিযোদ্ধা শহিদ ক্যাপ্টেন শেখ কামাল-এর ৭২তম জন্মবার্ষিকী পালন করেছে। এ উদ্দেশ্যে দূতাবাস প্রাঙ্গণে বিশেষ আলোচনা সভা, প্রামান্যচিত্র প্রদর্শন এবং বিশেষ দোয়া ও মোনাজাতের আয়োজন করা হয়। কোভিড-১৯ অতিমারীরর পরিপ্রেক্ষিতে পর্তুগীজ সরকার কর্তৃক আরোপিত বিধি-নিষেধ অনুসরণ ক’রে যথাযথ মর্যাদায় দিবসটি উদযাপন করা হয়।

আলোচনা পর্বে রাষ্ট্রদূত জনাব তারিক আহসান তার বক্তব্যের শুরুতেই সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ বাঙ্গালী জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের দ্বিতীয় সন্তান ও জ্যেষ্ঠ পুত্র বীর মুক্তিযোদ্ধা শহিদ ক্যাপ্টেন শেখ কামালের স্মৃতির প্রতি গভীর শ্রদ্ধা নিবেদন করেন। 

শহিদ ক্যাপ্টেন কামাল সম্বন্ধে স্মৃতিচারণ ক’রে রাষ্ট্রদূত বলেন, তিনি বঙ্গবন্ধুর মতই ছিলেন বাঙ্গালীর অধিকার আদায়ে সোচ্চার আর নির্ভীক। তিনি ৬ দফা ও ১১ দফা আন্দোলন এবং ঊনসত্তরের গণঅভ্যুত্থানে সক্রিয় অংশগ্রহণ করেন আর ছাত্রসমাজকে সংগঠিত ক’রে তিনি মহান মুক্তিযুদ্ধে অংশগ্রহণ করেন। স্বাধীন বাংলাদেশের ক্রীড়া ও সাংস্কৃতিক আন্দোলনে শেখ কামালের অবদান চিরস্মরণীয়। রাষ্ট্রদূত আরো বলেন, মাত্র ২৬ বছরের সংক্ষিপ্ত জীবন ছিল তাঁর অসামান্য অর্জনে সমৃদ্ধ। বহুগুনের অধিকারী শহিদ ক্যাপ্টেন শেখ কামালের জীবন ও আদর্শ সবসময় আমাদের কাছে, বিশেষকরে যুব সমাজের কাছে অনুপ্রেরণার উৎস হয়ে থাকবে।  

আলোচনা সভাশেষে শহিদ ক্যাপ্টেন শেখ কামাল এর উপর নির্মিত প্রামান্যচিত্র, “শেখ কামালঃ এক কিংবদন্তির কথা”  প্রদর্শণ করা হয়।

আরও পড়ুন:


পরীমনি কাণ্ডে থমথমে ‘সুনসান এফডিসি’

প্রজ্ঞাপন জারি, রোববার ব্যাংক বন্ধ


 

সবশেষে, বীর মুক্তিযোদ্ধা শহিদ ক্যাপ্টেন শেখ কামালসহ জাতির পিতা, তাঁর পরিবারের অন্যান্য শহিদ সদস্য ও শহিদ বীর মুক্তিযোদ্ধাদের আত্মার মাগফেরাত কামনা করে এবং দেশের অব্যাহত উন্নয়ন ও সমৃদ্ধির জন্য বিশেষ দোয়া ও মোনাজাত করা হয়। 

news24bd.tv/আলী

পরবর্তী খবর

কানাডায় মুক্তিযোদ্ধাদের মিলনমেলার সমাপনী পর্ব

নিজস্ব প্রতিবেদক

কানাডায় মুক্তিযোদ্ধাদের মিলনমেলার সমাপনী পর্ব

স্বাধীনতার ৫০ বৎসর পূর্তিতে কানাডায় অবস্থানরত মুক্তিযোদ্ধাদের নিয়ে বাংলাদেশ উদীচী শিল্পীগোষ্ঠী, কানাডা সংসদের বিশেষ আয়োজন ভার্চুয়াল মিলনমেলা ‘মুক্তিযুদ্ধ ও বাংলাদেশ’ সমাপনী পর্ব (পর্ব -৪) অনুষ্ঠিত হয়েছে। গত শনিবার টরন্টোর স্থানীয় সময় সকাল ১১টায় অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন সংগঠনের সভাপতি সুভাষ দাশ এবং সার্বিক পরিচালনায় ছিলেন সাধারণ সম্পাদক মিনারা বেগম।  

অনুষ্ঠানে আলোচক হিসেবে উপস্থিত ছিলেন মুক্তিযোদ্ধা আজহারুল ইসলাম ভূঁইয়া, মুক্তিযোদ্ধা সৈয়দ আনোয়ারুল হক ও মুক্তিযোদ্ধা আকবর কবির।সঙ্গীত পরিবেশন করেন ড. মমতাজ মমতা, অরুনাভ ভট্টাচার্য্য ও জয় দাশ। আবৃত্তিতে ছিলেন হোসনে আরা জেমী ও বিথীকা বসাক।

চার পর্বের এই মিলনমেলায় কানাডায় অবস্থানরত ১৯ জন মুক্তিযোদ্ধা অংশগ্রহণ করেন। তাছাড়াও উত্তর আমেরিকার অনেক গণ্যমান্য শিল্পী ও ব্যক্তিবর্গ অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন। এই অনুষ্ঠানের আলোচনা পর্বের সঞ্চালনায় ছিলেন সাংগঠনিক সম্পাদক ওমর হায়াত ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের সঞ্চালনায় ছিলেন সহ -সভাপতি স্বপন বিশ্বাস।

আলোচনায় মুক্তিযোদ্ধারা ১৯৭১ সালে মহান মুক্তিযুদ্ধে অংশগ্রহনের সময় রনাঙ্গনের নানা স্মৃতি নিয়ে কথা বলেছেন। তুলে ধরেছেন স্থানীয় জনগণের বিশেষ করে নারীদের সহযোগিতার কথা ও মুক্তিযুদ্ধে বাংলাদেশ উদীচী শিল্পীগোষ্ঠীর অবদানের কথা। 

আরও পড়ুন

আর্থিক সংকট মেটাতে বাড়ি ভাড়া দিচ্ছে পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী

চিত্রনায়িকা পরীমণি আটক হচ্ছেন!

পরীমণির বাসায় অজ্ঞাত ব্যক্তিদের হামলার দাবি, আতঙ্কে নায়িকা


 

সংগঠনের সভাপতি সুভাষ দাশ উপস্থিত সকলকে ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা জানিয়ে 'উদীচী এমনই এক আয়না' গানটি পরিবেশনের মাধ্যমে অনুষ্ঠানটির সমাপ্তি টানেন।

news24bd.tv/আলী

পরবর্তী খবর

বাংলাদেশকে ৫০টি অক্সিজেন কনসেনট্রেটর দেবে সিঙ্গাপুর

অনলাইন ডেস্ক

বাংলাদেশকে ৫০টি অক্সিজেন কনসেনট্রেটর দেবে সিঙ্গাপুর

মহামারি করোনাভাইরাস পরিস্থিতি মোকাবিলায় বাংলাদেশকে সহযোগিতা করতে এগিয়ে এসেছে সিঙ্গাপুর। সহযোগিতার প্রথম ধাপে বাংলাদেশকে ৫০টি স্বতন্ত্র উচ্চ ক্ষমতাসম্পন্ন অক্সিজেন কনসেনট্রেটর এবং ১৫ লাখ সার্জিকাল মাস্ক দিচ্ছে দেশটি।

জানা গেছে, গত কয়েক মাস ধরে বাংলাদেশ হাইকমিশন এ বিষয়ে সিঙ্গাপুর সরকারের দায়িত্বপ্রাপ্ত মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রী, কর্মকর্তা ও অন্যান্য বেসরকারি দাতব্য সংস্থাগুলোর প্রধানদের সঙ্গে আলোচনা করে আসছিল। কয়েক দফা আলোচনার পর সিঙ্গাপুর রেড ক্রস সোসাইটি বাংলাদেশকে অক্সিজেন কনসেনট্রেটরসহ জরুরি চিকিৎসা সামগ্রী পাঠানোর বিষয়ে সম্মত হয়।

আরও পড়ুন:


১১ তারিখ থেকে যানবাহন চলবে যে নিয়মে

৭, ৮, ৯ আগস্ট ভ্যাকসিন নেওয়ার সুযোগ দিচ্ছি: মোজাম্মেল হক

১১ আগস্টের পর ভ্যাকসিন ছাড়া ঘোরাফেরা করলে শাস্তি


সোমবার (২ আগস্ট) সিঙ্গাপুরের বাংলাদেশ হাইকমিশন একটি প্রতীকী আয়োজনের মাধ্যমে পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আব্দুল মোমেনের ভার্চুয়াল উপস্থিতিতে প্রথম ধাপের এ চিকিৎসা সামগ্রী হস্তান্তর অনুষ্ঠিত হয়।

news24bd.tv/আলী

পরবর্তী খবর

সিঙ্গাপুরে বাংলাদেশির ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার

অনলাইন ডেস্ক

সিঙ্গাপুরে বাংলাদেশির ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার

সিঙ্গাপুরে আশীষ মন্ডল (৩২) নামে এক প্রবাসী বাংলাদেশির ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। আজ সকালে কর্মস্থল ‘কালাং এমআরটি’ স্টেশনের (ইডব্লিউ ১০) কাছাকাছি কনস্ট্রাকশন সাইটে তার লাশটি উদ্ধার করা হয়।

প্রবাসীরা জানিয়েছেন, কনস্ট্রাকশন সাইটে শ্রমিকদের আবাসিক ভবনে বসবাস করতেন আশীষ মন্ডল। সেখানে তারা তাকে ফ্যানের সঙ্গে ঝুলন্ত দেখতে পায়। পরে পুলিশকে ফোন দেয়া হলে তারা এসে লাশ উদ্ধার করে স্থানীয় হাসপাতালের মর্গে নিয়ে গেছে।

তারা জানান, আশীষ মন্ডল সিঙ্গাপুরে ‘হক গুয়ান চেং বিল্ডার প্রাইভেট লিমিটেড কনস্ট্রাকশন’ কোম্পানিতে সাইট সুপারভাইজর হিসেবে দীর্ঘদিন কর্মরত ছিলেন।

আরও পড়ুন:


আবারও বাড়ল লকডাউন

জানানো হলো দোকানপাট খোলার তারিখ

টিকা নেওয়া ছাড়া কেউ অফিস-দোকান-ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে আসতে পারবে না


ঝালকাঠির রাজাপুর উপজেলার ব্যবসায়ী অরুণ মন্ডলের ছেলে আশিষ রাজাপুর পাইলট উচ্চ বিদ্যালয় থেকে ২০০৫ সালে এসএসসি পাস করে নির্মাণ শ্রমিকের কাজ নিয়ে সিঙ্গাপুরে আসেন।

মৃতের চাচা বরুন কুমার মনি মন্ডল জানান, মরদেহের ময়নাতদন্ত শেষে সিঙ্গাপুর থেকে বাংলাদেশে আনার প্রক্রিয়া চলছে। 

news24bd.tv নাজিম

পরবর্তী খবর