ইরানের পরমাণু সমঝোতা না ফিরতে বাইডেনের প্রতি পম্পেও’র আহ্বান
ইরানের পরমাণু সমঝোতা না ফিরতে বাইডেনের প্রতি পম্পেও’র আহ্বান

ইরানের পরমাণু সমঝোতা না ফিরতে বাইডেনের প্রতি পম্পেও’র আহ্বান

অনলাইন ডেস্ক

আবারও ইরানের পাশাপাশি পাশ্চাত্যের সঙ্গে ইরানের স্বাক্ষরিত পরমাণু সমঝোতার বিরুদ্ধে বক্তব্য দিয়েছেন সাবেক মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী মাইক পম্পেও। ইসরাইলি দৈনিক জেরুজালেম পোস্টকে দেয়া সাক্ষাৎকারে পম্পেও বলেছেন, ২০১৫ সালে ইরানের সঙ্গে পরমাণু সমঝোতায় সই করাই ছিল যুক্তরাষ্ট্রের একটি ভুল সিদ্ধান্ত।

এই সমঝোতায় ফিরে না যাওয়ার জন্য বর্তমান প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন তিনি। পম্পেও ইরানের বিরুদ্ধে কিছু ভিত্তিহীন অভিযোগ উত্থাপন করে বলেছেন, পরমাণু সমঝোতায় ওয়াশিংটনের ফিরে যাওয়াটা ‘বোকামি’ হবে।

সাবেক প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের শাসনামলে ইরানের বিরুদ্ধে ‘সর্বোচ্চ চাপ প্রয়োগের’ যে নীতি ওয়াশিংটন গ্রহণ করেছিল তার অন্যতম প্রবক্তা ছিলেন পম্পেও। ২০১৮ সালে আন্তর্জাতিক আইন লঙ্ঘন করে ট্রাম্প পরমাণু সমঝোতা থেকে বেরিয়ে গিয়ে তেহরানের বিরুদ্ধে সর্বোচ্চ চাপ প্রয়োগের নীতি গ্রহণ করেন।

ট্রাম্প ও পম্পেও আশা করেছিলেন, ইরানকে চাপের মধ্যে রাখলে দেশটি পরমাণু সমঝোতার পরিবর্তে অন্য কোনো চুক্তির জন্য আমেরিকার সঙ্গে আলোচনার টেবিলে আসতে বাধ্য হবে।

আরও পড়ুন


বরিশাল শের-ই বাংলা মেডিকেলে আজও ১২ জনের মৃত্যু

এসএসসি ও এইচএসসি পরীক্ষা কবে হবে জানালেন শিক্ষামন্ত্রী

শিমুলিয়া ঘাটে ঈদে ঘরমুখো মানুষের উপচে পড়া ভিড়

কুষ্টিয়ায় আজও ১৪ জনের মৃত্যু


কিন্তু সে আকাঙ্ক্ষা অন্তরে পুষে রেখেই গত ২০ জানুয়ারি আমেরিকার ক্ষমতা ছাড়তে হয়েছে ট্রাম্প ও পম্পেওকে। আর ইরানের বিরুদ্ধে সর্বোচ্চ চাপ প্রয়োগের নীতি ব্যর্থ হওয়ায় দেশের ভেতরে প্রচণ্ড সমালোচিত হয়েছেন সাবেক প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প ও তার পররাষ্ট্রমন্ত্রী পম্পেও।

বর্তমান মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন স্পষ্ট ভাষায় স্বীকার করেছেন ইরানের বিরুদ্ধে সর্বোচ্চ চাপ প্রয়োগের নীতি ব্যর্থ হয়েছে। তিনি ইরানের পরমাণু সমঝোতায় তার দেশকে ফিরিয়ে আনারও আগ্রহ প্রকাশ করেছেন; যদিও এখন পর্যন্ত এ ব্যাপারে কার্যকর কোনো পদক্ষেপ তার প্রশাসন নেয়নি। সূত্র: পার্সটুডে।

news24bd.tv এসএম