নৌপথে যাত্রী ও যানবাহনের প্রচণ্ড চাপ
নৌপথে যাত্রী ও যানবাহনের প্রচণ্ড চাপ

নৌপথে যাত্রী ও যানবাহনের প্রচণ্ড চাপ

অনলাইন ডেস্ক

সরকারি বিধিনিষেধ শেষ হওয়ায় ঈদের আগেই রাজধানী ঢাকা ছাড়তে শুরু করেছে দক্ষিণাঞ্চলের ২১ জেলার মানুষ। এতে আজ বৃহস্পতিবার সকাল থেকে মুন্সিগঞ্জের শিমুলিয়া ও মাদারীপুরের বাংলাবাজার নৌপথে যাত্রী ও যানবাহনের প্রচণ্ড চাপ বেড়েছে। ফেরি ও লঞ্চে যাত্রীদের চাপ সামলাতে হিমশিম খেতে হয় দুই ঘাট কর্তৃপক্ষকে।

শিমুলিয়া ফেরিঘাট ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, সামনে ঈদুল আজহা ও আগামীকাল সাপ্তাহিক ছুটির দিন।

তাই সকাল থেকেই শিমুলিয়া ঘাট হয়ে দক্ষিণ অঞ্চলের দিকে যাত্রা করে ২১ জেলার মানুষ। গতকাল বুধবার রাত থেকেই এ ঘাটে চাপ বাড়তে থাকে। আজ সকালে ঘাটে হঠাৎ যানবাহনের চাপ কয়েক গুণ বেড়ে যায়।

আরও পড়ুন


ঝিনাইদহে করোনা ও উপসর্গ নিয়ে ৭ জনের মৃত্যু

১৬ জুলাই: কারারুদ্ধ শেখ হাসিনা ও অবরুদ্ধ গণতন্ত্র

করোনা যতোদিন থাকবে খাদ্য সহায়তা দেয়া হবে: হানিফ

অনলাইনে ট্রেনের টিকিট কাটার ভোগান্তি স্বাভাবিক: রেলমন্ত্রী


শিমুলিয়া-ভাঙা মোড় দিয়ে যাত্রী ও পরিবহনগুলো ঘাটের দিকে ছুটছে। ফেরিঘাটের প্রতিটি সংযোগ সড়কেই যানবাহনের সারি। পার্কিং ইয়ার্ড ও নৌপুলিশ মাঠেও যানবাহনের জটলা। লঞ্চ ও স্পিডবোট ঘাটে যাত্রী পারাপারে সরগরম। ফেরিঘাটে পারাপারের অপেক্ষায় ব্যক্তিগত গাড়ি, পরিবহন ও মালবাহী ট্রাক।

সকালের দিকে বাড়ির পথের যাত্রীরা বলেন,  বিধিনিষেধ শিথিল হয়েছে। সামনে ঈদ। সবাই বাড়িতে ফিরবে। তখন ভিড় আরও বাড়বে। তাই পরিবারের অন্য সদস্যদের নিয়ে যশোরে গ্রামের বাড়ি যাচ্ছেন তিনি।
জোসনা বেগম নামের এক নারী বলেন, তাঁর বোন অসুস্থ। বিধিনিষেধের আগে রাজধানীর রামপুরায় বোনকে দেখতে গিয়েছিলেন। যানবাহন ও নৌ চলাচল শুরু হয়েছে। তাই গ্রামের বাড়ি ফরিদপুর সদরে যাচ্ছেন তিনি।

news24bd.tv/এমিজান্নাত