২২ দিন পর আবার ট্রেন চলাচল শুরু
২২ দিন পর আবার ট্রেন চলাচল শুরু

২২ দিন পর আবার ট্রেন চলাচল শুরু

অনলাইন ডেস্ক

১৭ দিন পর বন্দর নগরি চট্টগ্রামে আবারও সড়কে চলছে গণপরিবহন।   অর্ধেক যাত্রী আর বর্ধিত ভাড়া নিয়ে বুধবার (১৪ জুলাই) মধ্যরাত থেকে গণপরিবহন চলাচল শুরু হয় চট্টগ্রামে। বৃহষ্পতিবার সকাল ৭ থেকে চট্টগ্রাম-ঢাকা- মাঙ্গুরা, খুলনা, বেনাপুলসহ দেশের বিভিন্ন স্থানে যাত্রীদের উপস্থিতি দেখা যায় কাউন্টারে।   

তবে স্থানীয় গণপরিবহনে যাত্রীদের ভিড় থাকলেও তেমন ভিড় ছিলনা দুর-পাল্লার বাসগুলোতে।

তাই অর্ধে যাত্রী ছাড়া ছেড়েছে অনেকবাস। তবে যাত্রীরা মাস্ক পড়লেও স্বাস্থ্য সুরক্ষায় বাস কাউন্টারে ছিলনা তেমন কোন ব্যবস্থা অভিযোগ যাত্রীদের।

গত ২৮ জুন থেকে সীমিত এবং ১ জুলাই থেকে সরকার ঘোষিত কঠোর লকডাউনের শুরুর দিন থেকেই গণপরিবহন বন্ধ ছিলো।

দীর্ঘ লকডাউনের পর সচল হয়েছে যানবাহনের চাকা। তবে ছিল না স্বাস্থ্যবিধি মানার বালাই। মাস্ক থাকলেও তা ছিল না মুখে। অন্যসময় পরিবহন মালিক শ্রমিকদের তৎপর দেখা গেলেও এদিন কাউকে দেখা যায়নি। তবে ভাড়া বেশি  নেয়া হচ্ছে না বলে দাবি শ্রমিকদের।

যশোরের ১৮টি রুটে চালু হয়েছে দুর পাল্লার গাড়ি। তবে যাত্রি অর্ধেক নিয়ে ভাড়া ৬০ ভাগ নেওয়ার কথা থাকলেও অনেক স্থানে তা মানা হচ্ছে না। অন্যদিকে পুরোপুরি স্বাস্থ্যবিধিও মানা হচ্ছে না। তবে পরিবন শ্রমিকরা বলছেন, যাত্রীদের স্বাস্থ্যবিধি মানাতে বিভিন্ন পদক্ষেপ নিয়েছেন।

এদিকে লকডাউন শিথিল হওয়ায় শহরে রীতিমত জানজটের সৃষ্টি হয়েছে। এতেও ভোগান্তিতে পড়েছেন সাধারণ মানুষ।

করোনার ভয়াবহতার মধ্যেও ঈদুল আজহা উপলক্ষে  বিধি নিষেধ শিথিল হওয়ায় আজ সকাল থেকে শুরু হয়েছে ট্রেন চলাচল। সকাল সাতটায় সূবর্ণ এক্সপ্রেস স্বাস্থ্যবিধি মেনে শিডিউল বিপর্যয় ছাড়াই চট্টগ্রাম ছেড়েছে অর্ধেক যাত্রী  নিয়ে। স্টেশন ম্যানেজার বলছেন, কাউন্টারে কোন টিকেট নেই। পুরোপুরি অনলাইনে টিকিট কাটলেও সব ট্রেনের টিকিট বিক্রি হয়েছে। যাত্রীরাও ঈদে বাড়ি যেতে পেরে খুশি। লকডাউনে ৩০ জুন থেকে ট্রেন চলাচল বন্ধ হয়ে যায়। ১৭ দিন পর ট্রেন চলাচল।

আরও পড়ুন


ঝিনাইদহে করোনা ও উপসর্গ নিয়ে ৭ জনের মৃত্যু

১৬ জুলাই: কারারুদ্ধ শেখ হাসিনা ও অবরুদ্ধ গণতন্ত্র

নৌপথে যাত্রী ও যানবাহনের প্রচণ্ড চাপ

অনলাইনে ট্রেনের টিকিট কাটার ভোগান্তি স্বাভাবিক: রেলমন্ত্রী


গতকাল রাত  ১২ টা থেকে চট্টগ্রাম থেকে ছেড়ে গেছে দূরপাল্লার বাসও। সকাল থেকে চলছে গণপরিবহনও।

এদিকে দায়সারাভাবে স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলছে সিলেটের গণপরিবহন। দূরপাল্লার বাসগুলোতে স্বাস্থ্যবিধি কিছুটা মেনে চললেও এ ব্যপারে লোকাল সার্ভিস  একেবারেই উদাসীন। সচেতনতামূলক কোন কার্যক্রম না থাকার পাশাপাশি রয়েছে অতিরিক্ত ভাড়া আদায়ের অভিযোগ।

news24bd.tv/এমিজান্নাত