কর্মস্থলে হিজাব নিষিদ্ধের রায়

অনলাইন ডেস্ক

কর্মস্থলে হিজাব নিষিদ্ধের রায়

ইউরোপীয় ইউনিয়নের উচ্চ আদালত এক রায়ে বলছে , শর্ত সাপেক্ষে ইউরোপের বিভিন্ন কোম্পানিগুলো তাদের মুসলিম কর্মচারীদের হিজাব পরা নিষিদ্ধ করতে পারবে। গত বৃহস্পতিবার (১৫ জুলাই) এ রায় দেয়া হয়।

স্থানীয় সংবাদমাধ্যমের খবর অনুযায়ী, জার্মানির দুই মুসলিম নারীর করা মামলার প্রেক্ষিতে এ রায় দিয়েছে আদালত। ওই দু’নারীকে ইসলাম অনুসারে হিজাব পরার কারণে চাকরি থেকে বরখাস্ত করা হয়েছে।

ইউরোপীয় ইউনিয়নের উচ্চ আদালত বলেছে, সামজিক বিভেদ ও বিতর্ক দূর করতে আর খদ্দেরদের কাছে নিরপেক্ষ ভাবমূর্তি রক্ষায় (কোম্পানিগুলোর) মালিকপক্ষ কর্মক্ষেত্রে ধর্মীয় পোশাকের ওপর নিষেধাজ্ঞা আরোপ করতে পারবে। শুধু ধর্মীয় নয় রাজনৈতিক আর দার্শনিক চিন্তা প্রকাশ করে এমন পোশাকের ক্ষেত্রে মালিক পক্ষ তাদের স্বার্থ অনুসারে পদক্ষেপ নেবে।


গরুর দাম নিয়ে প্রতিক্রিয়া কী

৮০ শতাংশ মানুষকে ভ্যাকসিন দেওয়ার কথা ভাবছে সরকার

গ্রামে ফিরে যাচ্ছেন ফুটপাতের ব্যবসায়ীরা

আজ আসছে ১০ লাখ ডোজ, কাল আরও ১০


 

রায়ে আরও বলা হয়, কোম্পানিগুলোর মালিকরা কর্মক্ষেত্রে তাদের নিজেদের প্রকৃত স্বার্থ রক্ষার্থে কোনো সিদ্ধান্ত নিলে তা বৈধ। এ ক্ষেত্রে বিভিন্ন অধিকার ও স্বার্থের সমন্বয় ঘটাতে হবে। এসব বিষয়ে বিভিন্ন দেশের জাতীয় আদালত তাদের রাজ্যগুলোর বিষয়েও সিদ্ধান্ত নিতে পারবে। বিশেষ করে দেশগুলোর ধর্মীয় স্বাধীনতা নীতি অনুসারে সিদ্ধান্ত নিতে পারবে তারা।

প্রসঙ্গত, বহু বছর ধরেই ইউরোপে হিজাব নিয়ে বিতর্ক চলছে। এরই মধ্যে ইউরোপের ১০ দেশ হিজাব নিষিদ্ধও করেছে। 

news24bd.tv/আলী

পরবর্তী খবর

‘যুক্তরাষ্ট্র পরমাণু সমঝোতাকে পণবন্দি হিসেবে ব্যবহার করছে’

অনলাইন ডেস্ক

‘যুক্তরাষ্ট্র পরমাণু সমঝোতাকে পণবন্দি হিসেবে ব্যবহার করছে’

আইএইএ’তে নিযুক্ত ইরানের স্থায়ী প্রতিনিধি কাজেম গরিবাবাদি অস্ট্রিয়ার রাজধানী ভিয়েনায় পাশ্চাত্যের সঙ্গে ইরানের চলমান পরমাণু সমঝোতা পুনরুজ্জীবনের আলোচনার একাংশ উন্মোচন করেছেন। তিনি বলেছেন, ওয়াশিংটন তেহরানকে ক্ষেপণাস্ত্র কর্মসূচি ও মধ্যপ্রাচ্য বিষয়ক আলোচনায় বসতে বাধ্য করার জন্য পরমাণু সমঝোতাকে পণবন্দি হিসেবে ব্যবহার করছে।

গতকাল বুধবার এক সাক্ষাৎকারে তিনি বলেন, মার্কিনীরা দাবি করছে যে, তারা পরমাণু সমঝোতায় ফিরে আসতে এবং ওই সমঝোতার সঙ্গে সাংঘর্ষিক সব নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহার করতে প্রস্তুত। কিন্তু ভিয়েনা সংলাপে তাদের শর্ত আরোপের চেষ্টা এর উল্টো চিত্র তুলে ধরছে।

গরিবাবাদি বলেন, ক্ষেপণাস্ত্র কর্মসূচি ও মধ্যপ্রাচ্যে নিজের প্রভাব ইরানের শক্তিমত্তার উপকরণ এবং এই দুই বিষয়ে তেহরান কখনো আলোচনা করবে না।

ইরানের এই কূটনীতিক বলেন, যুক্তরাষ্ট্র এখন পর্যন্ত তার দেশের ওপর থেকে নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহার করতে এবং সাবেক মার্কিন প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের মতা পরমাণু সমঝোতা থেকে আবার বেরিয়ে না যাওয়ার গ্যারান্টি দিতে অস্বীকৃতি জানিয়েছে। এছাড়া, এই সমঝোতা নিয়ে চলমান অচলাবস্থার জন্য আমেরিকার বিদ্বেষী ও ধ্বংসাত্মক আচরণই যে দায়ী সেকথা স্বীকার করতেও ওয়াশিংটন রাজি হচ্ছে না।

আরও পড়ুন


বগুড়ায় একদিনে ১৩০০ পরিবারকে ত্রাণ দিল বসুন্ধরা গ্রুপ

আফগানিস্তান পরিস্থিতিকে নাজুক করে দিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র: ইমরান খান

করোনায় আক্রান্ত মরিয়ম নওয়াজ

ইরান ও সিরিয়া সন্ত্রাসবাদের মূলোৎপাটন পর্যন্ত লড়বে: আসাদ


ইরানের সর্বোচ্চ নেতা আয়াতুল্লাহিল উজমা খামেনেয়ীর বুধবারের এক ভাষণের পর গরিবাবাদি এসব কথা বললেন।  সর্বোচ্চ নেতা তার ভাষণে বলেন, ভিয়েনায় পরমাণু সমঝোতা পুনরুজ্জীবনের সংলাপ প্রসঙ্গে বলেন, “মার্কিনীরা নির্লজ্জভাবে মিথ্যা বলে ও প্রতিশ্রুতি ভঙ্গ করে।চুক্তি ভঙ্গ করতে তাদের জুড়ি নেই এবং এ কাজ করতে তাদের হাত বিন্দুমাত্র কাঁপে না। কোনো ধরনের লোকলজ্জার ভয় না করেই তারা পরমাণু সমঝোতা থেকে বেরিয়ে গেছে। এবার পরমাণু সমঝোতা পুনরুজ্জীবনের সংলাপে যখন বলা হচ্ছে, ভবিষ্যতে তোমরা আবার যে এ সমঝোতা লঙ্ঘন করবে না তার প্রতিশ্রুতি দাও। কিন্তু তারা সে প্রতিশ্রুতি দিতে পরিষ্কারভাবে অস্বীকার করছে।”

সর্বোচ্চ নেতার এ বক্তব্যে একথার ইঙ্গিত পাওয়া যায় যে, ভিয়েনা সংলাপে অবমাননাকর কোনো শর্ত মেনে পরমাণু সমঝোতা পুনরুজ্জীবিত করতে রাজি হবে না ইরান।

২০১৫ সালে ইরানের সঙ্গে পরমাণু সমঝোতায় সই করে আমেরিকাসহ ছয় বিশ্বশক্তি। কিন্তু ২০১৮ সালে বিনা কারণে সেই সমঝোতা থেকে আমেরিকা বেরিয়ে যায়। এখন তাতে ফিরে আসার জন্য উল্টো নির্লজ্জভাবে ইরানের ওপর শর্ত আরোপের চেষ্টা করছে ওয়াশিংটন। সূত্র: পার্সটুডে।

news24bd.tv এসএম

পরবর্তী খবর

আফগানিস্তান পরিস্থিতিকে নাজুক করে দিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র: ইমরান খান

অনলাইন ডেস্ক

আফগানিস্তান পরিস্থিতিকে নাজুক করে দিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র: ইমরান খান

আফগানিস্তানের পরিস্থিতি আগে থেকে খারাপ ছিল এবং যুক্তরাষ্ট্র যথাযথ অর্থেই এই পরিস্থিতিকে আরো খারাপ করে রেখে গেছে বলে মন্তব্য করেছেন পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান। গতকাল বুধবার মার্কিন নিউজ চ্যানেল পিবিএস’কে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে এই মন্তব্য করেন।

তিনি বলেন, তালেবানের সঙ্গে তখন আলোচনা করতে হতো যখন আফগানিস্তানে ন্যাটো জোটের দেড় লাখ সেনা মোতায়েন ছিল। ইমরান খান বলেন, এখন যখন ১০ হাজারেরও কম সেনা রয়েছে এবং তাদেরও চলে যাওয়ার তারিখ চূড়ান্ত হয়েছে তখন তালেবানকে রাজনৈতিক সমঝোতায় বাধ্য করা দুরূহ ব্যাপার; কারণ, তালেবান এ যুদ্ধে নিজেদেরকে বিজয়ী ভাবছে।

দুই সপ্তাহ আগে আফগান প্রেসিডেন্ট মোহাম্মাদ আশরাফ গনি অভিযোগ করেছিলেন, সাম্প্রতিক সময়ে পাকিস্তান থেকে প্রায় ১০ হাজার জঙ্গি আফগানিস্তানে প্রবেশ করেছে। এ সংক্রান্ত প্রশ্নের জবাবে ইমরান খান বলেন, পাকিস্তানে প্রায় ৩০ লাখ আফগান নাগরিক বসবাস করে যাদের অনেকেই তালেবানের জাতিগোষ্ঠীর লোক; বিশেষ করে পশতুন জনগোষ্ঠী।আফগানরা পাকিস্তানের যেসব ক্যাম্পে বসবাস করে সেগুলোতে ৫০ হাজার থেকে এক লাখ পর্যন্ত মানুষের বসবাস। পাকিস্তানের পক্ষে কীভাবে তাদের খোঁজখবর রাখা সম্ভব?

আরও পড়ুন


করোনায় আক্রান্ত মরিয়ম নওয়াজ

ইরান ও সিরিয়া সন্ত্রাসবাদের মূলোৎপাটন পর্যন্ত লড়বে: আসাদ

সম্পাদক পরিষদ থেকে পদত্যাগের কারণ জানালেন নঈম নিজাম

জিম্বাবুয়ে সফল মিশন শেষ করে দেশে পৌঁছেছে টাইগাররা


পাক প্রধানমন্ত্রী বলেন, এখন আফগান সংকট সমাধানের একমাত্র উপায়ে দেশটির সরকারের সঙ্গে তালেবানের একটি রাজনৈতিক সমঝোতায় উপনীত হওয়া। তিনি বলেন, আফগানিস্তানে যুদ্ধ চলতে থাকলে পাকিস্তানকে দু’টি বিষয়ের মোকাবিলা করতে হবে। এক, আবার পাকিস্তানে আফগান শরণার্থীদের ঢল নামবে কিন্তু সেরকম পরিস্থিতি সামাল দেয়ার মতো অর্থনৈতিক পরিস্থিতি পাকিস্তানের নেই। দ্বিতীয় বিষয় হচ্ছে, পাকিস্তানে আফগানিস্তানের চেয়ে বেশি পশতুন বসবাস করে। যুদ্ধ চলতে থাকলে পাকিস্তানি পশতুনরা বসে থাকবে না বরং তাদের এ যুদ্ধে জড়িয়ে যাওয়ার জোর সম্ভাবনা রয়েছে।

সাম্প্রতিক সময়ে আফগান সরকার অভিযোগ করছে যে, দেশটির সেনাবাহিনীর বিরুদ্ধে যুদ্ধে তালেবানকে পৃষ্ঠপোষকতা দিচ্ছে পাকিস্তান; কিন্তু এই অভিযোগ কঠোর ভাষায় প্রত্যাখ্যান করেছে ইসলামাবাদ। সূত্র: পার্সটুডে।

news24bd.tv এসএম

পরবর্তী খবর

অ্যান্টনি ব্লিনকেন: আফগানিস্তানে সেনা প্রত্যাহারের পর নৃশংসতা চালাচ্ছে তালেবান

অনলাইন ডেস্ক

অ্যান্টনি ব্লিনকেন: আফগানিস্তানে সেনা প্রত্যাহারের পর নৃশংসতা চালাচ্ছে তালেবান

আফগানিস্তান থেকে বিদেশি সেনা প্রত্যাহার থেকেই সেখানে সাধারণ মানুষকে লক্ষ্য করে নৃশংসতা চালাচ্ছে তালেবান। তালেবান যে কর্মকাণ্ড শুরু করেছে তা খুবই মর্মান্তিক বলে মন্তব্য করেছেন মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী অ্যান্টনি ব্লিনকেন। 

মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী সতর্ক করে বলেন, অব্যাহত নৃশংসতা চালিয়ে গেলে আফগানিস্তান অস্পৃশ্য দেশে পরিণত হবে।

হুঁশিয়ারি দিয়ে তিনি আরও বলেন, তালেবান যোদ্ধারা জোর করে ক্ষমতা দখল করলে তারা কখনোই আন্তর্জাতিক স্বীকৃতি পাবে না। আফগানিস্তান থেকে সেনা প্রত্যাহারের পর সেখানে নিরাপত্তা ক্রমেই ভেঙে পড়ছে। অনেক সীমান্ত ক্রসিং এবং একের পর এক জেলা তালেবান দখল করে নিচ্ছে। 

আরও পড়ুন:


আজ বিকেলে ঢাকায় আসছে অস্ট্রেলিয়া ক্রিকেট দল

ব্যবসায়িক চুক্তিভঙ্গের অভিযোগে রাজ-শিল্পাকে জরিমানা

টি-স্পোর্টসে আজকের খেলা

পেন্টাগনের তথ্যমতে, আফগানিস্তানের জেলাগুলোর অর্ধেকের বেশিই তালেবানের নিয়ন্ত্রণে চলে গেছে।

এদিকে, চীনে সফরে রয়েছে আফগান তালেবান গোষ্ঠীর ৯ সদস্যের একটি  দল। সেখানে গোষ্ঠীটি জানায়, আফগানিস্তানের মাটি চীনের বিরুদ্ধে ব্যবহার করতে দেওয়া হবে না।

news24bd.tv রিমু  

পরবর্তী খবর

করোনায় আক্রান্ত মরিয়ম নওয়াজ

অনলাইন ডেস্ক

করোনায় আক্রান্ত মরিয়ম নওয়াজ

করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন পাকিস্তানের তিনবারের প্রধানমন্ত্রী নওয়াজ শরিফের মেয়ে এবং দেশটির প্রধান বিরোধী দল পাকিস্তান মুসলিম লীগের (পিএমএল-এন) ভাইস প্রেসিডেন্ট মরিয়ম নওয়াজ।

মরিয়ম নওয়াজের দল পাকিস্তান মুসলিম লীগের মুখপাত্র মরিয়ম আওরঙ্গজেব এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন। পাকিস্তানের প্রভাবশালী গণমাধ্যম দ্যা ডনের খবরে এমনটিই বলা হয়েছে।

এক টুইট বার্তায় মরিয়ম নওয়াজ নিজেও করোনায় আক্রান্তের বিষয়টি সবাইকে জানিয়েছেন।

এদিকে করোনা আক্রান্ত হলেও ভাল আছেন মরিয়ম। বর্তমানের তিনি কোয়ারিন্টিনে আছেন। চিকিৎসকরা জানিয়েছেন মরিয়ম নওয়াজের শারীরিক অবস্থা ভাল। কোন রকম জটিলতা নেই।

পাকিস্তান নিয়ন্ত্রিত আজাদ কাশ্মীরে গত ২৫ জুলাই অনুষ্ঠিত ভোটে নির্বাচনী প্রচারাভিযান চালাতে গিয়ে ঠাণ্ডা ও জ্বরে আক্রান্ত হন পাকিস্তান মুসলিম লীগের এই ভাইস প্রেসিডেন্ট।

আরও পড়ুন


ইরান ও সিরিয়া সন্ত্রাসবাদের মূলোৎপাটন পর্যন্ত লড়বে: আসাদ

সম্পাদক পরিষদ থেকে পদত্যাগের কারণ জানালেন নঈম নিজাম

জিম্বাবুয়ে সফল মিশন শেষ করে দেশে পৌঁছেছে টাইগাররা

সারা বিশ্বে করোনায় মৃত্যু ৪২ লাখ ছাড়াল


পরে করোনার নমুনা পরীক্ষা করা হলে বুধবার তার রেজাল্ট পজেটিভ আসে। পাকিস্তান মুসলিম লীগের প্রেসিডেন্ট ও মরিয়ম নওয়াজের চাচা শেহবাজ শরিফ তার সুস্থতার জন্য দেশবাসীর কাছে দোয়া চেয়েছেন।

পাকিস্তানে গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে ৪ হাজার ১১৯ জন করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। গত মে মাসের পর এই প্রথম দৈনিক সংক্রমণ ৪ হাজার পার হলো।

news24bd.tv এসএম

পরবর্তী খবর

ইরান ও সিরিয়া সন্ত্রাসবাদের মূলোৎপাটন পর্যন্ত লড়বে: আসাদ

অনলাইন ডেস্ক

ইরান ও সিরিয়া সন্ত্রাসবাদের মূলোৎপাটন পর্যন্ত লড়বে: আসাদ

ইরানকে সিরিয়ার ‘প্রধান সহযোগী’ উল্লেখ করে সিরিয়ার প্রেসিডেন্ট বাশার আল-আসাদ বলেছেন, সন্ত্রাসী গোষ্ঠীগুলোর মূলোৎপাটন পর্যন্ত দু’দেশ যৌথভাবে সন্ত্রাসবাদের বিরুদ্ধে লড়াই চালিয়ে যাবে।

সিরিয়া সফররত ইরানের সংসদ স্পিকার মোহাম্মাদ-বাকের কলিবফ বুধবার দামেস্কে প্রেসিডেন্ট আসাদের সঙ্গে সাক্ষাৎ করতে গেলে এ মন্তব্য করেন তিনি। এসময় তিনি বলেন, সন্ত্রাসবাদের বিরুদ্ধে যুদ্ধে ইরান সত্যিকার অর্থে সিরীয় জনগণের পাশে দাঁড়িয়েছে এবং সর্বাত্মক সহযোগিতা দিয়েছে।

সিরিয়ার প্রেসিডেন্ট বলেন, সন্ত্রাসবাদের বিরুদ্ধে দু’দেশের যৌথ যুদ্ধ ইতিবাচক ফল দিয়েছে এবং সন্ত্রাসী গোষ্ঠীগুলোর হাত থেকে সিরিয়ার প্রতি ইঞ্চি ভূমি পুনরুদ্ধার না করা পর্যন্ত এ যুদ্ধ চলবে।

সাক্ষাতে ইরানের সংসদ স্পিকার তার দেশের পাশাপাশি সিরিয়ায় অনুষ্ঠিত সাম্প্রতিক প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের প্রতি ইঙ্গিত করে বলেন, এসব নির্বাচনে ইরান ও সিরিয়ার জনগণ প্রমাণ করেছে, চাপ প্রয়োগ করে তাদেরকে কাবু করা যাবে না। দুই দেশের জনগণের ইচ্ছার বিরুদ্ধে গিয়ে বিশ্বের কোনো শক্তিই সফলতা লাভ করতে পারবে না।

আরও পড়ুন


সম্পাদক পরিষদ থেকে পদত্যাগের কারণ জানালেন নঈম নিজাম

জিম্বাবুয়ে সফল মিশন শেষ করে দেশে পৌঁছেছে টাইগাররা

সারা বিশ্বে করোনায় মৃত্যু ৪২ লাখ ছাড়াল

কভিড-১৯ টিকা উৎপাদনে বাংলাদেশকে অগ্রাধিকার দেবে যুক্তরাষ্ট্র


সাক্ষাতে সিরিয়ার প্রেসিডেন্ট ও ইরানের পার্লামেন্ট স্পিকার দ্বিপক্ষীয় সহযোগিতার পাশাপাশি আঞ্চলিক ও আন্তর্জাতিক পরিস্থিতি নিয়ে আলোচনা ও মতবিনিময় করেন।

মোহাম্মাদ-বাকের কলিবফ ইরানের একটি সংসদীয় প্রতিনিধিদল নিয়ে মঙ্গলবার সিরিয়ার রাজধানী দামেস্কে পৌঁছান। তেহরান ও দামেস্কের মধ্যে অর্থনৈতিক সহযোগিতা শক্তিশালী করা হচ্ছে তার এ সফরের অন্যতম লক্ষ্য। সূত্র: পার্সটুডে।

news24bd.tv এসএম

পরবর্তী খবর