ইনজেকশন নিয়ে খেলেছেন স্টোকস
ইনজেকশন নিয়ে খেলেছেন স্টোকস

ইনজেকশন নিয়ে খেলেছেন স্টোকস

অনলাইন ডেস্ক

করোনার থাবায় পাকিস্তানের বিপক্ষে ওয়ানডে সিরিজের আগে ইংল্যান্ডের গোটা দলকে আইসোলেশনে যেতে হয়।
এরপর বেন স্টোকসকে অধিনায়কের দায়িত্ব দিয়ে নতুন দল নিয়ে তিন ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজে পাকিস্তানকে হোয়াইটওয়াশ করে ইংলিশরা। গোটা সিরিজ জুড়েই আঙুলের চোটে নিয়ে খেলে গেছেন স্টোকস।

প্রথমবারের মতো সংক্ষিপ্ত সংস্করণের অধিনায়কত্ব পেয়েই দারুণ সফল স্টোকস।

দ্বিতীয় সারির দল নিয়ে পাকিস্তানের বিপক্ষে সিরিজ জিতেছেন ৩-০ ব্যবধানে।  

গত এপ্রিলে ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগে (আইপিএল) রাজস্থান রয়্যালের হয়ে খেলার সময় বাম হাতের একটি আঙুল ভেঙে যায় স্টোকসের। এরপর দীর্ঘদিন মাঠের বাইরে ছিলেন। মাঝে ফিরে টোয়েন্টি ব্লাস্টে ৬টি ম্যাচ খেললেও পুরোপুরি সেরে ওঠেননি তখনও।

চলতি মাসে (জুলাই) পাকিস্তানের বিপক্ষে সিরিজের আগে অধিনায়ক ইয়ন মরগানসহ দলের সবাইকে আইলোসেশনে যেতে হলে দলকে নেতৃত্ব দেওয়ার জন্য ডাক পড়ে স্টোকসের। জাতীয় দলকে নেতৃত্ব দেওয়া যেকোনো খেলোয়াড়ের জন্যই বহুল আকাঙ্ক্ষিত ব্যাপার। তাই ইঞ্জুরি নিয়েই মাঠে নামার সিদ্ধান্ত নেন তিনি।

ব্রিটিশ গণমাধ্যম ডেইলি মিরর এ লেখা নিজের কলামে স্টোকস বলেন, ‘এটা আমার জন্য সম্পূর্ণ অপ্রত্যাশিত একটা সিরিজ ছিল। সত্যি বলতে, আমার বাম হাতে যে পরিমাণ ব্যথা ছিল, সাধারণ পরিস্থিতিতে আমি কখনই খেলতাম না। আইপিএলে আঙুল ভাঙার পর অস্ত্রোপচার সফল হয়েছিল। কিন্তু তখনও বেশ ব্যথা ছিল। ’

‘মাঝেমধ্যে কেবল হাসিমুখে এসব সহ্য করতে যায়। এবং ইংল্যান্ডকে নেতৃত্ব দেওয়াটা তেমনই একটি কারণ। বলতে গেলে, আঘাত পাওয়া আঙ্গুলটি সেরে গেছে। কিন্তু প্রচন্ড ব্যথা ছিল, তাই গ্রীষ্মকালীন মৌসুমের বাকি সময় ব্যথা কমানোর জন্য আমাকে ইনজেকশন নিতে হয়েছে। ’

news24bd.tv/আলী

;