ঢাকা-টাঙ্গাইল ও ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়কে আজও যাত্রী ও গণপরিবহনের চাপ

মোহাম্মদ আল-আমীন, গাজীপুর

ঢাকা-টাঙ্গাইল ও ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়কে আজও যাত্রী ও গণপরিবহনের চাপ

ঈদুল আজহা উপলক্ষে বাড়ি ফিরছে সাধারন মানুষ। আর দীর্ঘ লকডাউনের পর ছুটি হওয়ায় এবার রাস্তায় মানুষও বেশি। ফলে গাজীপুরে ঢাকা-টাঙ্গাইল ও ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়কে আজ সকাল থেকে যাত্রীর চাপ অব্যাহত রয়েছে।

গাজীপুরের চান্দনা চৌরাস্তা ও কোনাবাড়ি, চন্দ্রা ত্রিমোড় এলাকায় উত্তরবঙ্গ গামী বিভিন্ন গন্তব্যে যাত্রীদের উপচে পড়া ভিড় লক্ষ্য করা গেছে।

যাত্রীবাহী পরিবহন গুলোতে কোন ধরনের স্বাস্থ্যবিধি মানা হচ্ছে না। করোনাভাইরাস প্রতিরোধে বাস গুলোতে একটি সিট খালি রাখার সরকারি নির্দেশনা থাকলেও চালক ও হেলপার তা মানছে না। ঈদে ঘরমুখো মানুষের চাপ বেশি থাকার কারণেই এ অবস্থার সৃষ্টি হয়েছে বলে দাবি পরিবহন সংশ্লিষ্টদের।

তবে আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারি বাহিনী মহাসড়ক গুলোতে যানজট এড়াতে ও যাত্রীদের নিরাপদ যাত্রা নিশ্চিত করতে কাজ করছে বলে জানান হাইওয়ে পুলিশ।

গাজীপুর সালনা হাইওয়ে ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মীর গোলাম ফারুক জানায়, "গাজীপুরে যানজট নিরসনে হাইওয়ে পুলিশসহ ১০৩ জন সদস্য কাজ করছে। এখানে ১৫টি পয়েন্ট রয়েছে। আমরা মাস্ক ও স্যানিটাইজার দিয়ে যাত্রী ও গাড়ি চালককে সহায়তা করছি।"

তিনি আরও জানান, "আমরা কাউন্টারে কাউন্টারে বলে দিচ্ছি যাতে সকলে স্বাস্থ্য বিধি মেনে গাড়িতে ওঠে। আর যারা স্বাস্থ্য বিধি না মানছে তাদের বিরুদ্ধে আমরা ব্যবস্থা নিচ্ছি। অপর দিকে রাস্তায় যানজট নেই। তবে যাত্রী চাপ রয়েছে। বেলা বাড়ার সাথে সাথে যাত্রীর চাপ আরও বাড়বে বলে আশংকা করছি। তাছাড়া যে সকল চালক গাড়ি বাড়া বেশি নিচ্ছে তাদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নিচ্ছি।

আরও পড়ুন:

সৌদির সঙ্গে মিল রেখে দেশের বিভিন্ন এলাকায় আগামীকাল ঈদ

ফাঁস হলো বিশ্বের গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তিদের স্মার্টফোনে আড়িপাতার ঘটনা

যে বাঙালি আলেম হজের খুতবা অনুবাদ করবেন

কান চলচ্চিত্র আসরে টপ মডেল বাংলাদেশি মেয়ে প্রিয়তি

গাজীপুর হাইওয়ের পুলিশ সুপার মো. আলী আহমদ খান জানিয়েছেন, ঢাকা-টাঙ্গাইল ও ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়কে বিভিন্ন পয়েন্টে জেলা পুলিশ, হাইওয়ে পুলিশ ও মেট্টোপটিন পুলিশের কর্মকর্তা সহ সাত শতাধিক সদস্য ঘরমুখো মানুষের যাত্রা নির্বিঘ্ন করতে কাজ করছে। ২৪ ঘণ্টা মহাসড়কে অবস্থান করে যাত্রীদের সার্বক্ষণিক নিরাপত্তা দিচ্ছেন পুলিশ প্রশাসন।

news24bd.tv রিমু 

পরবর্তী খবর

গৌরীপুরের যুবদল নেতা এখন ঢাকায় প্রজন্মলীগের সভাপতি!

সৈয়দ নোমান, ময়মনসিংহ

গৌরীপুরের যুবদল নেতা এখন ঢাকায় প্রজন্মলীগের সভাপতি!

ময়মনসিংহের গৌরীপুর উপজেলার এক সময়ের যুবদলের সক্রিয় নেতা মাহমুদুল হোসেন রাসেল এখন ঢাকা মহানগর উত্তরের প্রজন্মলীগের সভাপতি!

মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক প্রজন্মলীগের নয়া পরিচয়ে গৌরীপুরে সাঁটানো রাসেলের পোস্টার এখন ভাইরাল। আর এমন খবরে চটেছেন স্থানীয় ত্যাগী আওয়ামী লীগ নেতা-কর্মীরা।

জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের শাহাদাৎ বার্ষিকী উপলক্ষে উল্লেখিত সংগঠনের ব্যানারে তার একটি পোস্টার ফেইসবুকে ভাইরাল হয়।

পরে গৌরীপুরে আওয়ামী লীগের স্থানীয় নেতা-কর্মীদের মাঝে এ বিষয়টি দৃষ্টিগোচর হয়। ডিগবাজি মারা এই নেতার এমন কান্ডে আওয়ামী লীগের স্থানীয় নেতা-কর্মীদের মাঝে সমালোচনা, নিন্দা ও প্রতিবাদের ঝড় ওঠে।

ইতোমধ্যে এ নিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করে নানা মন্তব্য করেছেন অনেকেই।

জানতে চাইলে উপজেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক আব্দুল মুন্নাফ বলেন, ৯০ দশকের শুরুতে গৌরীপুর সরকারি কলেজ শাখা ছাত্রদলের সক্রিয় নেতা ছিলেন রাসেল। সেসময় ছাত্রলীগের মিছিলের ওপর দফায় দফায় হামলার ঘটনায় এই হাইব্রিড নেতা প্রত্যক্ষ ও পরোক্ষভাবে সক্রিয় ভূমিকা রাখতেন। ছাত্রজীবন শেষে রাসেল যুবদলের রাজনীতিতে সক্রিয় ছিলেন। তার পরিবারের সকল সদস্যরা বিএনপি’র রাজনীতিতে সক্রিয়ভাবে জড়িত ছিলেন ও বর্তমানে আছেন।

মুক্তিযোদ্ধা সংসদ সন্তান কমান্ড ময়মনসিংহ মহানগর শাখার সভাপতি তানজীর আহমেদ রাজীব জানান, এসব ভুঁইফোড় সংগঠনের কারনে আওয়ামী লীগের অস্তিত্ব হুমকীর মুখে পড়বে। 

বিএনপির একজন সক্রিয় নেতাকে রাতারাতি আওয়ামী লীগের সাইনবোর্ড লাগিয়ে দেয়ার ঘটনাটি ভবিষ্যত রাজনীতির জন্য অশনিসংকেত।

গৌরীপুর উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদ সন্তান কমান্ডের সভাপতি আবুল ফজল মুহম্মদ হীরা ও সাধারণ সম্পাদক হারুন অর রশিদ বলেন, মুক্তিযোদ্ধা পরিবারের সদস্য না হয়েও বিএনপি নেতা রাসেলকে ভুঁইফোড় একটি সংগঠনের ইউনিট সভাপতি। যা খুবই দুঃখজনক ও নিন্দনীয়। অবিলম্বে তাকে বহিস্কার করা না হলে রাজপথে প্রতিবাদ জানাবেন বলেও বলেন মন্তব্য করেন তারা।

আরও পড়ুন:


পরীমনি কাণ্ডে থমথমে ‘সুনসান এফডিসি’

প্রজ্ঞাপন জারি, রোববার ব্যাংক বন্ধ


news24bd.tv তৌহিদ

পরবর্তী খবর

বরিশাল থেকে অপহরণ হওয়া কিশোরী ৩৮ দিন পর গাজীপুর থেকে উদ্ধার

রাহাত খান, বরিশাল

বরিশাল থেকে অপহরণ হওয়া কিশোরী ৩৮ দিন পর গাজীপুর থেকে উদ্ধার

বরিশালের উজিরপুর থেকে অপহরণের ৩৮ দিন পর গাজীপুর থেকে এক কিশোরীকে (১৬) উদ্ধার করেছে পুলিশ। অভিযুক্ত মিজান নামে একজনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। 

বৃহস্পতিবার বেলা ১২টার দিকে বরিশাল জেলা পুলিশ সুপার কার্যালয়ের হল রুমে এক সংবাদ সম্মেলনে এ তথ্য জানানো হয়। 

সংবাদ সম্মেলনে জেলার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার শাজাহান জানান, গত ২৮ জুন উজিরপুর উপজেলার বাসিন্দা নজরুল ইসলাম হাওলাদার স্থানীয় থানায় তার মেয়ে (১৬) অপহরণের মামলা করেন। মামলায় উল্লেখ করা হয় একই এলাকার বাসিন্দা ময়না বেগম ও লিপি বেগমসহ অজ্ঞাতনামা আরও ২/৩ জন পাঁচারের উদ্দেশ্যে ওই তরুণীকে অপহরণ করে। তথ্য প্রযুক্তির সহায়তায় গতকাল বুধবার রাত ৮টার দিকে গাজীপুরের শ্রীপুর থানার কেওয়া গ্রামের মিজানের বাড়ি থেকে ওই কিশোরীকে উদ্ধার করে বরিশাল জেলা গোয়েন্দা পুলিশ। একই দিন রাত সাড়ে ১২টায় অপহরণে জড়িত থাকার অভিযোগে মিজানকেও গ্রেফতার করে পুলিশ। 

জিজ্ঞাসাবাদ শেষে আজ দুপুরে গ্রেফতার মিজানকে উজিরপুর থানায় সোপর্দ করা হয়েছে। অপরদিকে উদ্ধারকৃত কিশোরীকে আদালতে সোপর্দ করা হয়েছে বলে জানিয়েছে পুলিশ।

news24bd.tv এসএম

আরও পড়ুন


লেবাননে বিমান হামলা চালিয়েছে ইসরাইলি বাহিনী

কুষ্টিয়ায় মাইক্রোবাস-সিএনজি সংঘর্ষে নিহত ২, আহত ৩

মোটাতাজাদের বাদ দিয়ে শুকনাদের কমিটিতে আনুন: মির্জা আজম (ভিডিও)

পরীমণি ও রাজসহ ৪ জনকে গ্রেপ্তার দেখিয়েছে র‍্যাব


 

পরবর্তী খবর

কুষ্টিয়ায় মাইক্রোবাস-সিএনজি সংঘর্ষে নিহত ২, আহত ৩

অনলাইন ডেস্ক

কুষ্টিয়ায় মাইক্রোবাস-সিএনজি সংঘর্ষে নিহত ২, আহত ৩

কুষ্টিয়া-ভেড়ামারা সড়কের মিরপুর আটমাইল নামক স্থানে মাইক্রোবাস-সিএনজির মুখোমুখি সংঘর্ষে দুই জন নিহত। নিহতরা হলেন - শিশির (২০) ও মেহেরনিগার (৩০) নামে দুই সিএনজি যাত্রী নিহত হয়েছেন।

বৃহস্পতিবার () আজ দুপুর ১২.৩০ মিনিটের সময় আটমাইলে এ ঘটনা ঘটে। নিহতরা হলেন মিরপুর উপজেলার বাগোয়ান এলাকার মোস্তফার ছেলে শিশির ও ভেড়ামারা উপজেলার চাঁদগ্রাম এলাকার সুভলের মেয়ে মেহেরনিগার।

স্থানীয় ও পুলিশ সূত্রে জানা যায় ভেড়ামারা থেকে সিএনজি চালিত অটো রিক্সা যাত্রী নিয়ে কুষ্টিয়া আসার পথে এবং অপর দিকে কুষ্টিয়া থেকে ছেড়ে আসা রাজশাহীর উদ্দেশ্যে রওনা হলে মিরপুর আটমাইল নামক স্থানে মাইক্রোবাসের সাথে সিএনজি’র মুখোমুখি সংঘর্ষ ঘটে। ঘটনাস্থলে চিকিৎসা নিতে আসা মেহেরনিগার নামে এক গৃহবুধ মারা যান পরে স্থানীয়দের সহায়তায় চারজনকে কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য পাঠালে পথেমধ্যে শিশির মারা যান। কর্তব্যরত চিকিৎসক তাদের দুইজনকে মৃত ঘোষনা করে লাশ মর্গে প্রেরণ করেন।

এ বিষয়ে কুষ্টিয়া হাইওয়ে পুলিশের ওসি জুলহাস ইসলাম দুইজন মারা যাওয়ার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। তিনি বলেন ঘটনাস্থলে স্থানীয়রা সংবাদ দিলে তারা ঘটনাস্থলে পৌছান এবং সিএনজি ও মাইক্রোবাস আটক করেন।

news24bd.tv এসএম

আরও পড়ুন


মোটাতাজাদের বাদ দিয়ে শুকনাদের কমিটিতে আনুন: মির্জা আজম (ভিডিও)

পরীমণি ও রাজসহ ৪ জনকে গ্রেপ্তার দেখিয়েছে র‍্যাব

সাতক্ষীরা মেডিকেলে আরও ৮ জনের মৃত্যু

পরীমণি-পিয়াসার ৩০০ খদ্দের আত্মগোপনে


 

পরবর্তী খবর

সাতক্ষীরার আশাশুনিতে সড়ক দুর্ঘটনায় গৃহবধূ নিহত

মনিরুল ইসলাম মনি, সাতক্ষীরা

সাতক্ষীরার আশাশুনিতে সড়ক দুর্ঘটনায় গৃহবধূ নিহত

সাতক্ষীরার আশাশুনিতে ট্রাকের ধাক্কায় রেবা খাতুন (২১) নামে এক গৃহবধূ নিহত হয়েছেন। বৃহস্পতিবার সকাল ১১ টার দিকে উপজেলার গোয়ালডাঙ্গার সড়কের গদাইপুর এনামুল সরদারের বাড়ির পাশে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

নিহত গৃহবধূ উপজেলার আনুলিয়া ইউনিয়েনের মধ্যম একসরা গ্রামের সুজন ইসলামের স্ত্রী।

পুলিশ জানান, গোয়ালডাঙ্গা দিক থেকে আসা একটি বালি বোঝাই ট্রাকের ধাক্কায় ভ্যানে থাকা গৃহবধূ ঘটনাস্থলে নিহত হন। স্থানীয়রা ট্রাকের চালক সাতক্ষীরা সদর উপজেলার বাঁকাল গ্রামের সিরাজুল ইসলামের ছেলে বাবু সরদারকে আটক করে পুলিশের সোপর্দ করে।

news24bd.tv তৌহিদ

পরবর্তী খবর

রংপুর বিভাগের তিন জেলার সাংবাদিকদের অনলাইনে প্রশিক্ষণ

দিনাজপুর,প্রতিনিধি

রংপুর বিভাগের তিন জেলার সাংবাদিকদের অনলাইনে প্রশিক্ষণ

করোনা বিষয়ে মানুষকে আরো বেশি সচেতন সৃষ্টির লক্ষ্যে আজ বৃহস্পতিবার অনলাইনে জুম সংযোগের মাধ্যমে রংপুর বিভাগের তিন জেলায় সাংবাদিকদের অনলাইনে প্রশিক্ষণ কর্মশালা অনুষ্ঠিত হয়।

সকাল ১০ টা থেকে দুপুর ১ টা পর্যন্ত  অনুষ্ঠিত প্রশিক্ষণ কর্মশালায় রংপুর বিভাগের রংপুর, দিনাজপুর ও  গাইবান্ধা জেলা’র প্রায় একশ কর্মরত সাংবাদিক অংশ গ্রহণ করেন।

প্রশিক্ষণ কর্মশালায় করোনা ভাইরাসের হাত থেকে কীভাবে নিজেকে রক্ষা করা যায়, কোবিড-১৯ এর উপসর্গগুলো কি, রোগ নির্ণয়ের সজ্ঞা, কোভিড রোগীর সংজ্ঞা টিকা নেওয়ার প্রয়োজনীয়তা সহ প্রভৃতি বিষয় নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা হয়।

যুক্তরাষ্ট্রের জন্স হপকিন্স ইউনিভার্সিটি’র (জেএইচইউ), সেন্টার ফর কমিউনিকেশন প্রোগ্রামস (সিসিপি) ও উজ্জীবন কর্মসূচির যৌথ উদ্যোগে বাংলাদেশ মানবাধিকার সাংবাদিক ফোরাম (বিএমএসএফ) দেশের ৮ বিভাগের ৫০০ সাংবাদিককে সংশ্লিষ্ট বিষয়ে প্রশিক্ষণ দেওয়ার কর্মসূচি গ্রহণ করেছে। তারই ধারাবাহিকতায়  আজ রংপুর বিভাগের রংপুর, দিনাজপুর ও গাইবান্ধা জেলা’র সাংবাদিকদেরকে নিয়ে এই প্রশিক্ষণ কর্মশালা অনুষ্টিত হয়।

কোর্সটির সামগ্রিক দিক নির্দেশনা প্রদান করছেন উজ্জীবন বাংলাদেশ এর চীফ অব পার্টি ডা. কাজি ফয়সাল মাহমুদ ও সমন্বয় করছেন আউটরিচ কর্মকর্তা এএফএম ইকবাল। বিএমএসএফ-এর মহাসচিব খায়রুজ্জামান কামালের সার্বিক তত্ত্বাবধানে প্রকল্পটি সমন্বয় করছেন সিনিয়র সাংবাদিক ও বিএমএসএফ-এর মিডিয়া রিলেশন কো-অর্ডিনেটর সৈয়দ সফি।

কর্মশালায় অন্যাদের মধ্যে উজ্জীবনের টেকনিক্যাল অ্যাডভাইজার ডা. নুসরাত সুলতানা, বাংলাদেশ সংবাদ সংস্থার যুগ্নবার্তা সম্পাদক মো. শওকত আলী, জাতীয় প্রেসক্লাবের ব্যবস্থাপনা কমিটির সদস্য সিনিয়র সাংবাদিক শাহানাজ বেগম পলিসহ  প্রশিক্ষণ কর্মশালায় তিন জেলার প্রিন্ট ও ই‌লেক্ট্র‌নিক মি‌ডিয়ার সাংবা‌দিকগন অংশগ্রহণ ক‌রেন।

 

পরবর্তী খবর