করোনার ঈদে নিম্ন আয়ের মানুষের লড়াই চলছেই

করোনার ঈদে নিম্ন আয়ের মানুষের লড়াই চলছেই

Other

দুই বছর ধরে মহামারির সাথে লড়াই করে টিকে থাকা নিম্ন আয়ের মানুষের জীবনে ঈদ মানেই বাড়তি কষ্ট। ঈদের দিন নতুন জামা তো দূরের কথা, ফিঁকে হওয়া পোশাকে লেগে আছে দুঃখের ছাপ। করোনার কারনে বিতরন করা কুরবানির মাংসও জোটেনি অনেকের।  

প্রায় চল্লিশ বছর ধরে রাজধানীতে রিক্সা চালান কাশেম আলী।

অন্য ঈদের মতো এবার ঈদে বাড়তি আয়ের আশায় রাস্তায় নামেননি। নেমেই বা কী হবে। সুনশান রাস্তায় নেই কোন যাত্রী।

ফুটপাতে চাল-চুলোহীন ভাসমান জীবন। তারপরও এতোটা খারাপ সময় আগে কখনো আসেনি আবু হানিফের জীবনে। খালি পেটে দিনের অর্ধেক পার হয়েছে। চুলো জ্বলেনি ঘরে। অন্যের বাড়ী থেকে আসা এই খাবারই তাঁর জীবনে ঈদ।

সারাদিন ঘুরে মাত্র দু-টুকরো মাংস পেয়ে যেন আকাশের চাঁদ হাতে পেয়েছে চাঁদনী। মায়ের হাতে সেটুকুও আসেনি। জীবনের কাছে পরাজিত এই মায়ের কাছে একমাত্র সন্তানকে একটা নতুন জামা কিনে দিতে পারাই ঈদ।

আরও পড়ুনঃ


দ. কোরিয়ার কোন গালিও দেয়া চলবে না উত্তর কোরিয়ায়

তালেবানের হাত থেকে ২৪ জেলা পুনরুদ্ধারের দাবি

কাছাকাছি আসা ঠেকাতে টোকিও অলিম্পিকে বিশেষ ব্যবস্থা


 

মহামারী শুরুর পর এটি চতুর্থ ঈদ। তবে রাজধানীর হাজার হাজার ভাসমান দিনমজুর কিংবা নিম্ন আয়ের মানুষের জীবনে বাড়তি কোন মাত্রা যোগ করেনি এবারের ঈদ।

দুই বছর ধরে করোনার সাথে লড়া্ই করে পরাজিত এমন অনেকের জীবনেই ঈদ মানে যেন ব্যর্থতা-অচ্ছলতা উদযাপনের দিন।

news24bd.tv/আলী

;