ঝিনাইদহে করোনা ও উপসর্গে নিয়ে ৪ জনের মৃত্যু

শেখ রুহুল আমিন, ঝিনাইদহ :

ঝিনাইদহে করোনা ও উপসর্গে নিয়ে ৪ জনের মৃত্যু

ঝিনাইদহে গত ২৪ ঘন্টায় করোনা আক্রান্ত হয়ে ও উপসর্গে নিয়ে ৪ জনের মৃত্যু হয়েছে। এছাড়াও নতুন করে আক্রান্ত হয়েছে ৮ জন। 

সিভিল সার্জন ডা. সেলিনা বেগম জানান, আজ বৃহস্পতিবার সকালে কুষ্টিয়া ল্যাব থেকে ৩৪ টি নমুনার ফলাফল এসেছে। এদের মধ্যে ৮ জনের ফলাফল পজেটিভ এসেছে। আক্রান্তের হার ২৩ দশমিক ৫২ ভাগ। 

এ নিয়ে জেলায় আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়ালো ৬ হাজার ৭শত ৫০জন এবং এ পর্যন্ত সুস্থ হয়েছেন ৪ হাজার ৬ জন। সুস্থতার সংখ্যা বাড়েনি। 

২৪ ঘন্টায় সদর হাসপাতালে করোনায় আক্রান্ত হয়ে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ৩জন ও সদর হাসপাতালে উপসর্গ নিয়ে ১ জন মারা গেছেন। বর্তমানে হাসপাতালে করোনা ওয়ার্ডে ৫৩ জন ও আইসোলেশনসহ চিকিৎসাধীন রয়েছেন ৮০ জন। 

সরকারি হিসাবে এ নিয়ে করোনায় জোলায় মোট মৃত্যুর সংখ্যা দাঁড়ালো ১ শত ৭৮ জন। 

আরও পড়ুন:


খুলনায় করোনায় মৃত্যু ফের দুই অঙ্কের কোটায়

হজে প্রথমবারের মতো নিরাপত্তার দায়িত্বে সৌদি নারী সেনা

ফরজ গোসল অবহেলার শাস্তি

৫০ হাজার টাকা বেতনে লোক নেবে আকিজ বিড়ি ফ্যাক্টরি


news24bd.tv / কামরুল 

পরবর্তী খবর

কুষ্টিয়ার কহিনূর ভিলা গণহত্যা দিবস

জাহিদুজ্জামান:

১৮ সেপ্টেম্বর। কুষ্টিয়ার কহিনূর ভিলা গণহত্যা দিবস। ১৯৭১ সালে মুক্তিযুদ্ধ চলাকালে এই বাড়ির ১৬ জনকেই গলাকেটে হত্যা করে রাজাকার ও বিহারীরা। মুক্তিযোদ্ধাদের সহায়তা করে স্বাধীনতার পক্ষে থাকায় একটি পরিবার নিশ্চিহ্ন হয়ে গেলেও তাদের স্মৃতি রক্ষায় নেয়া হয়নি কোন উদ্যোগ। বাড়ির সামনে যে স্মৃতিফলক আছে সেখানে অস্পস্ট হয়ে গেছে শহিদদের নাম।

১৯৭১ সালে ১৮ সেপ্টেম্বর সকালে এই বাড়ির সামনে ড্রেনে রক্ত দেখে আঁতকে ওঠেন স্থানীয়রা। তখনও কেউ বুঝতেই পারেনি রাত গভীরে কী নৃশংসতা চলেছে কহিনূর ভিলায়। মুক্তিযোদ্ধাদের রুটি আর পানি দেয়ার অপরাধে রাজাকার ও বিহারীরা বাড়ির ১৬ জনকে গলা কেটে হত্যা করে।

আরও পড়ুন:


নোটিশ দিয়ে ইভ্যালির অফিস বন্ধ রাখার ঘোষণা

ইভ্যালির বিরুদ্ধে এবার যশোরে লিখিত অভিযোগ

ইভ্যালী-পঞ্জি স্কীমস: কই এর তেলে তিমি ভাজা!

যদি পারি অবশ্যই আমি বাংলায় গান গাইবো : ইয়োহানি


বিভৎস মরদেহগুলো বাড়ির পেছনেই গণকবর দেন স্থানীয়রা। দেশ স্বাধীনের পর এই পরিবারের উত্তরসূরীরা ভারত থেকে এসে কহিনূর ভিলায় বসবাস শুরু করেন। এ গণহত্যার শিকার যারা আজো পায়নি শহিদের মর্যাদা, নেয়া হয়নি স্মৃতি সংরক্ষণের উদ্যোগ

কোন উদ্যোগ নেয়া হবে কী না- প্রশ্ন ছিলো জেলা প্রশাসকের কাছে।

কহিনূর ভিলাকে অধিগ্রহণ করে স্মৃতি জাদুঘর করার প্রস্তাব রয়েছে মুক্তিযোদ্ধাদের।

NEWS24.TV / কামরুল

পরবর্তী খবর

টিনের জরাজীর্ণ তিন কক্ষের একটি ভবনে চলছে প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ক্লাস

আলমগীর চৌধুরী:

বর্ষায় ঝড়-বৃষ্টি আর গ্রীষ্মকালে গরমের তীব্রতা। এরই মধ্যে ক্লাস করছে জয়পুরহাটের পলিকাদোয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা। টিনের জরাজীর্ণ তিন কক্ষের একটি ভবনে ক্লাস চলছে। আর প্রাক প্রাথমিক ক্লাস চলছে ভাড়া নেয়া কক্ষে। কর্তৃপক্ষ বলছে কক্ষ সঙ্কট দূর হলেই উন্নত হবে শিক্ষার মান। 

১৯০৬ সালে ৪৭ শতাংশ এলাকা জুড়ে স্থাপিত হয়েছিল জয়পুরহাটের পলিকাদোয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়। তিন কক্ষের ভবন নির্মাণ করা হয় ১৯৯৬ সালে। তিনটি কক্ষে ক্লাস করছে ১১৯ জন।

কক্ষ সঙ্কটের কারণে বেলা ১২টার মধ্যেই ক্লাস শেষ করতে প্রথম ও দ্বিতীয় শ্রেণির শিক্ষার্থীদের। এরপর বিকেল ৪টা পর্যন্ত চলে অন্য শ্রেণির ক্লাস। সঙ্কুলান না হওয়ায় স্কুল সংলগ্ন ভাড়া নেওয়া একটি কক্ষে পাঠদান করতে হয় প্রাক-প্রাথমিকের
শিক্ষার্থীদের। গ্রীষ্মের প্রখর রোদ আর বর্ষার ঝড় বৃষ্টিতে ক্লাস করতে বেশ কষ্ট করতে হয় তাদের। বিশেষ করে শিশু শ্রেণীর ক্লাস এই দুই সময়ে বন্ধ রাখতে হয়।

আরও পড়ুন:


নোটিশ দিয়ে ইভ্যালির অফিস বন্ধ রাখার ঘোষণা

ইভ্যালির বিরুদ্ধে এবার যশোরে লিখিত অভিযোগ

ইভ্যালী-পঞ্জি স্কীমস: কই এর তেলে তিমি ভাজা!

যদি পারি অবশ্যই আমি বাংলায় গান গাইবো : ইয়োহানি


শিক্ষকদের অভিযোগ জায়গা থাকা সত্বেও ভবন নির্মাণে কোনো উদ্যোগ নেয় নি কর্তৃপক্ষ।

কক্ষ সংকট থাকলেও পড়া লেখার মানোন্নয়নের চেষ্টার কমতি নেই বললেন স্কুলের প্রধান শিক্ষক। জানান, কক্ষ সঙ্কট দূর হলেই বাড়বে পড়া লেখার মান। 

দ্রুত ভবন নির্মাণের আশ্বাস দিলেন প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা।

কোমলমতি শিক্ষার্থীদের পড়ালেখার মানোন্নয়নে দ্রতই ভবন নির্মাণের উদ্যোগ নিবেন সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ- এমনটাই প্রত্যাশা শিক্ষক-শিক্ষার্থীদের।

NEWS24.TV / কামরুল

পরবর্তী খবর

সোনাগাজী পৌরসভা নির্বাচনে আ.লীগ ছাড়া অন্য কোনো বড় দল নেই

নজির আহম্মদ রতন :

ফেনীর সোনাগাজী পৌরসভা নির্বাচনে আওয়ামী লীগ ছাড়া অন্য কোনো বড় দল নেই। ছোট দলের মধ্যেও ইসলামী আন্দোলন ছাড়া নেই অন্য কোনো রাজনৈতিক দল। ফলে নির্বাচনের উত্তাপ একেবারেই লাগেনি এখানকার নির্বাচনী মাঠে। একটি সাধারণ ওয়ার্ডে বিএনপি সমর্থিত একজন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। সে ওয়ার্ডে কিছুটা আমেজ থাকলেও রয়েছে শংকা। ভোটাররা চায় একটি সুষ্ঠু নির্বাচন। প্রশাসনও আশ্বাস দিচ্ছে সুষ্ঠু নির্বাচনের। 

প্রার্থীদের শেষ মুহুর্তের প্রচারণায় কিছুটা সরগরম সোনাগাজী উপজেলা শহর। রাজনৈতিক উত্তাপ না থাকায় ভোটারদের আগ্রহে কিছুটা ভাটা পড়লেও তারা আশা করেন সুষ্ঠু নির্বাচনের। পরিবেশ ভালো থাকলে কেন্দ্রে যাবেন বলেও জানান অনেকে।

মেয়র পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন ৪ জন। আওয়ামী লীগ প্রার্থী বর্তমান মেয়র রফিকুল ইসলাম খোকন, সাবেক যুবলীগ নেতা শেখ সেলিম, স্বতন্ত্র প্রার্থী আবু নাছের ও ইসলামী আন্দোলনের প্রার্থী হিজুবল্লাহ। নিরপেক্ষ ও সুষ্ঠু নির্বাচনের দাবি আওয়ামী লীগ প্রার্থী রফিকুল ইসলামের।

আরও পড়ুন:


নোটিশ দিয়ে ইভ্যালির অফিস বন্ধ রাখার ঘোষণা

ইভ্যালির বিরুদ্ধে এবার যশোরে লিখিত অভিযোগ

ইভ্যালী-পঞ্জি স্কীমস: কই এর তেলে তিমি ভাজা!

যদি পারি অবশ্যই আমি বাংলায় গান গাইবো : ইয়োহানি


৯টি সাধারণ ওয়ার্ডে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন ২৩ জন প্রার্থী। ২ ও ৩ নং ওয়ার্ড ছাড়া আওয়ামী লীগের প্রতিদ্বন্দ্বী আওয়ামী লীগই। সংরক্ষিত নারী ওয়ার্ডে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন ৪ জন প্রার্থী। ৪,৫,৬ ওয়ার্ডে এক নারী বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হয়েছেন।

একটি সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ নির্বাচন হবে বলে দাবি প্রশাসনের।

সোনাগাজী পৌরসভায় মোট ভোটার ১৫ হাজার ৯৮৫ জন। পুরুষ ভোটার ৮ হাজার ১২৭ জন। নারী ভোটার ৭ হাজার ৮৫৮ জন।

NEWS24.TV / কামরুল

পরবর্তী খবর

শাপলা তুলতে গিয়ে বজ্রপাতে প্রাণ গেলো কৃষকের

অনলাইন ডেস্ক

শাপলা তুলতে গিয়ে বজ্রপাতে প্রাণ গেলো কৃষকের

গোপালগঞ্জ সদর উপজেলার নিজড়া বিলে বজ্রপাতে হায়াত আলী শেখ (৫২) নামে এক কৃষকের মৃত্যু হয়েছে। আজ এ ঘটনা ঘটে।

বজ্রপাতে মারা যাওয়া আলী শেখ নিজড়া মধ্যপাড়া গ্রামের ইঙ্গুল শেখের ছেলে।

নিজড়া ইউনিয়নের ৭ নম্বর ওয়ার্ডের সদস্য (মেম্বার) রইচ উকিল জানান, বর্ষা মৌসুমে জমিতে কোনো কাজ না থাকায় হায়াত আলী শেখ বিল থেকে শাপলা তুলে তা বাজারে বিক্রি করে জীবিকা নির্বাহ করতেন। প্রতিদিনের মতো আজও তিনি নৌকা নিয়ে নিজড়া বিলে শাপলা তুলেতে যান। তখন হঠাৎ করেই মেঘের গর্জনের সঙ্গে বজ্রপাতের ঘটনা হয়।

আরও পড়ুন:


সাদা বাঘিনী ‘শুভ্রা’র ঘরে ডোরাকাটা নতুন অতিথি

তেল ও চিনির দাম বাড়ার বিষয়ে যা বললেন বাণিজ্যমন্ত্রী

এবারও গ্রহণযোগ্য পন্থায় নির্বাচন কমিশন গঠন করা হবে: ওবায়দুল কাদের

হতাশায় নিউজিল্যান্ডকে হুমকি দিলেন পিসিবি চেয়ারম্যান রমিজ রাজা


বজ্রপাতের শব্দে হায়াত আলী শেখ নৌকা থেকে পানিতে পড়ে মারা যান। খবর পেয়ে পরিবারের লোকজন তাকে উদ্ধার করেন।

গোপালগঞ্জের বৌলতলী পুলিশ ফাঁড়ির পরিদর্শক এইচ.এম জসিম উদ্দিন বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

news24bd.tv নাজিম

পরবর্তী খবর

শ্রীপুরে ৮৬ কোটি টাকার বিভিন্ন উন্নয়ন প্রকল্পের উদ্বোধন

মোহাম্মদ আল-আমীন, গাজীপুর:

শ্রীপুরে ৮৬ কোটি টাকার বিভিন্ন উন্নয়ন প্রকল্পের উদ্বোধন

গাজীপুরের শ্রীপুর উপজেলার তেলিহাটি ইউনিয়নে ৮৬ কোটি টাকা ব্যয়ে নির্মিত বিভিন্ন উন্নয়ন প্রকল্পের উদ্বোধন করছেন গাজীপুর-৩ আসনের সাংসদ ও জেলা আ.লীগের সাধারণ সম্পাদক ইকবাল হোসেন সবুজ এমপি।

আজ শনিবার (১৮ সেপ্টেম্বর) স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদপ্তরের তত্ত্বাবধানে নির্মিত এসব প্রকল্প সমূহের মধ্যে রয়েছে ইউনিয়ন গার্মেন্টস মোড় সড়ক উন্নয়ন, বিডিএল মোড় থেকে গোদারচালা সড়ক উন্নয়ন, আবদার বাজার জামিরদিয়া সড়ক উন্নয়ন। এছাড়া এ সময় টেংরা, তালতলি ও ডোমবাড়ি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের নতুন ভবন সমূহের কাজের উদ্বোধন করা হয়।

উন্নয়ন কাজের উদ্বোধন উপলক্ষে ইকবাল হোসেন সবুজ এমপি বিভিন্ন পথ সভায় সরকারের উন্নয়ন ও অগ্রযাত্রার চিত্র তুলে ধরে বক্তব্য প্রদান করেন।

আরও পড়ুন:


অবশেষে ব্রিটেনের লাল তালিকা থেকে বাদ পড়ছে বাংলাদেশ

বেড়াতে গিয়ে অতিরিক্ত মদ পানে দুই ছাত্রলীগ কর্মীর মৃত্যু

ছাত্রকে যৌন হয়রানি ২৭ বছরের তরুণীর, ২০ বছরের কারাদণ্ড

ইভ্যালির সঙ্গে আর সম্পর্ক নেই তাহসানের


এ সময় তেলিহাটি ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আব্দুল বাতেন সরকার, গাজীপুর জেলা আ.লীগের সহ-সভাপতি শাফি উদ্দিন মোড়ল, শ্রীপুর উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান মাহতাব উদ্দিন, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান লুৎফুন্নাহার মেজবাহ, উপজেলা আ.লীগের যুগ্ম আহ্বায়ক হুমায়ূন কবীর হিমু, পৌর আ.লীগের সাধারণ সম্পাদক নূর-এ- আলম মোল্লা, ৭ নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর হাবিবুল্লাহ, যুবলীগ নেতা হাবিবুর রহমান জুয়েল, আশরাফুল ইসলাম ওয়াসিম, জেলা ছাত্রলীগ নেতা সুলতান সিরাজসহ দলটির বিভিন্ন পর্যায়ের নেতৃবৃন্দ বিভিন্ন পথ সভায় উপস্থিত ছিলেন।

ডোমবাড়ীচালা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় প্রাঙ্গণে তেলিহাটি ইউনিয়ন আ.লীগের সাধারণ সম্পাদক লিয়াকত ফকিরের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত পথসভায় প্রধান অতিথির বক্তৃতায় সাংসদ ইকবাল হোসেন সবুজ এমপি বলেন, আমার এমপি হওয়ার বয়স দুই বছর ৮ মাস ১৮ দিন এর মধ্যে আমি একদিনও নিজেকে এমপি ভাবিনি সব সময় জনগণের সেবক ভেবেছি। এই সময়ে গাজীপুর-৩ আসনে ব্যাপক উন্নয়ন হয়েছে এটা আগামীতেও অব্যাহত থাকবে।

প্রধানমন্ত্রীর জন্য দোয়া চেয়ে তিনি বিলেন, শেখ হাসিনার নেতৃত্বে দেশ এগিয়ে যাচ্ছে। তার নেতৃত্বে গাজীপুর-৩ আসনকে ক্ষুদা, দারিদ্র ও মাদকমুক্ত আদর্শ শহর হিসাবে গড়ে তুলতে চাই।

NEWS24.TV / কামরুল

পরবর্তী খবর