ক্ষমতাহীনদের ক্ষমতাবান করতে পারে সাংবাদিকরা : তথ্যমন্ত্রী

অনলাইন ডেস্ক

ক্ষমতাহীনদের ক্ষমতাবান করতে পারে সাংবাদিকরা : তথ্যমন্ত্রী

সাংবাদিকরা ক্ষমতাহীনদের ক্ষমতাবান করতে পারে, যে অব্যক্তদের পক্ষে আমাদের কথা বলা দরকার, সাংবাদিকরাই পারে তাদের কথা ব্যক্ত করতে, সমাজ যেদিকে তাকায়না সেদিকে দৃষ্টি নিবন্ধ করতে বলে জানিয়েছেন আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক এবং তথ্য ও সম্প্রচারমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ।

বৃহস্পতিবার (২২ জুলাই) বিকেলে চট্টগ্রাম প্রেসক্লাবের বঙ্গবন্ধু হলে সাংবাদিক কল্যাণ ট্রাস্টের চেক বিতরণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় তিনি এসকল কথা বলেন। 

চট্টগ্রাম সাংবাদিক ইউনিয়নের (সিইউজে) সভাপতি মোহাম্মদ আলীর সভাপতিত্বে ও যুগ্ম সম্পাদক সবুর শুভ’র সঞ্চালনায় চট্টগ্রাম প্রেসক্লাবের সভাপতি আলী আব্বাস, সাধারণ সম্পাদক চৌধুরী ফরিদ, সিইউজের সহসভাপতি অনিন্দ্য টিটু এবং সাধারণ সম্পাদক মুহাম্মদ শামসুল ইসলাম অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য দেন।

বর্তমানে সাংবাদিক কল্যাণ ট্রাস্ট সাংবাদিকদের জন্য ভরসার জায়গা হয়ে দাঁড়িয়েছে উল্লেখ করে মন্ত্রী বলেন, কোনো সাংবাদিক মৃত্যুবরণ করলে তার পরিবার তিন লাখ টাকা পাচ্ছে, কেউ অসুস্থ হলেও টাকা পাচ্ছে। সাংবাদিক পরিবারের সদস্যদের পড়ালেখার ক্ষেত্রেও অনুদানের সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। প্রধানমন্ত্রী ১০ কোটি টাকা দিয়েছেন করোনাকালীন সহায়তার জন্য। ঈদুল আযহার আগেই সেগুলোর  বিতরণ শুরু হয়েছে। 

ড. হাছান মাহমুদ বলেন, দেশটা যে এগিয়ে যাচ্ছে সেটাও মানুষকে আমাদের জানাতে হবে। তাহলে মানুষ আরো স্বপ্ন দেখবে। দেশও স্বপ্নের ঠিকানায় পৌঁছে যাবে। মানবিক প্রধানমন্ত্রী বঙ্গবন্ধুকন্যা শেখ হাসিনা, যাকে আন্তর্জাতিক গণমাধ্যম 'মাদার অব হিউম্যানিটি' আখ্যা দিয়েছে, তিনি ২০১৪ সালে বাংলাদেশ সাংবাদিক কল্যাণ ট্রাস্ট গঠন করেছেন। অথচ এটার জন্য প্রাতিষ্ঠানিক কোন জোরালো দাবী ছিল না। 

অনুসন্ধানী সাংবাদিকতাকে অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ বলে অভিহিত করে তথ্য ও সম্প্রচারমন্ত্রী বলেন, এমন অনেক বিষয় আছে সমাজ সেদিকে তাকায়না। রাস্তাঘাটে ঘুরে বেড়ানো পাগলেরও একটা গল্প আছে, ফ্যালফ্যাল করে তাকানো মানুষটার কিছু বেদনা আছে, সেই বেদনা শোনার সময় সমাজের নেই, সমাজ তাকে জিজ্ঞেস করেনা। কিন্তু একজন অনুসন্ধানী সাংবাদিক সেটি অনুসন্ধান করে সমাজের সামনে তুলে ধরতে পারে। 

তিনি বলেন, লেখনীর মাধ্যমে সমাজকে উজ্জীবিত করতে পারেন একজন সাংবাদিক। সাংবাদিকরা সমাজের বিবেক হিসেবে কাজ করে, সমাজের তৃতীয় নয়ন খুলে দেয় এবং সমাজকে সঠিক পথে প্রবাহিত করতে পারে। 

'একটি বহুমাত্রিক সমাজে বিতর্ক থাকবে সমালোচনা থাকবে, কিন্তু এটির পাশাপাশি ভালো কাজের প্রশংসাও হতে হয়, নইলে যারা ভালো কাজ করে তারা কখনো উৎসাহ পাবে না'  উল্লেখ করে তথ্যমন্ত্রী বলেন, 'বিএনপিসহ কেউ কেউ মনে করে, তারা সরকারে থাকলে সব ভাল, আমরা সরকারে থাকলে সব খারাপ, এটা ঠিক নয়। দেশটা কি এমনি এমনিতে এগিয়ে গেল ? গত সাড়ে বার বছরে মানুষের যে উন্নয়ন হয়েছে তা কল্পনাতীত, আমাদের মাথাপিছু আয় ভারতকেও ছাড়িয়ে গেছে।  জননেত্রী শেখ হাসিনার গতিশীল নেতৃত্বের কারণেই তা সম্ভব হয়েছে।'

আরও পড়ুন:

রাস্তায় ফেলে চলে যাওয়া চামড়াগুলোতে পচন ধরে দুর্গন্ধ ছড়াচ্ছে

করোনায় প্রাণ গেলো একজন ভাষা সৈনিকের


 

চট্টগ্রামের অন্যতম নান্দনিক ও ঐতিহাসিক স্থান সেন্ট্রাল রেলওয়ে বিল্ডিং-সিআরবি'র পরিবেশ সংরক্ষণ বিষয়ে ড. হাছান মাহমুদ বলেন, 'সিআরবি পরিস্থিতি নিয়ে  চট্টগ্রামের মানুষের মাঝে ব্যাপক অসন্তোষ সৃষ্টি হয়েছে। ‘চ্যাম্পিয়ন অভ দ্যা আর্থ’ পদকে ভূষিত বঙ্গবন্ধুকন্যা প্রধানমন্ত্রীর হাত দিয়ে পরিবেশ নষ্ট হয় এমন কোন কাজ হবেনা। সিআরবিতে পরিবেশ নষ্ট হোক, গাছপালা কাটা হোক সেটি আমিও ব্যক্তিগতভাবে চাইনা। সরকার জনগণের বিপক্ষে কোন কাজ করবেনা। আমি বিষয়টি যথাযথ জায়গায় উপস্থাপন করবো।'

news24bd.tv/আলী

পরবর্তী খবর

টিকা আনতে সর্বাত্মক চেষ্টা চলছে : জয়

অনলাইন ডেস্ক

টিকা আনতে সর্বাত্মক চেষ্টা চলছে : জয়

যত দ্রুত সম্ভব দেশের প্রতিটি নাগরিককে করোনাভাইরাসের টিকা-করণের আওতায় আনতে সর্বাত্মক চেষ্টা চলছে বলে জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিষয়ক উপদেষ্টা সজীব ওয়াজেদ জয়। তিনি বলেন, এই জন্য টিকা উৎপাদনকারী সকল দেশের সঙ্গে কূটনৈতিক তৎপরতা চালিয়ে যাচ্ছে বাংলাদেশ।

বৃহস্পতিবার ব্যক্তিগত ফেসবুক পাতায় এক স্ট্যাটাসে এসব কথা জানান  সজীব ওয়াজেদ জয়।

জয় স্ট্যাটাসে লিখেছেন, করোনার টিকা নিন। স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলুন। অর্থনীতিকে সমুন্নত রাখুন। করোনা মোকাবিলায় বিশ্বের বিভিন্ন দেশ থেকে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা অনুমোদিত ভ্যাকসিন আমদানি করেছে সরকার। যত দ্রুত সম্ভব দেশের প্রতিটি নাগরিককে টিকার আওতায় আনতে সর্বাত্মক চেষ্টা চলছে।

আরও পড়ুন:


পরীমনি কাণ্ডে থমথমে ‘সুনসান এফডিসি’

প্রজ্ঞাপন জারি, রোববার ব্যাংক বন্ধ


মানুষের জীবন বাঁচাতে সরকার বিনা মূল্যে টিকা দিচ্ছে জানিয়ে প্রধানমন্ত্রীর তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিষয়ক উপদেষ্টা লিখেছেন, পরিবারের সুরক্ষার জন্য নিজে টিকা নিন এবং পরিবারের সদস্যদের টিকা দিন। স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলুন। জীবন বাঁচলে, পরিবার বাঁচবে, জীবিকা বাঁচবে। প্রতিটি পরিবার সুরক্ষিত হলে, সমাজ সুরক্ষিত হবে, সুরক্ষিত হবে পুরো দেশ, অব্যাহত থাকবে জীবন-জীবিকা ও অর্থনীতির চাকা। মানুষের জীবন বাঁচাতে বিনা মূল্যে টিকার ব্যবস্থা করেছে সরকার, এখন নিজের পরিবারকে বাঁচাতে টিকা নেওয়ায় দায়িত্ব আপনার।

news24bd.tv/আলী

পরবর্তী খবর

ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কে ভোরে যানচলাচল বন্ধ থাকবে

অনলাইন ডেস্ক

ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কে ভোরে যানচলাচল বন্ধ থাকবে

ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কে ফুটওভার ব্রীজের নির্মাণ কাজের জন্য শনিবার ভোর সাড়ে ৫টা থেকে ৭টা পর্যন্ত সব ধরনের যান চলাচল বন্ধ থাকবে। মহাসড়কের সীতাকুণ্ডের ‘টেরিয়াল’ নামক স্থানে স্টিল ফুটওভার ব্রীজের নির্মাণ কাজের জন্য  যান চলাচল দেড় ঘণ্টার জন্য বন্ধ থাকবে।

বৃহস্পতিবার (৫ আগস্ট) রাতে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন সড়ক ও জনপদ অধিদফতরের (সওজ) সীতাকুণ্ড উপ-বিভাগীয় প্রকৌশলী রোকন উদ্দিন চৌধুরী।

সওজের চট্টগ্রাম সড়ক বিভাগের নির্বাহী প্রকৌশলী পিন্টু চাকমা স্বাক্ষরিত এক বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, চট্টগ্রাম সড়ক বিভাগাধীন ঢাকা (যাত্রাবাড়ী)-কুমিল্লা (ময়নামতি)-চট্টগ্রাম-কক্সবাজার-টেকনাফ জাতীয় মহাসড়কের ১৯৬ কিলোমিটারে টেরিয়াল নামক স্থানে স্টিলের ফুটওভার ব্রীজের নির্মাণ কাজ চলমান রয়েছে। 

আরও পড়ুন:


পরীমনি কাণ্ডে থমথমে ‘সুনসান এফডিসি’

প্রজ্ঞাপন জারি, রোববার ব্যাংক বন্ধ


 

বিজ্ঞপ্তিতে আরও বলা হয়, ফুটওভার ব্রীজের ডেকবিম স্থাপনের জন্য শনিবার ভোর সাড়ে ৫টা থেকে সকাল ৭টা পর্যন্ত মোট দেড় ঘণ্টা সব ধরনের যান চলাচল বন্ধ থাকবে। সাময়িক অসুবিধার জন্য চট্টগ্রাম সওজ আন্তরিকভাবে দুঃখ প্রকাশ করছে।

news24bd.tv/আলী

পরবর্তী খবর

৭ তারিখ থেকে দেওয়া হচ্ছে না গণ টিকা

অনলাইন ডেস্ক

৭ তারিখ থেকে দেওয়া হচ্ছে না গণ টিকা

আগামী ৭ তারিখ থেকে প্রান্তিক পর্যায়ে  গণ টিকাদানের কথা থাকলেও তা শুরু হচ্ছে না সেদিন। এই দিন পরীক্ষামূলক ভাবে সারা দেশে টিকা দেয়া হলেও তা শুরু হবে ১৪ তারিখ থেকে বলে জানান স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালক।

এদিকে গণ টিকাদানের জন্য দেশের বিভিন্ন জেলায় শেষ হয়েছে চুড়ান্ত প্রস্তুতি। রিশাদ হাসান জানাচ্ছেন বিস্তারিত।

৭ তারিখ থেকে দেশের প্রান্তিক পর্যায়ে গণটিকা প্রয়োগের কথা মাথায় রেখেই এই প্রস্তুতি। দেশের বিভিন্ন জেলায় এরই মধ্যে প্রস্তুত হয়েছে কেন্দ্র ও টিকাদান বুথ। প্রতিটি ওয়ার্ডে ৩০০ জনকে টিকা প্রয়োগের লক্ষমাত্রায় প্রস্তুত রাখা হয়েছে বুথ। প্রত্যক্ষ ও পরোক্ষ ভাবে এই বিশাল কর্মযজ্ঞে স্বাস্থ্য সেবা বিভাগের সাথে কাজ করছে স্থানীয় সরকার, আইসিটিসহ বেশ কিছু সরকারী প্রতিষ্ঠান।

তবে আবারও টিকা প্রয়োগ নিয়ে সিদ্ধান্তহীনতা। লক ডাউন, যানচলাচলের কারণ দেখিয়ে আরও ৭ দিন পেছালো এই টিকা কর্মসূচি। তবে পরীক্ষামূলক ভাবে এই টিকা কার্যক্রম চলবে ৭ তারিখ বলে জানান, স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালক। স্বাস্থ্য অধিদপ্তর বলছে, আগামী ১৪ থেকে ১৯ আগষ্ট চলবে প্রান্তিক পর্যায়ের টিকাদান কার্যক্রম। যেখানে টিকা প্রয়োগ করা হবে সারাদেশের অন্তত ১ কোটি মানুষকে।

news24bd.tv/এমিজান্নাত

পরবর্তী খবর

মোদীর উপহারের ৩০ অ্যাম্বুলেন্স ঢাকা পৌঁছার অপেক্ষায়

অনলাইন ডেস্ক

মোদীর উপহারের ৩০ অ্যাম্বুলেন্স ঢাকা পৌঁছার অপেক্ষায়

স্বাস্থ্যসেবা উন্নয়নে, বিশেষ করে কোভিড-১৯ মোকাবিলার যৌথ প্রচেষ্টায় বাংলাদেশকে ১০৯টি লাইফ সাপোর্ট অ্যাম্বুলেন্স উপহার দেওয়ার কথা ছিল ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর।

এর মধ্যে ৩০টি অ্যাম্বুলেন্স ইতিমধ্যে পেট্রাপোলে পৌঁছেছে। বেনাপোল স্থল শুল্ক চেকপোস্টে ছাড়পত্র পাওয়ার পর এগুলো শীঘ্রই ঢাকার উদ্দেশে রওনা হবে।

বাকি অ্যাম্বুলেন্স সেপ্টেম্বরের শেষের দিকে পৌঁছাবে বলে আশা করা যাচ্ছে।

এই অ্যাম্বুলেন্স কোভিড মহামারী মোকাবিলায় বাংলাদেশ সরকারের ব্যাপক প্রচেষ্টাকে সমর্থন করার উদ্দেশ্যে প্রদান করা হয়েছে।

এই উপহার বাংলাদেশের ভ্রাতৃত্বপূর্ণ জনগণের সহায়তার জন্য ভারতের অব্যাহত এবং দীর্ঘমেয়াদী অঙ্গীকারের প্রতিফলন করে।

পরবর্তী খবর

গাজীপুরে ২৪ ঘণ্টায় ৯ জনের মৃত্যু

মোহাম্মদ আল-আমীন, গাজীপুর

গাজীপুরে ২৪ ঘণ্টায় ৯ জনের মৃত্যু

প্রাণঘাতী করোনা ভাইরাসে শিল্পাঞ্চলখ্যাত গাজীপুরে গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে ৯ জনের মৃত্যু হয়েছে। আর নতুন করে ২১০ জনের দেহে করোনাভাইরাস শনাক্ত হয়েছে।

৯ জনসহ জেলায় এ পর্যন্ত মৃতের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৩৬৪ জনে।

নতুন ২১০ জনসহ আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ১৯ হাজার ৬৩৪ জনে।

বৃহস্পতিবার (৫ আগস্ট) সন্ধ্যায় বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন জেলা সিভিল সার্জন ডা. মো. খায়রুজ্জামান।

তিনি জানান, ২৪ ঘণ্টায় ৪৬৯ জনের নমুনা সংগ্রহ করা হয়। সংগ্রহ করা নমুনা পরীক্ষায় ২১০ জনের শরীরে করোনাভাইরাস শনাক্ত হয়েছে। এদের মধ্যে গাজীপুর সদরে ৯০ জন, কালীগঞ্জে ২৫ জন, কালিয়াকৈরে ১৫ জন, কাপাসিয়ায় ৪৮ জন ও শ্রীপুরে ৩২ জন রয়েছেন।

তিনি আরও জানান, এ পর্যন্ত গাজীপুর জেলায় ১লাখ ৮ হাজার ৪১৮ নমুনা পরীক্ষায় ১৯ হাজার ৬৩৪ জনের শরীরে করোনা পজিটিভ পাওয়া গেছে। এর মধ্যে গাজীপুর সদরে ১১ হাজার ৯৫২ জন, কালীগঞ্জে ১৪৪৩ জন, কালিয়াকৈরে ১৯৯৭, কাপাসিয়ায় ১৭০৪ ও শ্রীপুরে ২৫৩৮ জন রয়েছেন।

ডা. মো. খাইরুজ্জামান জানান, নতুন ৯ জনসহ এ পর্যন্ত জেলায় ৩৬৪ জন মৃত্যুবরণ করলেও সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন ১৫ হাজার ১৭৫ জন।

আরও পড়ুন:


পরীমনি কাণ্ডে থমথমে ‘সুনসান এফডিসি’

প্রজ্ঞাপন জারি, রোববার ব্যাংক বন্ধ


news24bd.tv তৌহিদ

পরবর্তী খবর