এটাই ব্রুস লী আর কুং ফুর দর্শন
এটাই ব্রুস লী আর কুং ফুর দর্শন

শান্তা আনোয়ার

এটাই ব্রুস লী আর কুং ফুর দর্শন

Other

শারীরিক দক্ষতা এবং আধ্যাত্মিক জ্ঞানের সাথে তাঁর করুণ অকাল মৃত্যু। যিনি মাত্র ৩৩  বছর বয়সে মারা যান। বলছিলাম কিংবদন্তি চীনা-আমেরিকান মার্শাল আর্টিস্ট, দার্শনিক, এবং চলচ্চিত্র নির্মাতা ব্রুস লী'র কথা। তিনি বিরল সাংস্কৃতিক আইকনগুলির মধ্যে অন্যতম করে নিজেকে গড়ে তুলেছিলেন।

 

ব্রুস লী মারা যান মাত্র ৩৩ বছর বয়সে ২০ শে জুলাই। ভেবেছিলাম সেদিনই এই লেখাটা লিখবো। কয়েকদিন দেরী হয়ে গেলো।  

ব্রুস লীর উপরে একটা বই আছে, "আর্টিস্ট অব লাইফ" নামে। এটা না পড়লে জানা সম্ভব না না ব্রুস লীকে শুধু মার্শাল আর্টিস্ট, অভিনেতা হিসেবেই বিবেচনা করা হয়না, তাকে দার্শনিক হিসেবেও বিবেচনা করা হয়।  

“দার্শনিক” শব্দটাকে আমি খুব সতর্কতার সঙ্গেই ব্যবহার করছি কারণ, কয়েকদিন আগে বাংলাদেশে কাকে দার্শনিক বলা যাবে আর কাকে দার্শনিক বলা যাবেনা সেটা নিয়ে মহা হুলুস্থূল লেগে গিয়েছিলো। এই লেখাটাকে আপনারা অবশ্য ব্রুস লীর উপরে লেখা "আর্টিস্ট অব লাইফ" এর একটা রিভিউ বলতে পারেন।    

ব্রুস লীর একজনই মার্শাল আর্টের শিক্ষক ছিলেন 'ইপ ম্যান' যার নাম।   তেরো থেকে আঠারো বছর এই পাঁচ বছর তিনি মার্শাল আর্ট শিখেছিলেন। ইপ ম্যান কে নিয়ে অনেক সিনেমাও হয়েছে হলিউডে।   ইং উইং চুনের মূল নীতিগুলি দিয়ে অনুপ্রাণিত হয়ে প্রাচীন চীনা মার্শাল আর্টকে ব্রুস লী নিজের কৌশলের সাথে মিলিয়ে মার্শাল আর্টের নতুন ধারার সুচনা করেন। ১৯৫৯ সালে তিনি হংকং থেকে চলে আসার পরে ব্রুস লি মার্শাল আর্টের ধারা উইং চুন  নিজস্ব মার্শাল আর্টের ধারাকে অভিযোযিত করে  জুন ফ্যান গুং ফু মার্সাল আর্টের ধারা তৈরি করেছিলেন। এর আক্ষরিক অনুবাদ: ব্রুস লি'র কুংফু। ব্রুস লীর কুং ফু এর পরে আমেরিকাতে দারুণ জনপ্রিয় হয়ে ওঠে।  

news24bd.tv

ব্রুস লীর দর্শন ছিলো “জীবনকে পানির মতো করে তোলো”। এই পানির মেটাফোরে তিনি কীভাবে আবিষ্কার করেছিলেন তা জানা যায়না। তবে ব্রুস লী লিখেছিলেন, যখন তিনি তার মার্শাল আর্ট শিক্ষকের দেখিয়ে দেয়া একটা কৌশল রপ্ত করতে পারছিলেন না। তখন তার ট্রেইনার বলেছিলেন,  প্রাকৃতিক বাঁক অনুসরণ করে নিজেকে রক্ষা করবে এবং প্রকৃতিতে হস্তক্ষেপ করবে না।  

নিজেকে কখনই প্রকৃতির বিরুদ্ধে দাঁড় করানোর কথা মনে করবে না; কখনই কোনও সমস্যাকে সামনে থেকে মোকাবেলা করতে যাবেনা, সমস্যার বাক, তার চলন তার গতি খেয়াল করো। আর তার সাথেই চলতে চলতে তাকে নিয়ন্ত্রণের চেষ্টা করো। ”

সেদিন ইপ ম্যান ব্রুস লিকে প্রাক্টিস না করে একটা সপ্তাহ ঘরে বসে থাকতে বলেছিলেন। মার্শাল আর্টের সেই কৌশল রপ্ত করতে না পারার হতাশা তো আছেই তার উপরে ইপ ম্যানের জ্ঞানের কথা ব্রুস লীকে শান্ত করতে পারলো না। হতাশা কাটাতে ব্রুস লী সমুদ্রে নৌকা বাইতে যায়। সাগরে হাওয়াতেও ব্রুস লীর হতাশা কাটেনা। তীব্র হতাশায় রাগে বিরক্তিতে ব্রুস লী পানিতেই ঘুষি মারেন।  

ঠিক তখনই -  হঠাৎ একটি চিন্তা ব্রুস লীর মাথায় এলো। এই পানিই তো আগামীর কুং ফুর দর্শন, ব্রুস লীর দর্শন। পানিকে আমরা সমস্ত শক্তি দিয়ে আঘাত করলেও - পানি আহত হয়না!  এই পানি, বিশ্বের সবচেয়ে নরম পদার্থ যা সবচেয়ে ক্ষুদ্রতম পাত্রে থাকতে পারে, আবার মহাসমুদ্রেও থাকতে পারে। পানি দুর্বল হলেও তা বিশ্বের সবচেয়ে শক্ত পদার্থ রুপান্তরিত হতে পারে। পানিকে আঘাত করা না গেলেও সেই পানি দুনিয়াতে মহাপ্রলয় ঘটয়ে দিতে পারে। জলোচ্ছাসের শক্তির সামনে যেকোন শক্তিই অসহায় হয়ে যায়।  

আরও পড়ুন:


শ্রদ্ধার ফুলে ঢেকে গেল ফকির আলমগীরের মরদেহ

স্বাস্থ্যবিধি মেনে মাসব্যাপী আগস্টের কর্মসূচী ঘোষণা

জার্মানিতে বন্যায় প্রাণহানির ঘটনায় পররাষ্ট্রমন্ত্রীর শোক প্রকাশ

রেকর্ড গড়েই টোকিও অলিম্পিকের প্রথম সোনা জিতলেন চীনা তরুণী


পানি এতই সূক্ষ্ম যে এর এক হাতের মুঠোয় ধরা অসম্ভব; আবার এতো বিশাল জলরাশি সে তৈরি করতে পারে যা মহাসাগরও ধারণ করতে পারেনা। পানিকে আঘাত করা যায়, তবুও তা আহত হয় না; ছুরিকাঘাত করেও রক্তাক্ত করা যায় না; পানিকে কেটে ফেলা যায়না, বিভক্ত করা যায়না।

পানির নিজস্ব কোনও আকৃতি নেই তবে এটি যেই পাত্রে থাকে সেই পাত্রের আকার ধারণ করে। বাষ্পে উত্তপ্ত হলে পানি অদৃশ্য হয় তবে অদৃশ্য অবস্থাতেই এই বাষ্প বিপুল শক্তি ধরে। পানি কখনো  নায়াগ্রা জলপ্রপাতের মতো অশান্ত এবং কখনো স্থির পুকুরের মতো শান্ত, জলোচ্ছাসের মতো ভয়ঙ্কর এবং উত্তপ্ত গ্রীষ্মের দিনে বসন্তের মতো সতেজ। পানি শান্তভাবে প্রবাহিত হতে পারে আবার ধংস করে দিতে পারে।  

কুং ফুর শিক্ষা পানির প্রকৃতির মতো হয়ে ওঠা। এটাই ব্রুস লীর আর কুং ফুর দর্শন। ব্রুস লীর এই দর্শন তার একটা টিভি ইন্টারভিউয়ে সে নিজেই ব্যখ্যা করেছে। ব্রুস লীর সাথে তার বিখ্যাত উক্তি অঙ্গাঙ্গীভাবে জড়িয়ে আছে, “বি ওয়াটার মাই ফ্রেন্ড”।  

কমেন্ট বক্সে একটা ভিডিও লিংক দিলাম, সেখানে তার সেই সাক্ষাৎকার দেখতে পাবেন।

ভিডিওটি দেখতে এখানে ক্লিক করুন:

 (মত-ভিন্নমত বিভাগের লেখার আইনগত ও অন্যান্য দায় লেখকের নিজস্ব। এই বিভাগের কোনো লেখা সম্পাদকীয় নীতির প্রতিফলন নয়। )

news24bd.tv নাজিম