দই মগজ

অনলাইন ডেস্ক

দই মগজ

কোরবানির ঈদ এলেই যেন বেড়ে যায় খাবারের আইটেম। বাংলাদেশে মূলত গরু এবং খাসিই কোরবানি হয়ে থাকে বেশি। মগজ খেতে অনেকেই পছন্দ করেন। কোরবানির ঈদ উপলক্ষে বিশেষ রেসিপির তালিকায় আজ তাই থাকছে দই মগজ।

উপকরণ:

গরুর মগজ ৫০০ গ্রাম, দই ৩ টেবিল চামচ, পেঁয়াজ কুচি ১ কাপ, রসুন বাটা ১ চা চামচ, আদা বাটা ১ চা চামচ, জিরা গুঁড়া ১ চা চামচ, ধনে ২ চা চামচ, মরিচ গুঁড়া ১ চা চামচ, হলুদ গুঁড়া ১ চা চামচ, গরম মশলা ১ চা চামচ, তেল ৩ টেবিল চামচ, লবণ স্বাদ মতো।

প্রণালী:

প্রথমে একটু হলুদ আর লবণ দিয়ে মগজ সেদ্ধ করতে হবে। পানি ঝরিয়ে টুকরো করে কাটতে হবে, দই আর বাকি উপকরণ একসাথে মেখে ২/৩ বার ফেটে নিতে হবে। এরপর একটি পাত্রে তেল ঢেলে পেঁয়াজ কুচি হালকা বাদামি করে ভেজে নিয়ে দইয়ের মিশ্রণটি কড়াইতে ঢেলে অল্প আঁচে কষাতে হবে। এরপর মগজ দিয়ে আরও কিছুক্ষণ কষাতে হবে। অল্প পরিমাণ পানি দিয়ে আরও কিছুক্ষণ আঁচ বাড়িয়ে রান্না করুন। উপরে তেল উঠে আসলে নামিয়ে ফেলুন।

সূত্র: লুক অ্যাট মি

news24bd.tv/এমিজান্নাত

পরবর্তী খবর

মুখরোচক চিকেন মিটবলের সহজ রেসিপি

অনলাইন ডেস্ক

মুখরোচক চিকেন মিটবলের সহজ রেসিপি

চিকেন মিটবল। মাংসের কিমার সঙ্গে মশলা এবং রসুন দিয়ে তৈরি চিকেনে ছোট ছোট বড়াগুলির বাইরেটা কুচমুচে এবং ভিতরটা নরম হয়। এগুলি একটি সস বানিয়েও খাওয়া যায় আবার নুড্‌লসের সঙ্গেও খেতে পারেন। জেনে নিন বাড়িতে তৈরি করার একটি সহজ রেসিপি।

কী করে বানাবেন

১। একটি পাত্রে আধ কাপ পার্মেসান চিজ গ্রেট করা নিন। তার মধ্যে ১ ডিম, ৩ টেবিল চামচ সরু সরু করে কুচোনো চাইভ, ২ টেবিল চামচ পার্সলে পাতা, ২ কোয়া রসুন থেতলে নেওয়া, আধ চা চামচ অরিগ্যানো এবং সামান্য নুন ও গোলমরিচগুঁড়ো মিশিয়ে নিন।

২। এবার এই পাত্রে ৫০০ গ্রাম চিকেন কিমা দিন। সঙ্গে ৩ টেবিল চামচ কর্ন ফ্লাওয়ার নিয়ে ভাল করে মিশিয়ে একটি মণ্ড বানিয়ে নিন।

৩। এবার সেখান থেকে ছোট ছোট করে বলের মতো বড়া বানিয়ে সামান্য কর্নফ্লাওয়ার মাখিয়ে নিন। একটি কড়াইয়ে অলিভ অয়েল গরম করে বলগুলি ভেজে নিন।

আরও পড়ুন:


ইমরান খানের সঙ্গে ছবি! শাহরুখকে বয়কটের দাবি

জাতীয় দলের নতুন কোচ বসুন্ধরা কিংসের অস্কার ব্রুজোন

ঢাকার যেসব এলাকায় মার্কেট-দোকানপাট বন্ধ থাকবে আজ

বিশ্বজুড়ে প্রাণঘাতী করোনায় কমেছে সংক্রমণ ও মৃত্যু


৪। ভাজার সময় খেয়াল রাখতে হবে যাতে সব দিক সমান ভাবে বাদামি রং আসে। হয়ে গেলে এগুলি এমনিও খেতে পারেন। আবার পাস্তার রেড সস দিয়েও পরিবেশন করতে পারেন।

news24bd.tv রিমু

পরবর্তী খবর

দারুণ উপকারী জিরা চা

অনলাইন ডেস্ক

দারুণ উপকারী জিরা চা

জিরা চা। স্বাস্থ্যের জন্য দারুণ উপকারী একটি পানীয়। নিয়মিত জিরা চা খেলে শুধু ওজনই নিয়ন্ত্রণে থাকে না, সেই সঙ্গে হজমশক্তিও উন্নত হয়।

গবেষণায় দেখা গেছে, খাবার হজম করতে, হজমশক্তি বাড়াতে দারুণভাবে সাহায্য করে জিরা।

পুষ্টি বিশেষজ্ঞরা বলছেন, শরীরে জমে থাকা বর্জ্য পদার্থ ধীরে ধীরে হজম ক্ষমতা কমিয়ে দেয়। জিরা চা সেই বিষ থেকে শরীরকে মুক্ত করে। এতে স্বাভাবিকভাবেই ওজন ঝরে। জিরা চা বানানোর জন্য একটা পদ্ধতি অনুসরণ করতে পারেন।

আরও পড়ুন:


এসএসসি-এইচএসসির পরীক্ষা ও ফলাফলের নতুন নিয়ম

ওয়ানডে ও টি-টোয়েন্টি রোহিত শর্মার কাঁধে

রমিজ রাজা পিসিবির চেয়ারম্যান

৯৩০ মাইল পাল্লার ক্ষেপণাস্ত্র পরীক্ষা চালিয়েছে উত্তর কোরিয়া

আমলাতান্ত্রিক জটিলতায় নষ্ট হচ্ছে কোটি টাকার গাছ


 

জিরা চা বানানোর জন্য উপকরণ:

আস্ত জিরা এক চা-চামচ

দেড় কাপ পানি

আধা চা চামচ মধু

প্রস্তুত প্রণালী: প্রথমে একটি শুকনো কড়াইয়ে জিরা হালকা গরম করে নিন। এবার এতে পানি দিন যাতে জিরা ভালো ভাবে ফুটতে পারে। পাঁচ মিনিট ঢাকনা দিয়ে ঢেকে রাখুন। এরপর নামিয়ে ছেঁকে নিন। স্বাদ বাড়াতে সামান্য মধু যোগ করতে পারেন। কিন্তু জিরা ফোটানোর সময় মধু দেওয়া যাবে না। ভালো ফল পেতে সকালে খালি পেটে জিরা চা খাওয়ার অভ্যাস করুন। এতে একদিকে যেমন হজমশক্তি বাড়বে, অন্যদিকে দ্রুত ওজনও কমবে।

news24bd.tv তৌহিদ

পরবর্তী খবর

ঘরেই তৈরি করুন কাঁচা কলার কাটলেট

অনলাইন ডেস্ক

ঘরেই তৈরি করুন কাঁচা কলার কাটলেট

কাঁচা কলার কাটলেট নাম হলেও এর সঙ্গে আলুও রয়েছে। টিকিয়াটি খেতে যেমন সুস্বাদু তেমনি পুষ্টিকরও। শুধু সস নয়,  চা-কফি বা জুসের সঙ্গেও বেশ মানিয়ে যায় নাস্তাটি। শিশুদের টিফিনের জন্যও এটি হতে পারে মজার একটি খাবার।

 
কাঁচা কলার কাটলেট বানাতে যা যা লাগবে

> ৪টি কাঁচা কলা
> ২টি আলু
> ১ চা চামচ গুঁড়া মরিচ
> ১ চা চামচ ধনিয়া গুঁড়া
> ৪০০ মি.লি. তেল
> ১ চা চামচ চাট মসলা
> ৬ পিস পাউরুটি
> লবণ পরিমাণমতো
> ২টি কাঁচামরিচ
> ২ টেবিল চামচ ধনিয়া পাতা কুচি
> ১০০ মিলিলিটার দুধ
> ১০০ গ্রাম ব্রেডক্রাম্ব
 
প্রণালী :

> প্রথমেই কলার চামড়া আলাদা করে সেদ্ধ করে নিন। একইসঙ্গে আলুটাও সেদ্ধ করুন।

> এরপর আলু ও কলা একসঙ্গে ভালো করে চটকে মিশিয়ে নিন।

> পাউরুটির টুকরোগুলোকে পানিতে চুবিয়ে রেখে পানি চিপে নিন। এরপর আলু ও কলা মাখানো বোলে পাউরুটিগুলো রেখে তাতে গুঁড়া মরিচ, কাঁচামরিচ কুচি, ধনিয়া পাতা কুচি, ধনিয়া গুঁড়া ও পরিমাণমতো লবণ মেখে নিন।

> সবকিছু ভালো করে মেখে ডো তৈরি করুন। ডো-টাকে কাটলেটের আকারে গোল ও চ্যাপ্টা করে নিন।

> দুটি আলাদা বাটিতে দুধ ও ব্রেডক্রাম্ব নিন। পাশাপাশি একটি প্যানে তেলটুকু ঢেলে গরম করতে থাকুন।

> এরপর কাটলেটগুলোকে নিয়ে প্রথমে দুধে মেশান, ও পরে ব্রেডক্রাম্বের কোট দিয়ে নিন। প্যানে রেখে ডুবো তেলে ভাজুন। দ্রুত বাকিগুলোও প্যানে দিন। বাদামি রঙ হওয়া পর্যন্ত ভাজুন। কাটলেটের মুচমুচে চেহারাই বলে দেবে ঠিক কখন সেটা নামাতে হবে। নামানোর পর চাট মশলা ছিটিয়ে পরিবেশন করুন।

news24bd.tv/এমি-জান্নাত

পরবর্তী খবর

ফুচকা তৈরির সহজ রেসিপি জেনে নিন

অনলাইন ডেস্ক

ফুচকা তৈরির সহজ রেসিপি জেনে নিন

নারীদের পছন্দের খাবার তালিকায় রয়েছে ফুচকা। ফুচকা খেতে পছন্দ করেন না এমন মানুষ নেই বললেই চলে। তবে নারীদের পাশাপাশি পুরুষদের অনেকেই ফুচকা খেতে পছন্দ করেন। আপনি চাইলে বাড়িতে বসেই তৈরি করে খেতে পারেন। আমাদের এ আয়োজনে থাকছে ঘরোয়াভাবে ফুচকা তৈরির রেসিপি।  

উপকরণ 

ময়দা- ১ কাপ

সুজি -৪ কাপ

তাল মাখনা -১ চা চামচ

লবণ- ১ চা চামচ (পরিমাণমত)  

পানি- ২ কাপ (পরিমাণমত)

তেল ভাজার জন্য প্রণালী-

তেল বাদে সব উপকরণ একসঙ্গে মেখে একটু শক্ত দলা বানিয়ে ১৫-২০ মিনিট ঢেকে রাখতে হবে, এরপর রুটির মত বেলে ছোট গোল গোল করে কেটে নিতে হবে। রুটিগুলো পাতলা হবে না। ফুচকাগুলো গরম ডুবো তেলে মাঝারি আচে মচমচে করে ভেজে নিতে হবে। ফুচকা ভাজার সময় যখন গরম তেলে দেওয়া হবে ফুচকা একটু চেপে ধরতে হবে তাহলে ফুলে উঠবে।   

যেভাবে ফুচকার পানি তৈরি করবেন 

পানি– ৫ কাপ 

তেঁতুলের কাথ– ২ টেবিল চামচ

পুদিনা পাতা কুচি– ১ কাপ

ধনেপাতা কুচি– ১ কাপ

কাঁচা লঙ্কা কুচি– ১ টেবিল চামচ

লঙ্কাগুঁড়ো– ১ চামচ (পরিমাণ মত) 

লবণ– পরিমাণমত
 
বিট লবণ– ১ টেবিল চামচ

চাট মশলা– ১ টেবিল চামচ

পুর তৈরি করবেন যেভাবে

ডাবলি/ বুট সেদ্ধ

সিদ্ধ আলু মাখা– ১ কাপ 

মুড়ি মশলা– ১ চা চামচ

লঙ্কাগুঁড়ো– ১ চা চামচ

বিট লবণ– ১ চা চামচ

লবণ- পরিমাণমত

আরও পড়ুন


আমেরিকার ৮,৫০০ কোটি ডলারের অস্ত্র এখন তালেবানের হাতে

আবারো জয়ের ধারায় ফিরল রিয়াল

মাত্র 'এক' টাকা পারিশ্রমিকে বঙ্গবন্ধুর চরিত্রে অভিনয় করলেন আরেফিন শুভ

দেশে ফিরতে কাবুল থেকে কাতারে ১২ বাংলাদেশি


পদ্ধতি: 

পানি তৈরির সমস্ত উপকরণ এক সঙ্গে নিয়ে ভালো করে ব্লেন্ড করুন৷ এবার এতে ৩-৪ কাপ পানি দিন৷ পুর তৈরির সব মশলা একসঙ্গে মাখুন। ব্যস, তৈরি হয়ে গেল মজাদার ফুছকা। শুকনো ফুচকার মাঝে হাল্কা আঙুলের চাপ দিয়ে গর্ত করে, তাতে পুর এবং তৈরি করা তেঁতুল জল দিয়ে খেতে থাকুন৷ 

news24bd.tv রিমু 

পরবর্তী খবর

মাত্র ১০ মিনিটেই বানিয়ে ফেলুন সুজির চমচম

অনলাইন ডেস্ক

মাত্র ১০ মিনিটেই বানিয়ে ফেলুন সুজির চমচম

মাত্র ১০ মিনিটেই যদি বানানো যায় মিষ্টি? সেই রকমই একটা মিষ্টি সুজির চমচম। বাড়িতে কেউ এলে অনায়াসেই তাকে খাওয়াতে পারেন এই মিষ্টি। জেনে নিন কীভাবে বানাবেন সুজির চমচম।

সুজির চমচম

উপকরণ:

সুজি: ১/২ কাপ

দুধ: ১ কাপ

নারকেল কোড়া: ১/৪ কাপ

চিনির গুঁড়ো: ১/২ কাপ

এলাচের গুঁড়ো: ১/৪ চা চামচ

ঘি: ১ টেবিল চামচ 

প্রথমে সুজিটাকে মিক্সিতে একটু মিহি করে নিন। এরপর একটি প্যান গরম করে তাতে সুজি দিয়ে ১ মিনিট হালকা করে নেড়ে নিন। কিন্তু খেয়াল রাখবেন সুজিটা যেন লাল না হয়ে যায়। এরপর এর সঙ্গে দুধ মিশিয়ে দিন। ভাল গন্ধ যাতে বার হয় তার জন্য এতে ঘি দিয়ে দিন। এবার ভাল করে নাড়তে থাকুন। এই ভাবে কিছুক্ষণ নাড়াচাড়া করার পর সুজি সব দুধ শুষে নিয়ে জমাট বেঁধে যাবে। তারপর প্যানের চারপাশে ভাল করে সুজি ছড়িয়ে দিয়ে ঢাকা দিয়ে দিন।

আরও পড়ুন


কাজাখস্তানে বিস্ফোরণে নিহত ১২

চিকিৎসা সেবায় জড়িত নারীদের কর্মস্থলে ফিরতে বলল তালেবান

ময়মনসিংহ মেডিকেলে করোনায় আরও ৮ জনের মৃত্যু

চকরিয়ায় যুবককে শুঁড়ে তুলে আছাড় দিল বন্যহাতি


দুই মিনিট পর একটু ঠান্ডা হয়ে গেলে একটা থালায় ঢেলে ভাল করে সুজি মেখে নিন। পুরোপুরি ঠান্ডা হলে চিনির গুঁড়ো মিশিয়ে মাখতে থাকুন। এরপর নারকেল কোড়া ও এলাচের গুঁড়ো দিয়ে মেখে একটি মণ্ড তৈরি করুন। হাতে সামান্য ঘি মাখিয়ে মণ্ড থেকে চমচমের আকার দিন। এবার একটি স্টিলের থালায় ঘি মাখিয়ে তার মধ্যে চমচমগুলো সাজিয়ে দিন। এরপর প্যানে জল গরম করতে দিয়ে আঁচ বাড়িয়ে রাখুন। তার উপর চমচম দিয়ে সাজানো স্টিলের থালাটি বসিয়ে উপরে একটা চাপা দিয়ে দিন। পাঁচ মিনিট পর নামিয়ে আরেকটু নারকেল কোড়া মাখিয়ে পরিবেশন করুন। ব্যস, তৈরি হয়ে গেল মজাদার চমচম।

news24bd.tv রিমু   

পরবর্তী খবর