একজনও ছিলো না যে প্রতিক্রিয়ার আগেই বুঝবে বক্তব্যটা অশ্লীল?
একজনও ছিলো না যে প্রতিক্রিয়ার আগেই বুঝবে বক্তব্যটা অশ্লীল?

একজনও ছিলো না যে প্রতিক্রিয়ার আগেই বুঝবে বক্তব্যটা অশ্লীল?

Other

তুমুল প্রতিবাদের মুখে ’ঘটনা সত্য’ নামের নাটকটি প্রত্যাহার এবং  সংশ্লিষ্ট কলা কৌশলীদের ক্ষমা চাওয়ার ঘটনা আমাকে মোটেও স্পর্শ করতে পারেনি। আমি বরং ভাবছিলাম এই নাটকের সাথে সম্পৃক্ত এমন একজন মানুষও কী  ছিলো না, যিনি বা যারা মানুষ প্রতিক্রিয়া জানানোর আগে নিজেরা বুঝতে  পারবে যে– এই বক্তব্যটা অশ্লীল, অশোভন এবং অমানবিক! প্রতিবাদ না হ্ওয়া পর্যন্ত তারা বুঝতেই পারলেন না- তারা যে কাজটি করেছেন সেটি ঠিক নয়।

নাটকে প্রতিবন্ধী সন্তানদের সম্পর্কে যে ডায়লগটি দেয়া হয়েছে- এই বক্তব্যটি অবচেতনভাবে তাদের মনে, বিশ্বাসে ছিলো বলেই কী তাদের কাছে এটি অন্যায় কিছু মনে হয়নি? প্রতিবাদের মুখে তারা একটি পদক্ষেপ নিয়েছেন বটে, কিন্তু তাদের মনের ভেতর অবচেতনভাবে যে বিশ্বাস তৈরি হয়ে আছে, সেটি দূর করার কী পদক্ষেপ তারা নিয়েছেন?


আরও পড়ুন:

ইরানে পানির দাবিতে বিক্ষোভ, নিহত ৩

বন্যা ও ভূমিধসে মহারাষ্ট্রের বিভিন্ন অঞ্চলে মৃতের সংখ্যা বেড়ে ১৫৯

১০ আগস্ট থেকে বিদেশি মুসল্লিদের জন্য চালু হচ্ছে পবিত্র ওমরাহ

পরকীয়ায় ধরা মসজিদের ইমাম! রাতভর বেঁধে রাখল গ্রামবাসী


এই জায়গাটিতেই আমি বিপন্ন বোধ করছি, উদ্বিগ্ন হচ্ছি। নাটক কিংবা সংস্কৃতি মানুষের মননশীলতা তৈরি করে, সচেতনতা তৈরি করে- এমন একটি কথা প্রায়শই বলা হয়ে থাকে।

কিংবা এরকম ধারনা নিয়েই আমরা বড় হয়েছি। কিন্তু সংস্কৃতির কলাকৌশলীদের নিজেদেরই যদি মননশীলতা, সচেতনতাবোধ সম্পর্কে ধারনা না থাকে, তা হলে সেই সংস্কৃতি দেশকে কী দেবে!

news24bd.tv/ নকিব

;