সামাজিক মাধ্যম ও ডিজিটাল প্ল্যাটফর্মের বিরুদ্ধে কঠোর অবস্থানে রাশিয়া
সামাজিক মাধ্যম ও ডিজিটাল প্ল্যাটফর্মের বিরুদ্ধে কঠোর অবস্থানে রাশিয়া

সামাজিক মাধ্যম ও ডিজিটাল প্ল্যাটফর্মের বিরুদ্ধে কঠোর অবস্থানে রাশিয়া

অনলাইন ডেস্ক

পশ্চিমা দেশগুলোর সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম রাশিয়ার আইনের প্রতি শ্রদ্ধাশীল নয় বলে অভিযোগ করেন দেশটির প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন। ফলে এসব প্ল্যাটফর্ম নিয়ন্ত্রণে পদক্ষেপ নিতে যাচ্ছে পুতিন প্রশাসন।

এ মাসের শুরুর দিকেই সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ও ডিজিটাল প্ল্যাটফর্ম নিয়ন্ত্রণে নতুন আইন পাস করে দেশটি। আগামী জানুয়ারিতে পাস হওয়া এই আইন কার্যকর করতে যাচ্ছে পুতিন প্রশাসন।

এই আইনের আওতায়, দেশটিতে কমপক্ষে পাঁচ লাখ সদস্য আছে এমন প্ল্যাটফর্মকে নির্দিষ্ট কিছু বিধিবিধান মানতে হবে। যার মধ্যে অন্যতম হচ্ছে, রাশিয়ায় সেই ডিজিটাল প্ল্যাটফর্মের সরাসরি অফিস বা শাখা অফিস খুলতে হবে। দেশটির নিজস্ব আইন অনুযায়ী সেই অফিসের অনুমোদন নিতে হবে। বিজ্ঞাপন থেকে আয় করা অর্থের একটি অংশ কর আকারেও প্রদান করতে হবে রুশ সরকারকে।

ডিজিটাল প্ল্যাটফর্মগুলোকে এসব আইন বাস্তবায়নে বা আইন মেনে চলতে সব প্রস্তুতি এবছরের মধ্যেই সম্পন্ন করতে হবে। এই আইন না মানলে নতুন বছরের প্রথম দিনেই সামাজিক মাধ্যম বা ডিজিটাল প্ল্যাটফর্মের কার্যক্রম বন্ধ করে দেয়া হবে।

পুতিন বলেন, কাউকেই বন্ধ করার কোনও ইচ্ছা নেই আমাদের বরং তাদের সঙ্গে মিলে আমরা একসঙ্গে কাজ করতে চাই। কিন্তু বাস্তবতা হচ্ছে যখন তারা আমাদের শর্তগুলো মানতে পারে না এবং রাশিয়ান আইনের প্রতি শ্রদ্ধা দেখাতে পারে না তখন তারা আমাদের দূরে ঢেলে দেয়।

পুতিন আরও বলেন, যদি তারা আমাদের দেশে কার্যক্রম করতে চায়, অর্থ আয় করতে চায় তাহলে তাদের আমাদের আইন মানতেই হবে।


আরও পড়ুন:

ইরানে পানির দাবিতে বিক্ষোভ, নিহত ৩

বন্যা ও ভূমিধসে মহারাষ্ট্রের বিভিন্ন অঞ্চলে মৃতের সংখ্যা বেড়ে ১৫৯

১০ আগস্ট থেকে বিদেশি মুসল্লিদের জন্য চালু হচ্ছে পবিত্র ওমরাহ

পরকীয়ায় ধরা মসজিদের ইমাম! রাতভর বেঁধে রাখল গ্রামবাসী


বর্তমানে দেশটিতে গুগলের বিরুদ্ধে একটি তদন্ত চলমান আছে। রাশিয়ান ব্যবহারকারীদের তথ্য রাশিয়ার বাইরে অন্যত্র সরিয়ে নেওয়ার অভিযোগ আছে প্রতিষ্ঠানটির বিরুদ্ধে। ব্যবহারকারীদের তথ্য রাশিয়ান সার্ভারেই সরিয়ে নেওয়া হয়েছে এমনটা প্রমাণ করতে না পারলে গুগলের বিরুদ্ধে ৮২ হাজার মার্কিন ডলার জরিমানা করতে পারে রুশ প্রশাসন।

এছাড়াও দেশটির আইন না মানায় বেশকিছু ডিজিটাল প্ল্যাটফর্ম বন্ধ থাকার নজিরও রয়েছে। এদের মধ্যে উল্লেখযোগ্য হচ্ছে ভিডিও স্ট্রিমিং সাইট ডেইলি মোশন এবং পেশাজীবীদের সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম লিংকড ইন।

news24bd.tv/ নকিব

;