করেনার টিকা নিলেন রিজভী

অনলাইন ডেস্ক

করেনার টিকা নিলেন রিজভী

বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম-মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী করোনা ভাইরাসের টিকা নিয়েছেন।

সোমবার দুপুর ১টার দিকে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় (বিএসএমএমইউ) হাসপাতালে তাকে টিকা দেওয়া হয়।

বিএনপির স্বাস্থ্য বিষয়ক সম্পাদক ডা. রফিকুল ইসলাম এ তথ্য নিশ্চিত করেন।

তিনি জানান, রুহুল কবির রিজভী মডার্নার টিকা নিয়েছেন।

আরও পড়ুন:


গার্মেন্টস খোলার ব্যাপারে যা জানালেন জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী

বাল্যবিয়ে মুক্ত উপজেলায় বাল্যবিয়ের চেষ্টা, জরিমানা-মুচলেকায় রক্ষা

ময়মনসিংহ মেডিকেলে করোনায় ‍মৃত্যুর রেকর্ড


 news24bd.tv তৌহিদ

পরবর্তী খবর

ঠাকুরগাঁওয়ের বালিয়াডাঙ্গীতে আওয়ামী লীগের দলীয় ফরম বিক্রি

মনোনয়ন ফরমের আগেই ১০ হাজারে কিনতে হচ্ছে উপজেলা আ.লীগের দলীয় ফরম

আব্দুল লতিফ লিটু, ঠাকুরগাঁও

মনোনয়ন ফরমের আগেই ১০ হাজারে কিনতে হচ্ছে উপজেলা আ.লীগের দলীয় ফরম

ঠাকুরগাঁও বালিয়াডাঙ্গী উপজেলার ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি) নির্বাচনে চেয়ারম্যান প্রার্থীদের মনোনয়নপত্র তোলার আগেই কিনতে হয়েছে উপজেলা আওয়ামী লীগের ফরম। আর প্রতিটি ফরম ১০ হাজার টাকা করে নেওয়া হয়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আবুল হাসনাত বাবুর বিরুদ্ধে।

এছাড়াও প্রতিটি ইউনিয়ন থেকে ৩ জনের নামের তালিকা কেন্দ্রে পাঠানো হয়েছে। যাদের নাম পাঠানো হয়েছে তারা হাইব্রিড আওয়ামী লীগার বা আওয়ামী লীগে অনুপ্রবেশকারী। বিভিন্ন অপরাধের সাথে জড়িত ও মাদকের সাথে জড়িত আছে বলেও অভিযোগ রয়েছে। যাদের জনপ্রিয়তা রয়েছে তাদের নাম কেন্দ্রে পাঠানো হয়নি বলেও অভিযোগ করেছেন অনেক প্রার্থী।

মঙ্গলবার খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, তৃতীয় ধাপের ইউপি নির্বাচনের তফসিলে রয়েছে বালিয়াডাঙ্গী উপজেলার ৮টি ইউনিয়ন। গত ১৪ অক্টোবর নির্বাচনের তফসিল ঘোষণার পর থেকে শুরু হয় ফরম বিক্রি। বালিয়াডাঙ্গী উপজেলায় চেয়ারম্যান প্রার্থীতার জন্য মোট ৪৮ জন দলীয় ফরম কিনেছেন ১০ হাজার টাকা করে। এর মধ্যে ফরম জমা দিয়েছেন ৪৭ জন।

নাম প্রকাশ না করার শর্তে একাধিক চেয়ারম্যান প্রার্থী বলেন, এ ধরনের সিস্টেম কোথাও নেই। কিন্তু বালিয়াডাঙ্গীতে এভাবে ফরম বিক্রি করা হচ্ছে। ১০ হাজার টাকার নিচে কাউকে ফরম দেওয়া হচ্ছে না। ফরম না নিলে প্রার্থীর তালিকা কেন্দ্রে পাঠানো হবে না। ফলে বাধ্য হয়ে ফরম কিনেছেন চেয়ারম্যান প্রার্থীরা। কিন্তু এখন প্রতি ইউনিয়ন থেকে তিনজনের নাম পাঠানো হয়েছে কেন্দ্রে। যাদের নাম পাঠানো হয় নাই তাদের টাকা আর ফেরৎ দেওয়া হবে না।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে উপজেলার দুওসুও ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান নুরুল ইসলাম বলেন, ৫নং দুওসুও ইউপির চেয়ারম্যান প্রার্থী হিসেবে ১০ হাজার টাকায় ফরম কিনেছি। সেই টাকা নাকি অফেরৎযোগ্য। আমার নাম কেন্দ্রে পাঠানো হয় নাই।

ওই ইউপির আরেক চেয়ারম্যান প্রার্থী মজিবর রহমান বলেন, ১০ হাজার টাকায় দলীয় ফরম কিনেছি। কেন্দ্রে প্রার্থীদের তালিকা পাঠানোর জন্য এই ফরম বিক্রি করছে উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আবুল হাসনাত বাবু।

আরও পড়ুন


ট্রলারে করে ঝুঁকি নিয়েই ফিরছে সেন্টমার্টিনে আটকা পর্যটকরা

মহেশখালীতে সাবেক যুবলীগ নেতাকে কুপিয়ে ও গুলি করে হত্যা

পূজামণ্ডপ কেন্দ্রিক ‘অপ্রীতিকর ঘটনায়’ ৭১ মামলায় আটক ৪৫০

শুধু তামিম নয়, বিশ্বকাপ খেলতে চায়নি আরও একজন: পাপন


চারোল ইউপির চেয়ারম্যান প্রার্থী মোশারফ হোসেন বলেন, উপজেলা থেকে কেন্দ্রে তালিকা পাঠানোর জন্য প্রার্থীদের কাছে ফরম বিক্রি করা হচ্ছে। খরচের জন্য কিছু টাকা নিচ্ছে। তবে এটার কোনো নিয়ম নেই। তবুও যারা প্রার্থী তাদের কিনতেই হচ্ছে। আমি ১০ হাজার টাকায় ফরম কিনেছি। এলাকায় আমার জনপ্রিয়তা রয়েছে। নমিনেশন পেলে আমি জয়ী হব আশা করছি।

ফরম বিক্রির বিষয়টি স্বীকার করে বালিয়াডাঙ্গী উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আবুল হাসনাত বাবু বলেন, দলের ফান্ড গঠন করতে হবে। উপজেলায় আওয়ামী লীগ অফিস নির্মানের জন্য সকল প্রার্থীরা নিজ ইচ্ছায় টাকা দিয়েছে। তবে দলীয় ফরম ১০ হাজার টাকায় বিক্রির কোনো নিয়ম আছে কি-না এমন প্রশ্ন করা হলে তিনি বলেন সকল ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি সাধারণ সম্পাদকের সাথে আলোচনা করেই ফরমের দাম নির্ধারণ করা হয়েছে। এই টাকা সকলে নিজ ইচ্ছায় দিয়েছে কারো কাছে জোর করে নেওয়া হয় নাই।

এ বিষয়ে ঠাকুরগাঁও জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মুহাম্মদ সাদেক কুরাইশী বলেন, টাকা দেওয়া ও নেওয়ার কোন নিয়ম নেই। তবে টাকা নেওয়া হলে, যে নিবে তাকে সেই দায়ভার গ্রহণ করতে হবে। আর কোন অনুপ্রবেশকারী জামাত শিবিরের কেও নমিনেশন পেলে তার নমিনেশন বাতিলের জন্য আমরা জেলা থেকে আবেদন করবো।

news24bd.tv এসএম

পরবর্তী খবর

তথ্য প্রতিমন্ত্রী শপথ ভঙ্গ করেছে, তার পদত্যাগ করা উচিত: জিএম কাদের

অনলাইন ডেস্ক

তথ্য প্রতিমন্ত্রী শপথ ভঙ্গ করেছে, তার পদত্যাগ করা উচিত: জিএম কাদের

তথ্য ও সম্প্রচার প্রতিমন্ত্রী ডা. মুরাদ হাসান রাষ্ট্রধর্ম মানি না বলে সংবিধান সংরক্ষণের শপথ ভঙ্গ করেছেন বলে অভিযোগ করেছেন জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান ও বিরোধীদলীয় উপনেতা গোলাম মোহাম্মদ কাদের। তথ্য প্রতিমন্ত্রীর উচিত পদত্যাগ করা।

জাতীয় পার্টির বনানী কার্যালয়ে টাঙ্গাইল জেলা জাতীয় পার্টির নেতাদের সঙ্গে মতবিনিময় সভায় সোমবার এসব কথা বলেন তিনি।

জি এম কাদের আরও বলেন, দলীয় শৃঙ্খলা ভঙ্গের অভিযোগে আওয়ামী লীগের উচিত তথ্য প্রতিমন্ত্রীকে বহিষ্কার করা। ইচ্ছে করলেই ব্যবস্থা নিতে পারেন প্রধানমন্ত্রী। পল্লীবন্ধু হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ দেশের ৯২ ভাগ মুসলমানের মনের আশা পূরণ করতেই রাষ্ট্রধর্ম ইসলাম ঘোষণা করেন। এর বিরুদ্ধে কোনো ষড়যন্ত্র দেশের মানুষ মেনে নেবে না।

আরও পড়ুন


বিসিবি সভাপতির কাঠগড়ায় তিন 'সিনিয়র' খেলোয়াড়

দলে পরিবর্তন, এক নজরে ওমানের বিপক্ষে বাংলাদেশের সম্ভাব্য একাদশ

আমি মুক্তিযোদ্ধার সন্তান, আমাকে সম্মান দিয়ে কথা বলুন : ডা. মুরাদ

শেখ রাসেলকে আঁকলো ছোট্ট সোনামনিরা


এ সময় বক্তব্য রাখেন পার্টির মহাসচিব মুজিবুল হক চুন্নু, প্রেসিডিয়াম সদস্য রেজাউল ইসলাম ভূঁইয়া, লিয়াকত হোসেন খোকা, যুগ্ম মহাসচিব বেলাল হোসেন, কেন্দ্রীয় নেতা নুরুচ্ছফা সরকার, মোজাম্মেল হক, ছাত্র সমাজ সাধারণ সম্পাদক আল মামুন।

news24bd.tv এসএম

পরবর্তী খবর

ধর্মবালম্বীদের ঘটনায় তীব্র নিন্দা জানিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করেছে সম্প্রীতি বাংলাদেশ

অনলাইন ডেস্ক

ধর্মবালম্বীদের ঘটনায় তীব্র নিন্দা জানিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করেছে সম্প্রীতি বাংলাদেশ

সম্প্রীতি বাংলাদেশ দেশের বিভিন্ন স্থানে সনাতন ধর্মবালম্বীদের উপাসনালয়, বাড়িঘর ও ব্যবসাপ্রতিষ্ঠানে হামলার ঘটনায় গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করেছে। 

এক বিবৃতিতে সংগঠনের আহ্বায়ক পীযূষ বন্দ্যোপাধ্যায় ও সদস্যসচিব মামুন আল মাহতাব স্বপ্নীল জানান, কুমিল্লায় সনাতন ধর্মাবলম্বীদের পূজা এবং উৎসবের সময় এবং এর জের ধরে পরবর্তীতে দেশের বিভিন্ন স্থানে যে ঘটনা ঘটেছে, তা হাজার বছরের বাঙালি সংস্কৃতির সম্পূর্ণ বিপরীত। একটি চিহ্নিত গোষ্ঠী সম্প্রীতি ও বাঙালি সংস্কৃতির বহুত্ববাদকে চ্যালেঞ্জ করতে চাইছে।

সম্প্রীতি বাংলাদেশ এসব ঘটনায় তীব্র নিন্দা জানিয়েছে ও গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করেছে।

সম্প্রীতি বাংলাদেশ মনে করে মুক্তিযুদ্ধের চেতনা এবং জাতির পিতার অসাম্প্রদায়িক দর্শন বিনষ্ট করার এ এক পুরনো ষড়যন্ত্র। এ যেন নতুন বোতলে পুরনো নেশাদ্রব্য। দেশের পবিত্র সংবিধানে লিপিবদ্ধ অসাম্প্রদায়িকতার বিরুদ্ধে সাম্প্রদায়িক অপশক্তির আঘাত সম্মিলিতভাবে রুখে দেওয়ার আহ্বান জানিয়েছে সম্প্রীতি বাংলাদেশের নেতৃবৃন্দ। 

আরও পড়ুন:


ইভ্যালিকে লাভজনক প্রতিষ্ঠানে রূপান্তরের সর্বোচ্চ চেষ্টা করব: বিচারপতি মানিক

করোনা: দেশে ২৪ ঘণ্টায় মৃত্যু কমলেও বেড়েছে শনাক্ত

প্রেমের প্রস্তাব প্রত্যাখ্যান করায় কলেজছাত্রকে অপহরণ করে বিয়ে করলো তরুণী!

ডিএমপি কমিশনার ও র‍্যাব ডিজি’র পদোন্নতি


সম্প্রীতি বাংলাদেশ বিশ্বাস করে ষড়যন্ত্রকারী দুর্বৃত্তের সংখ্যা বেশি নয় এবং শুভবুদ্ধিসম্পন্ন মানুষের ঐক্যবদ্ধ শক্তিই পারে এ অপকর্ম রুখে দিতে। এ দেশের অতীত অভিজ্ঞতা সেটাই প্রমাণ করেছে।

ভুলে গেলে চলবে না যে জাতির পিতার আহ্বানে মহান একাত্তরে দেশের মুসুলমান-হিন্দু-বৌদ্ধ-খ্রিস্টানসহ সকল ধর্মের মানুষ ঐক্যবদ্ধ হয়ে শত্রুর বিরুদ্ধে যুদ্ধ করেছিলে। সকল ধর্মবিশ্বাসী বাঙালির মিলিত রক্তস্রোতের বিনিময়ে অর্জিত অসাম্প্রদায়িক সম্প্রীতির বাংলাদেশে সাম্প্রদায়িক অপশক্তিকে চিরতরে রুখে দেওয়ার জন্য সরকারের পাশাপাশি সকল মানুষ বিশেষ করে যুবসমাজকে এগিয়ে আসার আহ্বান জানায় সম্প্রীতি বাংলাদেশ।

news24bd.tv/ কামরুল 

পরবর্তী খবর

খালেদা জিয়ার রোগমুক্তি কামনায় দোয়া মাহফিল

অনলাইন ডেস্ক

খালেদা জিয়ার রোগমুক্তি কামনায় দোয়া মাহফিল

বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার রোগমুক্তি কামনায় দোয়া মাহফিল করেছে ঢাকা মহানগর দক্ষিণ যুবদল। আজ সোমবার বিকেলে রাজধানীর নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের নিচতলায় এ দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়।

দোয়া মাহফিলে অংশগ্রহণ করেন বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান বরকত উল্লাহ বুলু, সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী, কাজী আবুল বাশার, যুবদলের সাইফুল আলম নীরব, সুলতান সালাউদ্দিন টুকু, নুরুল ইসলাম নয়ন, হাবিবুর রশিদ হাবিব, গোলাম মাওলা শাহীন, খন্দকার এনামুল হক এনামসহ বিভিন্ন স্তরের নেতাকর্মী।

আরও পড়ুন:


ইভ্যালিকে লাভজনক প্রতিষ্ঠানে রূপান্তরের সর্বোচ্চ চেষ্টা করব: বিচারপতি মানিক

করোনা: দেশে ২৪ ঘণ্টায় মৃত্যু কমলেও বেড়েছে শনাক্ত

প্রেমের প্রস্তাব প্রত্যাখ্যান করায় কলেজছাত্রকে অপহরণ করে বিয়ে করলো তরুণী!

ডিএমপি কমিশনার ও র‍্যাব ডিজি’র পদোন্নতি


এছাড়া মিরপুর শাহী মসজিদে বিএনপি নেতা এস এ সিদ্দিক সাজুর নেতৃত্বে খালেদা জিয়ার সুস্থতা কামনায় দোয়া মিলাদের আয়োজন করা হয়।

news24bd.tv/ কামরুল 

পরবর্তী খবর

আমি মুক্তিযোদ্ধার সন্তান, আমাকে সম্মান দিয়ে কথা বলুন : ডা. মুরাদ

অনলাইন ডেস্ক

আমি মুক্তিযোদ্ধার সন্তান, আমাকে সম্মান দিয়ে কথা বলুন : ডা. মুরাদ

তথ্যপ্রতিমন্ত্রী ডা. মুরাদ হাসান বলেন, আমরা বঙ্গবন্ধুকন্যা শেখ হাসিনার মুখের দিকে তাকিয়ে রাজনীতি করি। মেরুদণ্ডহীন মির্জা ফখরুল আর খোঁড়া রিজভী আন্দোলনের ভয় দেখায়। কাদেরকে দেখায়? মুক্তিযুদ্ধে নেতৃত্বদানকারী আওয়ামী লীগকে, বঙ্গবন্ধুকন্যাকে, ডা. মুরাদ হাসানকে? রাজাকারের বাচ্চারা, ওই ভয় আমরা পাই না। আমাদের হুমকি-ধমকি দিয়ে কোনো লাভ হবে না।

আজ সোমবার চলচ্চিত্র ও প্রকাশনা অধিদপ্তর আয়োজিত দীপ্ত জয়োল্লাস অদম্য আত্মবিশ্বাস শেখ রাসেলের ৫৭তম জন্মবার্ষিকীতে আলোচনা সভায় বিএনপি নেতাদের উদ্দেশে তিনি এসব কথা বলেন তথ্যপ্রতিমন্ত্রী।

তিনি বলেন, ডা. মুরাদ মাথা নিচু করে কথা বলবে না। মাথা উঁচা করেই কথা বলবে। কাদের বিরুদ্ধে আন্দোলন করো, কুশপুত্তলিকাদাহ করো। আমরা যদি শুরু করি তাহলে ঢাকার মাটিতে টিকতে পারবেন না। ডাক্তার মুরাদ হাসান সম্পর্কে ভালো করে জেনে নিয়েন। তারপরে কথা বলেন। আমি মুক্তিযোদ্ধার সন্তান, আমাকে সম্মান দিয়ে কথা বলুন।


আরও পড়ুন

প্রেমের প্রস্তাব প্রত্যাখ্যান করায় কলেজছাত্রকে অপহরণ করে বিয়ে করলো তরুণী!

শরীরের ইমিউনিটির উপর বিশ্বাসী অভিনেত্রী করোনায় আক্রান্ত

অনিয়ন্ত্রিত পতিতাবৃত্তি বন্ধ করতে চান স্পেনের প্রধানমন্ত্রী

অবরোধ তুলে নিলো ঢাবি শিক্ষার্থীরা


তথ্য প্রতিমন্ত্রী আরও বলেন, আমাকে নিয়ে কথা বলেন, কত যোগ্যতা আছে? আসেন বসি। কোথায় বসবেন জাতীয় প্রেস ক্লাবে? চলেন বসি। আমার মন্ত্রিগিরি থাকবে নাকি থাকবে না- আপনাকে বলার অধিকার কে দিয়েছে?
অনুষ্ঠানে নিজের বক্তব্যের শুরুতে মুরাদ হাসান বলেন, আমার প্রতি অনুরোধ, কিছু বিষয়ে যাতে কথা না বলি।

news24bd.tv/এমি-জান্নাত 

পরবর্তী খবর