শিল্পকারখানা চালু নিয়ে যা বললো জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী
শিল্পকারখানা চালু নিয়ে যা বললো জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী

শিল্পকারখানা চালু নিয়ে যা বললো জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী

অনলাইন ডেস্ক

করোনা ভাইরাস (কোভিড-১৯) সংক্রমণ রোধে রাজধানীসহ সারাদেশে দ্বিতীয় দফায় চতুর্থদিনের মতো চলছে ‌‘কঠোর লকডাউন’। এদিকে  কঠোর বিধিনিষেধের মধ্যে কোনো শিল্প কারখানা খুললে তাদের বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে হুঁশিয়ারি দিয়েছেন জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী ফরহাদ হোসেন।

সোমবার (২৬ জুলাই) চলমান লকডাউনের চতুর্থ দিনে সচিবালয়ে মন্ত্রিসভার বৈঠকের পর সাংবাদিকদের প্রশ্নে তিনি এ হুঁশিয়ারি দেন।
 
বিধিনিষেধের মধ্যেও অনেকে শিল্পকারখানা চালু রেখেছেন এমন কথা জানালে প্রতিমন্ত্রী বলেন, ‘কেউ খুলে থাকলে তা পর্যবেক্ষণ করছি, কারা খুলছে? যদি খুলে থাকে, প্রমাণ পাওয়া যায়, তাদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে।


 
তিনি বলেন, ‘বর্তমানে কঠোর বিধিনিষেধের কোনো বিকল্প নেই। করোনা যেভাবে ছড়িয়ে গেছে, সে বিষয় নিয়ে আজ সোমবার (২৬ জুলাই) ক্যাবিনেটে আলোচনা হয়েছে। রাস্তায় যখন মানুষ নামছে, তখন বলছে আমার চাকরিতে যেতে হচ্ছে। আসলে এটার সত্যতা যাচাই করার চেষ্টা করছি। তারা যে সব নাম বলছে, সেগুলো চেক করার চেষ্টা করছি। ’

আরও পড়ুন:


করোনায় জাবি অধ্যাপকের মৃত্যু

মর্মান্তিক মৃত্যুর ঠিক আগ মুহূর্তে ছবি তোলেন তিনি

সিলেট-৩ আসনের উপনির্বাচনে ভোটগ্রহণ স্থগিত


 

 
প্রধানমন্ত্রী মন্ত্রিসভার বৈঠকে বিশেষ কোনো নির্দেশনা দিয়েছেন কিনা জানতে চাইলে ফরহাদ হোসেন বলেন, ‘করোনা পরিস্থিতি যেভাবে ছড়িয়ে পড়েছে এ বিষয়গুলো নিয়ে আলোচনা হয়েছে। আমরা করোনা সংক্রমণ কমানোর জন্য কঠিনভাবেই তো প্রজ্ঞাপন জারি করেছি। স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেছেন, আমাদের সংক্রমণ কমানোর জন্য ব্রেক প্রয়োজন। ব্রেকটার জন্য এটাই উপযুক্ত কৌশল, সেটি হচ্ছে বিধিনিষেধ। ’
 
তবে পোশাক কারখানা খুলে দেওয়ার বিষয়ে কোনো চিন্তা-ভাবনা এখন পর্যন্ত নেই বলেও জানান জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী।

news24bd.tv/আলী

;