বিএনপি’র পরিকল্পিত লকডাউনটা কী, জানতে চান তথ্যমন্ত্রী

অনলাইন ডেস্ক

বিএনপি’র পরিকল্পিত লকডাউনটা কী, জানতে চান তথ্যমন্ত্রী

‘বিএনপি’র পরিকল্পিত লকডাউনটা কি! সেটা ২০১৩-১৪-১৫ সালে ১৫৮ দিন মানুষকে বন্দি করে রাখার মতো কি না’ লকডাউন নিয়ে বিএনপি’র লাগাতার সমালোচনার জবাবে এ প্রশ্ন রেখেছেন তথ্য ও সম্প্রচারমন্ত্রী এবং আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ড.হাছান মাহমুদ। 

সোমবার দুপুরে সচিবালয়ে তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রণালয়ের সভাকক্ষে সাংবাদিকরা লকডাউন নিয়ে বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের সমালোচনার বিষয়ে প্রশ্ন করলে তিনি একথা বলেন। 

মির্জা ফখরুল সাহেবকে তথ্যমন্ত্রী ঈদের শুভেচ্ছা জানান এবং বলেন, ‘লকডাউন নিয়ে বিএনপি’র পক্ষ থেকে একেক সময় একেক ধরণের কথা বলা হচ্ছে। লকডাউন দেয়ার আগে তারা বলেছিল দেশে কঠোর লকডাউন দেয়া দরকার। আবার লকডাউন দেয়ার পর বলছে এই লকডাউন অপরিকল্পিত। তাহলে তাদের পরিকল্পিতটা কি, সেটার প্রেসক্রিপসনটা তারা দিক।’ 

‘আর বিএনপি যে এসমস্ত কথা বলে, ২০১৩-১৪-১৫ সালে দিনের পর দিন হরতাল অবরোধ ডেকে ১৫৮ দিন মানুষকে বন্দি করে রেখেছিল, জনগণের যে অসুবিধা হয়েছে, সেটা কি তাদের মাথায় ছিল না’ প্রশ্ন রেখে মন্ত্রী বলেন, আজকে তো মানুষের জীবনরক্ষার জন্য লকডাউন দিতে হচ্ছে এবং শুধু বাংলাদেশে নয়, পাশ্ববর্তী দেশ ও ইউরোপের বিভিন্ন দেশসহ পৃথিবীর প্রায় সব দেশেই এই পদ্ধতি অবলম্বন করা হয়েছে।

তথ্যমন্ত্রী এসময় বলেন, বাংলাদেশে আজকে প্রায় দেড় বছর করোনা। কিন্তু খেটে খাওয়া মানুষের দেশে একজন মানুষও না খেয়ে মৃত্যুবরণ করেনি। সরকার ও  আমাদের দলের পক্ষ থেকে ব্যাপক তৎপরতার কারণে মানুষের মধ্যে কোনো হাহাকার নেই। সাময়িক অসুবিধা যে হচ্ছে না, তা নয়। অবশ্যই অনেকের সাময়িক অসুবিধা হচ্ছে। তবে এ অসুবিধা সাময়িক। সবাই যদি স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলে তাহলে লকডাউন বিলম্বিত করতে হবে না। 

মির্জা ফখরুলের ‘সরকার দিন দিন হিংস্র হয়ে উঠছে, বিএনপিকর্মীদের গ্রেপ্তার করছে’ এ বক্তব্যের জবাবে আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক বলেন, ‘প্রকৃতপক্ষে হিং¯্রতার রাজনীতি বিশেষ করে ২০১৩-১৪-১৫ সালে যেভাবে মানুষকে পেট্রোলবোমা নিক্ষেপ করে হত্যা করা, বহু মানুষকে ঝলসে দেয়া, বহু মানুষকে জীবনের তরে পঙ্গু করে দেয়া, এটি বাংলাদেশে আগে কেউ কখনো দেখেনি। পৃথিবীতেও সমসাময়িককালে রাজনীতির জন্য এভাবে মানুষ পুড়িয়ে হত্যা করা কেউ দেখেনি।’ 

‘এখন এই লকডাউনের মধ্যে যদি কেউ ফৌজদারী মামলার আসামী হন, তিনি যদি কোনো দল করেন তাহলে তাকে গ্রেপ্তার করা যাবে না?’ প্রশ্ন রেখে ড. হাছান বলেন, ‘মির্জা ফখরুল সাহেবরা ফৌজদারী অপরাধের আসামীর পক্ষ কেন নেন। কোনো রাজনীতিবিদও যদি ফৌজদারী মামলার আসামী হন, আইন এবং আদালত তো তার বিরুদ্ধেও ব্যবস্থা নেবেন। আইন এবং ন্যায় প্রতিষ্ঠার সাথে রাজনীতির কোনো সংশ্লেষ নেই।’ 

আরও পড়ুন:


করোনায় জাবি অধ্যাপকের মৃত্যু

মর্মান্তিক মৃত্যুর ঠিক আগ মুহূর্তে ছবি তোলেন তিনি

সিলেট-৩ আসনের উপনির্বাচনে ভোটগ্রহণ স্থগিত


এখন গ্রামাঞ্চলেও করোনা ছড়িয়েছে এ প্রেক্ষিতে মন্ত্রী বলেন, ‘আমি মনে করি মানুষের মধ্যে করোনার শুরুতে যে ধরণের ভীতি ছিল, সেই ভীতিটা নেই। দীর্ঘ একবছর গ্রামে করোনা না ছড়ানোর প্রেক্ষিতে গ্রামের মানুষের মধ্যে একটি ধারণা জন্মেছিল গ্রামে কখনো করোনা আসবে না। কিন্তু আজকে আমরা দেখতে পাচ্ছি, শহরের হাসপাতালগুলোতে যে রোগীরা ভর্তি হচ্ছে তার ৭০ ভাগ গ্রাম থেকে আসছে।’ 

সবাইকে স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলার জন্য আবারও অনুরোধ জানিয়ে ড. হাছান বলেন, নিজের সুরক্ষার জন্যই লকডাউন এবং স্বাস্থ্যবিধি মানা প্রয়োজন। 

news24bd.tv/আলী

পরবর্তী খবর

রশওন এরশাদের অবস্থা ‌‌‘শোচনীয়’

অনলাইন ডেস্ক

রশওন এরশাদের অবস্থা ‌‌‘শোচনীয়’

জীবন-মৃত্যুর সন্ধিক্ষণে রয়েছেন জাতীয় পার্টির সিনিয়র কো-চেয়ারম্যান রওশন এরশাদ। তিনি নিস্তেজ অবস্থায় আছেন।

বর্তমানে তিনি জীবন মৃত্যুর সন্ধিক্ষণে লড়ছেন। তাকে বিদেশ নেওয়ার মতো শারীরিক অবস্থা নেই। সরকারের পক্ষ থেকেও কোনো উদ্যোগ নেই।

বৃহস্পতিবার (২৮ অক্টোবর) দুপুরে বেগম রওশন এরশাদের রোগমুক্তি কামনায় দোয়া মাহফিলে এসব তথ্য জানিয়ে গোলাম মোহাম্মদ কাদের বলেন, দীর্ঘদিন ধরে বেগম রওশন এরশাদ সিএমএইচে চিকিৎসাধীন। তার ব্লাড প্রেসার ও হার্টবিট ভালো আছে। কিন্তু তিনি নিস্তেজ অবস্থায় আছেন। বর্তমানে তিনি জীবন মৃত্যুর সন্ধিক্ষণে লড়ছেন। তাকে বিদেশ নেওয়ার মতো শারীরিক অবস্থা নেই। সরকারের পক্ষ থেকেও কোনো উদ্যোগ নেই।

আরও পড়ুন:


পাগলীর জন্ম নেওয়া সন্তানের পিতা এমপি বদি

টস জিতে ফিল্ডিংয়ে পাকিস্তান

শোয়েব মালিককে ‘দুলাভাই’ ‘দুলাভাই’ বলে ডাকল ভারতীয় দর্শকরা (ভিডিও)

পরবর্তী খবর

এমপি স্যার বলেছেন, কোনো ভোট হবে না, সবাই সিলেক্টেড : রিটার্নিং অফিসার

অনলাইন ডেস্ক

এমপি স্যার বলেছেন, কোনো ভোট হবে না, সবাই সিলেক্টেড : রিটার্নিং অফিসার

এমপি স্যার বলেছেন, চিতলীয়া ইউনিয়নে কোনো নির্বাচন হবে না, সবাই সিলেক্টেড! সংসদ সদস্য সম্পর্কে এমন মন্তব্য করেছেন শরীয়তপুর সদরের রিটার্নিং অফিসার। এ সংক্রান্ত একটি ভিডিও ছড়িয়ে পড়েছে সামাজিক মাধ্যমে। যমুনা টেলিভিশন এর খবরে এমন তথ্য জানা যায়।

ভাইরাল হওয়া ভিডিওতে রিটার্নিং কর্মকর্তাকে বলতে শোনা যায়, এমপির সাথে সিদ্ধান্ত হয়েছে, চিতলীয়া ইউনিয়নে কোনো নির্বাচন হবে না, সবাই সিলেক্টেড। নির্বাচন করতে না পারলে আদালতে যাওয়ার কথা জানিয়েছেন মেম্বার প্রার্থীদের কেউ কেউ। ইউনিয়নটিতে চেয়ারম্যান পদেও একক প্রার্থী রয়েছে।

আসন্ন ইউপি নির্বাচনে সংরক্ষিত নারী সদস্য প্রার্থী ফুলমালা বেগমের প্রতীক বরাদ্দ নিতে গিয়ে রীতিমতো হতভম্ব স্বামী লিটন সর্দার। তার স্ত্রী নাকি মনোনয়নপত্র প্রত্যাহার করেছেন, তাই মেলেনি নির্বাচনী প্রতীক।

শরীয়তপুর সদর উপজেলা রিটার্নিং কর্মকর্তার কার্যালয়ে প্রতীক বরাদ্দ নিতে গিয়ে এমন অভিজ্ঞতা চিতলীয়া ইউপি নির্বাচনে অনেক মেম্বার প্রার্থীর। অভিযোগ তাদের অজান্তেই প্রত্যাহার হয়েছে মনোনয়নপত্র। স্বাক্ষর জাল করে ঘটানো হয়েছে এমন কাণ্ড।

চিতলীয়া ইউপি নির্বাচনে ৯টি মেম্বার পদে ৪৮ জন প্রার্থী  মনোনয়নপত্র জমা দেন। ৯ জন বাদে প্রত্যাহার হয়েছে সবার মনোনয়নপত্র। একই চিত্র সংরক্ষিত নারী সদস্য পদেও। সবকটি পদেই একক প্রার্থী।

আরও পড়ুন:

ডিভোর্স দেয়ায় স্ত্রীকে কুপিয়ে খুন, আত্মহত্যার চেষ্টা স্বামীর

মাকে পিটিয়ে হত্যা; ছেলের মৃত্যুদণ্ড

হিন্দু সম্প্রদায়ের মন্দিরে হামলা, বিচার বিভাগীয় তদন্তের নির্দেশ

এ বিষয়ে চিতলীয়া ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনের রিটার্নিং কর্মকর্তা আলমগীর হোসেন জানান, মনোনয়নপত্র প্রত্যাহার সংক্রান্ত অভিযোগের বিষয়ে কিছুর করার নেই তার। আর ভিডিওটি সম্পর্কে তিনি বলেন, আমার তো এ রকম বলার কথা না। যদি বলে থাকি, তবে কোন প্রেক্ষিতে বলেছি মনে পড়ছে না।

মুঠোফোনে শরীয়তপুর-১ এর সংসদ সদস্য ইকবাল হোসেন অপু বলেন, এটা আমার কোনো কাজ না। এ বিষয়ে কারোর সাথে আমি কোনো কথা বলিনি।

news24bd.tv/এমি-জান্নাত   

পরবর্তী খবর

তেলের দাম লাফিয়ে বাড়ল, প্রতিবাদ করলে শ্রীঘর অথবা লালঘর: রিজভী

অনলাইন ডেস্ক

তেলের দাম লাফিয়ে বাড়ল, প্রতিবাদ করলে শ্রীঘর অথবা লালঘর: রিজভী

বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য নজরুল ইসলাম খান বলেছেন, ‘করোনাকালে ব্যবসায়ীদের লোকসান হয়েছে বলে তেলের দাম বাড়ালেন, কিন্তু এতে শ্রমজীবী মানুষের যে লোকসান হলো, তাদের বেতন বাড়ালেন না কেন?’

আজ বৃহস্পতিবার দুপুরে জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে দ্রব্যমূল্যের ঊর্ধ্বগতি ও শ্রমজীবী মানুষের ভোগান্তির প্রতিবাদে বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী শ্রমিক দল আয়োজিত এক মানববন্ধনে নজরুল ইসলাম খান বলেন, সরকারি প্রতিষ্ঠান টিসিবির হিসাবে গত এক বছরে দ্রব্যমূল্য গড়ে ৩৫ শতাংশ বেড়েছে। কিন্তু শ্রমজীবীদের কারও বেতন-ভাতা বাড়েনি।

‘আমরা সাম্প্রদায়িক হামলার নিন্দা জানাই। যাঁরা জড়িত, তাঁদের শাস্তির দাবি জানাচ্ছি। কিন্তু রাজনৈতিকভাবে কাউকে ক্ষতিগ্রস্ত করতে আমরা বাধা দিই।’

দেশ নিয়ে দেশি ও আন্তর্জাতিক যড়যন্ত্র চলছে উল্লেখ করে তিনি বলেন, যেখানে বিএনপির একটা ছোট কর্মসূচিতে এত পুলিশ থাকে, আর কুমিল্লার মন্দিরে কেন দুজন আনসার সদস্য রাখা হলো না!

মানববন্ধনে বিশেষ অতিথির বক্তব্যে বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী বলেন, পেঁয়াজের দাম, মরিচের দাম, চালের দাম, তেলের দাম বাড়লে এই সরকারের কী যায় আসে? বাংলাদেশের নিম্ন ও মধ্যম আয়ের মানুষ বাঁচল না মরল, তাতে তো তাদের কিছু যায় আসে না।

আরও পড়ুন:


পাগলীর জন্ম নেওয়া সন্তানের পিতা এমপি বদি

টস জিতে ফিল্ডিংয়ে পাকিস্তান

শোয়েব মালিককে ‘দুলাভাই’ ‘দুলাভাই’ বলে ডাকল ভারতীয় দর্শকরা (ভিডিও)

রুহুল কবির রিজভী বলেন, সয়াবিন তেলের দাম একলাফে সাত টাকা বেড়েছে। পৃথিবীর অন্য কোনো দেশে একলাফে তেলের দাম সাত টাকা বৃদ্ধি অসম্ভব ব্যাপার। কিন্তু এ দেশে সম্ভব। কে এর প্রতিবাদ করবে? প্রতিবাদ করলে তো আপনাকে যেতে হবে শ্রীঘরে অথবা লালঘরে। এটাই হলো বাস্তব অবস্থা।

news24bd.tv/তৌহিদ

পরবর্তী খবর

মামলার আসামিকে নৌকার প্রতীক দেওয়ায় প্রতিবাদ

অনলাইন ডেস্ক

মামলার আসামিকে নৌকার প্রতীক দেওয়ায় প্রতিবাদ

ব্রাহ্মণবাড়িয়া নবীনগর উপজেলা পূর্ব ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে মানিলন্ডারিং মামলার আসামি আব্দুল্লাহ আল মামুনকে নৌকা প্রতীক দেওয়ার প্রতিবাদে মানববন্ধন করেছে ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ। ব্রাহ্মণবাড়িয়া নবীনগর উপজেলা পূর্ব ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে তাকে এই প্রতীক দেওয়া হয়।

আজ বৃহস্পতিবার দুপুরে নবীনগর প্রেসক্লাবের সামনে ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ ও অঙ্গ সংগঠনের নেতাকর্মীরা ব্যানার ফেস্টুন নিয়ে প্রতিবাদ মানববন্ধন করে।

নবীনগর পূর্ব ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি শামছুল হকের সভাপতিত্বে মানববন্ধনে বক্তব্য রাখেন উপজেলা আওয়ামী লীগের যুব ও ক্রীড়া বিষয়ক সম্পাদক নাছির উদ্দিন, পৌর ওয়ার্ড কাউন্সিলর গনী চান মকসুদ, ৪ নং আওয়ামী লীগ সভাপতি মাহবুর, পূর্ব ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক লিয়াকত আলী, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক সাদেক চৌধুরীসহ অরও অনেকে।

আরও পড়ুন:

মাকে পিটিয়ে হত্যা; ছেলের মৃত্যুদণ্ড

হিন্দু সম্প্রদায়ের মন্দিরে হামলা, বিচার বিভাগীয় তদন্তের নির্দেশ

ব্যক্তরা বলেন, আমাদের পূর্ব ইউনিয়নে নৌকা প্রতীকে যাকে মনোনয়ন দেওয়া হয়েছে সে মানিলন্ডারিং মামলার আসামি। তার পরিবার জামায়াত-বিএনপির দলের সঙ্গে জড়িত। ত্যাগী নেতাদের বাদ দিয়ে অল্প বয়সী যুবককে নৌকা প্রতীকে দলীয়ভাবে মনোনয়ন দেওয়ায় আমরা তীব্র প্রতিবাদ জানাচ্ছি। উপজেলা আওয়ামী লীগ ও জেলা আওয়ামী লীগের নেতৃবৃন্দের কাছে তারা আবেদন জানান, মামুনকে বাদ দিয়ে দলের সিনিয়র ও ত্যাগী নেতাদের মনোনয়ন দেওয়া হোক। তা না হলে ইউনিয়নবাসীরা আন্দোলন গড়ে তুলবে বলে জানায় তারা।

এ বিষয়ে জানতে নৌকা প্রতীকের প্রার্থী আব্দুল্লাহ আল মামুন তার বিরুদ্ধে আনা অভিযোগগুলো মিথ্যা ও বনোয়াট বলে দাবি করেন। তিনি সংবাদমাধ্যমকে বলেন, আমার অভিযোগগুলো মিথ্যা ও বনোয়াট। তাদের কাছে কোন প্রমাণ নেই।

news24bd.tv/এমি-জান্নাত  

পরবর্তী খবর

সবাইকে আইনের আওতায় আনা হবে: হানিফ

নিজস্ব প্রতিবেদক

সবাইকে আইনের আওতায় আনা হবে: হানিফ

সাম্প্রদায়িক হামলার ঘটনায় যে দলেরই হোক যত বড় নেতা জড়িত হোক না কেন সবাইকে আইনের আওতায় আনা হবে বলে জানিয়েছেন আওয়ামী লীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক মাহবুব উল আলম হানিফ।

বিস্তারিত আসছে...

আরও পড়ুন:


পাগলীর জন্ম নেওয়া সন্তানের পিতা এমপি বদি

টস জিতে ফিল্ডিংয়ে পাকিস্তান

শোয়েব মালিককে ‘দুলাভাই’ ‘দুলাভাই’ বলে ডাকল ভারতীয় দর্শকরা (ভিডিও)

news24bd.tv/তৌহিদ

 

পরবর্তী খবর