প্রাণিসম্পদ খাতের বিকাশে সার্কভুক্ত দেশগুলোকে ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ করতে হবে

অনলাইন ডেস্ক

প্রাণিসম্পদ খাতের বিকাশে সার্কভুক্ত দেশগুলোকে ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ করতে হবে

সার্ক অঞ্চলে প্রাণিসম্পদ খাতের উন্নয়ন ও বিকাশে সার্কভুক্ত দেশগুলোকে ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ করার আহ্বান জানিয়েছেন মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রী শ ম রেজাউল করিম।

মঙ্গলবার (২৭ জুলাই) সার্ক কৃষি কেন্দ্র আয়োজিত সার্ক অঞ্চলে প্রাণিসম্পদ ও প্রাণিজাত পণ্যের আঞ্চলিক বাণিজ্য সম্প্রসারণে গাইডলাইন ও পলিসি সমন্বয় সংক্রান্ত আঞ্চলিক বিশেষজ্ঞদের এক ভার্চুয়াল পরামর্শক সভার উদ্বোধন পর্বে সচিবালয়ের নিজ দপ্তর কক্ষ থেকে সংযুক্ত হয়ে প্রধান অতিথির বক্তব্যে মন্ত্রী এ আহ্বান জানান।

আঞ্চলিক খাদ্য নিরাপত্তা, অর্থনীতি ও জীবনযাত্রা এবং দক্ষিণ এশিয়ার জনগণের সুস্বাস্থ্য ও কল্যাণের জন্য সার্ক অঞ্চলে প্রাণিসম্পদ ও প্রাণিজাত পণ্যের আঞ্চলিক বাণিজ্য সম্প্রসারণে গাইডলাইন ও পলিসি সমন্বয় অত্যন্ত তাৎপর্যপূর্ণ বলে এসময় মন্তব্য করেন মন্ত্রী।

এবিষয়ে মন্ত্রী আরো বলেন, সার্কভুক্ত অনেক দেশ প্রাণিজ আমিষ উৎপাদনে শুধু স্বয়ংসম্পূর্ণই নয় বরং উদ্বৃত্ত। সে দেশগুলো রফতানির মাধ্যমে প্রাণিজ আমিষের বৈশ্বিক সরবরাহ চেইন ঠিক রাখতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখতে পারে।

প্রাণিসম্পদ মন্ত্রী বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার দূরদর্শী নেতৃত্বে বাংলাদেশ উন্নয়নের ধারাবাহিকতা বজায় রেখে ১৩টি খাতে বিশ্বের সেরা দশটি স্থান অর্জন করেছে। যার মধ্যে বিশ্বে ইলিশ আহরণে প্রথম, ধান উৎপাদনে তৃতীয়, অভ্যন্তরীণ মুক্ত জলাশয়ের মাছ উৎপাদনে তৃতীয়, বদ্ধ জলাশয়ের মাছ উৎপাদনে পঞ্চম, ব্ল্যাক বেঙ্গল ছাগল উৎপাদনে চতুর্থ, সবজি উৎপাদনে তৃতীয়, আলু উৎপাদনে ষষ্ঠ স্থান অর্জন উল্লেখযোগ্য।

প্রাণিসম্পদ মন্ত্রী আরও বলেন,খাদ্য ও পুষ্টি নিরাপত্তা অর্জন, আত্মকর্মসংস্থান সৃষ্টি, বৈদেশিক মুদ্রা অর্জন, নারীর ক্ষমতায়ন এবং মেধাবি জাতি গঠনে প্রাণিসম্পদ খাতের গুরুত্ব অপরিসীম। প্রাণিসম্পদ থেকে উৎপাদিত দুধ, ডিম, মাংস ও অন্যান্য প্রক্রিয়াজাত খাদ্য অপুষ্টি দূর করে। শেখ হাসিনার নেতৃত্বাধীন সরকারের নানা পদক্ষেপ তথা কৃত্রিম প্রজনন, পোলট্রি ও ডেইরি খাতে গবেষণা বৃদ্ধি, শিক্ষিত উদ্যেক্তা তৈরি, সহজ শর্তে ও স্বল্প সুদে ঋণ প্রদানসহ বিভিন্ন রকম প্রণোদণা প্রদানের কারণে  বিগত ১২ বছরে বাংলাদেশের প্রাণিসম্পদ খাতে অভূতপূর্ব অগ্রগতি সাধন হয়েছে। 

বাংলাদেশ এখন মাংস ও ডিম উৎপাদনে স্বয়ংসম্পূর্ণ এবং ৪-৫ বছরের মধ্যে দুধ উৎপাদনেও স্বয়ংসম্পূর্ণতা অর্জন করবে। পোলট্রি ও ডেইরি খাতের ব্যাপক সাফল্যের কারণে প্রাণিজাত খাদ্যের বহুমুখীকরণ ও রফতানিতে বাংলাদেশ সরকার জোর দিচ্ছে। গুণগত মানসম্পন্ন ও নিরাপদ প্রাণিজাত পণ্য উৎপাদন এক্ষেত্রে একটি চ্যালেঞ্জ। এ চ্যালেঞ্জ উত্তরণে আন্তর্জাতিকমানের প্রাণিসম্পদ উৎপাদন উপকরণ ও প্রাণিজাত খাদ্যের মান নিয়ন্ত্রণ গবেষণাগার স্থাপন করা হয়েছে। পাশাপাশি সরকার এ খাতের উদ্যোক্তাদের কর অব্যাহতিসহ নানা সুবিধা দিচ্ছে।

তিনি বলেন, প্রাণিসম্পদ খাত স্বাস্থ্যকর দক্ষিণ এশিয়া গড়ে তুলতে অবদান রেখেছে এবং অবদান রাখছে। পাশাপাশি বাংলাদেশসহ সার্কভুক্ত দেশগুলোর জনগণের অর্থনৈতিক সমৃদ্ধি এনে দিচ্ছে। এদেশগুলোতে লাখ লাখ ক্ষুদ্র ও প্রান্তিক জনগোষ্ঠীর জীবিকা এ খাতের উপর নির্ভরশীল। বর্তমান প্রেক্ষাপটে কোভিড-১৯ থেকে মুক্তি লাভ, ক্ষুধা দূর করা, পুষ্টি নিরাপত্তা নিশ্চিত করা, খাদ্যের সাথে জড়িত অসংক্রামক ব্যাধি তথা হৃদরোগ, ডায়াবেটিস ও ক্যান্সারের ঝুঁকি হ্রাস করার বিষয়গুলো আঞ্চলিক ও বৈশ্বিক স্বাস্থ্য নীতিতে আধিপত্য বিস্তার করছে। এজন্য টেকসই খাদ্য উৎপাদন, স্বাস্থ্যকর জীবনযাত্রা ও খাদ্যাভ্যাস গড়ে তোলা অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। এক্ষেত্রে সার্ক অঞ্চলের বিশেষজ্ঞদের পরামর্শক সভা অত্যন্ত সময়োপযোগী।

আরও পড়ুনঃ


দ. কোরিয়ার কোন গালিও দেয়া চলবে না উত্তর কোরিয়ায়

তালেবানের হাত থেকে ২৪ জেলা পুনরুদ্ধারের দাবি


 

সার্ক কৃষি কেন্দ্রের পরিচালক ড. মোঃ বক্তীয়ার হোসেনের সভাপতিত্বে সভার উদ্বোধন পর্বে বিশেষ অতিথি হিসেবে অংশগ্রহণ করেন বাংলাদেশ কৃষি গবেষণা কাউন্সিলের নির্বাহী চেয়ারম্যান ড. শেখ মোহাম্মদ বখতিয়ার ও ভুটানের কৃষি ও খাদ্য নিয়ন্ত্রণ কর্তৃপক্ষের মহাপরিচালক ড. তাশি সামদুপ। স্বাগত বক্তব্য প্রদান করেন সার্ক কৃষি কেন্দ্রের সিনিয়র প্রোগ্রাম স্পেশালিস্ট (প্রাণিসম্পদ) ড. আশীষ কুমার সামন্ত। এছাড়া সার্ক সদস্য দেশসমূহের প্রাণিসম্পদ খাতের বিশেষজ্ঞ, উদ্যোক্তা ও পেশাজীবী এবং সার্ক কৃষি কেন্দ্রের কর্মকর্তাগণ উদ্বোধন পর্বে অংশগ্রহণ করেন।

news24bd.tv/আলী

পরবর্তী খবর

যে কারণে আটক হলেন মুফতি ইব্রাহিম

অনলাইন ডেস্ক

যে কারণে আটক হলেন মুফতি ইব্রাহিম

প্রাণঘাতী করোনা ভাইরাসের উৎপত্তি নিয়ে কথা বলে তুমুল সমালোচনার মুখে পড়েছিলেন মুফতি কাজী ইব্রাহিম। এছাড়াও বিখ্যাত ব্রিটিশ নাট্যকার ও সাহিত্যিক উইলিয়াম শেক্সপিয়ারকে নিয়েও তিনি কথা বলেছিলেন। তিনি বলেছেন, ‘শেক্সপিয়ারের আসল নাম শেখ জুবায়ের। তিনি অ্যারাবিয়ান।’ 

তার এসব বক্তব্যের ভিডিও সামাজিক মাধ্যমে ভাইরাল হয়েছে। আলোচনা-সমালোচনার মধ্যে সোমবার (২৭ সেপ্টেম্বর) রাতে তাকে আটক করেছে ঢাকা মেট্রোপলিটন গোয়েন্দা পুলিশ (ডিবি)।

সোমবার দিবাগত রাত দুইটার দিকে রাজধানীর লালমাটিয়ার জাকির হোসেন রোডের বাসা থেকে তাকে আটক করে ডিবির একটি দল।

আরও পড়ুন:


মুফতি কাজী ইব্রাহীমকে আটক করেছে ডিবি

ইতিহাসের প্রয়োজনেই বঙ্গবন্ধু কন্যার জন্ম: ওবায়দুল কাদের

৫ ঘণ্টা পর মিলল ড্রেনে পড়ে নিখোঁজ সেই তরুণীর মরদেহ

ইউটিউবারদের আয়ের উপর কর, মিশরে মিশ্র প্রতিক্রিয়া


জানা গেছে, আটকের পর তাকে রাজধানীর মিন্টো রোডের ডিবি কার্যালয়ে নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে।

বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন পুলিশের অতিরিক্ত কমিশনার ও ডিবি প্রধান এ কে এম হাফিজ আক্তার। এসময় তিনি বলেন, ‘মুফতি ইব্রাহীম ফেসবুক, ইউটিউবসহ তার ওয়াজে উল্টাপাল্টা কথা বলেন বলে অভিযোগ রয়েছে। সেগুলো যাচাই করতে আমার তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করছি।’

news24bd.tv নাজিম

পরবর্তী খবর

মুফতি কাজী ইব্রাহীমকে আটক করেছে ডিবি

অনলাইন ডেস্ক

মুফতি কাজী ইব্রাহীমকে আটক করেছে ডিবি

জিজ্ঞাসাবাদের জন্য মুফতি কাজী ইব্রাহীমকে আটক করেছে ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা পুলিশ (ডিবি)। সোমবার দিবাগত রাত ২টার পর মোহাম্মদপুর কলেজ রোডের বাসা থেকে তাকে আটক করে ডিবির একটি বিশেষ দল।

জানা গেছে, আটকের পর তাকে রাজধানীর মিন্টো রোডের ডিবি কার্যালয়ে নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে।

বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন পুলিশের অতিরিক্ত কমিশনার ও ডিবি প্রধান এ কে এম হাফিজ আক্তার। এসময় তিনি বলেন, ‘মুফতি ইব্রাহীম ফেসবুক, ইউটিউবসহ তার ওয়াজে উল্টাপাল্টা কথা বলেন বলে অভিযোগ রয়েছে। সেগুলো যাচাই করতে আমার তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করছি।’

news24bd.tv এসএম

আরও পড়ুন


প্রধানমন্ত্রীর জন্মদিনে সাকিব আল হাসানের আবেগঘন স্ট্যাটাস

প্রধানমন্ত্রীর জন্মদিন উপলক্ষে দেশব্যাপী গণটিকা কার্যক্রম

বাঙালি জাতির ‘‘মুকুট মণি” শেখ হাসিনা

ভারত থেকে কেজি দরে কেনা চুল আসছে দেশে


 

পরবর্তী খবর

ইতিহাসের প্রয়োজনেই বঙ্গবন্ধু কন্যার জন্ম: ওবায়দুল কাদের

তোফিক মাহমুদ মুন্না

ইতিহাসের প্রয়োজনেই বঙ্গবন্ধু কন্যার জন্ম: ওবায়দুল কাদের

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক, সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, ইতিহাসের প্রয়োজনেই বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনার জন্ম, আর এখন তিনি নিজেই ইতিহাস। 

আজ মঙ্গলবার সকালে বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনার ৭৫তম জন্মদিন ও বিগত ৫০ বছরের নদী ভাঙ্গন থেকে শরীয়তপুর জেলার নড়িয়া উপজেলাকে রক্ষার জন্য দোয়া এবং পবিত্র কুরআন শরীফ বিতরণ অনুষ্ঠানে একথা বলেন ওবায়দুল কাদের। 

বিস্তারিত আসছে......

আরও পড়ুন


বিশ্বের প্রশংসাসহ সব অর্জনই প্রধানমন্ত্রীর নেতৃত্বে

ফাইজারের আরও ২৫ লাখ ডোজ ভ্যাকসিন দেশে এসে পৌঁছেছে আজ

রাজধানীর যেসব এলাকায় মার্কেট বন্ধ থাকবে আজ

গালে থাপ্পড়ের পর এবার ডিম হামলার শিকার ম্যাক্রোঁ, ভিডিও ভাইরাল

news24bd.tv রিমু  

পরবর্তী খবর

প্রধানমন্ত্রীর জন্মদিন উপলক্ষে দেশব্যাপী গণটিকা কার্যক্রম

অনলাইন ডেস্ক

প্রধানমন্ত্রীর জন্মদিন উপলক্ষে দেশব্যাপী গণটিকা কার্যক্রম

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ৭৫তম জন্মদিন আজ। এ উপলক্ষে দেশব্যাপী গণটিকা কর্মসূচি শুরু হয়েছে। গণটিকার আওতায় এদিন ৭৫ লাখ মানুষকে টিকার প্রথম ডোজ দেওয়া হবে। মঙ্গলবার (২৮ সেপ্টেম্বর) সকাল ৯টা থেকে সারাদেশে একযোগে এ কর্মসূচি শুরু হয়।

টিকা নেওয়ার সময় জাতীয় পরিচয়পত্র ও টিকাকার্ড সঙ্গে আনতে হবে। উপজেলা পর্যায়ে প্রতিটি ইউনিয়নের কোনও একটি ওয়ার্ডের একটি কেন্দ্রে একটি বুথ, পৌরসভার প্রতিটি কেন্দ্রে একটি কেন্দ্রে একটি বুথ, সিটি করপোরেশনের প্রতিটি ওয়ার্ডে ৩টি বুথের মাধ্যমে কোভিড-১৯ ভ্যাকসিন দেওয়া হবে। সারাদেশে আগে থেকে যেসব কেন্দ্রে টিকাদান কর্মসূচি চলছিল সেগুলো অব্যাহত থাকবে। টিকাদান কর্মসূটি সকাল ৯টা থেকে ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশন এলাকায় দুপুর আড়াইটা পর্যন্ত চলবে।

এর আগে সোমবার (২৭ সেপ্টেম্বর) বিকেল ৪টায় গণটিকা কর্মসূচি প্রসঙ্গে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালক অধ্যাপক ডা. আবুল বাসার মোহাম্মদ খুরশীদ আলম বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ৭৫তম জন্মদিন উপলক্ষে এদিন সারা দেশব্যাপী টিকা ক্যাম্পেইনের মাধ্যমে ব্যাপক হারে টিকা দেওয়ার কর্মসূচি হাতে নিয়েছি। এই ক্যাম্পেইনে শুধুমাত্র প্রথম ডোজের টিকা দেওয়া হবে। একইভাবে আগামী মাসের একই তারিখে দ্বিতীয় ডোজ দেওয়া হবে।

আরও পড়ুন


বাঙালি জাতির ‘‘মুকুট মণি” শেখ হাসিনা

ভারত থেকে কেজি দরে কেনা চুল আসছে দেশে

৫ ঘণ্টা পর মিলল ড্রেনে পড়ে নিখোঁজ সেই তরুণীর মরদেহ

হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি ইনজামাম


তিনি আরও জানান, প্রধানমন্ত্রীর জন্মদিনের এই বিশেষ গণটিকা দান কর্মসূচিতে নির্ধারিত জনগোষ্ঠী যাদের বয়স ২৫ বছর বা তার বেশি সোমবার দিনগত রাতে যারা টিকা নেওয়ার এসএমএস পেয়েছেন তারা টিকা গ্রহণ করবেন। টিকা নিতে আসা ব্যক্তিদের জাতীয় পরিচয়পত্র এবং টিকা কার্ড সঙ্গে আনতে হবে। এ ক্ষেত্রে যাদের বয়স ৪০ বছরের বেশি তাদের অগ্রাধিকার দেওয়া হবে। একইসঙ্গে বয়স্ক, শারীরিক প্রতিবন্ধীদের জন্য বিশেষ বিবেচনা করা হচ্ছে। তবে স্তন্যদানকারী মা এবং গর্ভবতী মায়েরা এ টিকা ক্যাম্পেইনের আওতায় টিকা নিতে পারবেন না।

স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের পক্ষ থেকে এ বিষয়ে এক বিবৃতিতে বলা হয়, টিকাদান কর্মসূচির প্রথম দুই ঘণ্টা অগ্রাধিকার ভিত্তিতে ৫০ বছরের বেশি বয়সী জনগোষ্ঠী, নারী এবং শারীরিক প্রতিবন্ধীদের টিকা দেওয়া হবে।  

সারাদেশ আগে থেকে যেসব কেন্দ্রে টিকা দেওয়ার ব্যবস্থা ছিল, সেগুলোতে টিকাদান অব্যাহত থাকবে বলেও স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের পক্ষ থেকে জানানো হয়।

news24bd.tv এসএম

পরবর্তী খবর

ফাইজারের আরও ২৫ লাখ ডোজ ভ্যাকসিন দেশে এসে পৌঁছেছে আজ

অনলাইন ডেস্ক

ফাইজারের আরও ২৫ লাখ ডোজ ভ্যাকসিন দেশে এসে পৌঁছেছে আজ

করোনার টিকা ফাইজারের আরও ২৫ লাখ ডোজ ভ্যাকসিন দেশে এসে পৌঁছেছে আজ ভোর ৫টায়। 

স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, আমেরিকার ফ্লোরিডা অঙ্গরাজ্য থেকে জার্মানির মিউনিখ হয়ে মালদ্বীপিয়ান বিমানে ফ্যাসিলিটিজের আওতায় আজ মঙ্গলবার (২৮ সেপ্টেম্বর) ভোর ৫টায় হজরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমান বন্দরে ২৫ লাখ ডোজ ভ্যাকসিন দেশে এসে পৌঁছায়।  

এসময় ভ্যাকসিনগুলো গ্রহণ করতে বিমানবন্দরে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়, স্বাস্থ্য অধিদপ্তর, সিএমএসডি ও বিমানবন্দর কর্তৃপক্ষ উপস্থিত ছিলেন।

আরও পড়ুন


বিশ্বের প্রশংসাসহ সব অর্জনই প্রধানমন্ত্রীর নেতৃত্বে

আইএইএ মহাপরিচালকের প্রতিবেদনে ভুল তথ্য, প্রতিবাদ ইরানের

রাজধানীর যেসব এলাকায় মার্কেট বন্ধ থাকবে আজ

গালে থাপ্পড়ের পর এবার ডিম হামলার শিকার ম্যাক্রোঁ, ভিডিও ভাইরাল


উল্লেখ্য, এর আগে কোভ্যাক্স ফ্যাসিলিটিজের আওতায় যুক্তরাষ্ট্রের মাধ্যমে ১ম দফায় ১ লাখ ৬২০ ডোজ এবং ২য় দফায় ১০ লাখ ৩ হাজার ৮৬০ ডোজ ফাইজারের ভ্যাকসন দেশে এসেছে। আজ আরও ২৫ লাখ ডোজসহ এ নিয়ে ফাইজারের মোট ৩৬ লাখ ৪ হাজার ৪৮০ ডোজ ভ্যাকসিন দেশে এসে পৌঁছেছে। 

news24bd.tv রিমু  

পরবর্তী খবর