বরিশালে ঢিলেঢালা ভাবে পালিত হচ্ছে লকডাউন

রাহাত খান, বরিশাল :

বরিশালে ঢিলেঢালা ভাবে পালিত হচ্ছে লকডাউন

বরিশালে ঢিলেঢালা ভাবে পালিত হচ্ছে ৬ষ্ঠ দিনের লকডাউন। ব্যাংকিংকালীন সময়ে নগরীর রাস্তাঘাটে দেখা যায় প্রচুর মানুষ। লঞ্চ-বাস, থ্রি হুইলার এবং কিছু দোকানপাঠ বন্ধ থাকা ছাড়া নগরীর সব কিছু প্রায় স্বাভাবিক হয়ে গেছে। রাস্তাঘাটে দেখা গেছে প্রচুর সংখ্যক রিক্সা, মোটরসাইকেল, বাই সাইকেল এবং ব্যক্তিগত যানবাহন। 

এদিকে লকডাউন এবং স্বাস্থ্য বিধি বাস্তবায়নে আজও নগরীতে পৃথক ৩টি ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনা করেছে জেলা প্রশাসন। আইন শৃঙ্খলা বাহিনীও গা ছাড়াভাবে নগরীতে টহল অব্যাহত রেখেছে। 

ঈদের পর চলমান কঠোর লকডাউনের ৬ষ্ঠ দিন অতিবাহিত হচ্ছে আজ বুধবার। এদিন সকাল থেকে নগরীর প্রধান প্রধান রাস্তাঘাটে প্রচুর সংখ্যক মানুষ ও যানবাহন দেখা গেছে। 

বাজারঘাট, হাসপাতাল এবং ব্যাংক কেন্দ্রিক প্রয়োজনে রাস্তায় বের হওয়ার কথা বলেন বেশীরভাগ মানুষ। তবে কিছু মানুষ অজুহাত সৃষ্টি করে বেড়িয়েছেন রাস্তায়। 

সকালের দিকে নগরীর পোর্ট রোড ইলিশ মোকাম সহ সবগুলো বাজারে প্রচুর ভীর দেখা দেখা গেছে। বাজারে স্বাস্থ্য বিধি উপেক্ষিত হয়েছে। ক্রেতা-বিক্রেতাদের অধিকাংশের মাস্ক পড়ায় রয়েছে অনীহা। 

নগরীর প্রধান প্রধান সড়কগুলোতে সকালের দিকে প্রচুর সংখ্যক রিক্সা, মোটরসাইকেল, বাই সাইকেল এবং ব্যক্তিগত যানবাহন চলাচল করেছে। তবে দুপুরের পর ধীরে ধীরে রাস্তাঘাট অনেকটাই ফাঁকা হয়ে গেছে। 

এদিকে লকডাউন ও স্বাস্থ্য বিধি বাস্তবায়নে আজ সকাল থেকে দুপুর পর্যন্ত নগরীতে পৃথক ৩টি ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনা করেছে জেলা প্রশাসন। আইনের ব্যতয় হলে তাদেরই শাস্তির আওতায় আনছে তারা। 

অপরদিকে আইন শৃঙ্খলা বাহিনীও চেকপোস্টে যানবাহন চলাচল নিয়ন্ত্রন করা সহ নগরীতে টহল অব্যাহত রেখেছে। তবে তাদের মধ্যে কিছুটা গা ছাড়া ভাব পরিলক্ষিত হয়েছে। 

আরও পড়ুন:


বিভিন্ন জেলায় করোনায় প্রায় দেড় শতাধিক মৃত্যুর

সিলেট বিভাগে করোনায় শনাক্ত ও মৃত্যু নতুন রেকর্ড

বগুড়ায় ৭০০ পরিবারের মাঝে বসুন্ধরা গ্রুপের ত্রাণ বিতরণ

মাহফুজ আনামের অনৈতিক কর্মকাণ্ডের প্রতিবাদে সম্পাদক পরিষদ থেকে নঈম নিজামের পদত্যাগ


news24bd.tv / কামরুল 

পরবর্তী খবর

চট্টগ্রামে অস্ত্রের মহড়া, জনপ্রতিনিধির অস্ত্রকাণ্ডে ক্ষুব্ধ আওয়ামী লীগ নেতারাও

নয়ন বড়ুয়া জয়, চট্টগ্রাম

চট্টগ্রামের লোহাগাড়ায় জায়গা দখল নিতে উপজেলা চেয়ারম্যান জিয়াউল হক চৌধুরী বাবুলের অস্ত্রের মহড়া। তার সাঙ্গপাঙ্গদের ফাঁকা গুলি এবং মারধরে দিশেহারা জায়গার প্রকৃত মালিকসহ স্থানীয়রা।

উপজেলা চেয়ারম্যান বাবুল বলছেন, নিজের সম্পদ এবং নিজেকে বাঁচাতে নিজের লাইসেন্স করা অস্ত্র দিয়েই ফাঁকা গুলি ছুঁড়িয়েছে সে। আর পুলিশ বলছে, জনসম্মুখে লাইসেন্স করা অস্ত্রের ব্যবহারের কোন নিয়ম নেই। 

ভাইরাল হওয়া ভিডিও ফুটেজে দেখা যাচ্ছে সম্প্রতি লোহাগাড়ায় জায়গা দখল করতে গিয়ে লোহাগাড়া উপজেলা চেয়ারম্যান জিয়াউল হক চৌধুরী বাবুল দিন দুপুরে এভাবে অস্ত্রের মহড়া দিচ্ছেন। একই সাথে তার সাঙ্গপাঙ্গদের হাতেও আছে অস্ত্র।

এ সময় ভুক্তভোগী পরিবারের বসতঘর লক্ষ্য করে কয়েক রাউন্ড ফাঁকা গুলি ও ইট-পাটকেল নিক্ষেপ করেন তারা। তাই আতঙ্কে ঘর ছাড়া ভুক্তভোগী পরিবার।

স্থানীয় লোকজন বলছেন, অস্ত্রধারীরা ঘটনাস্থল ছাড়ার পর পুলিশ আসে। বাবুল জানান জীবন এবং সম্পদ বাঁচাতে ব্যবহার করেছেন অস্ত্র। জনসম্মুখে লাইসেন্স করা অস্ত্র ব্যবহারের কোন সুযোগ নেই বলছে পুলিশ।

আরও পড়ুন:


একবার বিদ্রোহী হলে আজীবন নৌকা থেকে বঞ্চিত

ফিফা র‍্যাঙ্কিংয়ে শীর্ষ পাঁচে নেই আর্জেন্টিনা

করোনায় স্কুল বন্ধ থাকায় শ্রেণিকক্ষে সপরিবারে বসবাস

রোহিঙ্গা ইস্যুতে কমনওয়েলথের সহায়তা চাইলেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী


অস্ত্র কাণ্ডে ক্ষুব্ধ আওয়ামী লীগ নেতারাও। এই মহড়ায় অংশ নেওয়াদের দ্রুত আইনের আওতায় আনার দাবি তাদের।

কয়েকদিন আগেই পার্শ্ববর্তী এলাকা চন্দনাইশে শোক দিবসের অনুষ্ঠানে অস্ত্রবাজির ঘটনায় যুবলীগ নেতা গিয়াসকে সহযোগীসহ গ্রেপ্তার করে র‌্যাব।

news24bd.tv নাজিম

পরবর্তী খবর

দিনাজপুরে অভিযানে জঙ্গি সন্দেহে আটক ৪৫

অনলাইন ডেস্ক


দিনাজপুরে অভিযানে জঙ্গি সন্দেহে আটক ৪৫

দিনাজপুরে বিভিন্ন মসজিদে অভিযান চালিয়ে জঙ্গি সন্দেহে ৪৫ জনকে আটক করেছে পুলিশের অ্যান্টি টেররিজম ইউনিট। গতকাল রাতে সদর উপজেলা ও বিরল উপজেলা থেকে তাদের আটক করা হয়। আটক সবাই দিনাজপুরে পুলিশি হেফাজতে আছেন।

অভিযানে মেধ্যাপাড়ার বাইতুল ফালাহা জামে মসজিদ থেকে ১২ জন, বিরল উপজেলার বিরল বাজার জামে মসজিদ থেকে ১৭, বোচাগঞ্জ উপজেলার আটগাঁও বড়ুয়া গ্রামের জামে মসজিদ থেকে সাত ও দিনাজপুর সদর উপজেলার একটি মসজিদ থেকে নয়জনকে আটক করা হয়। 

অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর সার্কেল) সুজন সরকার বলেন, ঢাকা থেকে অ্যান্টি টেররিজমের একটি ইউনিট গতকাল দিনাজপুরে আসে। ইউনিটটি রাতে বিভিন্ন মসজিদে অভিযান চালায়। স্থানীয়ভাবে আমাদের সহযোগিতা চেয়েছিল, আমরা আমাদের ফোর্স দিয়ে সহযোগিতা করেছি।

অভিযানে থাকা নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক পুলিশের এক কর্মকর্তা বলেন, তাবলিগ জামাতে আসা একটি দল নাশকতার পরিকল্পনা করছে- এমন তথ্যের ভিত্তিতে ঢাকার কাউন্টার টেররিজম ইউনিটের সঙ্গে স্থানীয় পুলিশ যৌথভাবে অভিযান পরিচালনা করে। জেলার বেশ কয়েকটি মসজিদে অভিযান পরিচালনা করে মোট ৪৫ জনকে আটক করা হয়। আটক ব্যক্তিরা জেলা পুলিশের হেফাজতে রয়েছে।

আরও পড়ুন:


একবার বিদ্রোহী হলে আজীবন নৌকা থেকে বঞ্চিত

ফিফা র‍্যাঙ্কিংয়ে শীর্ষ পাঁচে নেই আর্জেন্টিনা

করোনায় স্কুল বন্ধ থাকায় শ্রেণিকক্ষে সপরিবারে বসবাস

রোহিঙ্গা ইস্যুতে কমনওয়েলথের সহায়তা চাইলেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী


বাইতুল ফালাহ জামে মসজিদের খাদেম আব্দুর রাজ্জাক বলেন, বৃহস্পতিবার ২২ জন মানুষ ঢাকা থেকে আসেন। তাদের মধ্যে ১২ জন এখানে অবস্থান করে বাকিরা অন্য মসজিদে থাকার কথা বলে চলে যান। রাতে এশার নামাজের পর আমরা বাসায় চলে গেলে তারা মসজিদেই অবস্থান করছিল। পরে রাতে শুনতে পারি তাদের পুলিশ ধরে নিয়ে গেছে। 

এ ব্যাপারে দিনাজপুরের পুলিশ সুপার আনোয়ার হোসেন জানান, রাতে ঢাকার কাউন্টার টেররিজম ইউনিট দিনাজপুর শহর, বিরল ও বোচাগঞ্জ উপজেলার একাধিক মসজিদে অভিযান পরিচালনা করেছে। আমরা তাদের সহযোগিতা করেছি। তবে কতজন আটক হয়েছে, তা এখন জানানো সম্ভব হচ্ছে না। যাচাই-বাছাই শেষে পরে বিস্তারিত জানানো হবে।

news24bd.tv নাজিম

পরবর্তী খবর

কুমিল্লায় খুতবার সময় সংঘর্ষ, নিহত ১

অনলাইন ডেস্ক

কুমিল্লায় খুতবার সময় সংঘর্ষ, নিহত ১

কুমিল্লার মুরাদনগরে মসজিদে জুমার খুতবার সময় মুসিল্লদের মধ্যে সংঘর্ষে একজন নিহত হয়েছেন। এসময় আহত হয়েছেন সাতজন।

শুক্রবার (১৭ সেপ্টেম্বর) দুপুরে উপজেলার কুড়াখাল গ্রামের বাইতুন নুর জামে মসজিদে এ ঘটনা ঘটে।

বিস্তারিত আসছে...

news24bd.tv নাজিম

পরবর্তী খবর

নাটোরে অজ্ঞাত মহিলার লাশ উদ্ধার

নাটোর প্রতিনিধি:

নাটোরে অজ্ঞাত মহিলার লাশ উদ্ধার

নাটোর নবাব সিরাজ-উদ-দৌলা সরকারি কলেজ মাঠের পাশ থেকে বৃহস্পতিবার রাতে এক অজ্ঞাত মহিলার (৬০) লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। 

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, রাত সাড়ে ১১টার দিকে ব্যাটারিচালিত অটোরিকশা চালানোর সময় সদরের গুনারীগ্রামের অটো চালক শান্ত আলী সরকারি কলেজ মাঠের সামনে রাস্তার পাশে কোন রক্তাক্ত মহিলাকে পড়ে থাকতে দেখে নাটোর আধুনিক সদর হাসপাতালে নিয়ে যান। কর্তব্যরত চিকিৎসক এ সময় মধ্য বয়সী অজ্ঞাত ঐ রক্তাক্ত মহিলাকে মৃত বলে ঘোষণা করেন।

আরও পড়ুন:


কিশোরীকে আটকে রেখে পতিতাবৃত্তিতে বাধ্য করায় নারী আটক

করোনায় স্কুল বন্ধ থাকায় শ্রেণিকক্ষে সপরিবারে বসবাস

বগুড়ায় বাসের ধাক্কায় অটোরিকশার দুই নারী যাত্রী নিহত

যশোরের ১৮টি রুটে দাপিয়ে বেড়াচ্ছে


প্রাথমিক ভাবে চিকিৎসকের ধারণা কোন যানবাহন এই মহিলাকে ধাক্কা দিয়ে ফেলে রেখে চলে গেছে। মাথায় আঘাত লাগার কারণে তার মৃত্যু হয়েছে। 

আজ শুক্রবার দুপুরে নাটোর থানার এস আই বেলাল হোসেন জানান, বিকেল তিনটা পর্যন্ত লাশের কোন পরিচয় পাওয়া যায়নি। 

NEWS24.TV / কামরুল

পরবর্তী খবর

সুদবিহীন লাভের তকমা দিতে প্রচারণা

১৬ হাজার গ্রাহকের ৩শ’কোটি টাকা এহসান গ্রুপের পকেটে

রিপন হোসেন

যশোরের ১৬ হাজার গ্রাহকের ৩শ’কোটি টাকা এহসান গ্রুপের প্রতারকদের পকেটে। ভুক্তভোগীদের অভিযোগ, মাসে এক লাখে ১৬শ’ টাকা মুনাফার প্রতিশ্রুতি দিয়ে টাকা জমা নেয় প্রতিষ্টানটি। আর এ কাজে বিভিন্ন মসজিদের ইমাম ও মুয়াজ্জিনদের মাধ্যমে প্রচারণা চালায়। 

সাধারণ মানুষ সরল বিশ্বাসে তাদের গচ্ছিত কাড়ি কাড়ি টাকা ব্যবসায় লগ্নি করে। আর লভ্যাংশ ও বিনিয়োগের টাকা ফেরত না পেয়ে দিশেহারা হয়ে পড়েছেন তারা।

যশোর শহরের মিশনপাড়ার আফসার। ছিলেন এয়ারফোর্সের ক্লার্ক। পেনশনের পাওয়া ১২ লাখ ৫০ হাজার টাকা ২০১১ সালের শেষের দিকে লগ্নি করেছিলেন এহসান এসে। দুই বছর মুনাফা পেলেও তারপরই বন্ধ হয়ে যায়। এরপর অনেক ঘুরেও লভ্যাংশ ও বিনিয়োগের টাকা আর ফেরত পাননি। এখন যে চিকিৎসা করবে সেই টাকাও নেই।

শুধু আফসার উদ্দিনই নন, তার মত ১৬ হাজার গ্রাহক জমি বিক্রি, পেনশনের টাকা তুলে দিয়েছেন এহসান গ্রুপের হাতে। এখন লাভের টাকা তো দুরের কথা আসল টাকা না পেয়ে বিপাকে পড়েছেন তারা।

এহসান রিয়েল এস্টেট অ্যান্ড ডেভেলপমেন্ট লিমিটেডের চেয়ারম্যানসহ ২৬ জনের বিরুদ্ধে আদালতে ২টি মামলা দায়ের হয়েছে। গ্রাহকের টাকা প্রত্যারণার সত্যতাও পেয়েছে পিবিআই।

অবশ্য এহসান ইসলামি মাল্টিপারপাস কো-অপারেটিভ সোসাইটি ভাইস চেয়ারম্যান বলেছেন, তাদের গ্রাহকের টাকা টাকা দ্রুত সময়ের মধ্যে পরিশোধ করে দিবেন।

এহসান গ্রুপের এহসান সোসাইটি, এহসান রিয়েল এস্টেট অ্যান্ড ডেভেলপমেন্ট লিমিটেড, এহসান ইসলামি মাল্টিপারপাস কো-অপারেটিভ সোসাইটি, আল এহসান নামে চারটি প্রতিষ্ঠান রয়েছে। দ্রুত এসব প্রতিষ্ঠানের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়ার দাবি ভুক্তভোগীদের।

আরও পড়ুন:


কিশোরীকে আটকে রেখে পতিতাবৃত্তিতে বাধ্য করায় নারী আটক

করোনায় স্কুল বন্ধ থাকায় শ্রেণিকক্ষে সপরিবারে বসবাস

বগুড়ায় বাসের ধাক্কায় অটোরিকশার দুই নারী যাত্রী নিহত

যশোরের ১৮টি রুটে দাপিয়ে বেড়াচ্ছে


NEWS24.TV / কামরুল

পরবর্তী খবর