বাগাতিপাড়ায় অক্সিজেন প্ল্যান্টের উদ্বোধন করলেন সাংসদ বকুল

নাসিম উদ্দীন নাসিম, নাটোর

বাগাতিপাড়ায় অক্সিজেন প্ল্যান্টের উদ্বোধন করলেন সাংসদ বকুল

নাটোরের বাগাতিপাড়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে সেন্ট্রাল অক্সিজেন সরবরাহ প্ল্যান্টের উদ্বোধন করা হয়েছে। ওই অনুষ্ঠানে সম্প্রতি পায়ে আঘাত পেয়ে আহত নাটোর-১ আসনের সংসদ সদস্য শহিদুল ইসলাম বকুল র্স্ক্যাচে ভর দিয়ে যোগ দেন।

বুধবার বেলা ১১ টায় প্রধান অতিথি থেকে তিনি এই প্ল্যান্টের উদ্বোধন করেন। ৩১ শয্যার (৫০ শয্যায় উন্নীতের কাজ চলমান) হাসপাতালে করোনার অতিমারিতে রোগীদের নিরবিচ্ছিন্ন অক্সিজেন সরবরাহের লক্ষ্যে সাংসদের নিজস্ব তহবিল, উপজেলা পরিষদ ও স্থানীয়দের আর্থিক সহযোগিতায় এই প্ল্যান্ট স্থাপন করা হয়।

দশটি সিলিন্ডারে ৯ হাজার ৫০০ লিটার অক্সিজেন ধারন ক্ষমতার এই প্ল্যান্ট থেকে সরাসরি একযোগে ১৫ জন রোগীকে নিরবিচ্ছিন্ন অক্সিজেন সরবরাহের ব্যবস্থা রয়েছে। ফলে কোভিড রোগীরা স্থানীয় হাসপাতালেই অক্সিজেন সেবা পাবেন।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা রতন কুমার সাহার সভাপতিত্বে বক্তব্য দেন উপজেলা চেয়ারম্যান অহিদুল ইসলাম বকুল, ইউএনও প্রিয়াংকা দেবী পাল, আবাসিক মেডিকেল অফিসার ডা. ফরিদুজ্জামান, ওসি সিরাজুল ইসলাম প্রমুখ।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি সংসদ সদস্য শহিদুল ইসলাম বকুল বলেন, বৈশ্বিক মহামারি করোনার সাথে হয়তো এখনও দুই বছর লড়াই করতে হবে।

সে কারণে স্বাস্থ্যবিধি মেনে মাস্ক পরিধান এবং টিকা গ্রহনের প্রতি সবাইকে গুরুত্ব দিতে হবে।

তিনি বলেন, উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে প্ল্যান্ট স্থাপনের মধ্য দিয়ে অক্সিজেনের অভাবে কোন রোগীকে মৃত্যু বরণ করতে হবে না।

উলে­খ্য, গত ২৩ জুলাই নিজ বাড়িতে পা পিছলে পড়ে ডান পায়ে আঘাত পেয়ে আহত হন সংসদ সদস্য শহিদুল ইসলাম বকুল।

আরও পড়ুন:


পল্লবী থেকে অস্ত্রসহ দুই ডাকাত গ্রেপ্তার

করোনায় ঝালকাঠির আদালতের বিচারকের মৃত্যু!

নরসিংদীতে ডেঙ্গু প্রতিরোধে মশক নিধন স্প্রে

মমেক হাসপাতালে ৫০ টি অক্সিজেন সিলিন্ডার দিলেন সিটি মেয়র ও চেম্বার সভাপতি


news24bd.tv তৌহিদ

পরবর্তী খবর

যশোরের নওয়াপাড়া পৌরসভা নির্বাচনে ৩০ কেন্দ্রে চলছে ইভিএমে ভোট গ্রহণ

যশোর প্রতিনিধি:

যশোরের নওয়াপাড়া পৌরসভা নির্বাচনে ৩০ কেন্দ্রে চলছে ইভিএমে ভোট গ্রহণ

যশোরের নওয়াপাড়া পৌরসভা নির্বাচনে ভোট গ্রহণ চলছে। বিরুপ আবহাওয়ার কারণে সকাল থেকেই  ভোটারের উপস্থিতি ছিল কম। তবে এ পৌরসভায় প্রথমবারের মতো ইভিএমে ভোট হওয়ায় ভোটারদের মাঝে রয়েছে উৎসাহ উদ্দীপনা। 

নির্বাচনে মেয়র পদে ৩ জন, ৯টি ওয়ার্ডে সংরক্ষিত মহিলা আসনে ১১ জন এবং সাধারণ কাউন্সিলর পদে ৫৫ জন প্রতিদ্বন্দিতা করছেন। এ পৌরসভার মোট ভোটার ৬৩ হাজার ১৮৬ জন। যার মধ্যে পুরুষ ভোটার ৩১ হাজার ১৪১ জন এবং নারী ভোটার ৩২ হাজার ৪৫ জন। 

আরও পড়ুন:


সোমবার যে আমলটি করলে মনের আশা পূরণ হবে!

ট্রফি জয়ের ঘোষণা দিয়ে বিশ্বকাপে যাব: তামিম

ইউপি নির্বাচনী সহিংসতায় বৃদ্ধা নিহত, আহত ৩


৩০টি কেন্দ্রে ১৮৪টি বুথে চলছে ভোট গ্রহণ। তবে গত রাতে মুষলধারে বৃষ্টি  হওয়ায় অধিকাংশ কেন্দ্রে পানি জমে গেছে। কারণে সকাল থেকেই ভোটারের উপস্থিতি ছিল কম। কষ্ট হলেও ভোট দিতে পেরে সন্তুষ্টি প্রকাশ করেছেন ভোটাররা। 

এদিকে প্রিজাইডিং অফিসাররা জানিয়েছেন, বিরুপ আবহাওয়ার মধ্যেও ভোটাররা স্বতস্ফূর্তভাবে ভোট দিচ্ছেন। বিএনপির প্রার্থীহীন এ নির্বাচনেরর নিরাপত্তা বিধানে ১২ জন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটের নেতৃত্বে ৫ শ' পুলিশ সদস্য, তিন প্লাটুন বিজিব সদস্য ছাড়াও রঅব সদস্য ও গোয়ান্দা বিভাগের সদস্যরা দায়িত্ব পালন করছেন। উল্লেখ্য, চলতি বছর ১১ এপ্রিল ভোট অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা থাকলেও করোনার কারণে তা স্থগিত হয়ে যায়।

NEWS24.TV / কামরুল

পরবর্তী খবর

বাগেরহাটে ৬৫ ইউপিতে বিনা ভোটে আ.লীগের ৩৮ চেয়ারম্যান নির্বাচিত

শেখ আহসানুল করিম, বাগেরহাট

বাগেরহাটে ৬৫ ইউপিতে বিনা ভোটে আ.লীগের ৩৮ চেয়ারম্যান নির্বাচিত

সোমবার (২০ সেপ্টেম্বর) সকাল ৮টা থেকে বাগেরহাট জেলার ৯টি উপজেলায় ৬৫টি ইউনিয়নে ৫৯৯ টি কেন্দ্রে ভোট শুরু হয়েছে। ইউনিয়ন পরিষদের এই নির্বাচনে ভোট গ্রহন একটানা চলবে বিকাল ৪ টা পর্যন্ত। 

অন্যদলগুলো এই নির্বাচনে অংশ নিলেও আওয়ামী লীগের প্রার্থীদের বিপক্ষে দলটি বিদ্রোহীরা স্বতন্ত্র প্রার্থীরা প্রতিদ্বন্দিতা করায় সহিংসতার আশংকায় জেলার সব কেন্দ্রের সবকটিকেই ‘ঝুঁকিপূর্ণ’ ঘোষণা করেছে নির্বাচন কমিশন। 

এই অবস্থায় বাগেরহাটে তিনস্তরের নিরাপত্তা ব্যবস্থার মধ্যে ভোট গ্রহন চলছে। বাগেরহাটে ৬৫টির মধ্যে ৪ টিতে ইভিএমএ ও ৬১টি ইউনিয়নে ব্যালট পেপারে ভোট গ্রহন চলছে। এখন পর্যন্ত কোন সহিংসতার খবর পাওয়া যায়নি।  
বাগেরহাটে আজকের ৬৫টি ইউনিয়নে চেয়ারম্যান প্রার্থী ১০০ জন, সদস্য প্রার্থী দুই হাজার ২৫৫ জন, সংরক্ষিত সদস্য পদে প্রার্থী রয়েছেন ৭৬৮ জন। 

তবে, আজকে ভোট গ্রহনের আগেই বিনা ভোটে জেলার ৬৫টি ইউনিয়নের ৩৮টিতে চেয়াম্যান পদে আওয়ামী লীগের প্রার্থীরা নির্বাচিত হয়েছেন।  

বাগেরহাটে ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন শান্তিপূর্ণ ভাবে সম্পন্য করতে প্রতিটি কেন্দ্রে পুলিশ ও আনসারসহ আইনশৃংখলা বাহিনীর ২২ জন সদস্যের পাশাপাশি প্রতিটি উপজেলায় ৩ প্লাটুন বিজিবি, র‍্যাবের ৩টি টহল টিম, ৪ জন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ও ২৫ জন বিচারিক ম্যাজিস্ট্রেট দায়িত্ব পালন করছেন।

রও পড়ুন:

একটি হটডগ আয়ু কমাতে পারে ৩৬ মিনিট পর্যন্ত!

অবশেষে ফুঁ দিয়ে আগুন ধরানো সেই সাধুবাবা গ্রেপ্তার

ইভ্যালি ধরলেও সমস্যা, ছাড়লেও সমস্যা! কোথায় যাবেন ফারিয়া?

তৃতীয় স্বামীর কাছে শুধু বিচ্ছেদই নয়, খরচও চাইলেন শ্রাবন্তী


বাগেরহাট জেলা নির্বাচন অফিস জানায়, বাগেরহাট জেলায় প্রথম ধাপে ৭৫টি ইউনিয়ন পরিষদের মধ্যে ৭০টিতে নির্বানী তফশিল ঘোষণা করে নির্বাচন কমিশন। করোনার কারনে দুই দফা পিছিয়ে (স্থগিত) থাকা অবস্থায় ৩টি ইউনিয়নে প্রার্থী মারা যাওয়া, একটিতে মামলায় ও অন্যএকটি ইউনিয়নের সব পদের একক প্রার্থী বিনা ভোটে আগেই নির্বাচিত হওয়ায় এই ৫টি ইউনিয়নে ভোট হচ্ছেনা।

news24bd.tv/ নকিব

পরবর্তী খবর

ইউপি নির্বাচনী সহিংসতায় বৃদ্ধা নিহত, আহত ৩

অনলাইন ডেস্ক

ইউপি নির্বাচনী সহিংসতায় বৃদ্ধা নিহত, আহত ৩

ইউপি নির্বাচনকে কেন্দ্র করে সংঘর্ষে ফাতেমা বেগম (৭০) নামের এক বৃদ্ধা নিহত হয়েছেন। এ সময় আহত হয়েছে অন্তত তিন জন। বাগেরহাটের মোংলায় এ ঘটনা ঘটেছে।

রোববার (১৯ সেপ্টেম্বর) রাতে উপজেলার চাঁদপাই ইউনিয়নের উত্তর চাঁদপাই গ্রামে বর্তমান ইউপি সদস্য ও প্রার্থী মতিয়ার রহমান মোড়ল এবং প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থী শফিকুল ইসলাম এ সংঘর্ষে জড়ান। 

আহতরা হলেন- ১নং ওয়ার্ডের প্রার্থী মতিয়ার মোড়ল (৬০), বোরহান শেখ (৩৫) ও ইস্রাফিল (২৬)।

স্থানীয় মহাসিন ও মোয়াজ্জেম জানান, রোববার রাত ৯টার দিকে চাঁদপাই মোড়ে ১নং ওয়ার্ডের বর্তমান ইউপি সদস্য ও প্রার্থী মতিয়ার রহমান মোড়ল এবং প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থী শফিকুল ইসলামের কথা কাটাকাটি হয়। একপর্যায়ে বিরোধে জড়িয়ে পড়েন তারা। এ সময় বিরোধ ঠেকাতে এসে মতিয়ার রহমানের সম্পর্কে ফুপু ফাতেমা বেগম আহত হন। পরে তাকে উদ্ধার করে রামপাল উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।

মতিয়ার রহমান মোড়ল বলেন, চাঁদপাই মোড়ে গেলে প্রতিপক্ষ প্রার্থী শফিকুলসহ তার লোকজন আমাদের ওপর হামলা চালায়। এতে একজন নিহত ও আমিসহ তিনজন আহত হই।

তবে হামলার ফলে মৃত্যুর অভিযোগ অস্বীকার করে শফিকুল বলেন, মতিয়ার মেম্বার ভোটের আগে টাকা ছড়াচ্ছিল। তখন আমরা তাকে বাধা দেই। আর যিনি মারা গেছেন তিনি কোনো আঘাতে নয় স্ট্রোক করে মারা গেছেন। 

মোংলা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের চিকিৎসক সিরাজুল ইসলাম বলেন, মৃত অবস্থায় ওই নারীকে হাসপাতালে আনা হয়। তার মাথার পিছনে আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। 

মোংলা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ মনিরুল ইসলাম বলেন, এক বৃদ্ধার মৃত্যুর খবর শুনেছি। তবে মৃত্যুর কারণ এখনও জানা যায়নি। 

NEWS24.TV / কামরুল

পরবর্তী খবর

কক্সবাজারের ২ পৌরসভা ও ১৪ ইউপির ভোট গ্রহণ আজ

অনলাইন ডেস্ক

কক্সবাজারের ২ পৌরসভা ও ১৪ ইউপির ভোট গ্রহণ আজ

আজ সোমবার (২০ সেপ্টেম্বর) অনুষ্ঠিত হবে কক্সবাজারের চকরিয়া ও মহেশখালী পৌরসভাসহ জেলার ৪টি উপজেলার ১৪টি ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনের ভোট গ্রহণ। সকাল ৮টা থেকে বিকেল ৪টা পর্যন্ত টানা ভোট গ্রহণ চলবে। ইতিমধ্যে নির্বাচনের যাবতীয় প্রস্তুতিও সম্পন্ন। অবাধ, সুষ্ঠু ও শান্তিপূর্ণ নির্বাচনের জন্য চার স্তরের নিরাপত্তা ব্যবস্থা জোরদার করা হয়েছে।     

নির্বাচনে উত্তাপ ছড়িয়ে পড়ছে চকরিয়া ও মহেশখালী পৌরসভাসহ ২টি ইউনিয়ন যথাক্রমে মাতারবাড়ী এবং টেকনাফ সদরে ইউনিয়নে। চকরিয়া পৌরসভায় আওয়ামী লীগ দলীয় প্রার্থী বর্তমান মেয়র আলমগীর চৌধুরীর সঙ্গে স্থানীয় এমপি জাফর আলমের আপন ভাতিজা জিয়াউল করিমের মধ্যে তুমুল লড়াই চলছে। অপরদিকে মহেশখালী পৌরসভার বর্তমান মেয়র এবং আওয়ামী লীগ দলীয় প্রার্থী মকছুদ মিয়ার সঙ্গে চলছে অপর আওয়ামী লীগ নেতা সরওয়ার আলমের লড়াই।

অপরদিকে গভীর সমুদ্র বন্দর আর তাপ বিদ্যুৎ কেন্দ্র নিয়ে আলোচিত মাতারবাড়ি ইউনিয়নের তিন প্রতিদ্বন্দ্বী চেয়ারম্যান প্রার্থী মরিয়া হয়ে পড়েছেন বিজয় ছিনিয়ে নিতে। তিন প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থীই স্থানীয় আওয়ামী লীগ নেতা। তাদের মধ্যে দলীয় প্রতীকধারী এস এম আবু হায়দার, বর্তমান চেয়ারম্যান মাষ্টার মোহাম্মদুল্লাহ ও এনামুল হক চৌধুরী রুহুলের মধ্যে তুমুল লড়াই চলছে। এখানে কোটি কোটি টাকা খরচ করছেন প্রার্থীরা। 

টেকনাফ সদর ইউনিয়নেও তিন প্রার্থীর মধ্যে লড়াই চলছে। এর মধ্যে নৌকা প্রতীকের প্রার্থী আবু সৈয়দ এবং মোহাম্মদ শাহজাহান আওয়ামী লীগ এবং জিয়াউর রহমান হচ্ছেন বিএনপি পরিবারের সন্তান। টেকনাফের নির্বাচনী আকাশেও উড়ছে টাকা।

কক্সবাজারের জেলা প্রশাসক মো. মামুনুর রশীদ জানিয়েছেন, প্রতি ভোট কেন্দ্রে পৃথক তিনটি টিম কাজ করবে। কোনো ধরনের প্রভাব বিস্তার করতে দেওয়া হবে না।

এদিকে জেলা নির্বাচন অফিস সূত্রে জানা গেছে, মহেশখালী ও চকরিয়া পৌরসভায় মেয়র প্রার্থী রয়েছেন ৮ জন। সংরক্ষিত নারী আসনে ২৫ জন কাউন্সিলর প্রার্থী ও সাধারণ কাউন্সিলর পদে ৭৬ জন প্রার্থী রয়েছে। মহেশখালী পৌরসভায় মোট ভোটার সংখ্যা ১৯ হাজার ৪৮৪ জন এবং চকরিয়া পৌরসভায় ভোটার ৪৮ হাজার ৭২৪ জন। মহেশখালীতে ১০টি ভোট কেন্দ্রে বুথ ৫৯টি এবং চকরিয়া পৌরসভায় ১৮টি ভোট কেন্দ্রে ১৩৯টি বুথ রয়েছে।

আরও পড়ুন:


পাঁচ বিভাগে বৃষ্টি ও বজ্রসহ বৃষ্টির আশঙ্কা

এই হচ্ছে বিএনপি, আর সব দোষ আওয়ামী লীগের?

রাজপথে নামার আহ্বান মোশাররফ-মান্নার

বাগেরহাটে ৩ ঘণ্টা পর প্লাইউড ফ্যাক্টরির আগুন নিয়ন্ত্রণে


অপরদিকে কুতুবদিয়া, মহেশখালী, পেকুয়া ও টেকনাফ উপজেলার ১৪টি ইউনিয়নে মোট ভোটার সংখ্যা ৩ লাখ ১১ হাজার ২৩৪ জন। এর মধ্যে পুরুষ ভোটার সংখ্যা এক লাখ ৫৯ হাজার ৯৯৫ জন এবং নারী ভোটার এক লাখ ৫১ হাজার ১২ জন। ৪টি উপজেলায় ১৪০টি ভোট কেন্দ্র এবং ৭৮০টি স্থায়ী ও ১১৩টি অস্থায়ী ভোট কেন্দ্র রয়েছে। ১৪টি ইউনিয়নে চেয়ারম্যান প্রার্থী ৯২ জন, সংরক্ষিত নারী মেম্বার প্রার্থী ১৯৯ জন ও পুরুষ মেম্বার প্রার্থী রয়েছেন ৭৭৫ জন। 

news24bd.tv রিমু

পরবর্তী খবর

রাজশাহীর প্রত্যন্ত গ্রামে সৃজনশীলতা চর্চায় শাপলা কালচারাল স্কুল

কাজী শাহেদ

সৃজনশীলতা চর্চায় নতুন প্রজন্মকে যুক্ত করতে উদ্যোগ নিয়েছে শাপলা কালচারাল স্কুল। যাদের কাছে সংস্কৃতি চর্চা নাগালের বাইরে, তেমন প্রত্যন্ত গ্রামে গড়ে তোলা হয়েছে স্কুলটি। সেখানে আসছেন অনেকে। তরুণ প্রজন্মকে মাদক, বাল্যবিয়ে আর জঙ্গিবাদ থেকে দূরে রাখতে এমন উদ্যোগ, বলছেন প্রতিষ্ঠানটির উদ্যেক্তা।

ধরা–বাঁধা সিলেবাসের পড়াশোনা আর ভালো ফলাফলের ইঁদুর দৌড়ের মধ্যে শিক্ষার্থীরা বেড়ে ওঠে। সেখানে সহমর্মিতা, অন্যের মতকে গুরুত্ব দেয়ার মতো বিষয়গুলো খুব একটা আসে না। তবে শিশু আর তরুণ প্রজন্মের মধ্যে সৃজনশীলতা, মুক্তবুদ্ধির চর্চার উদ্যোগ নিয়ে কাজ করছে শাপলা কালচারাল স্কুল।

রাজশাহীর মোহনপুর উপজেলার প্রত্যন্ত গ্রামে সংস্কৃতি চর্চায় গড়ে তোলা হয়েছে কালচারাল স্কুলটি। যারা হয়তো কখনো ভাবেননি, তাদের জন্য খোলা আছে নাচ, গান থেকে শুরু করে সৃজনশীলতা চর্চার দুয়ার।

কালচারাল স্কুলটি শিশু ও তরুণ প্রজন্মকে টার্গেট করেই গড়ে তোলা হয়েছে। স্কুল-কলেজ শেষে তাদের সময়কে গুরুত্ব দিয়ে দেওয়া হচ্ছে প্রশিক্ষণ।

ব্যস্ততার মধ্যেও সময় করে এখানে আসছে তরুণরা। এই উদ্যোগ হতে পারে সৃজনশীলতার বিকাশ ও মানবিক মূল্যবোধগুলো চর্চার মঞ্চ। যা নতুন প্রজন্মকে মানবিক হিসেবে গড়ে তুলবে-এমনটি মনে করছেন উদ্যোক্তা।

ভবিষ্যতে স্কুলটিকে কলেজ ও বিশ্ববিদ্যালয়ে রূপান্তর করতে চান উদ্যোক্তা।

আরও পড়ুন:


পাঁচ বিভাগে বৃষ্টি ও বজ্রসহ বৃষ্টির আশঙ্কা

এই হচ্ছে বিএনপি, আর সব দোষ আওয়ামী লীগের?

রাজপথে নামার আহ্বান মোশাররফ-মান্নার

বাগেরহাটে ৩ ঘণ্টা পর প্লাইউড ফ্যাক্টরির আগুন নিয়ন্ত্রণে


news24bd.tv তৌহিদ

পরবর্তী খবর