‘যুক্তরাষ্ট্র পরমাণু সমঝোতাকে পণবন্দি হিসেবে ব্যবহার করছে’

অনলাইন ডেস্ক

‘যুক্তরাষ্ট্র পরমাণু সমঝোতাকে পণবন্দি হিসেবে ব্যবহার করছে’

আইএইএ’তে নিযুক্ত ইরানের স্থায়ী প্রতিনিধি কাজেম গরিবাবাদি অস্ট্রিয়ার রাজধানী ভিয়েনায় পাশ্চাত্যের সঙ্গে ইরানের চলমান পরমাণু সমঝোতা পুনরুজ্জীবনের আলোচনার একাংশ উন্মোচন করেছেন। তিনি বলেছেন, ওয়াশিংটন তেহরানকে ক্ষেপণাস্ত্র কর্মসূচি ও মধ্যপ্রাচ্য বিষয়ক আলোচনায় বসতে বাধ্য করার জন্য পরমাণু সমঝোতাকে পণবন্দি হিসেবে ব্যবহার করছে।

গতকাল বুধবার এক সাক্ষাৎকারে তিনি বলেন, মার্কিনীরা দাবি করছে যে, তারা পরমাণু সমঝোতায় ফিরে আসতে এবং ওই সমঝোতার সঙ্গে সাংঘর্ষিক সব নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহার করতে প্রস্তুত। কিন্তু ভিয়েনা সংলাপে তাদের শর্ত আরোপের চেষ্টা এর উল্টো চিত্র তুলে ধরছে।

গরিবাবাদি বলেন, ক্ষেপণাস্ত্র কর্মসূচি ও মধ্যপ্রাচ্যে নিজের প্রভাব ইরানের শক্তিমত্তার উপকরণ এবং এই দুই বিষয়ে তেহরান কখনো আলোচনা করবে না।

ইরানের এই কূটনীতিক বলেন, যুক্তরাষ্ট্র এখন পর্যন্ত তার দেশের ওপর থেকে নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহার করতে এবং সাবেক মার্কিন প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের মতা পরমাণু সমঝোতা থেকে আবার বেরিয়ে না যাওয়ার গ্যারান্টি দিতে অস্বীকৃতি জানিয়েছে। এছাড়া, এই সমঝোতা নিয়ে চলমান অচলাবস্থার জন্য আমেরিকার বিদ্বেষী ও ধ্বংসাত্মক আচরণই যে দায়ী সেকথা স্বীকার করতেও ওয়াশিংটন রাজি হচ্ছে না।

আরও পড়ুন


বগুড়ায় একদিনে ১৩০০ পরিবারকে ত্রাণ দিল বসুন্ধরা গ্রুপ

আফগানিস্তান পরিস্থিতিকে নাজুক করে দিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র: ইমরান খান

করোনায় আক্রান্ত মরিয়ম নওয়াজ

ইরান ও সিরিয়া সন্ত্রাসবাদের মূলোৎপাটন পর্যন্ত লড়বে: আসাদ


ইরানের সর্বোচ্চ নেতা আয়াতুল্লাহিল উজমা খামেনেয়ীর বুধবারের এক ভাষণের পর গরিবাবাদি এসব কথা বললেন।  সর্বোচ্চ নেতা তার ভাষণে বলেন, ভিয়েনায় পরমাণু সমঝোতা পুনরুজ্জীবনের সংলাপ প্রসঙ্গে বলেন, “মার্কিনীরা নির্লজ্জভাবে মিথ্যা বলে ও প্রতিশ্রুতি ভঙ্গ করে।চুক্তি ভঙ্গ করতে তাদের জুড়ি নেই এবং এ কাজ করতে তাদের হাত বিন্দুমাত্র কাঁপে না। কোনো ধরনের লোকলজ্জার ভয় না করেই তারা পরমাণু সমঝোতা থেকে বেরিয়ে গেছে। এবার পরমাণু সমঝোতা পুনরুজ্জীবনের সংলাপে যখন বলা হচ্ছে, ভবিষ্যতে তোমরা আবার যে এ সমঝোতা লঙ্ঘন করবে না তার প্রতিশ্রুতি দাও। কিন্তু তারা সে প্রতিশ্রুতি দিতে পরিষ্কারভাবে অস্বীকার করছে।”

সর্বোচ্চ নেতার এ বক্তব্যে একথার ইঙ্গিত পাওয়া যায় যে, ভিয়েনা সংলাপে অবমাননাকর কোনো শর্ত মেনে পরমাণু সমঝোতা পুনরুজ্জীবিত করতে রাজি হবে না ইরান।

২০১৫ সালে ইরানের সঙ্গে পরমাণু সমঝোতায় সই করে আমেরিকাসহ ছয় বিশ্বশক্তি। কিন্তু ২০১৮ সালে বিনা কারণে সেই সমঝোতা থেকে আমেরিকা বেরিয়ে যায়। এখন তাতে ফিরে আসার জন্য উল্টো নির্লজ্জভাবে ইরানের ওপর শর্ত আরোপের চেষ্টা করছে ওয়াশিংটন। সূত্র: পার্সটুডে।

news24bd.tv এসএম

পরবর্তী খবর

অস্ট্রেলিয়ায় লকডাউন বিরোধী বিক্ষোভে সংঘর্ষ (ভিডিও)

ডেস্ক রির্পোট

অস্ট্রেলিয়ায় লকডাউন বিরোধী বিক্ষোভে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। এতে ৬ পুলিশসহ বেশকয়েকজন আহত হয়েছেন। ঘটছে গ্রেফতারের ঘটনাও।


আরও পডুন

১ রুপির কয়েন ১০ কোটি!

যে দেশে সর্বনিম্ন বেকারত্বের রেকর্ড

ইভ্যালির লাখো গ্রাহকের মাথায় হাত!

সালমানকে নিয়ে আবেগঘন বার্তা দিলেন শাবনূর!


লকডাউন বিরোধী সমাবেশ থেকে গ্রেফতার করা হচ্ছে শত শত মানুষকে।  শনিবার মেলবোর্ন  থেকে ২৩৫ জন এবং সিডনিতে থেকে ৩২ জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। এই দুই সিটি ছাড়াও দেশটির বড় শহরগুলো থেকেও লকডাউনের বিরুদ্ধে ক্ষোভ প্রকাশ করেছে বহু মানুষ।  ক্রমাগত লকডাউনে অনেকটা অতিষ্ট হয়ে সম্প্রতি রাস্তায় নেমে বিক্ষোভ শুরু করেছে  অস্ট্রেলিয়ার জনগণ।

news24bd.tv/এমি-জান্নাত  

পরবর্তী খবর

৯০ বছর গোপন রাখা হবে প্রিন্স ফিলিপের উইল

অনলাইন ডেস্ক

৯০ বছর গোপন রাখা হবে প্রিন্স ফিলিপের উইল

ব্রিটেনের রানি দ্বিতীয় এলিজাবেথের প্রয়াত স্বামী প্রিন্স ফিলিপের করা উইল অন্তত ৯০ বছর গোপন থাকবে। আন্তর্জাতিক গণমাধ্যমগুলোর প্রতিবেদনে জানা গেছে, লন্ডনের হাইকোর্টের একজন বিচারক এই রায় দিয়েছেন।

ক্যামব্রিজ নিউজ এর সূত্রে জানা যায়, রাজপরিবারের মর্যাদা রক্ষায় এই উইল গোপন রাখার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। ৯৯ বছর বয়সে গত ৯ এপ্রিল উইন্ডসর প্রাসাদে মৃত্যু হয় প্রিন্স ফিলিপের। 

বিচারক অ্যান্ড্রু ম্যাকফারলেন বলেছেন, এর আগে প্রিন্স ফ্রান্সিসের মৃত্যুর পর উইলের সঙ্গে ৩০টি খামও গোপন রাখা হয়।

ম্যাকফারলেন গত বৃহস্পতিবার প্রকাশিত এক রায়ে বলেছেন, সার্বভৌমত্বের মর্যাদা রক্ষার লক্ষ্যে এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। এ-ও বলা হয়, উইল গোপন করার আবেদনটি পরিবারের তরফে জানানো হয়েছে।
 
সর্বশেষ যার উইল গোপন করা হয়েছে তিনি হলেন রানি দ্বিতীয় এলিজাবেথের মা এলিজাবেথ এবং তার বোন প্রিন্সেস মার্গারেট।

৯৫ বছর বয়সী রানি এলিজাবেথ প্রায় ৭০ বছর একসঙ্গে জীবন কাটিয়েছেন প্রিন্স ফিলিপের সঙ্গে। ব্রিটিশ রাজপরিবারের ইতিহাসে তিনি সবচেয়ে দীর্ঘদিনের জীবনসঙ্গী ছিলেন।

news24bd.tv/এমি-জান্নাত  

পরবর্তী খবর

১ রুপির কয়েন ১০ কোটি!

অনলাইন ডেস্ক

১ রুপির কয়েন ১০ কোটি!

১৩৬ বছরের পুরোনো একটি কয়েন অনলাইন নিলামে ১০ কোটি রুপিতে বিক্রি হয়েছে। এটি হয়েছে প্রতিবেশি দেশ ভারতে। শত বছরেরও বেশি এই কয়েনটি পরিধিতে ভারতের বর্তমান ১ রুপির কয়েনের চেয়ে কিছুটা বড়। এর এক পিঠে খোদাই করা আছে ইংল্যান্ডের রানি ভিক্টোরিয়ার ছবি, অপর পিঠে ইংরেজী অক্ষরে লেখা ‘ওয়ান রুপি ইন্ডিয়া ১৮৮৫। আনন্দবাজার পত্রিকার সূত্রে এই তথ্য জানা যায়।

তবে অ্যান্টিক এই কয়েনটির ক্রেতা ও বিক্রেতা উভয়ের নাম গোপন রাখা হয়েছে।  জানা যায়, ইন্টারনেটের একটি পুরনো মুদ্রা কেনা-বেচার সাইটে কয়েনের ছবি পোস্ট করেছিলেন এক সংগ্রাহক। এরপরই কয়েনটি কেনার জন্য হুড়োহুড়ি পড়ে যায় সংগ্রাহকদের মধ্যে। 

প্রাচীন মুদ্রা বিশারদদের ধারণা, ভারতে ব্রিটিশ শাসনামলে ১৮৮৫ সালে মুম্বাইয়ে তৈরি করা হয়েছিল এই কয়েনটি। তার ৯ বছর আগেই ভারতীয় মুদ্রায় সামান্য পরিবর্তন এসেছিল। ব্রিটিশশাসিত ভারতের মুদ্রায় রানি ভিক্টোরিয়ার বদলে লেখা শুরু হয়েছিল সম্রাজ্ঞী ভিক্টোরিয়া বা ‘ভিক্টোরিয়া এমপ্রেস’। নিলামে ওঠা কয়েনটি সেই সময়কালের।

এর আগে গত জুন মাসে যুক্তরাষ্ট্রের ১৯৩৩ সালের একটি কয়েন এক কোটি ৮৯ লক্ষ ডলারে বিক্রি হয়েছিল। ভারতীয় মুদ্রায় যা প্রায় ১৩৮ কোটি রুপির সমান।


আরও পডুন

ভরা মৌসুমেও দেখা মিলছে না ইলিশের

যে দেশে সর্বনিম্ন বেকারত্বের রেকর্ড

ইভ্যালির লাখো গ্রাহকের মাথায় হাত!

সালমানকে নিয়ে আবেগঘন বার্তা দিলেন শাবনূর!


news24bd.tv/এমি-জান্নাত  

পরবর্তী খবর

চার অপেশাদার নভোচারীকে নিয়ে পৃথিবীতে ফিরলো রকেট (ভিডিও)

ডেস্ক রিপোর্ট

মহাকাশও এখন বেড়াবার জন্য উন্মুক্ত। আর এই সুযোগটি করে দিয়েছে যুক্তরাষ্ট্রের ধনাঢ্য ব্যবসায়ী এলন মাস্কের স্পেস এক্স এবং জেফ বেজোসের ব্লু অরিজিন। কিছুদিন আগেই তিন নভোচারীকে সঙ্গে নিয়ে ১০ মিনিটের জন্য মহাকাশে বেড়িয়ে এসেছেন বেজোস। আর এবার চার অপেশাদার নভোচারী স্পেস এক্সের রকেটে করে মহাকাশে তিন দিন কাটিয়ে শনিবার পৃথিবীর বুকে নিরাপদে ফিরে এসেছেন। বিবিসি ও রয়টার্সের এর প্রতিবেদনে এই তথ্য পাওয়া যায়।

প্রথমবারের মতো চার অপেশাদার ব্যক্তি পৃথিবীর বাইরে মহাকাশে গিয়ে ঘুরে এলেন। বুধবার ফ্লোরিডার স্পেস এক্স এর ফ্যালকন-নাইন রকেটে করে মহাকাশের উদ্দেশ্যে যাত্রা করেন। এই চার নভোচারীকে বলা হচ্ছে ইনসপিরেশন-ফোর নামে। আর এই টিমের নেতৃত্ব দিয়েছেন ই-কমার্স কোম্পানি শিফট-ফোর পেমেন্ট ইঙ্ক এর নির্বাহী মার্কিন ধনকুবের জেরেড ইসাকম্যান।


আরও পডুন

ভরা মৌসুমেও দেখা মিলছে না ইলিশের

যে দেশে সর্বনিম্ন বেকারত্বের রেকর্ড

ইভ্যালির লাখো গ্রাহকের মাথায় হাত!

সালমানকে নিয়ে আবেগঘন বার্তা দিলেন শাবনূর!


তার দলে রয়েছেন নাসার একজন সাবেক ভূতত্ত্ববিজ্ঞানী, একজন চিকিৎসক, বিমান বাহিনীর অভিজ্ঞ প্রকৌশলী। এই মিশনে অংশ নিতে জেরেড ইসাকম্যানকে তার সতীর্থ ব্যবসায়ী এবং স্পেস এক্সের মালিক এলন মাস্ককে দিতে হয়েছে আনুমানিক ২০ কোটি ডলার। যদিও টাকার অঙ্কটা এখনো কেউই আনুষ্ঠানিকভাবে প্রকাশ করেননি। শনিবার সন্ধ্যা ৭টায় আটলান্টিক মহাসাগরে ক্যাপসুলে করে নিরাপদে নেমে নভোচারীরা। তাদের শুভেচ্ছা জানিয়ে তাৎক্ষনিকভাবে টুইট করেন এলন মাস্ক। এটি ছিলো স্পেস এক্সের পক্ষ থেকে মানুষকে মহাকাশে পাঠানোর তৃতীয় মিশন। যা মহাকাশ-পযটনের জন্য একটি মাইলফলক।

news24bd.tv/এমি-জান্নাত  

পরবর্তী খবর

কারাগার থেকে পালানো ফিলিস্তিনি বন্দী গ্রেপ্তার

অনলাইন ডেস্ক

কারাগার থেকে পালানো ফিলিস্তিনি বন্দী গ্রেপ্তার

ইসরায়েলের গিলবোয়া কারাগার থেকে পালানো ফিলিস্তিনি বন্দীদের মধ্যে পলাতক থাকা সর্বশেষ দুই জনকেও গ্রেপ্তার করা হয়েছে। আজ রবিবার অধিকৃত ফিলিস্তিনি ভূখণ্ড পশ্চিম তীরের জেনিন থেকে ইসরায়েলি সামরিক বাহিনী, অভ্যন্তরীণ গোয়েন্দা সংস্থা শিনবেত ও পুলিশের যৌথ অভিযানে তাদেরকে গ্রেপ্তার করা হয়।  ইসরাইলি সামরিক বাহিনীর মুখপাত্র আভিখায়ি আদরায়ি এক টুইট বার্তায় এ তথ্য জানান। আলজাজিরার প্রতিবেদনে এ তথ্য জানা যায়।

টুইটারে তিনি বলেন, 'দুই নাশকতাকারী, নায়েফ কামামজি ও মুনাদেল ইয়াকুব আনফিয়াত জেনিনে তাদের লুকিয়ে থাকা বাড়ি সেনাবাহিনী ও পুলিশ ঘেরাও করার পর আত্মসমর্পণ করেছে।' আভিখায়ি আদরায়ি বলেন, সেনাবাহিনী ও পুলিশের সদস্যরা বাড়ির চারপাশে ঘেরাও করে নায়েফ ও মুনাদেলের বের হয়ে না আসা পর্যন্ত গুলি করতে থাকে। পরে তারা নিরস্ত্র অবস্থায় বের হয়ে এলে তাদেরকে গ্রেপ্তার করা হয়।

টুইট বার্তায় দুই বন্দীর ছবিও প্রকাশ করেন আভিখায়ি আদরায়ি। কারাগার পালানো ফিলিস্তিনি বন্দীদের আইনজীবীদের ভাষ্য অনুযায়ী, বন্দীরা গত বছরের ডিসেম্বর থেকে নিজেদের কারাগারের সিঙ্কের নিচে একটি সুড়ঙ্গ খনন শুরু করে। এই কাজে তারা চামচ, প্লেট এমনকি কেতলির হাতলও ব্যবহার করে।

পালিয়ে যাওয়া এই ছয় বন্দী হলেন, ফিলিস্তিনি স্বাধীনতাকামী সংগঠন ইসলামি জিহাদের সদস্য মাহমুদ আবদুল্লাহ আল-আরিদা, মোহাম্মদ কাসিম আল-আরিদা, ইয়াকুব মোহাম্মদ কাদরি, আয়হাম নায়েফ কামামজি, মুনাদিল ইয়াকুব আনফিয়াত ও ফিলিস্তিনি রাজনৈতিক দল ফাতাহ আন্দোলনের সামরিক শাখা আল-আকসা শহীদ ব্রিগেডের নেতা যাকারিয়া জুবাইদি।


আরও পডুন

যে দেশে সর্বনিম্ন বেকারত্বের রেকর্ড

ইভ্যালির লাখো গ্রাহকের মাথায় হাত!

সালমানকে নিয়ে আবেগঘন বার্তা দিলেন শাবনূর!

আদালতের দ্বারস্থ জেমস


এর আগে ২০০৬ সালে গাজা-ইসরায়েল সীমান্তে দায়িত্বরত ইসরায়েলি সৈন্য গিলাদ শালিতকে অপহরণ করেন ইজ্জুদ্দিন আল-কাসসাম ব্রিগেডের সদস্যরা। গিলাদ শালিতের মুক্তির জন্য হামাসের সঙ্গে দীর্ঘ পাঁচ বছরের দর কষাকষির পর ২০১১ সালে এক হাজার ২৭ ফিলিস্তিনি বন্দীর বিনিময়ে গিলাদ শালিতকে মুক্তি দেওয়া হয়।

news24bd.tv/এমি-জান্নাত  

পরবর্তী খবর