হেলেনা জাহাঙ্গীরের বাসায় র‌্যাবের অভিযান

অনলাইন ডেস্ক

হেলেনা জাহাঙ্গীরের বাসায় র‌্যাবের অভিযান

আওয়ামী লীগের নারী বিষয়ক উপকমিটি থেকে বাদপড়া হেলেনা জাহাঙ্গীরের বাসায় অভিযান চালাচ্ছে র‌্যাব।

বৃহস্পতিবার রাতে এই অভিযান শুরু হয় বলে জানিয়েছেন র‌্যাব মিডিয়া উইংয়ের সহকারী পরিচালক ইমরান খান।

তিনি বলেন, র‌্যাবের একটি টিম হেলেনা জাহাঙ্গীরের বাসায় গিয়েছে। পরে এ বিষয়ে বিস্তারিত জানানো হবে।

আওয়ামী লীগের মহিলাবিষয়ক উপকমিটির সদস্যপদ থেকে হেলেনা জাহাঙ্গীরকে অব্যাহতি দিয়ে গত রোববার আনুষ্ঠানিক সংবাদ বিজ্ঞপ্তি দেওয়া হয়।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, হেলেনা জাহাঙ্গীর আওয়ামী লীগের মহিলাবিষয়ক উপকমিটির সদস্য ছিলেন। কিন্তু সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে প্রচারিত তার সাম্প্রতিক কর্মকাণ্ড সংগঠনের নীতি বহির্ভূত হওয়ায় আওয়ামী লীগের মহিলাবিষয়ক উপকমিটির সদস্যপদ থেকে তাকে অব্যাহতি দেওয়া হয়েছে। 

news24bd.tv/আলী

পরবর্তী খবর

পাইপ ভাঙা নিয়ে জামাই-শ্বশুরের সংঘর্ষ, আহত ৩০

অনলাইন ডেস্ক

পাইপ ভাঙা নিয়ে জামাই-শ্বশুরের সংঘর্ষ, আহত ৩০

টিউবওয়েলের পাইপ ভাঙা নিয়ে শ্বশুর-জামাইয়ের বিরোধে দুই পক্ষের সংঘর্ষে নারীসহ অন্তত ৩০ জন আহত হয়েছেন।

শনিবার (২৫ সেপ্টেম্বর) দুপুরে হবিগঞ্জের আজমিরীগঞ্জ উপজেলার শিবপাশা গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। খবর পেয়ে শিবপাশা পুলিশ ফাঁড়ির সদস্যরা ঘটনাস্থলে পৌঁছে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। আহতদের মধ্যে ১৬ জনকে হবিগঞ্জ সদর আধুনিক হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। 

স্থানীয়রা জানান, কয়েক বছর আগে উপজেলার শিবপাশা গ্রামের মাতাবুর রহমানের মেয়ের সঙ্গে একই গ্রামের মোজাক্কির মিয়ার বিয়ে হয়ে। শনিবার মোজাক্কির মিয়ার চাচাতো ভাইয়ের সঙ্গে টিউবওলের পাইপ ভাঙা নিয়ে বাগবিতণ্ডা হয় শ্বশুর মাতাবুর রহমানের। 

আরও পড়ুন:

অবশেষে ব্রিটেনের লাল তালিকা থেকে বাদ পড়ছে বাংলাদেশ

বেড়াতে গিয়ে অতিরিক্ত মদ পানে দুই ছাত্রলীগ কর্মীর মৃত্যু

আর কোনো তত্ত্বাবধায়ক সরকার হবে না, জানালেন কৃষিমন্ত্রী

ইভ্যালির সঙ্গে আর সম্পর্ক নেই তাহসানের


 

এরই প্রেক্ষিতে জামাই মোজাক্কির মিয়াসহ তাদের লোকজন দেশীয় অস্ত্র নিয়ে সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে শ্বশুর মাতাবুর রহমানের লোকজনের সঙ্গে। এতে নারীসহ অন্তত ৩০ জন আহত হন। 

আজমিরীগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. নুরুল ইসলাম এই ঘটনার বিষয়ে জানান, শুধু পাইপ ভাঙা নয় জামাই ও শ্বশুরের মধ্যে গ্রাম্য আরও বিভিন্ন বিষয় নিয়ে বিরোধ রয়েছে। বর্তমানে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রয়েছে।

news24bd.tv/আলী

পরবর্তী খবর

মুরগির বাচ্চা নিয়ে ঝগড়া, নিহত ১ গ্রেফতার ২

অনলাইন ডেস্ক

মুরগির বাচ্চা নিয়ে ঝগড়া, নিহত ১ গ্রেফতার ২

মুরগীর বাচ্চা নিয়ে বাকবিতণ্ডা এক পর্যায়ে দু'পক্ষের মারামারিতে রুফ নেয়। আর সেই মারামারিতে আহত এক বৃদ্ধের চিকিৎসাধীন অবস্থায় মৃত্যু্ হয়েছে। এ ঘটনায় অভিযুক্ত দুই আসামিকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। শুক্রবার (২৪ সেপ্টেম্বর) দুপুরে গ্রেফতারকৃত ২ আসামিকে গ্রেফতার দেখিয়ে বিচারিক আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

নোয়াখালীর সুবর্ণচরে এই ঘটনা ঘটে।

গ্রেফতারকৃতরা হলো, উপজেলার ৬নং চর আমান উল্যাহ ইউনিয়নের কিশোর মজুমদার ও তার ছেলে সৌরভ মজুমদার। নিহত দিলীপ সাহা (৬০) উপজেলার ৬নং চর আমান উল্যাহ ইউনিয়নের মৃত হর লাল চন্দ্র সাহার ছেলে। বৃহস্পতিবার দিবাগত রাত দুইটার দিকে ঢাকায় চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়।

আরও পড়ুন:

অবশেষে ব্রিটেনের লাল তালিকা থেকে বাদ পড়ছে বাংলাদেশ

বেড়াতে গিয়ে অতিরিক্ত মদ পানে দুই ছাত্রলীগ কর্মীর মৃত্যু

আর কোনো তত্ত্বাবধায়ক সরকার হবে না, জানালেন কৃষিমন্ত্রী

ইভ্যালির সঙ্গে আর সম্পর্ক নেই তাহসানের


 

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, মুরগির বাচ্চাকে মারধরকে কেন্দ্র করে গত ১৩ সেপ্টেম্বর মৃত দিলীপ সাহার সাথে প্রতিবেশী কিশোর মজুমদার ও তার ছেলে সৌরভ মজুমদারের বাকবিতণ্ডা ও মারামারি হয়। এসময় প্রতিপক্ষের মারধরে দিলীপ সাহা গুরুত্বর আহত হয়। পরে স্থানীয় এলাকাবাসী তাকে উদ্ধার করে প্রথমে সুবর্ণচর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যায়। সেখান থেকে তাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য কর্তব্যরত চিকিৎসক ঢাকায় প্রেরণ করে। ঢাকায় নিউরোলোজি হাসপাতালে আইসিইউতে চিকিৎসাধীন অবস্থায়  বৃহস্পতিবার রাত দুইটার দিকে তার মৃত্যু হয়। 

খবর পেয়ে তাৎক্ষণিক এই ঘটনায় পুলিশ অভিযুক্ত কিশোর মজুমদার ও তার ছেলে সৌরভ মজুমদারকে গ্রেফতার করে।

news24bd.tv/আলী

পরবর্তী খবর

প্রেমের স্বীকৃতি না পেয়ে প্রেট্রোল ঢেলে আগুন দিলেন নারী!

অনলাইন ডেস্ক

প্রেমের স্বীকৃতি না পেয়ে প্রেট্রোল ঢেলে আগুন দিলেন নারী!

প্রেমের স্বীকৃতি না পেয়ে নিজের গায়ে পেট্রোল ঢেলে আগুন দিয়েছেন স্বামী পরিত্যক্তা (২৭) এক নারী। পেট্রালের আগুনে নারীর মুখমণ্ডল ও দুই হাতসহ শরীরের বিভিন্ন স্থানে ৩০ শতাংশের বেশি পুড়ে গেছে বলে জানিয়েছেন চিকিৎসক।

বৃহস্পতিবার দুপুরের দিকে নেত্রকোনার কেন্দুয়া উপজেলার সান্দিকোনা ইউনিয়নে আটিগ্রামে দিলু মিয়ার বাড়িতে এ ঘটনা ঘটে।আহত ওই নারী একই ইউনিয়নের ছেংজানা গ্রামের বাসিন্দা। 

পুলিশ ও স্থানীয়দের সূত্রে জানা যায়, আহত ওই নারীর এর আগে একাধিক বিয়ে হয়েছে। সম্প্রতি সান্দিকোনা ইউপির পাইমাস্কা গ্রামের দুলাল মিয়ার ছেলে জামাল মিয়ার সঙ্গে সর্বশেষ বিয়ে হয়। বিয়ের কিছুদিনের মধ্যে দাম্পত্যকলহ দেখা দিলে মামলা-মোকদ্দমায় গড়ায়।

ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (অপরাধ) মনিরুল ইসলাম, কেন্দুয়া সার্কেল এএসপির জোনাঈদ আফ্রাদ ও থানার ওসি কাজী শাহ নেওয়াজ।

কেন্দুয়া থানার ওসি কাজী শাহ নেওয়াজ বলেন, ঘটনা জানার পরপরই হাসপাতালে গিয়ে ভিকটিমের সঙ্গে কথা বলেছি।  দিলু মিয়ার সঙ্গে তার প্রেমের সম্পর্ক ছিল। সম্প্রতি তাদের সম্পর্কের কিছুটা অবনতি ঘটেছে। প্রেমের স্বীকৃত আদায়ের জন্য এই কাণ্ড ঘটিয়েছে ওই নারী। এ ব্যাপারে মামলা করার প্রস্তুতি চলছে ।

আরও পড়ুন:

অবশেষে ব্রিটেনের লাল তালিকা থেকে বাদ পড়ছে বাংলাদেশ

বেড়াতে গিয়ে অতিরিক্ত মদ পানে দুই ছাত্রলীগ কর্মীর মৃত্যু

আর কোনো তত্ত্বাবধায়ক সরকার হবে না, জানালেন কৃষিমন্ত্রী

ইভ্যালির সঙ্গে আর সম্পর্ক নেই তাহসানের


কেন্দুয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের আবাসিক মেডিকেল কর্মকর্তা (আরএমও) সৈয়দ আব্দুল্লাহ গালিব জোবায়ের বলেন, ওই নারীর মুখমণ্ডল, দুই হাতসহ শরীরের বিভিন্ন স্থানে ৩০ শতাংশের বেশি পুড়ে গেছে। 

তাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

news24bd.tv/আলী

পরবর্তী খবর

বিয়ের দাবিতে প্রেমিক পুলিশ সদস্য’র বাড়িতে যুবতির অবস্থান

শেখ রুহুল আমিন,ঝিনাইদহ

বিয়ের দাবিতে প্রেমিক পুলিশ সদস্য’র বাড়িতে যুবতির অবস্থান

বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে দীর্ঘদিন শারিরীক সম্পর্ক করার পর বিয়ে না করে প্রতারণা করায় ঝিনাইদহে বিয়ের দাবিতে পুলিশ সদস্য’র বাড়িতে অবস্থান ধর্মঘট করছে এক যুবতি। বৃহস্পতিবার সন্ধ্যার পর প্রেমিক পুলিশ সদস্য’র বিয়ের খবরে তার বাড়িতে অবস্থান নেয় ওই যুবতি।

জানা যায়, ঝিনাইদহ শহরের আলহেরা স্কুলপাড়ার বাবুল ড্রাইভারের ছেলে পুলিশ সদস্য সম্রাট কয়েক বছর আগে কুষ্টিয়ায় পোস্টিং ছিল। সেখানে চাকুরি করার সুবাদে কুষ্টিয়া সদর উপজেলার ভাদালিয়া গ্রামের কলেজ ছাত্রী শারমিনের সাথে পরিচয় হয়। তাদের মাঝে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে।

শারমিন অভিযোগ করে বলেন, প্রেমের সম্পর্ক হওয়ার পর বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে দফায় দফায় বিভিন্ন স্থানে নিয়ে তার সাথে শারিরীক সম্পর্ক করে। পরে সম্প্রতি তাকে এড়িয়ে চলা শুরু করে। বিয়ের চাপ দিলে সম্রাট নানা তালবাহানা শুরু করে। উপায় না পেয়ে সম্রাটের বিরুদ্ধে কুষ্টিয়ার পুলিশ সুপারের বরাবর অভিযোগ করি। পরে সম্রাটেকে বাগেরহাট বদলি করে দেওয়া হয়। সেখানে গিয়েও বিয়ের দাবি করা হয়। বৃহস্পতিবার বাগেরহাট গিয়ে জানতে পারি শুক্রবার সম্রাটের বিয়ে হচ্ছে। 

এমন খবরে বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় সম্রাটের বাড়ি ঝিনাইদহ শহরের আলহেরা স্কুলপাড়ায় অবস্থান নিয়েছি।

এদিকে সম্রাটের পরিবার থেকে বলা হচ্ছে শারমিনের সাথে তার কোন সম্পর্ক নেই। সম্রাটের পিতা বাবলু বলেন, আমার ছেলের বিরুদ্ধে মিথ্যাচার করা হচ্ছে। আমার ছেলের সাথে যে মেয়েটার সম্পর্ক রয়েছে তার কোন প্রমাণ দিতে পারেনি মেয়েটি। শারমিনের সাথে সম্রাটের কোন সম্পর্ক নেই বা ছিল না। আমার ও আমার পরিবারের মান-সম্মান ক্ষুন্ন করার জন্য মেয়েটা মিথ্যাচার করছে।

আরও পড়ুন:

অবশেষে ব্রিটেনের লাল তালিকা থেকে বাদ পড়ছে বাংলাদেশ

বেড়াতে গিয়ে অতিরিক্ত মদ পানে দুই ছাত্রলীগ কর্মীর মৃত্যু

আর কোনো তত্ত্বাবধায়ক সরকার হবে না, জানালেন কৃষিমন্ত্রী

ইভ্যালির সঙ্গে আর সম্পর্ক নেই তাহসানের


 

এ ব্যাপারে ঝিনাইদহ সদর থানার ওসি শেখ মোহাম্মদ সোহেল রানা জানান, খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়েছে। এর আগেও মেয়েটি এসেছিল। কিন্তু মেয়েটির সাথে পুলিশ সদস্য সম্রাটের সম্পর্কের কোন প্রমাণ সে দিতে পারেনি। তবে মেয়েটি যদি অভিযোগ দেয় তাহলে তদন্ত করে পরবর্তী ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

news24bd.tv/আলী

পরবর্তী খবর

ভাষাসৈনিক আহমদ রফিকের পাশে সংস্কৃতি মন্ত্রণালয়

অনলাইন ডেস্ক

ভাষাসৈনিক আহমদ রফিকের পাশে সংস্কৃতি মন্ত্রণালয়

বিশিষ্ট ভাষাসৈনিক, বুদ্ধিজীবী, গবেষক, প্রাবন্ধিক আহমদ রফিকের পাশে দাঁড়িয়েছে সংস্কৃতি বিষয়ক মন্ত্রণালয়।

আজ সংস্কৃতি বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী কে এম খালিদের নির্দেশনায় মন্ত্রণালয়ের পক্ষ হতে অসুস্থ আহমদ রফিকের হাতে তিন লক্ষ টাকার চেক তুলে দেয়া হয়। সহযোগিতার জন্য আহমদ রফিক এসময় সংস্কৃতি বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন।

সংস্কৃতি প্রতিমন্ত্রী মন্ত্রণালয়ের পক্ষ হতে সর্বাত্মক সহযোগিতার আশ্বাস দিয়ে বলেন, আহমদ রফিক একাধারে বরেণ্য ভাষাসংগ্রামী, বুদ্ধিজীবী, লেখক, প্রাবন্ধিক ও গবেষক। তিনি আমাদের মহান মনীষী। ভাষা আন্দোলনে প্রত্যক্ষ অংশগ্রহণ করেছেন। বাঙালির প্রতিটি আন্দোলনে তাঁর ভূমিকা ছিল অত্যন্ত তাৎপর্যপূর্ণ। সৃষ্টিশীল লেখা ও গবেষণা ছাড়াও তিনি জাতীয় ক্ষেত্রে অনন্য ভূমিকা পালন করেছেন। বাংলা ভাষা ও সাহিত্যে তার অসামান্য অবদান রয়েছে। 

আরও পড়ুন:

অবশেষে ব্রিটেনের লাল তালিকা থেকে বাদ পড়ছে বাংলাদেশ

বেড়াতে গিয়ে অতিরিক্ত মদ পানে দুই ছাত্রলীগ কর্মীর মৃত্যু

আর কোনো তত্ত্বাবধায়ক সরকার হবে না, জানালেন কৃষিমন্ত্রী

ইভ্যালির সঙ্গে আর সম্পর্ক নেই তাহসানের


 

কে এম খালিদ বলেন, সংস্কৃতি বিষয়ক মন্ত্রণালয় আহমদ রফিকের পাশে আছে। ভবিষ্যতেও তাঁর সুচিকিৎসাসহ যেকোন সহায়তার প্রয়োজনে মন্ত্রণালয় পাশে থাকবে।

news24bd.tv/আলী

পরবর্তী খবর