ক্যাম্পে নিয়ে বাংলাদেশি নারীকে ধর্ষণ, বিএসএফ সদস্য গ্রেপ্তার

অনলাইন ডেস্ক

ক্যাম্পে নিয়ে বাংলাদেশি নারীকে ধর্ষণ, বিএসএফ সদস্য গ্রেপ্তার

ভারত থেকে স্থলপথে দেশের ফেরার সময় ভারতীয় সীমান্ত রক্ষী বাহিনী (বিএসএফ) হেফাজতে থাকা এক বাংলাদেশিকে নারীকে ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে। এই অভিযোগে বিএসএফ- এর এক এসআই-কে গ্রেপ্তার করেছে ভারতের পুলিশ।

গ্রেপ্তারকৃত ওই কর্মকর্তার নাম রামেশ্বর কয়াল। তাকে দুই দিনের পুলিশ হেফাজতের নির্দেশ দিয়েছেন স্থানীয় আদালত।

জানা গেছে, ওই নারী বাংলাদেশের গোপালগঞ্জের বাসিন্দা। তিন বছর ধরে গুজরাটের একটি শাড়ির শোরুমে কাজ করছেন তিনি। বুধবার অবৈধভাবে পাসপোর্ট ছাড়াই দালালের সাহায্যে ভারত থেকে বাংলাদেশে ফিরছিলেন। 

এ জন্য দালালকে তিনি ও তার বান্ধবী মিলে মোট ৩০ হাজার রুপি দেন। কিন্তু গৈহাটা এলাকার ঝাউডাঙ্গা সীমান্তে বিএসএফ-এর ১৫৮ ব্যাটালিয়ন সদস্যদের হাতে আটক হন তারা। এরপর রাতে ক্যাম্পে ধর্ষণ করা হয় বলে অভিযোগ করেন ওই নারী।

ওই নারীর অভিযোগ, আমি এবং আমার এক বান্ধবী ভারত থেকে বাংলাদেশে ফেরার পথে বিএসএফ-এর হাতে ধরা পড়ি। কিন্তু দালালকে ধরা যায়নি। এরপর ক্যাম্পে আমাদেরকে নিয়ে যাওয়া হয় এবং জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়। পরে রামেশ্বর নামে এক বিএসএফ কর্মকর্তা একটি ঘরে নিয়ে গিয়ে আমাকে ধর্ষণ করে।
  
তিনি আরও বলেন, তাদের কোনো বৈধ পাসপোর্ট ছিল না। তাই চোরাই পথে তারা বাংলাদেশে ফিরছিলাম।  

এদিকে, ওই নারীর অভিযোগের ভিত্তিতে বিএসএফ কর্মকর্তা গ্রেপ্তার করেছে স্থানীয় গাইঘাটা থানার পুলিশ। এরপর তাকে বনগাঁ মহকুমা আদালতে তোলা হলে দুই দিনের পুলিশ হেফাজতের নির্দেশ দেন বিচারক। যদিও তার বিরুদ্ধে ওঠা সমস্ত অভিযোগ অস্বীকার করেছেন ওই বিএসএফ কর্মকর্তা।

তিনি বলেন, আমি কোনো অন্যায় কাজ করিনি। ওদেরকে কেবলমাত্র আটক করে নিয়ে এসেছি। ওই নারী অভিযোগ করতেই পারেন, কিন্তু আমি কিছু করিনি। তারা কেন অভিযোগ করেছে তা তারাই বলতে পারবেন।

বনগাঁ আদালতের মুখ্য সরকারি আইনজীবী জানিয়েছেন, এ ঘটনায় ওই নারীর বয়ান রেকর্ড ও তার স্বাস্থ্য পরীক্ষা করা হয়েছে।  

আরও পড়ুন:


সপ্তম শ্রেণির ছাত্রীকে পিকনিক স্পটে নিয়ে ৫ বন্ধু মিলে ধর্ষণ

সবচেয়ে দীর্ঘ সুড়ঙ্গ পথ উন্মোচন করল ইরান

স্বামীর পর্নকাণ্ড: ক্ষতিপূরণ দাবি করে মামলা করলেন শিল্পা শেঠি

চট্টগ্রামে একদিনে রেকর্ড শনাক্ত, মৃত্যু ৯


news24bd.tv / কামরুল 

পরবর্তী খবর

পরকীয়া প্রেমিকের সাথে মিলে মা খুন করে প্রিয়াকে

অনলাইন ডেস্ক

পরকীয়া প্রেমিকের সাথে মিলে মা খুন করে প্রিয়াকে

চাঁদপুরের শাহরাস্তিতে আলোচিত নওরোজ আফরিন প্রিয়া (২১) হত্যা মামলায় প্রিয়ার মা তাহমিনা সুলতানা রুমি ও পরকীয়া প্রেমিক আ. হান্নান মিলে প্রিয়াকে হত্যা করেছে। 

বৃহস্পতিবার বিকালে তাহমিনা সুলতানা রুমি আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছে।

এর আগে জড়িত সন্দেহে বুধবার বিকালে রুমির প্রেমিক হান্নানকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

শাহরাস্তি মডেল থানা সূত্রে জানা যায়, নিহত প্রিয়ার মা তাহমিনা সুলতানা রুমি ও তার প্রেমিক দেবকরা গ্রামের মৃত মুনসুর আলী ভূঁইয়ার পুত্র মো. আ. হান্নান (৩১) মিলে প্রিয়াকে খুন করে।

এলাকায় খোঁজ নিয়ে জানা যায়, প্রিয়া ও হান্নানদের বাড়ি পাশাপাশি। প্রিয়ার পিতা বিদেশে থাকার সুবাদে ৫-৬ বছর পূর্বে প্রিয়ার মা রুমির সঙ্গে হান্নানের অবৈধ পরকীয়ার সম্পর্ক গড়ে উঠে। তাদের নিষিদ্ধ প্রেমের রসায়ন লোকমুখে ছড়িয়ে গেলে প্রিয়া নিজেই একদিন আপত্তিকর অবস্থায় তাদের ধরে ফেলে। পরে বিষয়টি মামলা পর্যন্ত গড়ায়।

রও পড়ুন:


সেই বাংলা ছবি থেকে সানি লিওনের অংশটি বাদ

অনলাইনে পণ্য ডেলিভারির সময় নির্ধারণ করে দিলো মন্ত্রণালয়

ভ্রুন নষ্ট না করলে তালাক দেয়ার হুমকি স্বামীর

মানবতাবিরোধী মামলার আসামি শহীদুল্লাহ ফকির গ্রেপ্তার


রুমির স্বামী ইসমাইল হোসেন স্ত্রীর অবৈধ সম্পর্কের বিষয়ে সৌদি আরব থেকে জানতে পেরে তার সাথে ছাড়াছাড়ির সিদ্ধান্ত নিলে স্থানীয়ভাবে বেশ কয়েকটি সালিশের মাধ্যমে বিষয়টি নিষ্পত্তি হয়। এরপর হান্নান বিদেশে চলে যায়। হত্যাকাণ্ডের ১ মাস পূর্বে হান্নান দেশে আসে।

মামলার তদন্ত কর্মকর্তা পুলিশ পরিদর্শক আসাদুল ইসলাম জানান, ঘটনায় জড়িত মামলার বাদী রুমি ও তার প্রেমিক আ. হান্নানকে কোর্টের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়।
 
শাহরাস্তি মডেল থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. আবদুল মান্নান জানান, তাহমিনা সুলতানা রুমি ও তার প্রেমিক আ. হান্নান মিলে প্রিয়াকে খুন করে। মেয়ে মায়ের পরকীয়া জেনে ফেলায় ২ জনে পরিকল্পনা করে প্রিয়াকে তাদের পথ থেকে  সরিয়ে দিয়েছে।

NEWS24.TV / কামরুল

পরবর্তী খবর

ঢাকায় মিললো ভয়ংকর মাদক আইসের সবচেয়ে বড় চালান

অনলাইন ডেস্ক

ঢাকায় মিললো ভয়ংকর মাদক আইসের সবচেয়ে বড় চালান

রাজধানী থেকে ৫৬০ গ্রাম ভয়ংকর মাদক ক্রিস্টাল মেথ বা আইস ও ইয়াবা জব্দ করেছে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তর (ডিএনসি)।

ডিএনসির পক্ষ থেকে দাবি করা হয়েছে, জব্দ করা আইসের মূল্য প্রায় ৯০ লাখ টাকা। এটি এখন পর্যন্ত ঢাকায় আটক হওয়া আইসের সবচেয়ে বড় চালান।

বৃহস্পতিবার (২৩ সেপ্টেম্বর) মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরের সহকারী পরিচালক মো. মেহেদী হাসান গণমাধ্যমকে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

আরও পড়ুন:

অবশেষে ব্রিটেনের লাল তালিকা থেকে বাদ পড়ছে বাংলাদেশ

বেড়াতে গিয়ে অতিরিক্ত মদ পানে দুই ছাত্রলীগ কর্মীর মৃত্যু

আর কোনো তত্ত্বাবধায়ক সরকার হবে না, জানালেন কৃষিমন্ত্রী

ইভ্যালির সঙ্গে আর সম্পর্ক নেই তাহসানের


 

শুক্রবার (২৪ সেপ্টেম্বর) সকালে তেজগাঁওয়ে অবস্থিত মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তর কার্যালয়ে (উত্তর) আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে এ বিষয়ে বিস্তারিত জানানো হবে বলেও তিনি জানান।

news24bd.tv/আলী

পরবর্তী খবর

নান্দাইলে অজ্ঞাত বৃদ্ধকে জবাই করে হত্যা

ময়মনসিংহ প্রতিনিধি:

নান্দাইলে অজ্ঞাত বৃদ্ধকে জবাই করে হত্যা

ময়মনসিংহের নান্দাইল উপজেলায় অজ্ঞাত (৬৫) এক বৃদ্ধকে জবাই করে হত্যা করে লাশ ফেলে রেখে পালিয়েছে দুবৃত্তরা। 

বৃহস্পতিবার সকালে উপজেলার মোয়াজ্জেমপুর ইউনিয়নের বাহাদুরপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় সংলগ্ন ধান ক্ষেত থেকে এ লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। 

রও পড়ুন:


জন্মদিনে সৃজিতের কাছে কী চাইলেন মিথিলা?

বায়ু দূষণের তালিকায় বাংলাদেশ প্রথম, ঢাকা তৃতীয়

৪৫ মিনিট পর হাসপাতালে অলৌকিকভাবে বেঁচে উঠলেন নারী!

গাড়ি সাইড দেয়ায় ব্যবসায়ীকে মারধর করলেন এমপি রিমন!


নান্দাইল থানার ওসি মিজানুর রহমান আকন্দ এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

তিনি বলেন, স্থানীয়দের খবর নিহতের লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। তবে নিহতের নাম-পরিচয় এখনো জানা যায়নি। হত্যায় ব্যবহৃত ছুরি পাশেই ফেলে রেখে গেছে খুনিরা। 

NEWS24.TV / কামরুল

পরবর্তী খবর

প্রবাসী নারীকে সংঘবদ্ধ ধর্ষণ!

অনলাইন ডেস্ক

প্রবাসী নারীকে সংঘবদ্ধ ধর্ষণ!

বিয়ের আশ্বাসে এক গৃহবধূকে সংঘবদ্ধ ধর্ষণ করা হয়েছে। হবিগঞ্জের মাধবপুরে এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় বাড়ির মালিকসহ ৪ জনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

আজ বৃহস্পতিবার সকালে ভুক্তভোগীকে উদ্ধার করে ডাক্তারি পরীক্ষার জন্য হবিগঞ্জ সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। গতকাল বুধবার রাতে এ ঘটনা ঘটে।

গ্রেপ্তারকৃতরা হলেন, পূর্ব মাধবপুর বাদশা পাঠান, জীবন মিয়া, কাটিহারা গ্রামের লাকী আক্তার ও পৌর শহরের আতিক মিয়া।

জানা গেছে, মাধবপুর বাঘাসুরা গ্রামের স্বামী পরিত্যক্তা বিদেশ ফেরত এক নারীর সঙ্গে মাধবপুর সদরের আতিক মিয়া নামে এক ব্যক্তির প্রেমের সম্পর্ক গড়ে উঠে। পরে বুধবার দুপুরে ওই নারীকে বিয়ের আশ্বাসে মাধবপুরে নিয়ে আসে আতিক। পরে তারা মাধবপুর পৌর শহরের কাটিহারা গ্রামে লাকী আক্তারের বাসায় উঠে। এ সময় ওই নারীকে ধর্ষণ করা হয়।


আরও পড়ুন

অনলাইনে থেকেও অফলাইনে চ্যাট!

শর্তসাপেক্ষে করোনার বুস্টার ডোজের অনুমোদন দিলো যুক্তরাষ্ট্র


এক পর্যায়ে বাসায় আগে থেকে উপস্থিত থাকা বাদশা পাঠান এবং জীবন মিয়াও ধর্ষণ করে। পরে ওই নারী বিষয়টি থানা পুলিশকে জানালে খবর পেয়ে রাতেই অভিযান চালিয়ে বাড়ির মালিক লাকী আক্তারসহ ৪ জনকে গ্রেপ্তার করে। এ ঘটনায় রাতেই ভুক্তভোগী বাদী হয়ে থানায় একটি মামলা দায়ের করেন।

মাধবপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আব্দুর রাজ্জাক জানান, এ ঘটনায় পুলিশ নারীসহ ৪ জনকে আটক করেছে।

news24bd.tv/এমি-জান্নাত   

পরবর্তী খবর

প্রবাসীর জ্যাকেটের হাতায় ২ কোটি টাকার সোনা!

অনলাইন ডেস্ক

প্রবাসীর জ্যাকেটের হাতায় ২ কোটি টাকার সোনা!

হুডি জ্যাকেটের হাতার ভেতর লুকিয়ে রাখা ২৫টি সোনার বারসহ মোহাম্মদ রিপন নামে সৌদি প্রবাসী এক যাত্রীকে আটক করেছে ঢাকা কাস্টম হাউজের প্রিভেন্টিভ টিম। বুধবার রাত ১১টা ৪৫ মিনিটের দিকে হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর থেকে তাকে আটক করা হয়।

ঢাকা কাস্টম হাউজের ডেপুটি কমিশনার (প্রিভেন্টিভ) মো. সানোয়ারুল কবীর এ তথ্য সত্যতা নিশ্চিত করেছেন। 

জানা যায়, উদ্ধারকৃত ২৫টি সোনার বারের ওজন দুই কেজি ৯০০ গ্রাম। যার বাজারমূল্য প্রায় দুই কোটি টাকা।

এ বিষয়ে মো. সানোয়ারুল কবীর জানান, অভিযান চালিয়ে সৌদি এয়ারলাইন্সের বিমান থেকে ওই যাত্রীকে আটক করা হয়। এসময় তার হাতে থাকা হুডি জ্যাকেটের হাতা তল্লাশি করে স্বর্ণের বারগুলো পাওয়া যায়।

রও পড়ুন:

মাদক মামলায় নারীর যাবজ্জীবন কারাদণ্ড

নতুন করে স্নায়ুযুদ্ধ চায় না যুক্তরাষ্ট্র

নারী ক্ষমতায়নে আন্তর্জাতিক সম্মেলন আয়োজনের আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর

ফ্রান্সের পাশে ইউরোপীয় ইউনিয়ন


তিনি আরো বলেন, পাসপোর্ট অনুসারে আটক যাত্রীর নাম মোহাম্মদ রিপন। তার বিরুদ্ধে কাস্টমস আইনের সংশ্লিষ্ট ধারা ও বিধি মোতাবেক ফৌজদারি মামলা দায়ের করে থানায় হস্তান্তর করা হবে। 

news24bd.tv রিমু  

পরবর্তী খবর