ক্যাম্পে নিয়ে বাংলাদেশি নারীকে ধর্ষণ, বিএসএফ সদস্য গ্রেপ্তার

অনলাইন ডেস্ক

ক্যাম্পে নিয়ে বাংলাদেশি নারীকে ধর্ষণ, বিএসএফ সদস্য গ্রেপ্তার

ভারত থেকে স্থলপথে দেশের ফেরার সময় ভারতীয় সীমান্ত রক্ষী বাহিনী (বিএসএফ) হেফাজতে থাকা এক বাংলাদেশিকে নারীকে ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে। এই অভিযোগে বিএসএফ- এর এক এসআই-কে গ্রেপ্তার করেছে ভারতের পুলিশ।

গ্রেপ্তারকৃত ওই কর্মকর্তার নাম রামেশ্বর কয়াল। তাকে দুই দিনের পুলিশ হেফাজতের নির্দেশ দিয়েছেন স্থানীয় আদালত।

জানা গেছে, ওই নারী বাংলাদেশের গোপালগঞ্জের বাসিন্দা। তিন বছর ধরে গুজরাটের একটি শাড়ির শোরুমে কাজ করছেন তিনি। বুধবার অবৈধভাবে পাসপোর্ট ছাড়াই দালালের সাহায্যে ভারত থেকে বাংলাদেশে ফিরছিলেন। 

এ জন্য দালালকে তিনি ও তার বান্ধবী মিলে মোট ৩০ হাজার রুপি দেন। কিন্তু গৈহাটা এলাকার ঝাউডাঙ্গা সীমান্তে বিএসএফ-এর ১৫৮ ব্যাটালিয়ন সদস্যদের হাতে আটক হন তারা। এরপর রাতে ক্যাম্পে ধর্ষণ করা হয় বলে অভিযোগ করেন ওই নারী।

ওই নারীর অভিযোগ, আমি এবং আমার এক বান্ধবী ভারত থেকে বাংলাদেশে ফেরার পথে বিএসএফ-এর হাতে ধরা পড়ি। কিন্তু দালালকে ধরা যায়নি। এরপর ক্যাম্পে আমাদেরকে নিয়ে যাওয়া হয় এবং জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়। পরে রামেশ্বর নামে এক বিএসএফ কর্মকর্তা একটি ঘরে নিয়ে গিয়ে আমাকে ধর্ষণ করে।
  
তিনি আরও বলেন, তাদের কোনো বৈধ পাসপোর্ট ছিল না। তাই চোরাই পথে তারা বাংলাদেশে ফিরছিলাম।  

এদিকে, ওই নারীর অভিযোগের ভিত্তিতে বিএসএফ কর্মকর্তা গ্রেপ্তার করেছে স্থানীয় গাইঘাটা থানার পুলিশ। এরপর তাকে বনগাঁ মহকুমা আদালতে তোলা হলে দুই দিনের পুলিশ হেফাজতের নির্দেশ দেন বিচারক। যদিও তার বিরুদ্ধে ওঠা সমস্ত অভিযোগ অস্বীকার করেছেন ওই বিএসএফ কর্মকর্তা।

তিনি বলেন, আমি কোনো অন্যায় কাজ করিনি। ওদেরকে কেবলমাত্র আটক করে নিয়ে এসেছি। ওই নারী অভিযোগ করতেই পারেন, কিন্তু আমি কিছু করিনি। তারা কেন অভিযোগ করেছে তা তারাই বলতে পারবেন।

বনগাঁ আদালতের মুখ্য সরকারি আইনজীবী জানিয়েছেন, এ ঘটনায় ওই নারীর বয়ান রেকর্ড ও তার স্বাস্থ্য পরীক্ষা করা হয়েছে।  

আরও পড়ুন:


সপ্তম শ্রেণির ছাত্রীকে পিকনিক স্পটে নিয়ে ৫ বন্ধু মিলে ধর্ষণ

সবচেয়ে দীর্ঘ সুড়ঙ্গ পথ উন্মোচন করল ইরান

স্বামীর পর্নকাণ্ড: ক্ষতিপূরণ দাবি করে মামলা করলেন শিল্পা শেঠি

চট্টগ্রামে একদিনে রেকর্ড শনাক্ত, মৃত্যু ৯


news24bd.tv / কামরুল 

পরবর্তী খবর

চট্টগ্রামে সাড়ে ৩ লাখ টাকার গাঁজাসহ আটক ২

নয়ন বড়ুয়া জয়, চট্টগ্রাম


চট্টগ্রামে সাড়ে ৩ লাখ টাকার গাঁজাসহ আটক ২

চট্টগ্রাম বাকলিয়া এলাকা থেকে ২১ কেজি ৪০০ গ্রাম গাঁজাসহ দুইজনকে আটক করেছে র‍্যাব। আজ তাদেরকে আটক করা হয়।

র‍্যাব বলছে, উদ্ধার করা গাঁজার মূল্য আনুমানিক ৩ লাখ ৫০ হাজার টাকা।

বিস্তারিত আসছে...

news24bd.tv নাজিম

পরবর্তী খবর

হাতিয়ায় দেশীয় বন্দুক, তাজা গোলা ও পাইরোটেকনিক উদ্ধার

অনলাইন ডেস্ক

হাতিয়ায় দেশীয় বন্দুক, তাজা গোলা ও পাইরোটেকনিক উদ্ধার

হাতিয়ায় কোস্ট গার্ডের অভিযানে দেশীয় বন্দুক, তাজা গোলা ও পাইরোটেকনিকসহ এক ডাকাত আটক হয়েছে।

বিস্তারিত আসছে...

আর ও পড়ুন: 


সমুদ্রে নামতে মানতে হবে এই ১০ নির্দেশনা


news24bd.tv তৌহিদ

পরবর্তী খবর

পেটের ভেতর ৮ হাজার ৪৫০ পিস ইয়াবা, গ্রেপ্তার ৪

মাসুদা লাবনী

পেটের ভেতর ৮ হাজার ৪৫০ পিস ইয়াবা, গ্রেপ্তার ৪

রাজধানীর যাত্রাবাড়ীতে পেটের ভেতর ইয়াবা নিয়ে পাচারকালে চারজনকে গ্রেপ্তার করেছে  র‌্যাব। এসময় তাদের কাছ থেকে ৮ হাজার ৪৫০ পিস ইয়াবা উদ্ধার করা হয়।  

বিস্তারিত আসছে...

news24bd.tv নাজিম

পরবর্তী খবর

কিশোরীকে আটকে রেখে পতিতাবৃত্তিতে বাধ্য করায় নারী আটক

নেত্রকোনা প্রতিনিধি:

কিশোরীকে আটকে রেখে পতিতাবৃত্তিতে বাধ্য করায় নারী আটক

প্রতীকী ছবি

কিশোরীকে কাজের কথা বলে আটকে রেখে পতিতাবৃত্তিতে বাধ্য করার অভিযোগে ফাতেমা খাতুন (৪৩) নামের এক নারীকে আটক করেছে নেত্রকোনার দুর্গাপুর থানার পুলিশ। এ সময় ভুক্তভোগী ওই কিশোরীকে উদ্ধার করে ঢাকায় বোনের কাছে পাঠিয়েছে পুলিশ। বৃহস্পতিবার রাতে আটককৃত নারী ফাতেমাকে আজ শুক্রবার সকালে আদালতে পাঠানো হয়েছে। 

পুলিশ জানায়, মাদারীপুর জেলার এক কিশোরী মামার বাড়ি থেকে রাগ করে ঢাকায় কাজের উদ্যেশ্যে গামেন্টর্সকর্মী বোনের বাড়ি চলে আসে। বোন মিতু কাজের জন্য নেত্রকোনার দুর্গাপুর এলাকার ফাতেমার কাছে দেন। 

ফাতেমা নিজ গ্রাম নেত্রকোনা জেলার দুর্গাপুরের চর মোক্তারপাড়া এলাকায় কিশোরীকে এনে কাজে না দিয়ে নিজ বাসায় পতিতাবৃত্তিতে বাধ্য করে। কিন্তু এ কাজ করতে না চাইলে তাকে আটকে রেখে নির্যাতন চালায়। পরে গত বৃহস্পতিবার বিকালে কৌশলে কিশোরী পালিয়ে গিয়ে পার্শ্ববর্তী আশ্রয়ন প্রকল্পে গিয়ে আশ্রয় নেয়। 

খোঁজ পেয়ে সেখান থেকে ফাতেমা ওই কিশোরীকে নিয়ে আসতে গেলে আশ্রয়ন প্রকল্পের বাসিন্ধারা থানায় খবর দিয়ে কিশোরীকে উদ্ধার করে। পরে পুলিশ গিয়ে ফাতেমাকে আটক করে কিশেরাকে উদ্ধার করে ঢাকায় বোনের বাড়ি পাঠায়। এ ঘটনায় কিশোরী বাদী হয়ে থানায় একটি মাামলা দায়ের করেছে। 

দুর্গাপুর থানার ওসি শাহ নুর এ আলম সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, কিশোরীটি ওই আশ্রয়ন প্রকল্পে গিয়ে আশ্রয় চাইলে সেখান থেকেও নিয়ে যেতে চেয়েছিল। পরে আমাদেরকে খবর দিলে আমরা সেখানে গিয়ে কিশোরীকে উদ্ধার করে তার বোনের কাছে পাঠাই। এদিকে অভিযুক্ত নারীকে আটক করে আদালতে পাঠানো হয়েছে। আটক নারী ওই এলাকার আবুল কাশেমের স্ত্রী। তার বিরুদ্ধে এলাকায় অনৈতিক কাজ করার নানা অভিযোগ রয়েছে। 

আরও পড়ুন:


করোনায় স্কুল বন্ধ থাকায় শ্রেণিকক্ষে সপরিবারে বসবাস

বগুড়ায় বাসের ধাক্কায় অটোরিকশার দুই নারী যাত্রী নিহত

জামালপুর থেকে নিখোঁজ ৩ মাদ্রাসাছাত্রীকে ঢাকা থেকে উদ্ধার

যশোরের ১৮টি রুটে দাপিয়ে বেড়াচ্ছে


NEWS24.TV / কামরুল

পরবর্তী খবর

রাজধানীতে বিয়ার ও বিদেশী মদসহ গ্রেপ্তার ৭

নিজস্ব প্রতিবেদক

রাজধানীতে বিয়ার ও বিদেশী মদসহ গ্রেপ্তার ৭

রাজধানী ঢাকার বিভিন্ন এলাকায় অভিযান চালিয়ে ১৬৮০ বিয়ার ও ১৬ বেতল বিদেশী মদসহ মোট সাত চিহ্নত মাদক ব্যবসায়ীকে গ্রেপ্তার করেছে র‌্যাব-৪।

বিস্তারিত আসছে...

আরও পড়ুন:


করোনায় স্কুল বন্ধ থাকায় শ্রেণিকক্ষে সপরিবারে বসবাস

বগুড়ায় বাসের ধাক্কায় অটোরিকশার দুই নারী যাত্রী নিহত

জামালপুর থেকে নিখোঁজ ৩ মাদ্রাসাছাত্রীকে ঢাকা থেকে উদ্ধার

যশোরের ১৮টি রুটে দাপিয়ে বেড়াচ্ছে


NEWS24.TV / কামরুল

পরবর্তী খবর