বৃদ্ধাশ্রমে হামলা : ছাত্রলীগ নেতা বহিষ্কার

অনলাইন ডেস্ক

বৃদ্ধাশ্রমে হামলা :  ছাত্রলীগ নেতা বহিষ্কার

ঘুমের ওষুধ চেয়ে না পাওয়ায় গত সোমবার বিকেলে মিরপুরের দক্ষিণ পাইকপাড়ায় ‘চাইল্ড অ্যান্ড ওল্ড কেয়ার সেন্টার’ নামের বৃদ্ধাশ্রমে হামলার ঘটনা ঘটে।

জানা গেছে, সোমবার বিকেলে গাজী রাহাত নামের স্থানীয় এক ব্যক্তি বৃদ্ধাশ্রমের ম্যানেজার মিরাজের কাছে ঘুমের ওষুধ চান। ম্যানেজার ঘুমের ওষুধ নেই বললে রাহাত ক্ষিপ্ত হয়ে তাকে অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ করেন। কিছুক্ষণ পর রাহাতসহ মিরপুর ১১ নম্বর ওয়ার্ড ছাত্রলীগের সহসভাপতি শাহরিয়ার ইসলাম ওরফে বিপুল তার বাহিনী নিয়ে বৃদ্ধাশ্রমে হামলা করেন। এ সময় প্রতিষ্ঠানের কর্মচারী আবদুল হাকিম, মিরাজ, হামিদুল আরিফসহ কয়েকজন আহত হন।

এ ঘটনায় গত মঙ্গলবার মিরপুর ১১ নম্বর ওয়ার্ড ছাত্রলীগের সহসভাপতি বিপুলসহ ১০ জনকে আসামি করে চাইল্ড অ্যান্ড ওল্ড কেয়ার সেন্টারের সভাপতি ও পরিচালক মিল্টন সমদ্দার বাদী হয়ে মিরপুর মডেল থানায় মামলা করেছেন। 

অন্য আসামিরা হলেন মো. গাজী রাহাত, তাপস, সুজন, আলামিন, রিয়াজ, শুভ, বাপ্পি, নুরা ও আবদুল আওয়াল। মামলায় আরও কয়েকজনকে অজ্ঞাতনামা আসামি করা হয়েছে।

এদিকে হামলায় জড়িত থাকার অভিযোগে গত বৃহস্পতিবার ছাত্রলীগ নেতা বিপুলসহ পাঁচ নেতা–কর্মীকে বহিষ্কার করেছে মিরপুর থানা ছাত্রলীগ। অন্য চারজন হলেন ওয়ার্ড ছাত্রলীগের কর্মী রিংকু, আবদুল আওয়াল, মাহিন ইসলাম, জেসন ইসলাম ও আশিক আহমেদ।

আরও পড়ুন:


বিট লবনের যত উপকার

ধানখেতে ৮ ফুট অজগর

সৈয়দ আশরাফুল ইসলামের ম্যুরাল ভাঙচুরকারীদের গ্রেপ্তার দাবি হানিফের


 

মিরপুর থানার এসআই রহমত উল্লাহ  বলেন, বৃদ্ধাশ্রমে হামলার ঘটনায় গত বুধবার মিরপুর এলাকা থেকে প্রধান আসামি রাহাতসহ তিনজনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। অন্য দুজন হলেন আবদুল আওয়াল ও শুভ।

news24bd.tv/আলী

পরবর্তী খবর

পরিণতি ভয়াবহ হবে, বিএনপিকে কামরুল

অনলাইন ডেস্ক

পরিণতি ভয়াবহ হবে, বিএনপিকে কামরুল

বিএনপিকে হুঁশিয়ারি দিয়েছেন আওয়ামী লীগ নেতা অ্যাডভোকেট কামরুল ইসলাম এমপি। বলেছেন, আন্দোলনের নামে নৈরাজ্য করে শিক্ষার্থীদের পড়ালেখায় বাধা সৃষ্টি করলে পরিণতি ভয়াবহ হবে।

শুক্রবার (১৭ সেপ্টেম্বর) বিকেলে কেরাণীগঞ্জের হযরতপুর কলেজ প্রাঙ্গণে হযরতপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের ত্রিবার্ষিক সম্মেলনে প্রধান অতিথি হিসেবে তিনি আরও বলেন, অশুভ শক্তির ষড়যন্ত্র এখনও চলছে, তাই সবাইকে সতর্ক থাকতে হবে। ষড়যন্ত্র না করে নির্বাচনের জন্য প্রস্তুতি নিতে বিএনপির প্রতি আহ্বান জানান তিনি। আন্দোলনের নামে নৈরাজ্য করে শিক্ষার্থীদের পড়ালেখায় বাধার সৃষ্টি করলে পরিণতি ভয়াবহ হবে। সমুচিত জবাব দেওয়া হবে। বিভ্রান্তি না ছড়াতেও বিএনপির প্রতি আহ্বান জানান তিনি।

তিনি বলেন, ১৫ আগস্ট, ৩ নভেম্বর ও ২১ আগস্টের হত্যাকাণ্ড একই সূত্রে গাঁথা। ওই একই শক্তি এখনও শেখ হাসিনাকে হত্যা করার ষড়যন্ত্রে লিপ্ত। এরা দেশের অগ্রগতিকে থামিয়ে দিতে চায়, তাই এই অপশক্তির বিরুদ্ধে প্রতিরোধ গড়ে তোলার আহ্বান জানান তিনি।

আর ও পড়ুন: 


সমুদ্রে নামতে মানতে হবে এই ১০ নির্দেশনা

হাতিয়ায় দেশীয় বন্দুক, তাজা গোলা ও পাইরোটেকনিক উদ্ধার

তিন কিউই ক্রিকেটারের করোনা শনাক্ত, পাকিস্তান সিরিজ বাতিল

ডেঙ্গু নিয়ন্ত্রণে ব্যর্থতার অভিযোগে মেয়র তাপসের কুশপুত্তলিকা দাহ


তিনি বলেন, একাত্তরের পরাজিত শক্তিরা বঙ্গবন্ধুকে নির্মমভাবে হত্যা করেছিল। সেই খুনিদের পুনর্বাসন করেছিল বিএনপি-জামায়াত।

কামরুল ইসলাম বলেন, ২০০১ থেকে ২০০৮ পর্যন্ত দেশের সংখ্যালঘুদের ওপর নির্যাতন চালানো হয়েছিল। বিএনপি-জামায়াত যখন ক্ষমতায় ছিল তখন দেশে অরাজকতা ছিল। আইনের শাসন ছিল না। বর্তমান সরকার আইনের শাসন প্রতিষ্ঠিত করেছে। বর্তমান সরকারের আমলে কোনো অপরাধীকে ছাড় দেওয়া হচ্ছে না।

তিনি বলেন, গ্রামকে শহরে পরিণত করার কাজ করছে বর্তমান সরকার। সব ক্ষেত্রেই ডিজিটাল প্রযুক্তির ব্যবহার বাড়ছে। যোগাযোগ ব্যবস্থাসহ সব ক্ষেত্রেই দেশ এগিয়ে যাচ্ছে। উন্নয়নশীল দেশ থেকে উন্নত দেশ হওয়ার স্বপ্ন দেখছে সরকার।

news24bd.tv তৌহিদ

পরবর্তী খবর

চন্দ্রিমায় জিয়ার লাশ থাকার প্রমাণ কোথাও নেই: তথ্যমন্ত্রী

অনলাইন ডেস্ক

চন্দ্রিমায় জিয়ার লাশ থাকার প্রমাণ কোথাও নেই: তথ্যমন্ত্রী

চন্দ্রিমা উদ্যানে বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা জিয়াউর রহমানের লাশ থাকার প্রমাণ কোথাও নেই বলে দাবি করেছেন তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ।

আজ রাজধানীতে তার সরকারি বাসভবনে সাংবাদিকদের সঙ্গে মতবিনিময়কালে এ কথা বলেন তিনি।

তথ্যমন্ত্রী বলেন, প্রধানমন্ত্রী যথার্থই বলেছেন, জিয়ার লাশ কেউ দেখেনি।

হাছান মাহমুদ বলেন, আমি রাঙ্গুনিয়ার মানুষ, যেখানে জিয়াকে প্রথম সমাহিত করা হয় বলে বিএনপি দাবি করেছে। রাঙ্গুনিয়া উপজেলার তখনকার চেয়ারম্যান জহির সাহেব এখনো জীবিত। তিনি বলেছেন, তিনটি লাশ সেখান থেকে তোলা হয়েছিল, তার মধ্যে জিয়াউর রহমানের লাশ ছিল না। এরশাদ সাহেব এবং জিয়াউর রহমানের ঘনিষ্ঠজন মীর শওকত দুজনেই বলেছেন, তারা কেউ জিয়ার লাশ দেখেননি।

news24bd.tv নাজিম

পরবর্তী খবর

নির্বাচন না করায় প্রার্থীকে বহিষ্কার করলো জাপা

অনলাইন ডেস্ক

নির্বাচন না করায় প্রার্থীকে বহিষ্কার করলো জাপা

কুমিল্লা-৭ (চান্দিনা) আসনের উপ-নির্বাচনে জাতীয় পার্টির মনোনীত প্রার্থী দলের কেন্দ্রীয় ভাইস চেয়ারম্যান ও কুমিল্লা উত্তর জেলা জাতীয় পার্টির আহবায়ক লুৎফুর রেজা খোকনকে দল থেকে বহিষ্কার করা হয়েছে।

শুক্রবার (১৭ সেপ্টেম্বর) তাকে দলের প্রাথমিক সদস্যসহ সব পদ-পদবি থেকে অব্যাহতি দেওয়া হয়েছে। একই সঙ্গে বিলুপ্ত করা হয়েছে কুমিল্লা উত্তর জেলা জাতীয় পার্টির কমিটি। 

দলটির চেয়ারম্যান জিএম কাদেরের প্রেস সেক্রেটারি খন্দকার দেলোয়ার জালালী স্বাক্ষরিত এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এ সিদ্ধান্ত জানানো হয়।

এর আগে গত বৃহস্পতিবার জেলা রিটার্নিং কর্মকর্তা ও কুমিল্লার আঞ্চলিক নির্বাচন কর্মকর্তা বরাবর তিনি মনোনয়ন প্রত্যাহারের আবেদন করেন।

আরও পড়ুন:


একবার বিদ্রোহী হলে আজীবন নৌকা থেকে বঞ্চিত

ফিফা র‍্যাঙ্কিংয়ে শীর্ষ পাঁচে নেই আর্জেন্টিনা

করোনায় স্কুল বন্ধ থাকায় শ্রেণিকক্ষে সপরিবারে বসবাস

রোহিঙ্গা ইস্যুতে কমনওয়েলথের সহায়তা চাইলেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী


জাতীয় পার্টির গঠনতন্ত্রের ২০/১(১) ক ধারা মোতাবেক পার্টি চেয়ারম্যান ও বিরোধীদলীয় উপনেতা গোলাম মোহাম্মদ কাদের এ সিদ্ধান্ত নিয়েছেন।

news24bd.tv নাজিম

পরবর্তী খবর

ছাত্র রাজনীতি হবে জ্ঞান ও মূল্যবোধের মডেল: কাদের

অনলাইন ডেস্ক

ছাত্র রাজনীতি হবে জ্ঞান ও মূল্যবোধের মডেল: কাদের

আগামী দিনের রাজনীতি হতে হবে জ্ঞাননির্ভর, সেজন্য ছাত্র রাজনীতিকে জ্ঞান এবং  মূল্যবোধের মডেল হিসেবে প্রতিষ্ঠিত করতে হবে বলে মন্তব্য করেছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের। শুক্রবার (১৭ সেপ্টেম্বর) সকালে ২৩ বঙ্গবন্ধু এভিনিউয়ে শিক্ষা দিবস উপলক্ষে দলটির শিক্ষা ও মানবসম্পদ উন্নয়ন কমিটি আয়োজিত "শিক্ষাঃ ২০৪১ সালের লক্ষমাত্রা অর্জনের বাস্তবিক কৌশল" শীর্ষক সেমিনারে ভার্চুয়ালি যুক্ত হয়ে এ আহবান জানান তিনি। 

তিনি আরও বলেন, পরীক্ষার্থী নয়, চাই শিক্ষার্থী। জীবিকা নয়, জীবনের জন্যই শিক্ষা প্রয়োজন উল্লেখ করে ওবায়দুল কাদের বলেন এ বাস্তবতা শিক্ষক, অভিভাবক, শিক্ষার্থী ও নীতিনির্ধারকদের সবার আগে উপলব্ধি করতে হবে।

ওবায়দুল কাদের বলেন ছাত্রনেতারা এখন তাদের ক্যাম্পাস, শিক্ষা, শিক্ষার সমস্যা এমনকি কোন সংগঠন এই দিবসের তাৎপর্য নিয়ে কোন সেমিনারও করে না।

শিক্ষা দিবস নিয়ে ছাত্র সংগঠনের কোন কর্মসূচি না থাকায় দুঃখ প্রকাশ করে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বলেন আজকের দিবসটা ছাত্র সমাজের জন্য অপরিহার্য, ৬২'র শিক্ষা আন্দোলন নিয়ে আজ কয়জনে জানে? তা জানা নেই।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা পরবর্তী নির্বাচন নিয়ে ভাবেন না, তিনি ভাবেন আগামী প্রজন্ম নিয়ে, আর এটাই হওয়া উচিত বলে জানিয়ে ওবায়দুল কাদের বলেন পরবর্তী প্রজন্মের কথা মাথায় আছে বলেই তিনি আজ রাষ্ট্রনায়ক।

ওবায়দুল কাদের বলেন এ মাসের শেষেই বিশ্ববিদ্যালয় খুলবে, হলগুলোতে জীবন যাত্রা কেমন তা দেখতে হবে। হলগুলোতে অছাত্ররা অবস্থান করে, তাদের লিখিত ভাবে হলে থাকা বন্ধ করতে হবে।

প্রতিযোগিতাময় গ্লোবাল ভিলেজে শিক্ষার্থীদের ক্যারিয়ার হতে হবে আন্তর্জাতিক মানের উল্লেখ করে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বলেন মুক্তিযুদ্ধের অবিনাশী চেতনা আর প্রযুক্তি মনস্কতায় গড়ে তুলতে হবে নতুন প্রজন্মকে।

ওবায়দুল কাদের বলেন দেশের উদ্যমি তরুণদের যোগ্য করে গড়ে তুলতে হবে সমৃদ্ধ আগামীর জন্য, বঙ্গবন্ধুর সোনার বাংলার জন্য, শেখ হাসিনার সমৃদ্ধ ও আত্মনির্ভরশীল বাংলাদেশের জন্য এবং সজিব ওয়াজেদ জয়ের ডিজিটাল বাংলাদেশের জন্য। 

আরও পড়ুন:

ইভ্যালিকে দেউলিয়া ঘোষণা করতে চেয়েছিল রাসেল: র‍্যাব

এবার ইভ্যালি নিয়ে বিস্ফোরক মন্তব্য শবনম ফারিয়ার

নুসরাতকে আর সমর্থন দেবেন না তসলিমা নাসরিন

অবশেষে মৃত্যুর ৫ বছর পর ‘ছাড়পত্র’ পেল দিতির শেষ সিনেমা


শিক্ষা ও মানবসম্পদ উন্নয়ন উপকমিটির চেয়ারম্যান অধ্যাপক আবদুল খালেকের সভাপতিত্বে সেমিনারে আরো বক্তব্য রাখেন আওয়ামী লীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক ও শিক্ষা মন্ত্রী ডাক্তার দীপু মনি,  বঙ্গবন্ধু ডিজিটাল বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য ডক্টর মুনাজ আহমেদ নুর,ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপ-উপাচার্য অধ্যাপক ডক্টর এ এস এম মাকসুদ কামাল, সেমিনারে মূল প্রবন্ধ পাঠ করেন সাবেক সচিব মোঃ নজরুল ইসলাম খান, আওয়ামী লীগের স্বাস্থ্য বিষয়ক সম্পাদক ডাক্তার রোকেয়া সুলতানা।

অনুষ্ঠানটি উপস্থাপনা করেন শিক্ষা ও মানবসম্পদ উন্নয়ন বিষয়ক উপকমিটির সদস্য সচিব শামসুন্নাহার চাঁপা।

news24bd.tv/ নকিব

পরবর্তী খবর

সরকারের গাফিলতির কারণে ইভ্যালির মতো প্রতিষ্ঠান টাকা লুট করেছে

অনলাইন ডেস্ক

সরকারের গাফিলতির কারণে ইভ্যালি, ই-অরেঞ্জের মতো প্রতিষ্ঠান ব্যবসার নামে প্রতারণা করে হাজার কোটি টাকা লুট করেছে বলে সংসদে জানিয়েছেন বিএনপি থেকে সংরক্ষিত মহিলা আসনের সাংসদ রুমিন ফারহানা।

বৃহস্পতিবার জাতীয় সংসদে পয়েন্ট অব অর্ডারে দাঁড়িয়ে রুমিন এসব কথা বলেন।

তিনি বলেন, যাঁরা টাকা দিয়ে প্রতারিত হয়েছেন, তাঁদের টাকা সরকারকে ফিরিয়ে দিতে হবে। পরে সরকার ওই সব প্রতিষ্ঠান থেকে টাকা আদায় করবে। 

 news24bd.tv/আলী

পরবর্তী খবর