লকডউনের মধ্যেও বাংলাবাজার ঘাটে হাজার হাজার যাত্রী
লকডউনের মধ্যেও বাংলাবাজার ঘাটে হাজার হাজার যাত্রী

লকডউনের মধ্যেও বাংলাবাজার ঘাটে হাজার হাজার যাত্রী

Other

করোনা মহামারীর মধ্যে দেশে চলছে কঠোর বিধিনিষেধ। এরইমধ্যে আজ সকাল থেকেই সরকারের কঠোর বিধিনিষেধ উপেক্ষা করে বাংলাবাজার-শিমুলিয়া নৌরুটে হাজার হাজার যাত্রী ও যানবাহন পারাপার হয়েছে।

শিবচরের বাংলাবাজার ঘাটে মোটরসাইকেল আরোহীদের চাপ বেশি দেখা গেছে। সকাল থেকে হাজার হাজার যাত্রী ও যানবাহন পারাপার হতে দেখা যায় নৌরুটের ফেরিগুলোতে।

বিআইডব্লিউটিসির বাংলাবাজার ঘাট সূত্রে জানা গেছে, আগামীকাল গার্মেন্টস ও কলকারাখানা খুলে দেয়ার ঘোষণা দেয়ায়, আজ সকালে দক্ষিণাঞ্চলের অন্যতম এই ব্যস্ত রুটে  হাজার হাজার মানুষ ফেরিতে পার হচ্ছে। গণপরিবহন বন্ধ থাকায় তিন চাকার বিভিন্ন পরিবহন ও মটর সাইকেল যোগে ঘাট এলাকায় আসছে যাত্রীরা। সেখান থেকে ফেরি পার হয়ে গন্তব্যের উদ্দেশে রওনা দিচ্ছে তারা।

লঞ্চ ও স্পীড বোট বন্ধ থাকায় চাপ পড়েছে ফেরি ঘাটে। এতে করে কারোই স্বাস্থ্য বিধির বালাই নেই। অধিকাংশ মানুষের মুখে মাস্ক নেই।

বরিশাল থেকে আসা যাত্রী শাহাদাত হোসেন বলেন, আাগামী কাল গার্মেন্ট খোলা। আমাদের ফ্যাক্টরিতে যেতেই তাই অনেক কষ্ট করে এসেছি। সরকার যদি গণপরিবহন ও লঞ্চ খুলে দিত তাহলে এতো ভোগন্তি হতো না।

আরও পড়ুন


ভারতকে ১৪টি প্রাচীন শিল্প নিদর্শন ফেরত দিচ্ছে অস্ট্রেলিয়া

ফল খাওয়ার উপযুক্ত সময় কোনটি জেনে নিন

জাহাজে হামলার ঘটনায় ইরানকে দায়ী করল ইসরায়েল

ক্রিকেট থেকে অনির্দিষ্ট সময়ের জন্য বিরতি নিলেন বেন স্টোকস

ইতি নামে আরেক গার্মেন্টস কর্মী বলেন, আমরা গরীব মানুষ। পেটের দায়ে যেতে হচ্ছে। একদিকে লকডাউন আবার ফ্যাক্টরি খোলা। আমরা কি করবো। আমরা পড়েছি ভোগান্তিতে। এক টাকার ভাড়া দশ টাকা দিতে হচ্ছে।

বিআইডব্লিউটিসির বাংলাবাজার ঘাটের ব্যবস্থাপক মো.সালাহউদ্দিন আহমেদ বলেন, নৌরুটে যাত্রীবাহী কোনো যানবাহন পার করা হচ্ছে না। তবে যাত্রীদের চাপ রয়েছে।  

news24bd.tv রিমু 

 

;