বগুড়ায় আওয়ামী লীগ নেতা রকি হত্যা মামলায় ৭ জন গ্রেপ্তার

আবদুস সালাম বাবু, বগুড়া

বগুড়ায় আওয়ামী লীগ নেতা রকি হত্যা মামলায় ৭ জন গ্রেপ্তার

বগুড়া সদরের ফাঁপোর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের যুগ্ন আহবায়ক মমিনুল ইসলাম রকি হত্যা মামলার প্রধান আসামী গাওসুল আজম সহ ৭ জনকে গ্রেপ্তার করেছে র‌্যাব। শনিবার বেলা সাড়ে ১২টায় সাংবাদিক সম্মেলনে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন র‌্যাব-১২ বগুড়া ক্যাম্পের কোম্পানি কমান্ডার লেফটেন্যান্ট কমান্ডার আব্দুল্লাহ আল মামুন।

এসময় র‌্যাবের অভিযানে ১টি বিদেশী পিস্তল, ১টি ম্যাগাজিন, ৩ রাউন্ড গুলি ও ১টি চাপাতি উদ্ধার হয়েছে।
গ্রেফতারকৃতরা হল, বগুড়া সদরের ফাঁপোর এলাকার প্রধান আসামী গাউসুল আযম (২৮), ফুয়াদ হাসান মানিক (২৯), মেহেদী হাসান (১৮), আরিফুর রহমান (২৮), আলী হাসান (২৮), ফজলে রাব্বী (৩০) এবং আব্দুল আহাদ (২০)।

র‌্যাব-১২  জানায়, গোপন সংবাদে শুক্রবার (৩০ জুলাই) দিবাগত রাত সাড়ে ১২টায় বগুড়া ক্যাম্পের একটি দল রংপুর জেলার বদরগঞ্জ উপজেলায় অভিযান চালায়। অভিযানে বদরগঞ্জের ছোট হাজিরপুরের ফকিরগঞ্জ গ্রামে রমজান আলী নামে একজনের বাড়িতে আত্মগোপনে থাকা মেহেদী হাসান, আরিফুর রহমান, আলী হাসান, ফজলে রাব্বী, আব্দুল আহাদকে গ্রেফতার করে।

গ্রেফতারকৃত ৫ জনের তথ্যমতে ভোর সাড়ে ৫টায় বগুড়া সদরের ফাঁপোর উচ্চ বিদ্যালয়ের সামনে থেকে রকি হত্যার মূল পরিকল্পনাকারী গাউসুল আযম ও ফুয়াদ হাসান মানিককে গ্রেফতার করে।
লেফটেন্যান্ট কমান্ডার আব্দুল্লাহ আল মামুন বলেন, গ্রেফতারকৃতদের জিজ্ঞাসাবাদে জানা যায় রকিকে হত্যার পরিকল্পনা করে গাউসুল আজম।

ঘটনার দিন রাতে রকি হত্যাকান্ডে গাউসুল আজম সহ ১৫ থেকে ২০ জন অংশ নেয়। আগামী নির্বাচন এলাকায় মাদক ব্যবসা চাঁদাবাজি ও আধিপত্য বিস্তারে রকি প্রধান বাধা হয়ে উঠতে পারে এ কারণেই আসামীরা ক্ষিপ্ত হয়ে পূর্ব পরিকল্পনামাফিক গত মঙ্গলবার রাতে রকিকে ফাঁপোড় বাজারে কুপিয়ে হত্যা করে।

মঙ্গলবার রাত সাড়ে ৮টার দিকে এশার নামাজ শেষে  মসজিদ থেকে নামাজ পড়ে বের হয়ে পাশের একটি দোকানে কথা বলছিল রকি। এসময় একদল দুর্বৃত্ত তাকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে পায়ে ও মাথায় কুপিয়ে পালিয়ে যায়। এসময় স্থানীয় লোকজন তাকে গুরুতর আহত অবস্থায় উদ্ধার করে নিয়ে শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের জরুরি বিভাগে নিয়ে যায়। হাসপাতালে রাত ১০টার দিকে হাসপাতালের কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মমিনুল ইসলাম রকিকে মৃত ঘোষণা করেন।

আরও পড়ুন:

বাংলাদেশসহ চার দেশে দুবাইগামী ফ্লাইট বন্ধ ৭ আগস্ট পর্যন্ত

চীন ও অস্ট্রেলিয়ায় করোনা পরিস্থিতি নিয়ে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার হুশিয়ারি

হেলেনাকে সম্মানের সঙ্গে ছাড়তে বললেন সেফুদা

সেনাবাহিনীতে বিভিন্ন বেসামরিক পদে ছয় শতাধিক নিয়োগ


এ ঘটনায় বৃহস্পতিবার রাতে রকির ছোট ভাই রুকু ইসলাম গাওসুল আজমকে প্রধান আসামী করে ২২ জনের বিরুদ্ধে বগুড়া সদর থানায় মামলা করেন।

এদিকে মামলার আসামীদের গ্রেফতার করায় র‌্যাব সহ আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর প্রতি কৃতজ্ঞতা জানিয়ে ঘটনার সাথে জড়িত অন্যান্য আসামীদের গ্রেফতার করে দৃষ্টান্তমুলক শাস্তির দাবী জানিয়েছেন সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও উপজেলা চেয়ারম্যান আবু সুফিয়ান সফিক ও সাধারণ সম্পাদক মাফুজুল ইসলাম রাজ।

news24bd.tv/ নকিব

পরবর্তী খবর

ইউপি নির্বাচনী সহিংসতায় বৃদ্ধা নিহত, আহত ৩

অনলাইন ডেস্ক

ইউপি নির্বাচনী সহিংসতায় বৃদ্ধা নিহত, আহত ৩

ইউপি নির্বাচনকে কেন্দ্র করে সংঘর্ষে ফাতেমা বেগম (৭০) নামের এক বৃদ্ধা নিহত হয়েছেন। এ সময় আহত হয়েছে অন্তত তিন জন। বাগেরহাটের মোংলায় এ ঘটনা ঘটেছে।

রোববার (১৯ সেপ্টেম্বর) রাতে উপজেলার চাঁদপাই ইউনিয়নের উত্তর চাঁদপাই গ্রামে বর্তমান ইউপি সদস্য ও প্রার্থী মতিয়ার রহমান মোড়ল এবং প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থী শফিকুল ইসলাম এ সংঘর্ষে জড়ান। 

আহতরা হলেন- ১নং ওয়ার্ডের প্রার্থী মতিয়ার মোড়ল (৬০), বোরহান শেখ (৩৫) ও ইস্রাফিল (২৬)।

স্থানীয় মহাসিন ও মোয়াজ্জেম জানান, রোববার রাত ৯টার দিকে চাঁদপাই মোড়ে ১নং ওয়ার্ডের বর্তমান ইউপি সদস্য ও প্রার্থী মতিয়ার রহমান মোড়ল এবং প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থী শফিকুল ইসলামের কথা কাটাকাটি হয়। একপর্যায়ে বিরোধে জড়িয়ে পড়েন তারা। এ সময় বিরোধ ঠেকাতে এসে মতিয়ার রহমানের সম্পর্কে ফুপু ফাতেমা বেগম আহত হন। পরে তাকে উদ্ধার করে রামপাল উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।

মতিয়ার রহমান মোড়ল বলেন, চাঁদপাই মোড়ে গেলে প্রতিপক্ষ প্রার্থী শফিকুলসহ তার লোকজন আমাদের ওপর হামলা চালায়। এতে একজন নিহত ও আমিসহ তিনজন আহত হই।

তবে হামলার ফলে মৃত্যুর অভিযোগ অস্বীকার করে শফিকুল বলেন, মতিয়ার মেম্বার ভোটের আগে টাকা ছড়াচ্ছিল। তখন আমরা তাকে বাধা দেই। আর যিনি মারা গেছেন তিনি কোনো আঘাতে নয় স্ট্রোক করে মারা গেছেন। 

মোংলা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের চিকিৎসক সিরাজুল ইসলাম বলেন, মৃত অবস্থায় ওই নারীকে হাসপাতালে আনা হয়। তার মাথার পিছনে আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। 

মোংলা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ মনিরুল ইসলাম বলেন, এক বৃদ্ধার মৃত্যুর খবর শুনেছি। তবে মৃত্যুর কারণ এখনও জানা যায়নি। 

NEWS24.TV / কামরুল

পরবর্তী খবর

কক্সবাজারের ২ পৌরসভা ও ১৪ ইউপির ভোট গ্রহণ আজ

অনলাইন ডেস্ক

কক্সবাজারের ২ পৌরসভা ও ১৪ ইউপির ভোট গ্রহণ আজ

আজ সোমবার (২০ সেপ্টেম্বর) অনুষ্ঠিত হবে কক্সবাজারের চকরিয়া ও মহেশখালী পৌরসভাসহ জেলার ৪টি উপজেলার ১৪টি ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনের ভোট গ্রহণ। সকাল ৮টা থেকে বিকেল ৪টা পর্যন্ত টানা ভোট গ্রহণ চলবে। ইতিমধ্যে নির্বাচনের যাবতীয় প্রস্তুতিও সম্পন্ন। অবাধ, সুষ্ঠু ও শান্তিপূর্ণ নির্বাচনের জন্য চার স্তরের নিরাপত্তা ব্যবস্থা জোরদার করা হয়েছে।     

নির্বাচনে উত্তাপ ছড়িয়ে পড়ছে চকরিয়া ও মহেশখালী পৌরসভাসহ ২টি ইউনিয়ন যথাক্রমে মাতারবাড়ী এবং টেকনাফ সদরে ইউনিয়নে। চকরিয়া পৌরসভায় আওয়ামী লীগ দলীয় প্রার্থী বর্তমান মেয়র আলমগীর চৌধুরীর সঙ্গে স্থানীয় এমপি জাফর আলমের আপন ভাতিজা জিয়াউল করিমের মধ্যে তুমুল লড়াই চলছে। অপরদিকে মহেশখালী পৌরসভার বর্তমান মেয়র এবং আওয়ামী লীগ দলীয় প্রার্থী মকছুদ মিয়ার সঙ্গে চলছে অপর আওয়ামী লীগ নেতা সরওয়ার আলমের লড়াই।

অপরদিকে গভীর সমুদ্র বন্দর আর তাপ বিদ্যুৎ কেন্দ্র নিয়ে আলোচিত মাতারবাড়ি ইউনিয়নের তিন প্রতিদ্বন্দ্বী চেয়ারম্যান প্রার্থী মরিয়া হয়ে পড়েছেন বিজয় ছিনিয়ে নিতে। তিন প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থীই স্থানীয় আওয়ামী লীগ নেতা। তাদের মধ্যে দলীয় প্রতীকধারী এস এম আবু হায়দার, বর্তমান চেয়ারম্যান মাষ্টার মোহাম্মদুল্লাহ ও এনামুল হক চৌধুরী রুহুলের মধ্যে তুমুল লড়াই চলছে। এখানে কোটি কোটি টাকা খরচ করছেন প্রার্থীরা। 

টেকনাফ সদর ইউনিয়নেও তিন প্রার্থীর মধ্যে লড়াই চলছে। এর মধ্যে নৌকা প্রতীকের প্রার্থী আবু সৈয়দ এবং মোহাম্মদ শাহজাহান আওয়ামী লীগ এবং জিয়াউর রহমান হচ্ছেন বিএনপি পরিবারের সন্তান। টেকনাফের নির্বাচনী আকাশেও উড়ছে টাকা।

কক্সবাজারের জেলা প্রশাসক মো. মামুনুর রশীদ জানিয়েছেন, প্রতি ভোট কেন্দ্রে পৃথক তিনটি টিম কাজ করবে। কোনো ধরনের প্রভাব বিস্তার করতে দেওয়া হবে না।

এদিকে জেলা নির্বাচন অফিস সূত্রে জানা গেছে, মহেশখালী ও চকরিয়া পৌরসভায় মেয়র প্রার্থী রয়েছেন ৮ জন। সংরক্ষিত নারী আসনে ২৫ জন কাউন্সিলর প্রার্থী ও সাধারণ কাউন্সিলর পদে ৭৬ জন প্রার্থী রয়েছে। মহেশখালী পৌরসভায় মোট ভোটার সংখ্যা ১৯ হাজার ৪৮৪ জন এবং চকরিয়া পৌরসভায় ভোটার ৪৮ হাজার ৭২৪ জন। মহেশখালীতে ১০টি ভোট কেন্দ্রে বুথ ৫৯টি এবং চকরিয়া পৌরসভায় ১৮টি ভোট কেন্দ্রে ১৩৯টি বুথ রয়েছে।

আরও পড়ুন:


পাঁচ বিভাগে বৃষ্টি ও বজ্রসহ বৃষ্টির আশঙ্কা

এই হচ্ছে বিএনপি, আর সব দোষ আওয়ামী লীগের?

রাজপথে নামার আহ্বান মোশাররফ-মান্নার

বাগেরহাটে ৩ ঘণ্টা পর প্লাইউড ফ্যাক্টরির আগুন নিয়ন্ত্রণে


অপরদিকে কুতুবদিয়া, মহেশখালী, পেকুয়া ও টেকনাফ উপজেলার ১৪টি ইউনিয়নে মোট ভোটার সংখ্যা ৩ লাখ ১১ হাজার ২৩৪ জন। এর মধ্যে পুরুষ ভোটার সংখ্যা এক লাখ ৫৯ হাজার ৯৯৫ জন এবং নারী ভোটার এক লাখ ৫১ হাজার ১২ জন। ৪টি উপজেলায় ১৪০টি ভোট কেন্দ্র এবং ৭৮০টি স্থায়ী ও ১১৩টি অস্থায়ী ভোট কেন্দ্র রয়েছে। ১৪টি ইউনিয়নে চেয়ারম্যান প্রার্থী ৯২ জন, সংরক্ষিত নারী মেম্বার প্রার্থী ১৯৯ জন ও পুরুষ মেম্বার প্রার্থী রয়েছেন ৭৭৫ জন। 

news24bd.tv রিমু

পরবর্তী খবর

রাজশাহীর প্রত্যন্ত গ্রামে সৃজনশীলতা চর্চায় শাপলা কালচারাল স্কুল

কাজী শাহেদ

সৃজনশীলতা চর্চায় নতুন প্রজন্মকে যুক্ত করতে উদ্যোগ নিয়েছে শাপলা কালচারাল স্কুল। যাদের কাছে সংস্কৃতি চর্চা নাগালের বাইরে, তেমন প্রত্যন্ত গ্রামে গড়ে তোলা হয়েছে স্কুলটি। সেখানে আসছেন অনেকে। তরুণ প্রজন্মকে মাদক, বাল্যবিয়ে আর জঙ্গিবাদ থেকে দূরে রাখতে এমন উদ্যোগ, বলছেন প্রতিষ্ঠানটির উদ্যেক্তা।

ধরা–বাঁধা সিলেবাসের পড়াশোনা আর ভালো ফলাফলের ইঁদুর দৌড়ের মধ্যে শিক্ষার্থীরা বেড়ে ওঠে। সেখানে সহমর্মিতা, অন্যের মতকে গুরুত্ব দেয়ার মতো বিষয়গুলো খুব একটা আসে না। তবে শিশু আর তরুণ প্রজন্মের মধ্যে সৃজনশীলতা, মুক্তবুদ্ধির চর্চার উদ্যোগ নিয়ে কাজ করছে শাপলা কালচারাল স্কুল।

রাজশাহীর মোহনপুর উপজেলার প্রত্যন্ত গ্রামে সংস্কৃতি চর্চায় গড়ে তোলা হয়েছে কালচারাল স্কুলটি। যারা হয়তো কখনো ভাবেননি, তাদের জন্য খোলা আছে নাচ, গান থেকে শুরু করে সৃজনশীলতা চর্চার দুয়ার।

কালচারাল স্কুলটি শিশু ও তরুণ প্রজন্মকে টার্গেট করেই গড়ে তোলা হয়েছে। স্কুল-কলেজ শেষে তাদের সময়কে গুরুত্ব দিয়ে দেওয়া হচ্ছে প্রশিক্ষণ।

ব্যস্ততার মধ্যেও সময় করে এখানে আসছে তরুণরা। এই উদ্যোগ হতে পারে সৃজনশীলতার বিকাশ ও মানবিক মূল্যবোধগুলো চর্চার মঞ্চ। যা নতুন প্রজন্মকে মানবিক হিসেবে গড়ে তুলবে-এমনটি মনে করছেন উদ্যোক্তা।

ভবিষ্যতে স্কুলটিকে কলেজ ও বিশ্ববিদ্যালয়ে রূপান্তর করতে চান উদ্যোক্তা।

আরও পড়ুন:


পাঁচ বিভাগে বৃষ্টি ও বজ্রসহ বৃষ্টির আশঙ্কা

এই হচ্ছে বিএনপি, আর সব দোষ আওয়ামী লীগের?

রাজপথে নামার আহ্বান মোশাররফ-মান্নার

বাগেরহাটে ৩ ঘণ্টা পর প্লাইউড ফ্যাক্টরির আগুন নিয়ন্ত্রণে


news24bd.tv তৌহিদ

পরবর্তী খবর

গাজীপুরে ধর্ষণ মামলায় কারাগারে কনস্টেবল

অনলাইন ডেস্ক


গাজীপুরে ধর্ষণ মামলায় কারাগারে কনস্টেবল

গাজীপুরে এক নারীকে ধর্ষণের অভিযোগে মনিরুজ্জামান নামের এক কনস্টেবলকে (২৩) আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠিয়েছে পুলিশ।

গ্রেফতার কনস্টেবল মনিরুজ্জামান সিরাজগঞ্জের কাজিপুর থানার বিয়ারা চরপাড়া এলাকার বিল্লাল হোসেনের ছেলে। তিনি আর্মড পুলিশ ব্যাটালিয়নে (এপিবিএন) উত্তরায় কর্মরত।

শনিবার (১৮ সেপ্টেম্বর) রাতে ওই পুলিশ সদস্যকে আটক করেন স্থানীয়রা। পরে তাকে পুলিশের কাছে হস্তান্তর করা হয়। এ ঘটনায় রোববার (১৯ সেপ্টেম্বর) সকালে ভুক্তভোগী নারী বাদী হয়ে জিএমপি কোনাবাড়ী থানায় একটি মামলা করেন।

কোনাবাড়ী থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) শাখাওয়াত ইমতিয়াজ বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।  

তিনি বলেন, গত ফেব্রুয়ারি মাসে বিয়ের প্রলোভনে এক আত্মীয়ের বাসায় নিয়ে তাকে ধর্ষণ করেন মনিরুজ্জামান। পরে বাসায় এসে ওই নারী মাকে সব খুলে বলেন এবং গাজীপুর আদালতে একটি মামলা করেন। শনিবার রাতে মেয়ের বাসায় এসে ধর্ষণ মামলা তুলে নিতে ভয়ভীতি দেখান। মামলা তুলে নিতে অস্বীকৃতি জানালে মনিরুজ্জামান আবার ধর্ষণ করেন।

আরও পড়ুন:


২০৪১ সালের মধ্যে দেশে বিদ্যুৎ উৎপাদন লক্ষ্য ৬০ হাজার মেগাওয়াট

খালেদা জিয়ার সাজা স্থগিতের মেয়াদ বাড়ল

দুর্নীতি ও মানি লন্ডারিং মামলায় ডিআইজি পার্থ গোপাল কারাগারে

নতুন লুকে পর্দায় ফিরছেন শুভ!


এ সময় নারীর চিৎকারে স্থানীয়রা ছুটে এসে পুলিশ সদস্যকে আটক করে পুলিশে খবর দেন। পরে তাকে আটক করে থানায় নিয়ে যায় কোনাবাড়ী পুলিশ। এ ঘটনায় রোববার সকালে ওই নারী বাদী হয়ে মনিরুজ্জামানের নামে আরও একটি মামলা করেন।

তিনি জানান, অভিযুক্ত কনস্টেবলকে বিকেলে আদালতের মাধ্যমে গাজীপুর কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

news24bd.tv নাজিম

পরবর্তী খবর

পাটগ্রামে দুই রোহিঙ্গা আটক

অনলাইন ডেস্ক

পাটগ্রামে দুই রোহিঙ্গা আটক

লালমনিরহাটের পাটগ্রামে নেপাল যাওয়ার পথে দুই রোহিঙ্গাকে আটক করে পুলিশে সোপর্দ করেছে এলাকাবাসী। আজ দুপুরে উপজেলার দহগ্রাম আঙ্গোরপোতা সীমান্ত পাড়ি দেওয়ার চেষ্টাকালে তাদের আটক করা হয়।

আটকরা হলেন- কক্সবাজারের টেকনাফ এলাকায় মুন্সিপাড়া ২২ নম্বর রোহিঙ্গা ক্যাম্পের সেতুফা বেগম (১৮) ও আনস (২২)।

পাটগ্রাম থানা ওসি ওমর ফারুক জানান, নেপালে বসবাস করা বড় ভাইয়ের কাছে যেতে রোহিঙ্গা ক্যাম্প থেকে বের হয়ে শনিবার (১৮ সেপ্টেম্বর) রাতে লালমনিরহাটের পাটগ্রামে আসেন রোহিঙ্গা আনাস ও সেতুফা বেগম। 

আরও পড়ুন:


২০৪১ সালের মধ্যে দেশে বিদ্যুৎ উৎপাদন লক্ষ্য ৬০ হাজার মেগাওয়াট

খালেদা জিয়ার সাজা স্থগিতের মেয়াদ বাড়ল

দুর্নীতি ও মানি লন্ডারিং মামলায় ডিআইজি পার্থ গোপাল কারাগারে

নতুন লুকে পর্দায় ফিরছেন শুভ!


রোববার দুপুরে দালালের মাধ্যমে দহগ্রাম সীমান্ত হয়ে ভারতে প্রবেশের চেষ্টাকালে ভারতীয় সীমান্তরক্ষী বাহিনী (বিএসএফ) সদস্যরা তাদের মারধর করে বাংলাদেশে ফেরত পাঠায়। পরে দহগ্রামের স্থানীয় লোকজন ওই দু’জনকে আটক করে পাটগ্রাম থানা পুলিশে সোপর্দ করে। তাদের রোহিঙ্গা ক্যাম্পে ফেরত পাঠানোর ব্যবস্থা করা হচ্ছে।

news24bd.tv নাজিম

পরবর্তী খবর