হঠাৎ কারখানা খোলার ঘোষণায় ঢাকামুখী মানুষের ঢল, পদে পদে দুর্ভোগ

নাঈম আল জিকো

চলমান লকডাউনে হঠাৎ শিল্প কারখানা খোলার ঘোষণায় ঢাকামুখী কর্মজীবী মানুষের স্রোত তৈরি হয়েছে। রাজধানীর প্রবেশপথগুলোতে দিনভর ছিলো হাজার হাজার মানুষের লাইন। রাস্তায় গণপরিবহন না থাকায় চরম ভোগান্তিতে পোহাতে হয় এই সব মানুষের। 

কেউ পায়ে হেঁটে, কেউ রিক্সায়, যে যেভাবে পেড়েছেন ছুটেছেন গন্তব্যে। ভেঙে ভেঙে আসার কারণে তিন থেকে পাঁচ গুণ পর্যন্ত ভাড়া গোনার অভিযোগ করেছেন যাত্রীরা। 

এদিকে ঢাকার সাথে পশ্চিম ও দক্ষিণাঞ্চলের প্রবেশদ্বার দুই ফেরি ঘাটেই ছিলো মানুষের উপচে পড়া ভিড়। গাদাগাদি করে পার হওয়ায় স্বাস্থ্যবিধির বালাই ছিলো না কোথাও। 

গাজীপুরের একটি গার্মেন্টে কাজ করবেন হালিমা বেগম। কারখানা বন্ধ থাকায় ঈদ করতে সপরিবারে কুমিল্লায় নিজ বাড়িতে গিয়েছিলেন। তবে হঠাৎ গার্মেন্টস সহ সকল শিল্প প্রতিষ্ঠান খুলে দেয়ায় কর্মস্থলে যোগ দিতে সন্তান নিয়ে রওনা হয়েছেন গাজীপুরের উদ্দেশ্যে। কখনো পায়ে হেঁটে কখনোবা রিকশায় কখনো বা অটোরিকশার চড়ে এসেছেন রাজধানীতে।

হালিমারমত চরম ভোগান্তি সহ্যকরে একই ভাবে নিজ নিজ কর্মস্থলে যোগ দিতে ঢাকা ফিরছেন হাজার হাজার মানুষ। তাই গণপরিবহন বন্ধ রেখে শিল্প-কলকারখানা খুলে দেয়ায় ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন অনেকে।

এদিকে, শনিবার সকাল থেকেই দৌলদিয়া-পাটুরিয়া ও শিমুলিয়া ফেরি ঘাটে ছিল রাজধানী মুখি মানুষের ঢল। স্বাস্থ্যবিধি তোয়াক্কা না করেই মানুষ ছুটছেন কর্মস্থলে যোগ দিতে।

আরও পড়ুন:


বিএনপি-জামায়াত-হেফাজত করোনার মতো বারবার রূপ পরিবর্তন করছে: বাহাউদ্দিন নাছিম

টিকা নেয়ার পরেও করোনা পজিটিভ ফারুকী

স্বামীর পর্নকাণ্ড: মানহানির মামলা নিয়ে শিল্পাকে আদালতের ভর্ৎসনা


এদিন রাজধানীর রাজপথগুলোতে দেখা যায় গাড়ির বাড়তি চাপও। প্রত্যেকটি চেক পয়েন্টে ছিল গাড়ির লম্বা লাইন। যা সামাল দিতে হিমশিম খাচ্ছে আইন প্রয়োগকারী সংস্থাগুলো।

সরকার ঘোষিত টানা ১৪ দিনের লকডাউনের মেয়াদ শেষ হবে ৫ আগস্ট। এর আগেই শিল্প কলকারখানা খুলে দেয়ার এমন সিদ্ধান্তে করোনা সংক্রমণের ঝুঁকি আরো বাড়তে পারে বলে মনে করছেন বিশেষজ্ঞরা।

news24bd.tv নাজিম

পরবর্তী খবর

দখল দূষণে মৃত দেশের অর্ধেক নদী, বিপন্ন হচ্ছে পরিবেশ

অনলাইন ডেস্ক

নদীমাতৃক বাংলাদেশে ভালো নেই নদ-নদী। মানুষের দখল আর আবর্জনার দূষণে বেশিরভাগ নদীর বেহাল অবস্থা। দক্ষিণের জেলাগুলোর অর্থনৈতিক শক্তির প্রধান অনুষঙ্গ নদী হলেও, সেখানে নানাভাবে নষ্ট হচ্ছে পরিবেশ। উত্তরের নদীগুলোর ব্যাপ্তিও ধীরে ধীরে কমছে। দূষণে খারাপ অবস্থা রাজধানীর আশপাশে।

পানি উন্নয়ন বোর্ডের হিসেবে বরিশাল বিভাগে নদীর সংখ্যা অর্ধশতাধিক। তবে এই সংখ্যা কমে গেছে গেল দুই থেকে তিন দশকে। সন্ধ্যা, সুগন্ধা, আড়িয়াল খাঁ, ধানসিড়িসহ বেশ কয়েকটি নদীর বিভিন্ন শাখা নদী প্রায় মরে গেছে। বড় নদীগুলোয় চর জেগে সংকুচিত হচ্ছে। এতে এই অঞ্চলের পরিবেশের ওপর প্রভাব পড়ছে বলে জানান পরিবেশবাদীরা।

রাজশাহীর পদ্মা একসময় পরিচিত ছিলো তার ভয়াল রূপের জন্য। এখন পদ্মার বুকে জেগে থাকা চর দেখলে নদীর করুণ দশার কথাই মনে আসে আগে। এছাড়া মানুষ সৃষ্ট আবর্জনার জন্য দূষিত হচ্ছে পানি। মাছসহ অন্যান্য জলজ প্রাণির জন্য যা ক্ষতিকর।

দূষণ রোধের জন্য ট্যানারি শিল্প রাজধানীর হাজারীবাগ থেকে সরিয়ে সাভারের তেতুলঝোড়ায় নেয়া হয়। কিন্তু বাস্তবতা ভিন্ন। ট্যানারির বর্জ্যে ধলেশ্বরী মারাত্মক দূষণের শিকার।

আরও পড়ুন:


বিমানবন্দরে শুরু আরটি-পিসিআর ল্যাবের কার্যক্রম

নির্মাণশৈলী ও রাতে নৈসর্গিক দৃশ্য দেখতে পায়রা সেতুতে পর্যটকদের ভিড়

কাল লাখ লাখ অ্যান্ড্রয়েড স্মার্টফোন বন্ধ হয়ে যাবে!

জাপার ফিরোজ রশীদের বিরুদ্ধে সম্পত্তি দখলের অভিযোগ, হাইকোর্টের আদেশ স্থগিত


নদী ও এর আশপাশে সম্পত্তি সরকারের। এগুলোর দখল হয় প্রকাশ্যে। নদী দখল নিয়ে নানা মহলে সচেতনতার কথা বলা হলেও, এটি কমছে না। সংশ্লিষ্ট সচেতন মহল এজন্য দখলকারীদের সঙ্গে সরকারী কর্মকর্তাদেরও দায়ী করেন।

news24bd.tv নাজিম

পরবর্তী খবর

ডেঙ্গু প্রতিরোধে বিশ্ববিদ্যালয় খোলার আগে অবশ্যই পরিষ্কারের পরামর্শ

অন্তরা বিশ্বাস:

ডেঙ্গু প্রতিরোধে বিশ্ববিদ্যালয় খোলার আগে অবশ্যই পরিষ্কার করার পরামর্শ দিচ্ছেন বিশেষজ্ঞরা। বিশেষ করে আবাসিক হল এবং ক্যাম্পাসের ঝোপ-ঝাড় পরিষ্কার করার আহবান তাদের। তবে শিক্ষক, শিক্ষার্থীসহ বিশ্ববিদ্যালয় সংশ্লিষ্ট সবাইকেই সচেতন থাকবার পরামর্শ দেন তারা। 

ডেঙ্গু জ্বরে আক্রান্ত হয়ে জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী আল-আমিন লেবু গেল নয় সেপ্টেম্বর মারা যান। একই বিশ্ববিদ্যালয়ের ইতিহাস বিভাগের শিক্ষক সাঈদা নাসরিন বাবলিও ডেঙ্গুজ্বরে মারা যান সাত জুলাই। ২০ আগস্ট ডেঙ্গু কেড়ে নেয় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের আরেক শিক্ষার্থীর প্রাণ। 

রও পড়ুন:


কাল লাখ লাখ অ্যান্ড্রয়েড স্মার্টফোন বন্ধ হয়ে যাবে!

বিয়ের আগেই পাত্রের মাকে নিয়ে পালিয়ে গেল পাত্রীর বাবা!

বিশ্বকাপের আগে কোহলিকে স্বস্তি দিলেন অশ্বিন

ইংরেজি শেখার জন্য বিয়ে করেছিলেন শেবাগ-যুবরাজ-হরভজন!!


সরকারি বেসকারি অনেক বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী ও শিক্ষক এরইমধ্যে ডেঙ্গু আক্রান্ত হয়েছেন। করোনা মহামারির কারণে দীর্ঘ দেড় বছর পর খুলতে যাচ্ছে দেশের বিশ্ববিদ্যালয়গুলো। বিশ্ববিদ্যালয় খোলার আগে ডেঙ্গুরোধে বিশেষ সতর্কতা অবলম্বন করার পরামর্শ সংশ্লিষ্টদের।

এ বছর ডেন থ্রি ভাইরাসে আক্রান্ত হচ্ছেন অধিকাংশ ডেঙ্গু রোগী। ডেঙ্গুর ভয়াবহতাও বেশি। তাই বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদেরও সচেতন থাকার পরামর্শ চিকিৎসকদের।

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার রিপোর্ট অনুযায়ী সারাবিশ্বে প্রতি বছর ১০ কোটি থেকে ৪০ কোটি পর্যন্ত মানুষ ডেঙ্গু রোগে আক্রান্ত হয়। আর মারা যায় সাত লাখের বেশি মানুষ। ২০১৯ সালে দেশে ডেঙ্গু মারাত্মক আকার ধারণ করে। ২০২০ সালে ডেঙ্গু নিয়ন্ত্রণে ছিল। এবছর ডেঙ্গু আক্রান্তের সংখ্যা বেড়েই চলেছে।

NEWS24.TV / কামরুল

পরবর্তী খবর

বাংলাদেশের জলসীমায় জাহাজে চুরি ও দস্যুতা বন্ধ হয়েছে

মৌ খন্দকার

বাংলাদেশের জলসীমায় জাহাজে চুরি ও দস্যুতা বন্ধ হয়েছে বলে দাবি বাংলাদেশ কোস্ট গার্ডের। তাদের মতে কোস্ট গার্ড সদস্যদের দীর্ঘ প্রচেষ্টায় জলদস্যূ দমনে গেল পাঁচ বছর ধরে সফল। এ ধারা ধরে রাখতে নানা উদ্যোগও নিয়েছে কর্তৃপক্ষ। 

বাংলাদেশের অর্থনৈতিক সমৃদ্ধির স্বর্ণদ্বার চট্টগ্রাম বন্দর। পণ্য আমদানি-রপ্তানির বেশিরভাগই হয় দেশের প্রধান এই সমুদ্রবন্দর দিয়ে। এজন্য চট্টগ্রাম বন্দরকে নিরাপদ রাখা জরুরী। দিন রাত চব্বিশ ঘণ্টা খেটে গুরুত্বপূর্ণ এ দায়িত্ব পালন করছে বাংলাদেশ কোস্ট গার্ড।

রও পড়ুন:


কাল লাখ লাখ অ্যান্ড্রয়েড স্মার্টফোন বন্ধ হয়ে যাবে!

বিয়ের আগেই পাত্রের মাকে নিয়ে পালিয়ে গেল পাত্রীর বাবা!

বিশ্বকাপের আগে কোহলিকে স্বস্তি দিলেন অশ্বিন

ইংরেজি শেখার জন্য বিয়ে করেছিলেন শেবাগ-যুবরাজ-হরভজন!!


কয়েক বছর আগেও দেশের জলসীমায় বাণিজ্যিক জাহাজে চুরি-ডাকাতির মতো অপ্রীতিকর ঘটনা ছিল নিয়মিত। জলদস্যুতা পর্যবেক্ষণকারী সংস্থা ইন্টারন্যাশনাল মেরিটাইম ব্যুরো, আইএমবি চট্টগ্রাম বন্দরকে তখন উচ্চ ঝুঁকিপূর্ণ বন্দর হিসেবে তালিকাভুক্ত করে। বহির্বিশ্বে ক্ষুন্ন হয় এ বন্দরের ভাবমূর্তি।

২০১৬ থেকে দস্যূতা বন্ধে সাঁড়াসি অভিযান নামে কোস্টগার্ড। তাদের অক্লান্ত প্রচেষ্টায় বন্ধ হয় চুরি ও দস্যুতা। এরপর থেকে ধীরে ধীরে বিদেশী জাহাজগুলোর বাংলাদেশে আসার ক্ষেত্রে আগ্রহ বাড়তে থাকে বলে জানান চট্টগ্রাম পূর্ব জোনের জোনাল কমান্ডার।

দস্যুতা নিধনে কোস্ট গার্ডের টহল টিমের সংখ্যা বাড়ানো, গোয়েন্দা নজরদারি, রাতে জলযান চলাচলে নিয়ন্ত্রণ আনাসহ বিভিন্ন ধরণের কার্যক্রম হতে নিয়েছে কর্তৃপক্ষ। এজন্য চট্টগ্রাম বন্দরের জলসীমাকে এখন পুরোপুরি নিরাপদ বলে মনে করছে বাংলাদেশ কোস্ট গার্ড।   

NEWS24.TV / কামরুল

পরবর্তী খবর

চলতি বছর পাঠ্যবইয়ে খোদ জাতীয় সংগীতকেই ভুলভাবে ছাপানো হয়েছে

লাকমিনা জেসমিন সোমা

চলতি বছর পাঠ্যবইয়ে খোদ জাতীয় সংগীতকেই ভুলভাবে ছাপানো হয়েছে

এতদিন তথ্য বিকৃতি, বানান ভুলসহ নানা রকম অসংগতি থাকলেও এ বছর নবম-দশম শ্রেণির পাঠ্যবইয়ে খোদ জাতীয় সংগীতকেই ভুলভাবে ছাপানো হয়েছে। জাতীয় শিক্ষাক্রম ও পাঠ্যপুস্তক বোর্ডের বিভিন্ন বইয়ে ভুল বর্ণনা দেয়া হয়েছে বঙ্গবন্ধুর জীবন ও ইতিহাসের। এমনকি সংবিধানে এক তথ্য থাকলেও পাঠ্যবইয়ে দেয়া হয়েছে ভিন্ন তথ্য। ফলে সংশ্লিষ্টদের যোগ্যতা নিয়েই প্রশ্ন তুলছেন বিশেষজ্ঞরা। ভুল সংশোধনে শ্রেণী-ভিত্তিক জাতীয় কাউন্সিল কমিটি বা কমিশনের পরামর্শ তাদের। 

কয়েক বছর ধরেই বছরের প্রথম দিনে শিক্ষার্থীদের হাতে নতুন বই তুলে দিতে পারছে সরকার। তাতে একদিকে যেমন খুশি শিক্ষার্থীরা, তেমনি সরকারের প্রশংসায় অভিভাবকরাও। কিন্তু সেই অভিভাকরাই এখন তাদের সন্তানদের জন্য ছুটছেন আদালতে।  

ভুলে ভরা পাঠ্যবই। চলতি শিক্ষাবর্ষের ষষ্ঠ থেকে একাদশ শ্রেণির পাঠ্যবইয়ে ধরা পড়েছে ভুলের বহর। অভিভাভকদের অভিযোগ, ৬টি শ্রেণির ১০টি পাঠ্য বইয়ে প্রায় পাঁচশোরও বেশি ভুল রয়েছে। এই ভুল দিয়েই শেষ হতে চলছে চলতি শিক্ষাবর্ষ।

জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক এ কে এম শাহনাওয়াজ বলেন, কমিটি গঠন করে যদি সুনির্দিষ্ট প্রমিত বানান রীতি আমরা মান্য করি তাহলে এর থেকে প্রতিকার সম্ভব।   

এদিকে, রবীন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য বিশ্বজিৎ ঘোষের মতে, যারা গ্রন্থ সম্পাদনা, রচনা বা সংকলনে আছেন, তারা ঠিকমত দায়িত্ব পালন করছেন না অথবা তারা যে নির্দেশনা দিচ্ছেন সেগুলো যথাযথভাবে অনুসরণ করা হচ্ছে না। এছাড়া, যারা এর দায়িত্বে আছেন তাদের উপযুক্ত সম্মানী প্রদান করলে কাজের প্রতি  মনোযোগী হবেন বলেও তিনি জানান। 

আরও পড়ুন


রাজধানীর যেসব এলাকায় মার্কেট বন্ধ থাকবে আজ

ইরানের ভিয়েনা সংলাপ পুনরায় চালুর আহ্বান: ইইউ

কুমিরের পেট থেকে নিখোঁজ ব্যক্তির দেহাবশেষ উদ্ধার!

ষড়যন্ত্র করে বিএনপি কখনো ক্ষমতায় আসতে পারবে না: শিল্পমন্ত্রী


জাতীয় শিক্ষাক্রম ও পাঠ্যপুস্তক বোর্ডের বইগুলো সংশোধনে সুনির্দ্দিষ্ট কমিশন গঠনের পরামর্শ দিয়েছেন বিশেষজ্ঞরা। একই সাথে মান সম্মত পাঠ্যবই নিশ্চিতে বিনিয়োগ বৃদ্ধিরও পরামর্শ তাদের।

অযাচিত ভুল ঠেকাতে সর্বোপরি ভাষার প্রতি ভালোবাসা ও দেশপ্রেম জরুরি বলে মনে করেন বিশেষজ্ঞরা। 

news24bd.tv রিমু  

পরবর্তী খবর

মরিয়মের ঘটনার সুরাহা চায় মরিশাসের বাংলাদেশি কর্মীরা

মৌ খন্দকার

মরিশাস ফেরত নারী অভিবাসী কর্মী মরিয়মের ধর্ষণের অভিযোগকে কেন্দ্র করে মরিশাসে বাংলাদেশি কর্মীদের মধ্যে চলছে আলোচনা-সমালোচনা। পুলিশ বলছে, অভিযোগের তদন্ত চলছে। তবে অভিযুক্ত কোম্পানির মালিক আক্তার হোসেন ঘটনা অস্বীকার করেছেন। 

২০১৪ থেকে ২০১৮ সালের মধ্যে ১০ হাজারেরও বেশি বাংলাদেশি ভাগ্য ফেরাতে পাড়ি জমায় সুদূর মরিশাস। তাদেরই একজন মরিয়ম। দুই বছর সেখানে কাজ করার পর মরিয়ম দেশে ফিরে আসে। এরও প্রায় ৭ মাস পর মরিশাসের ফায়ার মাউন্ট কোম্পানির মালিকে আক্তার হোসেনের বিরুদ্ধে ধর্ষণ ও নির্যাতনের অভিযোগ তোলেন মরিয়ম।

বিষয়টি নিয়ে তোলপাড় সৃষ্টি হলে মরিশাসে কর্মরত বাংলাদেশি কর্মীদের মধ্যে। অনেকে মরিয়মের অভিযোগকে ভিত্তিহীনও বলেন। 

এমনকি মরিশাসে মরিয়মের সাথে স্বামী-স্ত্রীর পরিচয়ে একসাথে বসবাস করেছেন বলেও দাবি করেন ফায়ার মাউন্ট কোম্পানির ম্যানেজার শাহ আলম।

আরও পড়ুন:


ডিসেম্বরেই চালু হবে ৫জি নেটওয়ার্ক: মোস্তাফা জব্বার

দেশে বিনিয়োগ করুন: প্রধানমন্ত্রী

যানজট নিরসনের উদ্যোগ আটকে থাকে মহাপরিকল্পনার নথিতেই

মক্কা-মদিনার মসজিদে কাজ করবেন নারীরা


মরিয়মকে ধর্ষণের অভিযোগে অস্বীকার করে গোলাম রাব্বী এন্টার প্রাইজের মালিকের দাবি, স্বার্থ হাসিলে ব্যর্থ হয়ে মরিয়ম মামলা করেছেন।

মরিয়মের অভিযোগের তদন্ত চলছে বলে জানিয়েছে পুলিশ। তবে দ্রুত এ ঘটনার সুরাহা চায় মরিশাসে বাংলাদেশি কর্মীরা। তাদের আশঙ্কা, বিষয়টি দ্রুত সুরাহা না হলে মরিশাসে বৈদেশিক কর্মসংস্থানে নেতিবাচক প্রভাব পড়বে।

news24bd.tv নাজিম

পরবর্তী খবর