আজ থেকে পোশাক কারখানা খোলা, মানতে হবে ১৫ শর্ত

অনলাইন ডেস্ক

আজ থেকে পোশাক কারখানা খোলা, মানতে হবে ১৫ শর্ত

সরকারের দেওয়া চলমান কঠোর বিধিনিষেধ চলবে আগামী ৫ আগস্ট পর্যন্ত। এর মধ্যেই কারখানা মালিকদের আবেদনের পেক্ষিতে আজ রোববার থেকে খুলে দেওয়া হয়েছে রপ্তানিমুখী তৈরি পোশাক শিল্প কারখানাগুলো। এ ক্ষেত্রে স্বাস্থ্যবিধি কঠোরভাবে অনুসরণের জন্য ১৫টি শর্ত মানতে হবে কারখানা মালিকদের।

শনিবার (৩১ জুলাই) রাতে গার্মেন্টস মালিকদের একটি চিঠি দিয়েছে তৈরি পোশাক মালিকদের সংগঠন বিজিএমইএ। সংগঠনের সভাপতি ফারুক হাসানের স্বাক্ষরিত ওই চিঠিতে ১৫টি শর্ত মানতে বলা হয়েছে কারখানা মালিকদের।

চিঠিতে দেওয়া শর্তগুলো হলো - 

১. কারখানা খোলা এবং ছুটির সময়ে গেইট বা কারখানার অভ্যন্তরে শ্রমিকদের ভিড় এড়ানোর লক্ষ্যে কারখানায় প্রবেশ ও কারখানা ত্যাগ করার বিষয়ে Staggered Time নির্ধারণ করার ওপর জোর দেওয়া।

২. শারিরীক দূরত্ব বজায় রেখে গমনাগমন পথের ব্যবহার নিশ্চিত করা (রশিশিকল দিয়ে পুরুষ ও নারী শ্রমিকদের জন্য আলাদা লাইন করে কারখানায় প্রবেশ এবং বাহির নিশ্চিত করতে হবে)।

৩. সম্ভাব্য ক্ষেত্রে কর্মঘণ্টা বিভিন্ন শিফটে নির্ধারণ করা।

৪. ফ্লোরে বা কাজের স্থানগুলোতে ভিড় এড়িয়ে চলতে শ্রমিকদের উৎসাহিত করা।

৫. দুপুরের খাবারের বিরতি বা অন্যান্য বিরতি যথাসম্ভব Staggered Time এ করা।

৬. কারখানায় প্রবেশের সময় শ্রমিকদের দেহের তাপমাত্রা পরিমাপ করা অথবা প্রয়োজনে স্বাস্থ্য পরীক্ষার জন্য প্রেরণ করা।

৭. কর্মস্থলে (কারখানা বা প্রতিষ্ঠান) সহজে দৃষ্টিগোচর হয় এমন স্থানে হাত পরিষ্কার সমগ্রী রাখা এবং নিয়মিত সেগুলো পুনর্ভর্তি করা।

৮. পর্যাপ্ত সংখ্যক সাবানের ব্যবস্থাসহ প্রধান ফটকে হাত ধৌতকরণ-স্থান নির্দিষ্ট করা।

৯. কারখানায় প্রবেশের সময় সব শ্রমিক-কর্মচারীর হাত ধৌতকরণ বা জীবাণুমুক্তকরণ নিশ্চিত করা।

১০. হাত ধৌতকরণ বা জীবাণুমুক্তকরণের প্রতিটি স্থানপানির কলের মধ্যে ন্যূনতম এক মিটার দূরত্ব নিশ্চিত করা।

১১. হাত ধৌতকরণ এবং জীবাণুমুক্তকরণের সঠিক পদ্ধতিগত নির্দেশাবলী দৃষ্টিগোচর স্থানে প্রদর্শন করা (যেমন উভয়হাত কমপক্ষে ২০ সেকেন্ড ধরে ধৌত করা)।

১২. হাত ধোয়ার পর শুকানোর জন্য ড্রায়ার বা টিস্যু পেপারের ব্যবস্থা রাখা।

১৩. সার্বক্ষণিক মাস্ক ব্যবহার নিশ্চিত করা।

১৪. কারখানার বাইরে সভা সমাবেশ, গণপরিবহন এবং ভিড় এড়িয়ে চলতে শ্রমিকদের উৎসাহিত করা; এবং

১৫. করোনা সংক্রমণের উপসর্গ সম্পর্কে শ্রমিক-কর্মচারীদের অবহিত করা।

উল্লেখ্য, রপ্তানিমুখী শিল্পকারখানা কঠোর বিধিনিষেধের আওতাবহির্ভূত রাখার জন্য সরকার প্রজ্ঞাপন জারি করে। এর পরিপ্রেক্ষিতে রোববার থেকে সব ধরনের রপ্তানিমুখী শিল্পকারখানা চালু হবে।

news24bd.tv এসএম

আরও পড়ুন


সূরা বাকারা: আয়াত ১১-১৩, নিফাক বা কপটতা

শোকাবহ আগস্টের প্রথমদিন আজ

১৬ ঘন্টার জন্য গণপরিবহন চালু

৫ তারিখের পর কী হবে, সেটা প্রধানমন্ত্রী জানাবেন : জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী


 

পরবর্তী খবর

আত্মহত্যা ছাড়া আর কোনো পথ দেখছি না: শাকিল

অনলাইন ডেস্ক

আত্মহত্যা ছাড়া আর কোনো পথ দেখছি না: শাকিল

বোনের জমানো টাকা দিয়ে তিনটি ই-কমার্স প্রতিষ্ঠানে প্রায় ছয় লাখ টাকার চারটি মোটরবাইক অর্ডার দিয়েছিলেন। নির্ধারিত সময় পার হলেও পাননি কাঙ্ক্ষিত মোটরবাইক। 

উল্টো এখন বোনের প্রয়োজনে টাকা ফেরত দিতে পারছেন না। চারদিকে অন্ধকার দেখা ওই ব্যক্তি (ছদ্মনাম শাকিল হাসান) বলেন, ‘আত্মহত্যা ছাড়া আর কোনো পথ দেখছি না।’ 

পরিচয় গোপন করে শাকিল হাসান আরও বলেন, ‘আমার বোনের অ্যাকাউন্টে চার লাখ টাকার মতো ছিল। ভগ্নিপতি বিদেশ যাবেন, সেজন্য টাকাগুলো রাখা হয়েছিল। গত জুন মাসে তিনি (ভগ্নিপতি) আমাকে সেই টাকা ব্যবহারের অনুমতি দেন। তবে তিন মাসের মধ্যে টাকাগুলো ফেরত দিতে হবে। পণ্য অর্ডার দেওয়ার ৪৫ দিনের মধ্যে ডেলিভারির আশায় টাকাগুলো নিয়েছিলাম। কিন্তু তিনটি ই-কমার্স প্রতিষ্ঠানে পণ্য অর্ডার দিয়ে টাকা আটকে যাওয়ায় এখন তা ফেরত দিতে পারছি না। এখন ভগ্নিপতির বিদেশে যাওয়ার তারিখ চলে এসেছে। টাকাগুলো না পেলে বোনের সংসার টিকবে না। এ অবস্থায় আত্মহত্যা ছাড়া আর কোনো পথ দেখছি না।’

চাকরির পাশাপাশি ব্যবসা ও পুনঃবিক্রির জন্য মূলত ই-কমার্স প্রতিষ্ঠান থেকে মোটরবাইকগুলোর অর্ডার দিয়েছিলেন শাকিল।

তিনি বলেন, বোনের গচ্ছিত টাকাগুলো। কয়েক মাস আগে ইভ্যালিতে একটি মোটরবাইক (অ্যাপাচি আরটিআর ১৬০ ফোরভি) অর্ডার করি। নির্ধারিত সময়ে বাইকটি দিতে না পেরে এর বিপরীতে তারা আমাকে একটি চেক দেয়। বলে, তাদের ফোন পেলে চেকটি নিয়ে ব্যাংকে গিয়ে ক্যাশ করতে। কিন্তু আজ পর্যন্ত তাদের ফোন পাইনি। আদৌ চেক ক্যাশ করতে পারব কি না, তাও জানি না।

একই সময়ে ই-অরেঞ্জে এক লাখ ৪০ হাজার টাকায় ইয়ামাহা এফজেড-এস ভার্সন থ্রি অর্ডার দেন শাকিল। কিন্তু এখনও টাকা বা বাইকের হদিস কিছুই পাননি তিনি। জুনের ১৫ ও ১৭ তারিখে ই-কমার্স কিউকম.কম থেকে ইয়ামাহা আর-ওয়ান ফাইভ, ইয়ামাহা এফজেড এফআই ভার্সন টু (মোট চার লাখ ৩০ হাজার টাকার মতো) অর্ডার দেন তিনি। এখানেও ধরা খান। বর্তমানে টাকা বা বাইক কোনোটি না পেয়ে চোখে সর্ষে ফুল দেখছেন শাকিল হাসান।
সূত্র: ঢাকা পোস্ট 

NEWS24.TV / কামরুল

পরবর্তী খবর

বগুড়ায় জমে উঠেছে শীতকালীন সবজির বেচা-কেনা

আব্দুস সালাম বাবু, বগুড়া

বগুড়াসহ উত্তরের বাতাস এখনো হিম ধরেনি। সন্ধ্যা নামলে কুয়াশাও পড়ে না। শীত আসার দেরি থাকলেও শীতকালীন সবজি চাষে ব্যস্ত কৃষকেরা। আগাম জাতের সবজি চাষে মাঠে নেমেছে তারা। 

এরই মধ্যে বগুড়ার হাট বাজারে জমে উঠেছে শীতকালীন সবজির বেচা-কেনা। ভালো ফলনে আশানরূপ দাম পেয়ে হাসি ফুটেছে কৃষকের মুখে। জেলার চাহিদা মিটিয়ে এখন দেশের বিভিন্ন স্থানে যাচ্ছে এ অঞ্চলের সবজি। 

বিভিন্ন ধরনের শাকসহ বছর জুড়ে ৪০ প্রকারের সবজি উৎপাদন করে বগুড়ার চাষিরা । তবে শীতের সবজি ফলনে এখন মাঠে বেশি সময় দিচ্ছেন এ অঞ্চলের চাষিরা। শীতের মৌসুমে ১২ হাজার ৫৪০ হেক্টর জমিতে এবার সবজি চাষের লক্ষ্যমাত্রা ৩ লাখ ৫ হাজার ৫০০ মেট্রিকটন। ভালো দামের আশায় এরই মধ্যে চাষিরা উত্তরের বৃহৎ পাইকারী হাট মহস্থান বাজারে আনতে শুরুও করেছেন। 

আরও পড়ুন:


বিমানবন্দরে শুরু আরটি-পিসিআর ল্যাবের কার্যক্রম

নির্মাণশৈলী ও রাতে নৈসর্গিক দৃশ্য দেখতে পায়রা সেতুতে পর্যটকদের ভিড়

কাল লাখ লাখ অ্যান্ড্রয়েড স্মার্টফোন বন্ধ হয়ে যাবে!

জাপার ফিরোজ রশীদের বিরুদ্ধে সম্পত্তি দখলের অভিযোগ, হাইকোর্টের আদেশ স্থগিত


অক্টোবর থেকে মার্চের মাঝামাঝি সময় পর্যন্ত শীতকালীন সবজি হাটে বাজারে পাওয়া যায়। জেলার নদর, শিবগঞ্জ, সারিয়াকান্দির চরাঞ্চল, গাবতলী ও শাজাহানপুর উপজেলায় সবচেয়ে বেশি সবজি চাষ হয়ে থাকে।

বগুড়ায় প্রতি বছর দুই মৌসুমে ১৮ হাজার ১৮৮ হেক্টর জমিতে ৪ লাখ মেট্রিক টন সবজি উৎপাদন হয়।

news24bd.tv নাজিম

পরবর্তী খবর

মসিকে ৩৪১ কোটি টাকার বাজেট অনুমোদন

ময়মনসিংহ প্রতিনিধি:

মসিকে ৩৪১ কোটি টাকার বাজেট অনুমোদন

ময়মনসিংহ সিটি কর্পোরেশনের (মসিক) ২০২১-২০২২ অর্থবছরে ৩২১.৪৩ কোটি টাকার প্রস্তাবিত বাজেট অনুমোদন করা হয়েছে। 

এর মধ্যে যার মোট রাজস্ব বাজেট ৭৫.২০ কোটি টাকা এবং মোট উন্নয়ন বাজেট ২৪৬.২৩ কোটি টাকা। সেই সাথে গত অর্থবছরের ৪৯৪.৮৪ কোটি টাকার প্রস্তাবিত বাজেটের বিপরীতে ১৮৪.৫২ কোটি টাকার সংশোধিত বাজেট অনুমোদন করা হয়। 

রোববার দুপুরে নগর ভবনের শহীদ শাহাবুদ্দিন মিলনায়তনে মসিক মেয়র ইকরামুল হক টিটুর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত বাজেট সভায় এ অনুমোদন করা হয়। 

এ সময় মেয়র বলেন, ‘অর্জনযোগ্য একটি বাজেট প্রণয়নের চেষ্টা করেছি। নির্বাচিত পরিষদ প্রায় আড়াই বছর অতিবাহিত করলেও করোনার কারনে আমাদের অনেক কার্যক্রম বিলম্বিত হয়েছে। তবে ইতিমধ্যে আমরা করের বিন্যাস, আদায় পদ্ধতিসহ অনেক কিছুই নির্ধারিত করতে পেরেছি। বাজেট লক্ষ্যমাত্রা অর্জনে আমরা নিজেদের আরও সুদৃঢ় করতে পারব।’

রও পড়ুন:


কাল লাখ লাখ অ্যান্ড্রয়েড স্মার্টফোন বন্ধ হয়ে যাবে!

বিয়ের আগেই পাত্রের মাকে নিয়ে পালিয়ে গেল পাত্রীর বাবা!

বিশ্বকাপের আগে কোহলিকে স্বস্তি দিলেন অশ্বিন

ইংরেজি শেখার জন্য বিয়ে করেছিলেন শেবাগ-যুবরাজ-হরভজন!!


মসিক সূত্র জানায়, চলতি অর্থবছরে সাধারণ সংস্থাপন খাতে ১৯ কোটি ৫৪ লক্ষ টাকা, শিক্ষা-সংস্কৃতি- খেলাধুলা ও সমাজকল্যাণ খাতে ৩ কোটি ১ লক্ষ টাকা, স্বাস্থ্য খাতে ২ কোটি ২৫ লক্ষ টাকা, বর্জ্য ব্যবস্থাপনা খাতে ১০ কোটি ৯৫ লক্ষ টাকা, উন্নয়ন খাতে ১৮ কোটি ৫০ লক্ষ টাকা, পরিবহন খাতে ৬ কোটি ৪৮ লক্ষ টাকা, নগর পরিকল্পনা খাতে ২ কোটি টাকা এবং বিবিধ খাতে ০৭ কোটি টাকা বাজেট প্রস্তাব করা হয়।

সভায় সঞ্চালন করেন প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা মোহাম্মদ আনোয়ার হোসেন। এ সভায় অর্থ ও সংস্থাপন বিষয়ক স্থায়ী কমিটির সভাপতি ও প্যানেল মেয়র-১ আসিফ হোসেন ডনসহ অন্যান্য প্যানেল মেয়র, কাউন্সিলবৃৃন্দ এবং বিভিন্ন বিভাগ ও শাখা প্রধানগণ উপস্থিত ছিলেন। এর আগে বেলা ১১ টায় মেয়রের সভাপতিত্বে প্যানেল মেয়র, কাউন্সিলর ও বিভাগ-শাখা প্রধানদের উপস্থিতিতে ১৪ তম কর্পোরেশন সভা অনুষ্ঠিত হয়।

NEWS24.TV / কামরুল

পরবর্তী খবর

ই-কমার্সে অর্ডার দিয়ে বাণিজ্যমন্ত্রী নিজেই প্রতারিত

অনলাইন ডেস্ক

ই-কমার্সে অর্ডার দিয়ে বাণিজ্যমন্ত্রী নিজেই প্রতারিত

বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনশি জানিয়েছেন ই-কমার্সে অর্ডার দিয়ে নিজেই প্রতারিত হয়েছেন। তিনি বলেন, একটি ই-কমার্স সাইটে কোরবানি ঈদের জন্য গরু অর্ডার দিয়ে তিনি কাঙ্ক্ষিত গরু পাননি।

বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনশি বলেন, গেল কোরবানির ঈদের আগের কোরবানি ঈদে আমি একটি ই-কমার্স প্রতিষ্ঠান উদ্বোধনকালে একটি গরুর জন্য এক লাখ টাকা দিয়েছিলাম। কিন্তু আমাকে যে গরুটি দেখিয়েছিল, আমি সেটি পায়নি। আমি নিজেই অর্ডার করে প্রতারিত হয়েছিলাম। একটি জিনিস নতুন করে চালু করলে, সেটা নিয়ে সমস্যার সৃষ্টি হয় তার ভুক্তভোগী আমি নিজেই।

রও পড়ুন:


কাল লাখ লাখ অ্যান্ড্রয়েড স্মার্টফোন বন্ধ হয়ে যাবে!

বিয়ের আগেই পাত্রের মাকে নিয়ে পালিয়ে গেল পাত্রীর বাবা!

বিশ্বকাপের আগে কোহলিকে স্বস্তি দিলেন অশ্বিন

ইংরেজি শেখার জন্য বিয়ে করেছিলেন শেবাগ-যুবরাজ-হরভজন!!


আজ রোববার (২৬ সেপ্টেম্বর) বাংলাদেশ প্রতিযোগিতা কমিশনের সম্মেলন কক্ষে ‘প্রতিযোগিতা আইন বাস্তবায়নের মাধ্যমে বাজারে সুষ্ঠু প্রতিযোগিতাপূর্ণ পরিবেশ সৃষ্টিতে ইকোনমিক রিপোর্টার্স ফোরামের (ইআরএফ) ভূমিকা’ শীর্ষক কর্মশালায় তিনি এসব কথা বলেন।

অনুষ্ঠানে প্রতিযোগিতা কমিশনের চেয়ারপারসন মফিজুল ইসলাম বলেন, ২০২০ সালের নভেম্বরে ইভ্যালির বিরুদ্ধে মামলা করা হয়েছে কমিশনের পক্ষ থেকে। মামলাটা আদালতে চলমান। শিগগিরই রায় হবে।

NEWS24.TV / কামরুল

পরবর্তী খবর

ইভালির মতো গ্রাহক ঠকানো বন্ধে সরকার কাজ করছে: বাণিজ্যমন্ত্রী

অনলাইন ডেস্ক

ইভালির মতো গ্রাহক ঠকানো বন্ধে সরকার কাজ করছে: বাণিজ্যমন্ত্রী

বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনশি বলেছেন, অর্থনীতি বড় হয়েছে, দুর্নীতিও বেড়েছে। ই-ভ্যালির মতো আর কোনো কোম্পানি যাতে গ্রাহককে ঠকাতে না পারে সে বিষয়ে কাজ করছে সরকার।

তিনি বলেন, ই-কমার্স ব্যবসা বন্ধ করা যাবে না, তবে নজরদারির আওতায় নিয়ে আসা হবে। 

বিস্তারিত আসছে..

পরবর্তী খবর