আরও ভয়ানক রূপ নিতে পারে করোনা: ডাব্লিউএইচও

অনলাইন ডেস্ক

আরও ভয়ানক রূপ নিতে পারে করোনা: ডাব্লিউএইচও

মাস দুয়েক আগে বিশেষজ্ঞরা বলেছিলেন, করোনাভাইরাসের ডেল্টা ভেরিয়েন্টেই বিপদের শেষ। এর পরে ক্ষমতা কমতে শুরু করবে করোনাভাইরাসের। 

কিন্তু বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডাব্লিউএইচও) বলছে, ডেল্টা আসলে বিশ্বের উদ্দেশে এক ‘সতর্কবার্তা’। এর পরে মিউটেশন ঘটিয়ে আরও ভয়ানক স্ট্রেন তৈরি করতে পারে করোনাভাইরাস!

করোনাভাইরাসে এরই মধ্যে সারাবিশ্বে আক্রান্ত হিসেবে শনাক্ত হয়েছে ১৯ কোটি ৮৫ লাখ ৬৫ হাজার ২৫২ জন এবং মারা গেছে ৪২ লাখ ৩৩ হাজার ১৭৪ জন।

তার মধ্যে ১৩২ দেশে ছড়িয়ে পড়েছে ডেল্টা ভেরিয়েন্ট। যুক্তরাষ্ট্রে নতুন করে সংক্রমণ বাড়তে শুরু করেছে এর জেরে। পশ্চিম এশিয়ায় চতুর্থ ঢেউ আছড়ে পড়ার অন্যতম কারণ ডেল্টা। চীনে নতুন করে সংক্রমণ বেড়েছে। আরও দু’টি প্রদেশ থেকে সংক্রমণ বৃদ্ধির খবর পাওয়া গেছে। 

অস্ট্রেলিয়ার অন্যতম বড় শহর ব্রিসবেন ও কুইন্সল্যান্ড প্রদেশের একাংশে লকডাউন জারি করা হয়েছে। দেশের উপ-প্রধানমন্ত্রী স্টিভেন মাইলস জানিয়েছেন, তিন দিনের জন্য সম্পূর্ণ গৃহবন্দি থাকতে হবে লাখ লাখ বাসিন্দাকে। সবই ডেল্টার প্রকোপে। 

বিজ্ঞানীরা বলছেন, চিকেন পক্সের মতো ছোঁয়াচে করোনার ডেল্টা ধরন। এক জন সংক্রমিতের থেকে নিমেষেই ৮-৯ জনের শরীরে তা ছড়িয়ে পড়তে পারে। অতিসংক্রামক স্ট্রেনটি সম্পর্কে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার জরুরি পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রক বিভাগের প্রধান মাইকেল রায়ান বলেন, ডেল্টা হচ্ছে আসলে একটা সতর্কবার্তা। সকলকে সতর্ক করে দেওয়া যে, ভাইরাস তার ধরণ বদলাচ্ছে। এবং এটাও মনে করিয়ে দেওয়া যে আরও ভয়ানক ভেরিয়েন্ট তৈরি হতে পারে।

ডাব্লিউএইচও প্রধান টেডরস অ্যাডহানম এতে যোগ করেছেন, এখন পর্যন্ত চারটি ‘ভেরিয়েন্ট অব কনসার্ন’ তৈরি হয়েছে। ভাইরাসটি যত ছড়াবে, এ রকম উদ্বেগ করার মতো ভেরিয়েন্ট আরও তৈরি হবে।

সারা বিশ্বকে ৬টি অঞ্চলে ভাগ করে পর্যালোচনা চালায় বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা। এর মধ্যে পাঁচটিতেই গত এক মাসে সংক্রমণ বেড়েছে ৮০ শতাংশ। 

রায়ানের বক্তব্য, ডেল্টার প্রকোপে বেশ নড়বড়ে অবস্থা হয়েছে কিছু দেশের। কিন্তু তাতেও তারা যথেষ্ট সতর্ক করতে পারেনি বাসিন্দাদের। সংক্রমণ রুখতে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ করতে এখনও ব্যর্থ বেশ কিছু দেশ। 

পারস্পরিক দূরত্ব-বিধিনিষেধ মানা হচ্ছে না। লোকজন মাস্ক পরছেন না। স্যানিটাইজার ব্যবহার, হাত পরিষ্কার রাখা, বাতাস চলাচলের ব্যবস্থা কম এ রকম বদ্ধ ঘরে বেশিক্ষণ না-থাকা, ভিড়-জটলা এড়িয়ে যাওয়া- এর কোনোটার ওপরই জোর দেওয়া হচ্ছে না।

সূত্র: মেডিকেল নিউজ টুডে

news24bd.tv/এমিজান্নাত  

পরবর্তী খবর

টিকটক থেকে সাত সন্তানের জননীকে বিয়ে ২৪ বছর তরুণের (ভিডিও)

অনলাইন ডেস্ক

টিকটক থেকে সাত সন্তানের জননীকে বিয়ে ২৪ বছর তরুণের (ভিডিও)

বিশ্বের এই প্রান্ত থেকে অন্য প্রান্তে প্রতিনিয়ত কতই না বিচিত্র সব ঘটনা ঘটে। এরই মধ্যে এমন কিছু কিছু ঘটনা ঘটে যা প্রথমে বিশ্বাস করতে কষ্টই হয়। এমনই এক ঘটনা ঘটেছে কুরান ম্যাকেইন এবং শেরিল ম্যাকগ্রেগর এর মধ্যে। এই  দম্পতির দুজনের মধ্যে বয়সে ৩৭ বছরের ব্যবধান থাকলেও প্রেমের ক্ষেত্রে তা বাঁধা হয়ে দাঁড়ায়নি। এমনকি ওই বৃদ্ধার সাত সন্তানও তাদের প্রেমের মধ্যে বাধা হয়ে দাড়াতে পারেনি।

বিয়ে নিয়ে যতটা না অবাক হয়েছেন তার চেয়েও বড় অবাক করার মত ঘটনা হলো তাদের এই প্রেমের শুরু হয় টিকটকে। টিকটকের সেই ভালোবাসা   সবশেষে প্রণয়ে যায়।  ৬১ বছরের আমেরিকান নারীকে বিয়ে করেছেন ২৪ বছরের ওই তরুণ। জানা গেছে, ওই বৃদ্ধা নারীর সাত সন্তান রয়েছে। তার নাতি-নাতনির সংখ্যা ১৭ জন।

কুরানের বয়স যখন মাত্র ১৫ বছর, তখন শেরিলের সঙ্গে তার প্রথম সাক্ষাৎ হয়। শেরিলের এক ছেলের রেস্টুরেন্টে কাজ করতেন কুরান।শেরিলকে একটি দোকানে ক্যাশিয়ারের চেয়ারে দেখেন কুরান, তখন পূর্বপরিচয়ের সূত্রে তাদের মধ্যে ফের আলাপ হয়।

আরও পড়ুন


আশ্রয়ণ প্রকল্প: এটা তো দুর্নীতির জন্য হয়নি, এটা কারা করলো?

আগের স্ত্রীকে তালাক না দিয়েই মাহিকে বিয়ে করেছে রাকিব

আমরা কখনো জানতামও না যে এই সম্পদ আমাদেরই ছিলো

নাশকতার মামলায় নওগাঁর পৌর মেয়র সনিসহ বিএনপির ৩ নেতা কারাগারে


 

কথাবার্তার একপর্যায়ে কুরান জানতে পারেন, শেরিল নিয়মিত টিকটক ভিডিও বানান। একটি ভিডিওতে নিজের নাচের দৃশ্য আপলোড করেছিলেন তিনি। সেখানে অনেকেই বাজে মন্তব্য করেছেন, এ নিয়ে মন খারাপ তার। তখন শেরিলকে সান্ত্বনা দেন কুরান। এরপর থেকেই দুজনে এক সঙ্গে ভিডিও বানাতে শুরু করে। আস্তে আস্তে ঘনিষ্ঠতা বাড়তে থাকে তাদের মধ্যে, শেষে প্রেম, তারপর বিয়ে।

গত ৩১ জুলাই আংটি পরানোর মাধ্যমে আনুষ্ঠানিকভাবে যুগলে পরিণত হন এই প্রেমিক-প্রেমিকা। তার মধুর সমাপ্তি হয়েছে গত ৩ সেপ্টেম্বর। 

 ভিডিও দেখতে এখানে ক্লিক করুন

news24bd.tv/আলী

পরবর্তী খবর

বাড়ল করোনা শনাক্ত

অনলাইন ডেস্ক

বাড়ল করোনা শনাক্ত

গত ২৪ ঘণ্টায় প্রাণঘাতী করোনায় মৃত্যু কমলেও বেড়েছে শনাক্তের সংখ্যা । (বৃহস্পতিবার সকাল আটটা থেকে আজ শুক্রবার সকাল আটটা পর্যন্ত) করোনায় আরও ৩৮ জনের মৃত্যু হয়েছে।

নতুন রোগী শনাক্ত হয়েছে ১ হাজার ৯০৭ জন। শুক্রবার (১৭ সেপ্টেম্বর) স্বাস্থ্য অধিদপ্তর থেকে পাঠানো এক বিজ্ঞপ্তিতে এসব তথ্য জানানো হয়েছে।

আর ও পড়ুন: 


সমুদ্রে নামতে মানতে হবে এই ১০ নির্দেশনা

হাতিয়ায় দেশীয় বন্দুক, তাজা গোলা ও পাইরোটেকনিক উদ্ধার

তিন কিউই ক্রিকেটারের করোনা শনাক্ত, পাকিস্তান সিরিজ বাতিল

ডেঙ্গু নিয়ন্ত্রণে ব্যর্থতার অভিযোগে মেয়র তাপসের কুশপুত্তলিকা দাহ


স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়েছে, করোনায় মোট মৃতের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ২৭ হাজার ১৪৭ জনে। মোট শনাক্ত রোগীর সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ১৫ লাখ ৪০ হাজার ১১০ জনে।

news24bd.tv তৌহিদ

পরবর্তী খবর

সাহারা অঞ্চলে ফরাসি সেনাদের হাতে আইএস প্রধান নিহত

অনলাইন ডেস্ক

সাহারা অঞ্চলে ফরাসি সেনাদের হাতে আইএস প্রধান নিহত

বৃহত্তর সাহারা অঞ্চলে জঙ্গিগোষ্ঠী আইএস এর প্রধান আদনান আবু ওয়ালিদ আল-সাহরাবি ফরাসি সেনাদের হাতে নিহত হয়েছেন বলে দাবী করেছেন দেশটির প্রেসিডেন্ট ইমানুয়েল ম্যাক্রো।

২০১৫ সালে আইএস এর সাহারা শাখা- আই.এস.জি.এস প্রতিষ্ঠা করেছিলেন আবু ওয়ালিদ। 

বিবিসি জানায়, এ গোষ্ঠীর বিরুদ্ধে ২০২০ সালে ফরাসি ত্রাণকর্মীদের হত্যা করার অভিযোগ রয়েছে। আবু ওয়ালিদের মৃত্যুকে সন্ত্রাসবিরোধী লড়াইয়ের বড় সাফল্য হিসেবে অভিহিত করলেও কোথায়, কখন অভিযান চালানো হয়েছে সে বিষয়ে বিস্তারিত কিছু জানাননি প্রেসিডেন্ট ম্যাক্রো। 

আরও পড়ুন:

শর্টস পরে পরীক্ষাকেন্দ্রে তরুণী, পরীক্ষা দিতে হল পর্দায় পা ঢেকে!

দেড় কোটি ছাড়িয়ে ফলোয়ার, ভক্তদের উদ্দেশে যা বললেন সাকিব

নুসরাতকে আর সমর্থন দেবেন না তসলিমা নাসরিন

অবশেষে মৃত্যুর ৫ বছর পর ‘ছাড়পত্র’ পেল দিতির শেষ সিনেমা


ফরাসি প্রতিরক্ষামন্ত্রী এক টুইট বার্তায় বলেছেন, ফ্রান্সের অপারেশন বারখান ফোর্সের বিমান হামলায় নিহত হয়েছেন আবু ওয়ালিদ। 

ফ্রান্সের এই বাহিনী সাহেল অঞ্চলে বিশেষ করে মালি, নাইজার, শাদ এবং বুরকিনা ফাসোতে আইএস এর বিরুদ্ধে লড়াই করছে।

news24bd.tv/ নকিব

পরবর্তী খবর

তিন দেশকে যুদ্ধের মানসিকতা ঝেড়ে ফেলার আহ্বান জানালো চীন

অনলাইন ডেস্ক

তিন দেশকে যুদ্ধের মানসিকতা ঝেড়ে ফেলার আহ্বান জানালো চীন

চীনকে মোকাবেলায় যুক্তরাষ্ট্র, ব্রিটেন, অস্ট্রেলিয়ার সামরিক জোট গঠনকে দায়িত্বজ্ঞানহীন বলে মন্তব্য করেছে বেইজিং। দেশ তিনটিকে নিজেদের শীতল যুদ্ধের মানসিকতা ঝেড়ে ফেলার আহ্বান জানিয়েছে জিনপিং প্রশাসন। তবে এ চুক্তি কোনো পক্ষের বিরুদ্ধে নয় বলেই দাবি করছে যুক্তরাজ্য। 

ইন্দো-প্রশান্ত মহাসাগরীয় অঞ্চলে চীনের আধিপত্য ঠেকাতে উন্নত প্রতিরক্ষা প্রযুক্তি বিনিময়ে বুধবার যৌথ ত্রিপক্ষীয় নিরাপত্তা কর্মসূচি ঘোষণা করেছে যুক্তরাষ্ট্র, যুক্তরাজ্য ও অস্ট্রেলিয়া। আর এই জোট আঞ্চলিক শান্তি মারাত্মকভাবে বিনষ্ট করবে বলেই হুশিয়ারি দিয়েছে চীন।

পররাষ্ট্রমন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র ঝাও লিজিয়ান বলেন, তিনদেশের এ সিদ্ধান্ত থেকে এটাই প্রমাণিত হয় যে পারমাণবিক রপ্তানিকে ভূ-রাজনৈতিক খেলার হাতিয়ার হিসেবে ব্যবহার করছে তারা।

নতুন জোটের মাধ্যমে অস্ট্রেলিয়া নিজে থেকেই চীনের শত্রুতে পরিণত হয়েছে বলে জানিয়েছে চীনের গ্লোবাল টাইমস পত্রিকা।

এদিকে বৃহস্পতিবার ব্রিটিশ পার্লামেন্টে বরিস জনসন জানিয়েছেন, কোনো শক্তির বিরুদ্ধেই প্রতিপক্ষ নয় নতুন এই জোট।

বরিস জনসন বলেন, প্রথমবারের মতো পারমাণবিক শক্তি চালিত সাবমেরিনের বহর অর্জনের গুরুত্বপূর্ণ সিদ্ধান্ত নিয়েছে অস্ট্রেলিয়া। সাহায্য চেয়েছে আমাদের। আমরা তাদের পাশে থাকবো। 

আরও পড়ুন:

শর্টস পরে পরীক্ষাকেন্দ্রে তরুণী, পরীক্ষা দিতে হল পর্দায় পা ঢেকে!

দেড় কোটি ছাড়িয়ে ফলোয়ার, ভক্তদের উদ্দেশে যা বললেন সাকিব

নুসরাতকে আর সমর্থন দেবেন না তসলিমা নাসরিন

অবশেষে মৃত্যুর ৫ বছর পর ‘ছাড়পত্র’ পেল দিতির শেষ সিনেমা


চলতি বছর অস্ট্রেলিয়ার ক্যানবেরায় মার্কিন সেনা আসার পর ক্ষেপণাস্ত্র প্রকল্প উন্নয়ন করা হবে বলে জানিয়েছে স্কট মরিসনের প্রশাসন।

অন্যদিকে, ত্রিদেশীয় এই চুক্তির মতো ইউরোপীয় ইউনিয়নকেও জোটবদ্ধ হয়ে, ইন্দো-প্রশান্ত মহাসাগরীয় অঞ্চলে নিজস্ব প্রতিরক্ষা ও নিরাপত্তা কৌশল তৈরী করা উচিত বলে মন্তব্য করেছেন ইইউয়ের শীর্ষ কূটনীতিক জোসেপ বোরেল।

news24bd.tv/ নকিব

পরবর্তী খবর

শর্টস পরে পরীক্ষাকেন্দ্রে তরুণী, পরীক্ষা দিতে হল পর্দায় পা ঢেকে!

অনলাইন ডেস্ক

শর্টস পরে পরীক্ষাকেন্দ্রে তরুণী, পরীক্ষা দিতে হল পর্দায় পা ঢেকে!

শর্টস পরে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রবেশিকা দিতে গিয়েছিলেন আসামের উনিশ বছর বয়সী এক তরুণী। কিন্তু এ নিয়ে হেনস্তার শিকার হতে হলো তাকে। এ ঘটনায় ভারতে বেশ আলোড়ন তৈরি করেছে। 

হেনস্তার শিকার হওয়া তরুণীর নাম জুবিলি। তিনি ভারতের আসাম রাজ্যের তেজপুরের বিশ্বনাথ চরিয়ালির বাসিন্দা। তিনি গত বুধবার বাবাকে নিয়ে আসামের কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রবেশিকা পরীক্ষা দিতে যান। নির্দিষ্ট সময়ে পরীক্ষাকেন্দ্রে গিয়েও বসেন তিনি। কিন্তু এরপরেই সমস্যাটি  শুরু হয়।

ভারতীয় সংবাদমাধ্যম ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস-কে জুবিলি বলেন, “পরীক্ষাকেন্দ্রে ঢোকার অনুমতি দিয়েছিলেন নিরাপত্তারক্ষীরা। কিন্তু পরীক্ষা যে ঘরে পড়েছিল সেই ঘরে ঢুকতে যেতেই পরীক্ষকের বাধার মুখে পড়তে হয়। তিনি সাফ জানিয়ে দেন শর্টস পরে পরীক্ষায় বসতে দেওয়া যাবে না।”

বিষয়টি নিয়ে প্রতিবাদ করলেও তাতে ফল হয় নি। এরপর কেন্দ্র থেকে কাঁদতে কাঁদতে বেরিয়ে আসেন তিনি। বিষয়টি জানাজানি হলে পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক তাকে পা ঢেকে পরীক্ষায় বসার অনুমতি দেন। 

এরপরেই তার বাবা ৮ কিলোমিটার দূরের একটি পোশাকের দোকানে ছুটে যান। তবে তিনি ফিরে আসতে আসতেই সমস্যা মিটে যায়। তরুণীকে পর্দা দেওয়া হয় পা ঢেকে বসার জন্য!

প্রবেশ পত্রে ড্রেসকোড নিয়ে কোথাও কিছু বলা নেই বলে অভিযোগ করেন তিনি। জুবিলি আরও জানান, কয়েকদিন আগেই তিনি আরও একটি পরীক্ষা দিতে গিয়েছিলেন। সেখানে তাকে কিছুই বলা হয় নি। 

আরও পড়ুন:

ফিফা র‍্যাঙ্কিংয়ে শীর্ষ পাঁচে নেই আর্জেন্টিনা

ইভ্যালিকে দেউলিয়া ঘোষণা করতে চেয়েছিল রাসেল: র‍্যাব

নুসরাতকে আর সমর্থন দেবেন না তসলিমা নাসরিন

অবশেষে মৃত্যুর ৫ বছর পর ‘ছাড়পত্র’ পেল দিতির শেষ সিনেমা


জুবিলি বলেন, “প্রত্যেকেরই একটা কমফোর্ট জোন থাকে। ছেলেরা গেঞ্জি (ভেস্ট) পরলে আপত্তি করা হয় না। কিছু পুরুষ আবার খালি গায়েই রাস্তাঘাটে ঘুরে বেড়ান। তখনও কেউ কিছুই বলেন না। অথচ মেয়েরা শর্টস পরলেই যত সমস্যা!”

এটাকে জীবনের সবচেয়ে অপমানজনক অভিজ্ঞতা বলে জানিয়েছেন জুবিলি। এ বিষয়ে রাজ্যের শিক্ষামন্ত্রীকে অভিযোগ জানিয়ে চিঠি লিখবেন বলেও জানিয়েছেন তিনি।

news24bd.tv/ নকিব

পরবর্তী খবর