সবাইকে আমি দোষ দেব না: তথ্যমন্ত্রী

অনলাইন ডেস্ক

সবাইকে আমি দোষ দেব না: তথ্যমন্ত্রী

গার্মেন্টস মালিকদের আরেকটু সচেতন হওয়া প্রয়োজন ছিল বলে জানিয়েছেন তথ্য ও সম্প্রচারমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ। 

 সোমবার (০২ আগস্ট) দুপুরে সচিবালয়ে তথ্য মন্ত্রণালয়ের সম্মেলন কক্ষে সমসাময়িক ইস্যু নিয়ে ব্রিফিংয়ে মন্ত্রী বলেন, গার্মেন্টস মালিকরা বলেছিলেন, ঢাকার আশেপাশে যে শ্রমিকরা আছে, তাদেরকে নিয়েই আপাতত শুরু করবেন। কিন্তু এক্ষেত্রে কোনো কোনো মালিক সেটির ব্যত্যয় ঘটিয়েছেন। তাদের পক্ষ থেকে শ্রমিকদেরকে ফোন করা হয়েছে, কাজে যোগ দেওয়ার জন্য। অর্থাৎ যারা ঢাকার বাইরে চলে গেছেন তাদের আসতে বলা হয়েছে। 

ড. হাছান মাহমুদ বলেন, আমি মনে করি এক্ষেত্রে গার্মেন্টস মালিকদের আরেকটু সচেতন হওয়া প্রয়োজন ছিল। সবাইকে আমি দোষ দেব না, কিন্তু যারা শ্রমিকদের কাছে বার্তা পাঠিয়েছেন কাজে যোগদান করতেই হবে, সেই বার্তা পাঠানোর ক্ষেত্রে একটু ভুল ছিল। তারা যেটি বলেছিলেন, ঢাকার আশেপাশে বা ঢাকার শ্রমিকদের নিয়ে চালু করবে, সেটি হলে এভাবে দৌড়ঝাঁপ করে শ্রমিকদের আসতে হতো না। শ্রমিকদের সুবিধার্থেই কয়েক ঘণ্টার জন্য গণপরিবহন চালু করা হয়েছিল বলেও জানান তিনি। 

মন্ত্রী বলেন, ইতোমধ্যে আবার গণটিকাদান কার্যক্রম শুরু হয়েছে। সরকারের পক্ষ থেকে ঘোষণা দেওয়া হয়েছে, এ বছরের মধ্যেই ১০ কোটি ডোজ টিকা দেশে আসবে। সম্ভব হলে প্রতিমাসে এক কোটি লোককে টিকা দেওয়া হবে।

আরও পড়ুন: 


বগুড়ায় এই প্রথম এত মৃত্যু

তথ্য লুকিয়ে সরকারের কী লাভ?

পিয়াসা-মৌয়ের বিরুদ্ধে গুলশান-মোহাম্মদপুরে মামলার প্রস্তুতি


news24bd.tv তৌহিদ

পরবর্তী খবর

বিচ্ছিন্ন ঘটনা ছাড়া ইউনিয়ন ও পৌরসভা নির্বাচন শান্তিপূর্ণ হয়েছে: কাদের

নিজস্ব প্রতিবেদক

বিচ্ছিন্ন ঘটনা ছাড়া ইউনিয়ন ও পৌরসভা নির্বাচন শান্তিপূর্ণ হয়েছে: কাদের

আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের বলেছেন, শেখ হাসিনার সরকার স্থানীয় সরকার নির্বাচনকে বরাবরই গুরুত্ব দিয়ে আসছে। গতকাল অনুষ্ঠিত ইউনিয়ন এবং পৌরসভা নির্বাচন দু’একটি বিচ্ছিন্ন ঘটনা ছাড়া শান্তিপূর্ণভাবে অনুষ্ঠিত হয়েছে। ইউনিয়ন এবং পৌরসভা নির্বাচনে জনগণের অংশগ্রহণ বেড়েছে যা ইতিবাচক।

মঙ্গলবার (২১ সেপ্টেম্বর) সকালে সচিবালয়ে মন্ত্রীর দপ্তরে ব্রিফিংকালে এসব কথা বলেন তিনি। 

ওবায়দুল কাদের বলেন, স্থানীয় সরকার নির্বাচন তৃণমূলে গণতন্ত্রের ভিত মজবুত করে, জবাবদিহিতার সুযোগ বাড়ায় এবং এর ফলে উন্নয়ন কার্যক্রম প্রান্তিক পর্যায়ে পৌঁছে যায়।

সংবিধান অনুযায়ী সুষ্ঠু এবং শান্তিপূর্ণ নির্বাচন অনুষ্ঠানের নির্বাচন কমিশনকে সরকার সকল ধরনের সহযোগিতা করে আসছে দাবি করে আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক বলেন, আশা করি নির্বাচন কমিশন পরবর্তী ধাপের নির্বাচনে আইনশৃঙ্খলা রক্ষায় আরো কার্যকর এবং কঠোর পদক্ষেপ নেবেন। বিএনপির কথা শুনলে মনে হয় দেশে একমাত্র তারাই গণতন্ত্রের ধারক, বাহক ও রক্ষক। তারাই গণতন্ত্রের সোল এজেন্ট।

বিএনপি নিজেদের দ্বারা গণতন্ত্র হত্যার অতীত ভুলে গেছে, ভুলে গেছে শেখ হাসিনার নেতৃত্বে গণতন্ত্রের চলমান অগ্রযাত্রায় পদে পদে প্রতিবন্ধকতা তৈরির কথা উল্লেখ করে ওবায়দুল কাদের আরও বলেন, মুখে জনগণের অধিকার আর গণতন্ত্রের কথা বললেও নির্বাচনে অংশ না নেওয়া বিএনপির স্পষ্ট দ্বি-চারিতা।

আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক বলেন, যে দলের মহাসচিব নির্বাচিত হয়ে সংসদে যান না। অথচ জনগণের অধিকারের কথা বলেন, এ থেকে বুঝা যায় তাদের কথা ও কাজে কোন মিল নেই। বিএনপি চর্চা করে দ্বৈত-নীতি এ কারণে তাদের প্রার্থীদের উপর ভোটারদের আস্থাহীনতা তৈরি হয়েছে। 

বিএনপি এসব বুঝতে পেরেই ভরাডুবি এড়াতে নির্বাচন থেকে দুরে সরে গেছে, যা প্রকারন্তরে গণতান্ত্রিক প্রক্রিয়াকে বাধাগ্রস্ত করে বলে মনে করেন ওবায়দুল কাদের। তিনি আরও বলেন, দলীয় শীর্ষ নেতাদের হঠকারিতা আর সরকারের বিরুদ্ধে অতিমাত্রায় কৌশল করতে গিয়ে বিএনপি এখন "আস্থাহীনতার ফাঁদে" পড়েছে, তাই তারা এ ফাঁদ থেকে বেরিয়ে আসতে পারছে না।

ওবায়দুল কাদের মনে করেন, এ ফাঁদ থেকে বেরিয়ে আসতে চাইলেও নেতিবাচক আর দূর-নিয়ন্ত্রিত রিমোট কন্ট্রোলের রাজনীতি সংকটের আরো গভীরে নিমজ্জিত করেছে বিএনপিকে।

আরও পড়ুন


ডা. জাফরুল্লাহর রিট আবেদন শুনতে অপারগতা হাইকোর্টের

প্রধানমন্ত্রীকে জাতিসংঘের এসডিজি অগ্রগতি পুরস্কার প্রদান

ঝিনাইদহে ইউনিয়নে কমিটি গঠন নিয়ে ক্ষুদ্ধ সাবেক যুবলীগ নেতাকর্মীরা

টিউমার আক্রান্ত শিশুর চিকিৎসার দায়িত্ব নিলেন মাইনুল হোসেন খান নিখিল


সাংবাদিক নেতাদের বিরুদ্ধে ঢালাওভাবে ব্যাংক হিসাব তলবের বিষয়টি সাংবাদিক মহলে যে ক্ষোভের সৃষ্টি করেছে তা স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী ও তথ্যমন্ত্রী কথা বলেছেন, এ বিষয়ে সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী আশা প্রকাশ করে বলেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দেশে ফিরলে বিষয়টি দেখবেন। 

শেখ হাসিনা সরকার গণমাধ্যমের স্বাধীনতা ও তথ্যের অবাধ প্রবাহে বিশ্বসী উল্লেখ করে ওবায়দুল কাদের বলেন, করোনাকালে কিংবা অন্যান্য সময়ে গণমাধ্যম এবং সংশ্লিষ্ট কর্মিদের সুখে-দুঃখে শেখ হাসিনা সবসময় পাশে ছিলেন ভবিষ্যতেও থাকবেন। 

বিএনপির শাসনামলে ছিলো গণমাধ্যমের জন্য অন্ধকার সময় উল্লেখ করে আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক বলেন, তখন অসংখ্য সাংবাদিক হত্যার শিকার হয়েছিলো। 

যাদের হাত সাংবাদিকদের রক্তে রঞ্জিত আজ তারা সাংবাদিকদের জন্য মায়াকান্না করছে বলে উল্লেখ করেন তিনি।এ নিয়ে বিএনপির কুম্ভিরাশ্রু প্রদর্শন মাছের মায়ের পুত্র শোকের মতো উল্লেখ করেন ওবায়দুল কাদের।

news24bd.tv এসএম

পরবর্তী খবর

আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় থাকলে সবাই নিরাপদ থাকে: নৌ-পরিবহন প্রতিমন্ত্রী

অনলাইন ডেস্ক

আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় থাকলে সবাই নিরাপদ থাকে: নৌ-পরিবহন প্রতিমন্ত্রী

নৌ পরিবহন প্রতিমন্ত্রী খালিদ মাহমুদ চৌধুরী বলেছেন, পঁচাত্তর পরবর্তী সময়ে বাংলাদেশের অসাম্প্রদায়িক চেতনাকে কেড়ে নেওয়ার চেষ্টা করা হয়েছে। সেই সময়ে ধর্ম দিয়ে জাতিকে বিভক্ত করার চেষ্টা হয়। 

তিনি বলেন, হিন্দু-মুসলমানের সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি নষ্ট করে দিয়ে জিয়া এরশাদ খালেদা জিয়ারা বাংলাদেশকে ছিন্ন ভিন্ন করে দিয়ে ব্যর্থ রাষ্ট্র করার চেষ্টা করেছে। কিন্তু দেশরত্ন শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ সেই অসাম্প্রদায়িক চেতনাকে ধরে রেখে উন্নয়ন করায় বাংলাদেশ আজ বিশ্বে মাথা তুলে দাঁড়িয়েছে।

আজ দুপুরে দিনাজপুরের বিরলের মঙ্গলপুরে শ্রী শ্রী রাধা-কৃষ্ণ মন্দিরের (গৌরাঙ্গ আশ্রম) ভিত্তি প্রস্তর স্থাপন অনুষ্ঠানে তিনি এসব কথা বলেন।

নৌ প্রতিমন্ত্রী আরো বলেন, আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় থাকলে সবাই নিরাপদ থাকে। সাহস নিয়ে মানুষ মসজিদ, মন্দির ও প্যাগোডায় যেতে পারে।

আরও পড়ুন:


সিলেটে বাসার ছাদ থেকে আপন দুই বোনের মরদেহ উদ্ধার

ক্ষমতায় থাকছেন ট্রুডো, তবে গঠন করতে হবে সংখ্যালঘু সরকার

মিডিয়া ভুয়া খবর ছড়িয়েছে: বাপ্পী লাহিড়ি


বিএনপির সমালোচনা করে তিনি বলেন, বাংলাদেশের মানুষ কীভাবে ভালো থাকবে তারা সে কথা বলে না। তারা শুধু এতিমের টাকা আত্মসাৎ করা খালেদা জিয়ার মুক্তি দাবি করবে। আর সাতসমুদ্র তের নদীর ওপারে এক অপরাধী বসে আছে, তার সঙ্গে তারা যোগাযোগ করে, কীভাবে বাংলাদেশ দখল করা যাবে। কিন্তু সেই স্বপ্ন বাংলার মানুষ কখনই পূরণ হতে দেবে না। 

news24bd.tv নাজিম

পরবর্তী খবর

আইসিইউ থেকে কেবিনে খন্দকার মাহবুব হোসেন

অনলাইন ডেস্ক

আইসিইউ থেকে কেবিনে খন্দকার মাহবুব হোসেন

বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান ও প্রবীণ আইনজীবী খন্দকার মাহবুব হোসেনের শারীরিক অবস্থার উন্নতি হয়েছে। নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্র (আইসিইউ) থেকে তাকে কেবিনে স্থানান্তর করা হয়েছে। 

বিএনপি চেয়ারপারসনের প্রেস উইংয়ের সদস্য শায়রুল কবির খান আজ এ তথ্য জানিয়েছেন।

আরও পড়ুন:


সিলেটে বাসার ছাদ থেকে আপন দুই বোনের মরদেহ উদ্ধার

ক্ষমতায় থাকছেন ট্রুডো, তবে গঠন করতে হবে সংখ্যালঘু সরকার

মিডিয়া ভুয়া খবর ছড়িয়েছে: বাপ্পী লাহিড়ি


তিনি আরও জানান, খন্দকার মাহবুব হোসেনকে আইসিইউ থেকে কেবিনে স্থানান্তর করা হয়েছে। এখন তিনি মোটামুটি সুস্থ আছেন। বর্তমান অবস্থা অব্যাহত থাকলে শিগগির তিনি বাসায় ফিরতে পারবেন।

news24bd.tv নাজিম

পরবর্তী খবর

বিএনপি নেতা হাফিজের জামিন

অনলাইন ডেস্ক

বিএনপি নেতা হাফিজের জামিন

২০১৮ সালে জাতীয় সংসদ নির্বাচনকালে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের মামলায় বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান মেজর (অব.) মো. হাফিজ উদ্দিন আহমেদকে (বীর বিক্রম) জামিন দিয়েছেন বরিশালের সাইবার ট্রাইব্যুনাল।  

আজ সকালে বরিশালের সাইবার ট্রাইব্যুনালের বিচারক গোলাম ফারুক তার জামিন আবেদন মঞ্জুর করেন।

হাফিজ উদ্দিন আহমেদের আইনজীবী অ্যাডভোকেট কাজী এনায়েত হোসেন এ তথ্য জানিয়েছেন।  

তিনি বলেন, রাষ্ট্র ও আসামিপক্ষের বক্তব্য শুনে ও বয়স বিবেচনায় বিচারক তার জামিন আবেদন মঞ্জুর করেন।  

পরবর্তী খবর

আন্দোলন এবং নির্বাচনের জন্য ‘কার্যকর নেতৃত্ব’ খুজঁছে বিএনপি

তৌহিদ শান্ত

আন্দোলন এবং নির্বাচনের জন্য ‘কার্যকর নেতৃত্ব’ খুজঁছে বিএনপি। ১ম দফার মতবিনিময় সভাতে বিষয়টি আলোচনায় আসে। সে লক্ষ্যে কাল থেকে শুরু হওয়া নির্বাহী কমিটির সদস্যদের সভাতেও এটি আলোচিত হতে পারে। নেতারা বলছেন, রাজনীতিতে বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার অনুপস্থিতি এবং দলের ভারপ্রাপ্ত সভাপতির প্রবাসে থাকা— ২০১৮’র নির্বাচনে প্রভাব রেখেছিল। 

মঙ্গল, বুধ এবং বৃহস্পতিবার ২য় দফার এই মত বিনিময় সভায় অংশ নেবেন বিএনপির নির্বাহী কমিটির সদস্যরা। ২০১৮ সালের ৩ ফ্রেব্রুয়ারী রাজধানীর হোটেল লা মেরিডিয়ানে এই কমিটির সবশেষ বৈঠকটি অনুষ্ঠিত হয়েছিল।

ঐ মাসে ৮ ফ্রেব্রুয়ারী কারাগারে যাওয়ার ৫ দিন আগে অনুষ্ঠিত ঐ বৈঠকের সভাপতিত্ব করেছিলেন খালেদা জিয়া। এবারের বৈঠকের সভাপতিত্ব করবেন ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমান।

রও পড়ুন:

ধীর জীবন মানেই অলস জীবন নয়

একটি হটডগ আয়ু কমাতে পারে ৩৬ মিনিট পর্যন্ত!

ইভ্যালি ধরলেও সমস্যা, ছাড়লেও সমস্যা! কোথায় যাবেন ফারিয়া?

তৃতীয় স্বামীর কাছে শুধু বিচ্ছেদই নয়, খরচও চাইলেন শ্রাবন্তী


১ম দফার সভায় স্থায়ী কমিটি, ভাইস চেয়ারম্যান, উপদেষ্টামন্ডলী এবং সম্পাদকমন্ডলীর সদস্যরা করনীয় নিয়ে যা বলেছেন- নির্বাহী কমিটির সভায় মাঠ পর্যায়ে ঐ ইস্যুগুলো বাস্তবায়নের সম্ভাব্যতা কতটা- সেটি্ই আলোচনা হবে।

তবে গেলো সভায় একটি নতুন বিষয় তুলে ধরেছেন বিএনপির দুইজন ভাইস চেয়ারম্যান। আন্দোলন এবং নির্বাচনে অংশ নেয়া- এ দুটোর সফালতার পেছনে একজন প্রত্যক্ষ এবং কার্যাকর নেতা নির্নয়ের কথা বলেছেন তারা।

নির্বাহী কমিটির এই বৈঠকের পেশাজীবী, জেলা নেতাদের সঙ্গে বৈঠকের পরেই মাঠের আন্দোলনের ঘোষণা আসতে পারে বলে জানা্ন নেতারা।

news24bd.tv/আলী

পরবর্তী খবর