ফিলিস্তিনের পশ্চিম তীর সেনা সদস্যের রাইফেল নিয়ে বহিরাগত ইসরাইলির গুলিবর্ষণ

অনলাইন ডেস্ক

ফিলিস্তিনের পশ্চিম তীর সেনা সদস্যের রাইফেল নিয়ে বহিরাগত ইসরাইলির গুলিবর্ষণ

অধিকৃত ফিলিস্তিনের পশ্চিম তীরে ইসরাইলি সেনার কাছ থেকে এম-১৬ রাইফেল নিয়ে ফিলিস্তিনি লোকজনের ওপর গুলি ছুঁড়েছে একজন বহিরাগত ইসরাইলি। গত ২৬ জুন এই ঘটনা ঘটে। এ নিয়ে সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমগুলোতে একটি ভিডিও ছড়িয়ে পড়েছে।

ইসরাইলের মানবাধিকার সংগঠন বেইত সালেম এই ভিডিও ছড়িয়ে দিয়েছে। এতে দেখা যায়, পশ্চিম তীরের আল-তুয়ানি গ্রামের একটি স্থানে সামরিক জিপে করে ওই অবৈধ বসতি স্থাপনকারী ছুটে আসে এবং জিপ থেকে নেমেই ফিলিস্তিনিদের লক্ষ্য করে গুলি ছুঁড়তে থাকে।

গত ২৬ জুন ফিলিস্তিনিদের বিরুদ্ধে ইসরাইলের অবৈধ বসতি স্থাপনকারীরা ব্যাপক সহিংসতা চালায়। তারা ফিলিস্তিনিদের ওপর গুলিবর্ষণ, পাথর ছোঁড়া, ভাঙচুর, গাছপালা ধ্বংস ও বাড়ি-ঘরে অগ্নিসংযোগ ঘটায়।

ইসরাইলের সংবাদপত্র হারেৎজ গতকাল (রোববার) প্রত্যক্ষদর্শী ফিলিস্তিনিদের বরাত দিয়ে জানিয়েছে, একজন ইসরাইলি সেনা ওই অবৈধ বসতি স্থাপনকারী ইসরাইলিকে তার রাইফেল দিয়েছিল গুলি করার জন্য।

গুলিবর্ষণের সময় সেখানকার একটি বাড়ির ছাদে অবস্থানকারী এক ফিলিস্তিনি জানান, “ইসরাইলি সেনা তার এম-১৬ রাইফেল দেয় এবং সামরিক জিপের পাঁচ থেকে ১০ মিটার দূরে দাঁড়িয়েছিল। সে সময় আমার সাথে আরো দশটি শিশু ছিল। আমরা সবাই ভয় পেয়েছিলাম। অবৈধ বসতি স্থাপনকারী ইসরাইলি শূন্যে গুলি ছোঁড়ে নি, সে আমাদের দিকে গুলি ছুঁড়েছে।”

ওই ছাদে অবস্থানকারী আরেক ব্যক্তিও জানান, একজন ইসরায়েলি সেনা অবৈধ বসতি স্থাপনকারী ইহুদিকে রাইফেল দিয়েছিল।

ইসরাইলি সামরিক বাহিনী নিশ্চিত করেছে যে, ওই অবৈধ বসতি স্থাপনকারী ইসরাইলি একজন সেনার কাছ থেকে রাইফেল নিয়েছিল তবে সে ফাঁকা গুলি করেছে।

আরও পড়ুন

ইরানের নাগরিকদের আফগানিস্তান ত্যাগের নির্দেশ

টোকিও অলিম্পিকে দ্রুততম মানব মার্সেল জ্যাকবস

ফ্লোরিডায় অদ্ভুতদর্শন ‘সেসিলিয়ান’-এর খোঁজ

আবারও হামাস প্রধান ইসমাইল হানিয়াহ


ভিডিওতে আরো দেখা যায়, ইসরাইলি সেনাদের উপস্থিতিতেই ইসরাইলি বসতি স্থাপনকারীরা ফিলিস্তিনিদের গাছপালা ধ্বংস করছে।

১৯৬৭ সালের যুদ্ধের পর থেকে ফিলিস্তিনের পশ্চিম তীর এবং জেরুজালেম আল-কুদস শহরে ইসরাইল অন্তত ২৩০টি বসতি গড়ে তুলেছে যেখানে ছয় লাখ ইসরাইলি বসবাস করে। আন্তর্জাতিক আইন অনুসারে এই সমস্ত বসতি অবৈধ।

news24bd.tv/ নকিব

পরবর্তী খবর

প্রথমবার মুখোমুখি মোদি-বাইডেন

অনলাইন ডেস্ক

প্রথমবার মুখোমুখি মোদি-বাইডেন

ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি এবং মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন প্রথমবার মুখোমুখি বৈঠকে বসতে যাচ্ছে। আগামী শুক্রবার তাদের এ বৈঠক হওয়ার কথা রয়েছে।

কূটনৈতিক মহলের মতে, আফগানিস্তানের পরিস্থিতি, করোনাভাইরাস, টিকাকরণের ক্ষেত্রে যৌথ উদ্যোগ, জলবায়ু সমস্যা, উদ্ভাবনী প্রযুক্তির ক্ষেত্রে জোট, সাইবার দুনিয়া, ইন্দো-প্রশান্ত মহাসাগরীয় অঞ্চলে মুক্ত ও বাধাহীন বাণিজ্যের মতো বিষয়গুলো তাদের আলোচনায় উঠে আসবে। হিন্দুন্তান টাইমস এই তথ্য প্রকাশ করেছে।

ভারতে করোনাভাইরাস সংক্রমণ শুরুর পর প্রথম বিদেশ সফরে অনেকগুলো কর্মসূচি আছে মোদির। বাইডেনের সঙ্গে একান্তে বৈঠকের পর হোয়াইট হাউসে কোয়াডের (চতুর্দেশীয় অক্ষ - ভারত, জাপান, অস্ট্রেলিয়া এবং আমেরিকা) সদস্যভুক্ত দেশের নেতাদের (জাপানের প্রধানমন্ত্রী ইয়েশোহিদি সুগা এবং অস্ট্রেলিয়ার প্রধানমন্ত্রী স্কট মরিসন) সঙ্গে বৈঠক করবেন। সেখানে থাকবেন বাইডেনও। গত মার্চে মোদিসহ চার রাষ্ট্রনেতা ভার্চুয়ালি কোয়াডের বৈঠকে যোগ দিয়েছিলেন। তারইমধ্যে মোদির সঙ্গে সাক্ষাৎ হতে পারে মার্কিন ভাইস-প্রেসিডেন্ট কমলা হ্যারিসের। তা নিয়ে সরকারিভাবে অবশ্য কোনো পক্ষই মুখ খোলেনি।


আরও পড়ুন

শিশুকন্যাকে সূচ ফুটিয়ে হত্যা! মৃত্যুদণ্ডের নির্দেশ

পুলিশের পোশাকে টিকটক ভিডিও শেয়ারে নিষেধাজ্ঞা

সুদানে ষড়যন্ত্রকারীদের শনাক্ত করা হয়নি

বঙ্গবন্ধুর নামে জাতিসংঘের বাগানে বেঞ্চ উৎসর্গ


ইতোমধ্যে মোদির পরবর্তী কর্মসূচি নির্ধারিত হয়ে গেছে। ওয়াশিংটনে কর্মসূচির পরই সন্ধ্যায় নিউ ইয়র্কের উদ্দেশে রওনা দেবেন মোদি। পরদিন (শনিবার) জাতিসংঘের সাধারণ পরিষদে ভাষণ দেবেন তিনি।

news24bd.tv/এমি-জান্নাত 

পরবর্তী খবর

স্কুলছাত্রীকে ধর্ষণ, আন্দোলনে নামছে বিজেপি

অনলাইন ডেস্ক

স্কুলছাত্রীকে ধর্ষণ, আন্দোলনে নামছে বিজেপি

স্কুলছাত্রীর ধর্ষণের ঘটনায় এবার মালদা জুড়ে আন্দোলনে নামছে বিজেপি। ইতিমধ্যেই মেয়েটির পরিবারের সঙ্গে যোগাযোগ করে জেলা বিজেপি সিদ্ধান্ত নিয়েছে আইনি লড়াইয়ের জন্য এই মেয়েটির পাশে জোরালোভাবে দাঁড়ানো হবে। প্রয়োজনে মেয়েটির পরিবারকে নিয়ে কলকাতায় আন্দোলনেও নামতে পারে বলে জানিয়েছে জেলা বিজেপি।

এই বিষয়ে মালদার বিজেপি সভাপতি গোবিন্দচন্দ্র মন্ডল বলেন, একদিকে যেমন ধর্ষণের শিকার ওই মেয়েটির পরিবারের সঙ্গে যোগাযোগ বজায় রাখা হচ্ছে পাশাপাশি আমরা সিদ্ধান্ত নিয়েছি প্রয়োজনীয় আইনি লড়াইয়ে ওই পরিবারের পাশে আমরা দাঁড়াব। যদি দেখা যায় দোষীদের বিরুদ্ধে পুলিশ ঠিকঠাক ব্যবস্থা নিচ্ছেনা তবে ওই পরিবারের লোকদের নিয়ে আমরা কলকাতায় অবস্থান-বিক্ষোভ বা অন্যান্য আন্দোলনে সামিল হব।


আরও পড়ুন

শিশুকন্যাকে সূচ ফুটিয়ে হত্যা! মৃত্যুদণ্ডের নির্দেশ

পুলিশের পোশাকে টিকটক ভিডিও শেয়ারে নিষেধাজ্ঞা

সুদানে ষড়যন্ত্রকারীদের শনাক্ত করা হয়নি

বঙ্গবন্ধুর নামে জাতিসংঘের বাগানে বেঞ্চ উৎসর্গ


গত ১০ সেপ্টেম্বর জেলার রতুয়া থানা এলাকায় এক স্কুলছাত্রী ধর্ষণের শিকার হয়।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, পড়তে যাওয়ার সময় তিনজন দুবৃত্ত ওই নাবালিকাকে জোর করে গাড়িতে তুলে মাদক খাইয়ে ধর্ষণ করে। ধর্ষিতাকে এরপর গ্রামে ফেলে রেখে দুষ্কৃতীরা পালিয়ে যায়। মেয়েটি কোনওরকমে বাড়ি এসে পরিবারের কাছে জানালে রতুয়া থানায় অভিযোগ দায়ের হয়। অভিযুক্তরা এখনও পলাতক রয়েছে।

news24bd.tv/এমি-জান্নাত   

পরবর্তী খবর

সুচ বিঁধিয়ে কন্য সন্তানকে খুন, শেষ রক্ষা হলো না সেই মায়ের

অনলাইন ডেস্ক

সুচ বিঁধিয়ে কন্য সন্তানকে খুন, শেষ রক্ষা হলো না সেই মায়ের

তিন বছরের শিশু কন্যটিই মায়ের বিবাহবহির্ভুক সম্পর্কের মাঝে বাঁধা হয়ে দাড়িয়েছিলো। কিন্তু জন্মদাত্রী সেই মাই তার শিশু কন্যটিকে পরকীয়া প্রেমিকের সঙ্গে মিলে হত্যার পরিকল্পনা করে। তার পর তদের পরিকল্পনা অনুযায়ী সেই কন্যটিকে তারা সুচ বিঁধিয়ে তিলে তিলে হত্যা করে।চার বছর আগের সেই ঘটনায় নিহত শিশুর মা এবং তার প্রেমিককে ফাঁসির সাজা দিলো আদালত।

ভারতের পুরুলিয়ার সুচ-কাণ্ডে নিহত শিশুর মা এবং তার প্রেমিক দুজনকেই মৃত্যুদণ্ড দিয়েছেন দেশটির আদালত। ষড়যন্ত্র করে সুচ ফুটিয়ে শিশুকন্যাকে হত্যার মামলায় গত শনিবার (১৮ সেপ্টেম্বর) পুরুলিয়ার একটি দ্রুত বিচার আদালত দুজনকে দোষি সাব্যস্ত করে। সরকারি আইনজীবীর আবেদনের প্রেক্ষিতে মামলাটির রায় স্থগিত রাখার পর আজ (২১ সেপ্টেম্বর) শিশুটির মা মঙ্গলা গোস্বামী এবং তার প্রেমিক সনাতন গোস্বামী ঠাকুরকে আদালত ফাঁসির নির্দেশ দিয়েছে।

২০১৭ সালের ১১ জুলাই জ্বর ও সর্দি-কাশির উপসর্গ নিয়ে সাড়ে তিন বছরের মেয়েকে পুরুলিয়ার সদর হাসপাতালে ভর্তি করেছিল মা মঙ্গলা। 


সিলেটে বাসার ছাদ থেকে আপন দুই বোনের মরদেহ উদ্ধার

ক্ষমতায় থাকছেন ট্রুডো, তবে গঠন করতে হবে সংখ্যালঘু সরকার

মিডিয়া ভুয়া খবর ছড়িয়েছে: বাপ্পী লাহিড়ি


সে সময়ে চিকিৎসকেরা জানিয়েছিলেন, সেই সময়েই শিশুটির শরীরে একাধিক ক্ষত এবং আঁচড়ের চিহ্ন ছিল। এমনকি শিশুটির নিম্নাঙ্গে রক্তের দাগও ছিল বলে জানিয়েছিলেন তারা। এইসব ক্ষতের কারণ জানতে মেডিক্যাল বোর্ড গঠন করে এক্সরে করা হলে দেখা যায় তার শরীরের ভেতর বিঁধে রয়েছে সাতটি সূচ। কীভাবে সুচ বেঁধানো হলো, তা জানতে চাওয়া হলেও তার সদুত্তর মেলেনি মঙ্গলার কাছে। 

পরে সে দাবি করে, প্রাক্তন হোমগার্ড সনাতনের বাড়ির পরিচারিকা সে। তার ধারণা সনাতনই তার মেয়ের উপরে নির্যাতন চালিয়েছে।

news24bd.tv/আলী

পরবর্তী খবর

ক্যানারি দ্বীপপুঞ্জ আগ্নেয়গিরি: সরিয়ে নেওয়া হয়েছে শত শত লোক

অনলাইন ডেস্ক

ক্যানারি দ্বীপপুঞ্জ আগ্নেয়গিরি: সরিয়ে নেওয়া হয়েছে শত শত লোক

স্প্যানিশ ক্যানারি দ্বীপপুঞ্জের লা পালমায় একটি অগ্ন্যুত্পাতের কারণে কর্তৃপক্ষকে আরেকটি গ্রাম উচ্ছেদ করতে বাধ্য করেছে। 

বিবিস‘র সূত্রে জানা যায়, কুম্বরে ভিয়েজা আগ্নেয়গিরির নতুন ফাটল থেকে লাভা বের হতে শুরু করার পর এল পাসোকে সরিয়ে নেওয়ার নির্দেশ দেওয়া হয়েছিল।

গত রোববার অগ্ন্যুৎপাত শুরু হওয়ার পর থেকে অনেক মানুষ লাভা থেকে পালিয়ে গেছে।
নতুন বিস্ফোরণ বায়ু খোলার পরপরই চারটি ভূমিকম্প দ্বীপে আঘাত হানে।

স্থানীয় কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, লাভা একটি রাসায়নিক বিক্রিয়া ঘটাতে পারে যা বিস্ফোরণ ঘটায় এবং সমুদ্রে পৌঁছলে বিষাক্ত গ্যাস নিঃসরণ করে।

বিশেষজ্ঞরা স্থানীয় গণমাধ্যমকে জানিয়েছেন, মঙ্গলবার প্রায় ১২ টার দিকে এ লাভা সমুদ্রে পৌঁছবে বলে ধারণা করা হয়। বাসিন্দাদের যে এলাকা থেকে দূরে থাকতে বলা হয়েছে, তা পুলিশ ঘিরে রেখেছে।

ইতিমধ্যে, লাভা আগ্নেয়গিরির পশ্চিমাংশে অগ্রসর হতে থাকে এবং সবকিছু ধ্বংস করে দেয়।


আরও পড়ুন

শিশুকন্যাকে সূচ ফুটিয়ে হত্যা! মৃত্যুদণ্ডের নির্দেশ

পুলিশের পোশাকে টিকটক ভিডিও শেয়ারে নিষেধাজ্ঞা

সুদানে ষড়যন্ত্রকারীদের শনাক্ত করা হয়নি

বঙ্গবন্ধুর নামে জাতিসংঘের বাগানে বেঞ্চ উৎসর্গ


news24bd.tv/এমি-জান্নাত   

পরবর্তী খবর

গাড়িচাপা দেওয়া ইসরাইলি ২ পুলিশের অবস্থা আশঙ্কাজনক

অনলাইন ডেস্ক

গাড়িচাপা দেওয়া ইসরাইলি ২ পুলিশের অবস্থা আশঙ্কাজনক

ইসরাইলের উত্তরাঞ্চলীয় নাহারিয়া শহরে যে দুই ইসরাইলি পুলিশকে গাড়িচাপা দিয়ে হত্যার চেষ্টা করা হয়েছে তাদের অবস্থা আশঙ্কাজনক।

ইসরাইলি দৈনিক ইয়েদিউত আহারোনোত জানিয়েছে, শহরের একটি পুলিশ চেকপোস্টেই কাছেই এই ঘটনা ঘটেছে।

তবে এই ঘটনার সঙ্গে জড়িতদের এখনও গ্রেপ্তার করতে পারেনি ইসরাইলি পুলিশ। তবে গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে। এ ক্ষেত্রে পুলিশ হেলিকপ্টারও ব্যবহার করছে।

আরও পড়ুন:


পাঁচ বিভাগে বৃষ্টি ও বজ্রসহ বৃষ্টির আশঙ্কা

এই হচ্ছে বিএনপি, আর সব দোষ আওয়ামী লীগের?

রাজপথে নামার আহ্বান মোশাররফ-মান্নার

বাগেরহাটে ৩ ঘণ্টা পর প্লাইউড ফ্যাক্টরির আগুন নিয়ন্ত্রণে


ইসরাইলের টিভি চ্যানেল-টুয়েলভ জানিয়েছে, পুলিশের ওপর দিয়ে গাড়ি চালিয়ে দিয়েই দ্রুত পালিয়ে গেছে গাড়ির চালক।

এর আগে গত বুধবারও পশ্চিম বায়তুল মুকাদ্দাসে ইহুদিবাদীদের বিরুদ্ধে একটি হামলার ঘটনা ঘটেছে বলে ইসরাইলি সূত্রগুলো খবর দিয়েছে।

ইসরাইলি বাহিনী ফিলিস্তিনিদের উপর হামলার আশঙ্কায় সম্প্রতি সর্বত্রই নিরাপত্তা জোরদার করেছে।

বিশেষকরে সুড়ঙ্গ খুঁড়ে ছয় ফিলিস্তিনি বন্দী জেল থেকে পালাতে সক্ষম হওয়ার পর ইসরাইলিদের মধ্যে নিরাপত্তা নিয়ে আশঙ্কা আগের চেয়ে বেড়েছে।

news24bd.tv তৌহিদ

পরবর্তী খবর