হেলেনা জাহাঙ্গীরের ১০ দিনের রিমান্ড চেয়ে নিম্ন আদালতে প্রেরণ

অনলাইন ডেস্ক

হেলেনা জাহাঙ্গীরের ১০ দিনের রিমান্ড চেয়ে নিম্ন আদালতে প্রেরণ

ডিজিটাল প্লাটফর্ম ব্যবহার করে মিথ্যাচার, অপপ্রচার ও বিভ্রান্তিকর তথ্য ছড়িয়ে রাষ্ট্রীয় গুরুত্বপূর্ণ সংস্থা ও ব্যক্তিবর্গের সম্মানহানি করার অপচেষ্টার অভিযোগে গ্রেফতারকৃত হেলেনা জাহাঙ্গীর এর অন্যতম সহযোগী হাজেরা খাতুন এবং সানাউল্ল্যাহ নূরী’কে রাজধানীর গাবতলি এলাকা থেকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব।

এ বিষয়ে মঙ্গলবার দুপুরে কারওয়ান বাজারে র‍্যাব বের মিডিয়া সেন্টারে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে বলা হয়,  মিডিয়া শাখার পরিচালক হলেন, হেলেনা জাহাঙ্গীর। তার জয়যাত্রা টিভি বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট ব্যবহার না করে, ২০১৮ সাল থেকে হংকং এর একটি ডাউন লিংক চ্যানেল হিসেবে সম্প্রচার করতো, ফ্রিকুয়েন্সি হংকং হতে বরাদ্দ হতো। এর জন্য প্রতিমাসে ছয় লাখ টাকা দেয়া হতো।

আরও পড়ুন

৭৩টি ভুঁইফোড় সংগঠনের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে নির্দেশ

রামেকে করোনা ওয়ার্ডে ১৯ জনের মৃত্যু

হেলেনা জাহাঙ্গীরের দুই সহযোগী গ্রেফতার

সানাউল্লাহ নূরী প্রতিনিধি সমন্বয় ছিলো। আর হাজেরা খাতুন মূল মিডিয়া জগতের বিপরীতে একটি সংগঠন তৈরির করে ৫ হাজার প্রতিনিধি নিয়োগ ও এদের নিয়ে বিশাল নেটওয়ার্ক তৈরীর কাজ করছিলো। 

এদিকে, হেলেনা জাহাঙ্গীরকে ১০ দিনের রিমান্ড চেয়ে নিম্ন আদালতে পাঠিয়েছে ডিবি সাইবার ক্রাইম বিভাগ। 

news24bd.tv রিমু 

পরবর্তী খবর

কক্সবাজারে হোটেলে ধর্ষণ ও হত্যা, গ্রেফতার সিরিয়াল রেপিস্ট

অনলাইন ডেস্ক

কক্সবাজারে হোটেলে ধর্ষণ ও হত্যা, গ্রেফতার সিরিয়াল রেপিস্ট

গত ১৮ সেপ্টেম্বর কক্সবাজারের হোটেল আমারির ১০৮ নম্বর কক্ষে স্ত্রীর পরিচয়ে এক নারীকে নিয়ে উঠেন সাগর মিজি।পরে সাগর ওই নারীকে ধর্ষণ এবং নির্যাতন করে হত্যা করে।  ১৯ সেপ্টেম্বর রবিবার হোটেল কক্ষের দরজা ভেঙে লাশ উদ্ধার করে হোটেলে কর্তৃপক্ষ। এরপর হয় মামলা।

সেই হত্যা ও ধর্ষণ মামলায় র‍্যাবের হাতে গ্রেফতার হয়েছে সেই সিরিয়াল রেপিস্ট  সাগর মিজি। রাজধানীর যাত্রাবাড়ী থেকে তাকে গ্রেফতার করে র‍্যাব। 

আরও পড়ুন:

অবশেষে ব্রিটেনের লাল তালিকা থেকে বাদ পড়ছে বাংলাদেশ

বেড়াতে গিয়ে অতিরিক্ত মদ পানে দুই ছাত্রলীগ কর্মীর মৃত্যু

আর কোনো তত্ত্বাবধায়ক সরকার হবে না, জানালেন কৃষিমন্ত্রী

ইভ্যালির সঙ্গে আর সম্পর্ক নেই তাহসানের


 

আসামি সাগর মিজি স্বীকার করেছে ১৮ সেপ্টেম্বর কক্সবাজারের হোটেল আমারির ১০৮ নম্বর কক্ষে স্ত্রীর পরিচয়ে এক নারীকে নিয়ে উঠেন। পরে সেই হোটেলে কক্ষেই সে ওই নারীকে ধর্ষণ এবং নির্যাতন করে হত্যা করে।  ছায়া তদন্ত কালে সাগরকে শনাক্ত করে গ্রেফতার করে র‍্যাব। সাগর সিরিয়াল রেপিস্ট বলে জানান কর্মকর্তারা।

news24bd.tv/আলী

পরবর্তী খবর

দিনে দুপুরে মাদ্রাসা ছাত্রীকে উঠিয়ে নিয়ে বাড়িতে ধর্ষণ!

অনলাইন ডেস্ক

দিনে দুপুরে মাদ্রাসা ছাত্রীকে উঠিয়ে নিয়ে বাড়িতে ধর্ষণ!

দিনে দুপুরে ১৪ বছরের এক ছাত্রীকে মাদ্রাসার সামনে থেকে উঠিয়ে নিয়ে নিজ বাড়িতে একাধিকবার ধর্ষণ করে  মো. মিজান (রাসেল) নামে এক যুবক।

গত ৯ সেপ্টেম্বর ওই ছাত্রী মাদ্রাসায় গেলে মিজান খবর দিয়ে ছাত্রীকে মাদ্রাসার ফটকের সামনে নিয়ে আসে। পরে নানাভাবে ফুসলিয়ে সেখান থেকে অপহরণ করে ছাত্রীকে হাজীগঞ্জের পালাখাল এলাকায় তার (মিজান) বাসায় নিয়ে যায়। এরপর বিয়ের আশ্বাস দিয়ে ছাত্রীকে সেখানে একাধিকবার ধর্ষণ করে। 

চাঁদপুরের মতলব দক্ষিণ উপজেলায় এই ঘটনা ঘটে। 

ওই ছাত্রীর ভাবির মোবাইলের মাধ্যমে ছাত্রীর সঙ্গে মিজানের পরিচয় হয়। একপর্যায়ে তাদের মধ্যে প্রেমের সম্পর্ক ও ঘনিষ্ঠতা তৈরি হয়। গত ৯ সেপ্টেম্বর ওই ছাত্রী মাদ্রাসায় যায়। মিজান খবর দিয়ে ছাত্রীকে মাদ্রাসার ফটকের সামনে নিয়ে আসে। পরে নানাভাবে ফুসলিয়ে সেখান থেকে অপহরণ করে ছাত্রীকে হাজীগঞ্জের পালাখাল এলাকায় তার (মিজান) বাসায় নিয়ে যায়। 

এরপর বিয়ের আশ্বাস দিয়ে ছাত্রীকে সেখানে একাধিকবার ধর্ষণ করে। গত ১২ সেপ্টেম্বর পরিবারের লোকজন ছাত্রীর অবস্থানের কথা জানতে পারে। ওই দিন ছাত্রীর মা তার মেয়েকে আনার জন্য পালাখাল এলাকায় ওই যুবকের বাসায় যান। সেখানে গিয়ে মেয়ের মাধ্যমে জানতে পারেন বিয়ের আশ্বাস দিয়ে তাকে একাধিকবার ধর্ষণ করেছে মিজান। অনেক কৌশল করে সেখান থেকে গত শুক্রবার দুপুরে মেয়েটিকে নিজের বাড়িতে নিয়ে আসেন তার মা।

আরও পড়ুন:

অবশেষে ব্রিটেনের লাল তালিকা থেকে বাদ পড়ছে বাংলাদেশ

বেড়াতে গিয়ে অতিরিক্ত মদ পানে দুই ছাত্রলীগ কর্মীর মৃত্যু

আর কোনো তত্ত্বাবধায়ক সরকার হবে না, জানালেন কৃষিমন্ত্রী

ইভ্যালির সঙ্গে আর সম্পর্ক নেই তাহসানের


 

এ ঘটনায় ছাত্রীর মা থানায় মামলা দায়ের করলে পুলিশ শনিবার দুপুরে নারায়ণপুর এলাকা থেকে মো. মিজানকে (রাসেল) গ্রেফতার করে।
গ্রেফতারকৃত মিজান জামালপুরের বকশীগঞ্জ উপজেলার নিলক্ষীয়া গ্রামের ফরহাদ হোসেনের ছেলে। সে চাঁদপুরের হাজীগঞ্জ উপজেলার পালাখাল এলাকায় একটি গ্যারেজে শ্রমিকের কাজ করে।

পুলিশ জানায়, শনিবার বেলা ১১টায় ছাত্রীর মা বাদী হয়ে ওই যুবককে আসামি করে থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে একটি মামলা করেন। 

news24bd.tv/আলী

পরবর্তী খবর

ছাত্রী ধর্ষণ ও ভিডিও ধারণ, প্রধান শিক্ষক গ্রেফতার

অনলাইন ডেস্ক

ছাত্রী ধর্ষণ ও ভিডিও ধারণ, প্রধান শিক্ষক গ্রেফতার

প্রাইভেট পড়ানোর সময়ে স্কুল ছাত্রীকে ধর্ষণ করে  এবং সেই দৃশ্য ভিডিও চিত্র ধারণ করেন বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক। সেই ঘটনার মামলায় এবার গ্রেফতার করা হয়েছে অভিযুক্ত স্কুলের প্রধান শিক্ষককে।

গতকাল শুক্রবার রাতে বান্দরবানের রুমা বাজার এলাকা থেকে তাকে গ্রেফতার করে পুলিশ। গ্রেপ্তার ওই শিক্ষকের নাম সমর কান্তি দত্ত (৫৬)। তিনি উপজেলার একটি নিম্নমাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক। তার বাড়ি চট্টগ্রামের লোহাগাড়া উপজেলায়।

মামলার এজাহার সূত্রে জানা যায়, ওই ছাত্রী ২০১৯ সালে এসএসসি পরীক্ষায় অকৃতকার্য হয়। এরপর সে শিক্ষক সমর কান্তি দত্তের বাড়িতে গিয়ে প্রাইভেট পড়া শুরু করে। একদিন প্রাইভেট পড়ানোর সময় তিনি ছাত্রীকে ধর্ষণ করেন এবং ধর্ষণের ভিডিও চিত্র ধারণ করেন। ভয়ে-লজ্জায় মেয়েটি ঘটনাটি কাউকে এত দিন জানায়নি। ওই ঘটনার পর থেকে সমর দত্ত বিভিন্ন সময় বিয়ের কথা বলে এবং ভিডিও ছড়িয়ে দেওয়ার হুমকি দিয়ে তার কাছে যেতে বলতেন। কিন্তু মেয়েটি তার কাছে আর যাচ্ছিল না। গত বুধবার ভিডিও চিত্রটি মেয়েটির মুঠোফোনে পাঠান। মেয়েটি ঘটনা তার বড় বোনকে খুলে বলে।

আরও পড়ুন:

অবশেষে ব্রিটেনের লাল তালিকা থেকে বাদ পড়ছে বাংলাদেশ

বেড়াতে গিয়ে অতিরিক্ত মদ পানে দুই ছাত্রলীগ কর্মীর মৃত্যু

আর কোনো তত্ত্বাবধায়ক সরকার হবে না, জানালেন কৃষিমন্ত্রী

ইভ্যালির সঙ্গে আর সম্পর্ক নেই তাহসানের


এ ঘটনায় ওই ছাত্রীর বড় বোন গতকাল রাতে রুমা থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন এবং পর্নোগ্রাফি নিয়ন্ত্রণ আইনে মামলা করেন। মামলার পর পুলিশ অভিযান চালিয়ে অভিযুক্ত শিক্ষককে গ্রেপ্তার করে।

news24bd.tv/আলী

পরবর্তী খবর

শিশুসন্তানকে জিম্মি করে মা’কে ধর্ষণ, একজন গ্রেফতার

অনলাইন ডেস্ক

শিশুসন্তানকে জিম্মি করে মা’কে ধর্ষণ, একজন গ্রেফতার

সিঁধ কেঠে ঘরে ঢুকে গৃহবধূকে সংঘবদ্ধ ধর্ষণের অভিযোগে মামলা করেছেন এক গৃহবধূ। মঙ্গলবার শিশুসন্তান নিয়ে ঘুমিয়ে পড়েন ওই নারী। গভীর রাতে ঘরের মধ্যে পুরুষ মানুষ দেখতে পেয়ে চিৎকার শুরু করেন তিনি। এ সময় তার চিৎকার শুনে সন্তানের গলায় ছুরি ধরে কবির সরকার (২৬) ও  শাহাদত (৩০)। পরে তারা সন্তানকে জিম্মি করে ওই নারীকে ধর্ষণ করে। পরে অজ্ঞান অবস্থায় তাকে রেখে পালিয়ে যান অভিযুক্তরা।

মঙ্গলবার (২১ সেপ্টেম্বর) রাতে টাঙ্গাইলের ভূঞাপুর উপজেলায় চরাঞ্চলের রুলীপাড়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। বৃহস্পতিবার (২৩ সেপ্টেম্বর) রাতে ধর্ষণের শিকার ওই নারী বাদি হয়ে মামলা দায়ের করেন। 

পুলিশ অভিযান চালিয়ে কবির সরকার নামে এক আসামিকে গ্রেপ্তার করে। শুক্রবার (২৪ সেপ্টেম্বর) দুপুরে তাকে আদালতে প্রেরণ করা হয়েছে। গ্রেপ্তারকৃত কবির রুলীপাড়া গ্রামের শহীদ জামানের ছেলে।


সিলেটে বাসার ছাদ থেকে আপন দুই বোনের মরদেহ উদ্ধার

ক্ষমতায় থাকছেন ট্রুডো, তবে গঠন করতে হবে সংখ্যালঘু সরকার

মিডিয়া ভুয়া খবর ছড়িয়েছে: বাপ্পী লাহিড়ি


মামলা সূত্রে জানা গেছে, ধর্ষণের শিকার ওই গৃহবধূর স্বামী ব্যবসায়িক কাজে ঠাকুরগাঁও চলে যান। মঙ্গলবার তার শিশুসন্তান নিয়ে ঘুমিয়ে পড়েন ওই নারী। গভীর রাতে ঘরের মধ্যে পুরুষ মানুষ দেখতে পেয়ে চিৎকার শুরু করেন তিনি। এ সময় তার চিৎকার শুনে সন্তানের গলায় ছুরি ধরে রুলীপাড়া গ্রামের শহিদ জামানের ছেলে কবির সরকার (২৬) ও হাবেস ঘোষের ছেলে শাহাদত (৩০)। পরে তারা সন্তানকে জিম্মি করে ওই নারীকে ধর্ষণ করে। পরে অজ্ঞান অবস্থায় তাকে রেখে পালিয়ে যান অভিযুক্তরা।

গাবসারা ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মনিরুজ্জামান মনির বলেন, ঘটনা শুনেছি। অভিযুক্ত কবির একাধিক বিয়ে করেছে। এর আগেও এ ধরনের ঘটনা ঘটিয়েছে কবির।

news24bd.tv/আলী

পরবর্তী খবর

বাড়িতে ঢুকে গৃহবধূকে ধর্ষণচেষ্টা,সাবেক ছাত্রলীগে নেতার বিরুদ্ধে মামলা

অনলাইন ডেস্ক

বাড়িতে ঢুকে গৃহবধূকে ধর্ষণচেষ্টা,সাবেক ছাত্রলীগে নেতার বিরুদ্ধে মামলা

বাড়িতে ঢুকে ধর্ষণ চেষ্টার অভিযোগে সিরাজগঞ্জে পৌর ছাত্রলীগের সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক আকাশ শেখের বিরুদ্ধে ধর্ষণচেষ্টার অভিযোগে থানায় মামলা করেছে এক গৃহবধূ। শুক্রবার (২৪ সেপ্টেম্বর) সকালে মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা উপপরিদর্শক (এসআই) মো. আলিম হোসাইন বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

বৃহস্পতিবার (২৩ সেপ্টেম্বর) বিকেলে সিরাজগঞ্জ সদর থানায় মামলাটি দায়ের করা হয়।অভিযোগের পর পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন শেষে মামলাটি গ্রহণ করে।

মামলা সূত্রে জানা যায়, সিরাজগঞ্জ পৌরসভার জানপুর মহল্লার ছাকমান শেখের ছেলে পৌর ছাত্রলীগের সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক আকাশ শেখ একই মহল্লার একটি বাড়িতে ঢুকে গৃহবধূকে ধর্ষণের চেষ্টা করে। তার চিৎকারে গৃহবধূর শাশুড়ি এগিয়ে আসলে আকাশ শেখ পালিয়ে যান।

গৃহবধুর স্বামী জানান, দীর্ঘদিন ধরে আকাশ তার স্ত্রীকে কুপ্রস্তাব দিয়ে আসছিলো। এ সকল বিষয়ে স্থানীয় কাউন্সিলর এবং আকাশের পরিবারের কাছে অভিযোগ করা হয়। কিন্তু তারা কোনো বিচার করেনি। এতে ক্ষিপ্ত হয়ে ২০ সেপ্টেম্বর বিকেল ৩টার দিকে বাড়ি এসে ধর্ষণের চেষ্টা করে আকাশ।


সিলেটে বাসার ছাদ থেকে আপন দুই বোনের মরদেহ উদ্ধার

ক্ষমতায় থাকছেন ট্রুডো, তবে গঠন করতে হবে সংখ্যালঘু সরকার

মিডিয়া ভুয়া খবর ছড়িয়েছে: বাপ্পী লাহিড়ি


সিরাজগঞ্জ সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) নজরুল ইসলাম জানান, ধর্ষণচেষ্টার অভিযোগে একটি মামলা দায়ের হয়েছে। বিষয়টি তদন্তপূর্বক ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

news24bd.tv/আলী

পরবর্তী খবর