হেলেনা জাহাঙ্গীরের সম্পদের তদন্ত চলছে
হেলেনা জাহাঙ্গীরের সম্পদের তদন্ত চলছে

হেলেনা জাহাঙ্গীরের সম্পদের তদন্ত চলছে

Other

হেলেনা জাহাঙ্গীরের বিরুদ্ধে তথ্য উপাত্ত পেলেই ব্যবস্থা নেবে দুর্নীতি দমন কমিশন দুদক। আইন শৃঙ্খলাবাহিনীর হাতে আটক হেলেনার ৫টি গার্মেন্ট প্রতিষ্ঠান, ১৫টি ফ্লাটসহ অঢেল সম্পদের বিষয়ে সংস্থাটি অনুসন্ধান করবে বলে জানিয়েছেন দুদক কমিশনার।

এছাড়া মডেল পিয়াসা, মৌ সম্রাজ্যের অবৈধ সম্পদ অর্জনকারীদের সন্ধানে এরই মধ্যে শুরু হয়েছে অনুসন্ধান।  সময়ের আলোচিত নাম হেলেনা জাহাঙ্গীর।

রাজনীতির মাঠে বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি, সাংবাদিকতা পেশাকে ঢাল হিসেবে ব্যবহার করে আইপি টিভির আড়ালে নিয়োগ বাণিজ্য, কখনো মডেল হয়ে মিউজিক ভিডিওতে অভিনয়। বহু প্রতিভায় বেড়ে উঠা হেলেনাকে ৩০ জুলাই তার নিজ বাসা থেকে মাদক, বিদেশী মুদ্রাসহ আটক করে আইন শৃঙ্খলা বাহিনী।

আটকের পর হেলেনা বেড়িয়ে আসেন হা্স্যজ্জল চেহারায়। এরই মধ্যে হেলেনা সম্রাজ্যের অঢেল সম্পদের তথ্য জমা পড়েছে বিভিন্ন সংস্থার হাতে। মিরপুরে নিউ কনসার্ন প্রিন্টিং ইউনিট, নারায়নগঞ্জে জেসি এমব্রয়ডারি, হুমায়ারা স্টিকার, জয় অটো গার্মেন্টস, যৌথ মালিকানায় প্যাক কনসার্নসহ মোট ৫টি গামের্ন্টস প্রতিষ্ঠান। রাজধানীতে ফ্ল্যাট রয়েছে মোট ১৫ টি। (উত্তরা ৩ নম্বর সেক্টরে ৫টি ফ্ল্যাট, গুলশানের ৩৬ নম্বর রোডে ৫টি, গুলশান ২ নম্বরে ৮হাজার ঘনফুটের একটি ফ্ল্যাট, গুলশান এভিনিউতে ১টি, গুলশানের নিকেতনে ১টি, মিরপুর ১১ নম্বর  ১টি, কাজীপাড়ায় ১টি ফ্ল্যাটসহ মোট ১৫টি ফ্ল্যাট। )

১২টি ক্লাবের মেম্বার হেলেনা ৭টি সামাজিক সংগঠনের সাথে সম্পৃক্ত হয়ে ঢাল হিসেবে ব্যবহার করতেন জয়যাত্রা আইপি টিভি। দুদক কমিশনার বলছেন, হেলেনার বিষয়ে তথ্য উপাত্ত হাতে পেলেই নেয়া হবে ব্যবস্থা। সাম্প্রতিক সময়ে আলোচিত মডেল পিয়াসা, মৌ হেলনাদের সম্রাজ্যে কাদের বিচরণ ছিল তাদের বিষয়েও নজরদারি করছে দুদকসহ বিভিন্ন সংস্থা।

news24bd.tv/এমিজান্নাত