জাপানে এত বেশি ভূমিকম্প কেন হয়?
জাপানে এত বেশি ভূমিকম্প কেন হয়?

জাপানে এত বেশি ভূমিকম্প কেন হয়?

অনলাইন ডেস্ক

পৃথিবীর যে কোনো দেশের চেয়ে বেশি ভূমিকম্প অনুভূত হয় জাপানে। ভৌগলিক অবস্থানগত কারণেই দেশটিতে বেশি ভূমিকম্প হয়।  দেশটিতে প্রতি বছর গড়ে দুই হাজারের মতো ভূমিকম্প সংঘটিত হয়ে থাকে।

জাপানে ২০১১ সালে ১০ হাজারের বেশি ভূমিকম্প হয়।

তবে মজার বিষয় এই যে দেশটির সমস্ত অঞ্চলে এই ভূমিকম্প আঘাত করে না। বিশেষত রাজধানী টোকিওতে এর প্রভাব বেশি হয়ে থাকে। ভূমিকম্পগুলোর অধিকাংশই ক্ষীণ হয়ে থাকে।

পৃথিবীর কাঠামো মোটামুটি তিনটি ভাগে বিভক্ত। প্রথমত, বহির্ভাগের লবণাক্ত ও কঠিন ভূতক (পুরুত্ব প্রায় ৩০ কি.মি), দ্বিতীয়ত এর নিচে যা ২৯০০ কি.মি পুরু এক ধরনের ঘন ও আঠালো অংশ আর তৃতীয়ত সাড়ে তিন হাজার ব্যাসের কেন্দ্রীয় পৃষ্ঠ। দ্বিতীয় অংশের ঘন ও আঠালো ভাগের উপরিভাগ সাতটি অংশে বিভক্ত।

এইগুলোই হচ্ছে টেকটোনিক প্লেট। প্লেটগুলোর নাম - প্রশান্ত মহাসাগরীয়, ইউরেশীয়, আফ্রিকান, আটলান্টিক, উত্তর আমেরিকান, দক্ষিণ আমেরিকান এবং ইন্দো-অস্ট্রেলীয়। টেকটোনিক প্লেটগুলোর একটি অপরটির সঙ্গে সংঘর্ষ হলে অথবা ধাক্কা লাগলে ভূমিকম্পের সৃষ্টি হয়।

আরও পড়ুন


জাপানে অলিম্পিক আসরের মধ্যেই ভয়াবহ ভূমিকম্প

সাকিব-মোস্তাফিজ আইপিএল খেলতে পারবেন

গোয়েন্দার হাতে পিয়াসার ১৭ গোপন ভিডিও, মৌ’র বিয়ে ১১টি

নিয়ন্ত্রণ হারিয়েছে ৪ জাহাজ, ব্রিটেনের দাবি ছিনতাই


বিশেষজ্ঞদের মতে, জাপান প্রশান্ত মহাসাগরীয় ‘রিং অব ফায়ার’ অঞ্চলে অবস্থিত। রিং অব ফায়ারের অর্থ হল আগুনের গোলা। রিং অব ফায়ার এমন একটি কাল্পনিক বেল্ট যা ঘোরার খুরের মত প্রধানত প্রশান্ত মহাসাগরীয় অঞ্চলকে ঘিরে রেখেছে। এই রিং অব ফায়ারে যেইসব অঞ্চল অন্তর্ভুক্ত রয়েছে তা সবচেয়ে বেশি ভূমিকম্পপ্রবণ। এই রিং অব ফায়ারই ৯০ শতাংশ ভূমিকম্পের কারণ।

৪০ হাজার কিলোমিটার দীর্ঘ এই রিং অব ফায়ার অঞ্চলে ৪৫২ টি সক্রিয় আগ্নেয়গিরি রয়েছে যা পৃথিবী পৃষ্টের মোট আগ্নেয়গিরির ৭৫ শতাংশ। এশিয়ার জাপান, পলিনেশিয়ার টোঙ্গো, দক্ষিণ আমেরিকার ইকুয়েডর এই অঞ্চলের অন্তর্ভুক্ত। তাই এইসব অঞ্চলেই বেশি ভূমিকম্প হয়ে থাকে।

news24bd.tv এসএম