নরসিংদীতে সাংবাদিক পরিচয়ে মুক্তিযোদ্ধাকে হুমকি, প্রতিবাদে মানববন্ধন

মো. হৃদয় খান, নরসিংদী

নরসিংদীতে সাংবাদিক পরিচয়ে মুক্তিযোদ্ধাকে হুমকি, প্রতিবাদে মানববন্ধন

নরসিংদীর মনোহরদীতে সাংবাদিক পরিচয়ে আব্দুল মান্নান ঢালী নামে এক যুদ্ধাহত মুক্তিযোদ্ধার ভাতা বন্ধ করে দেওয়ার হুমকী এবং সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে সম্মানহানীর প্রতিবাদে মানববন্ধন করা হয়েছে।

বুধবার উপজেলার বড়চাপা ইউনিয়নের চরতারাকান্দী বাজারে মানববন্ধনের আয়োজন করেন মুক্তিযোদ্ধা, মুক্তিযোদ্ধা প্রজন্ম ও এলাকাবাসী। মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল মান্নান বড়চাপা ইউনিয়নের চরতারাকান্দী গ্রামের বাসিন্দা।

তিনি স্বাধীনতা যুদ্ধের গ্রুপ কমান্ডার এবং উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদের সাবেক কমান্ডার ছিলেন। কথিত ওই সাংবাদিকের নাম কাজী শরিফুল ইসলাম শাকিল। সে নাম সর্বস্ব একটি অনলাইন পোর্টালের সম্পাদক বলে জানা গেছে।

এসময় বক্তারা বলেন, কথিত সাংবাদিক শাকিল একজন প্রকৃত মুক্তিযোদ্ধাকে ভূয়া মুক্তিযোদ্ধা বলে অসম্মান ও অপমান করেছে। সে তার ভাতা বন্ধ করে দেওয়ার হুমকী দিয়েছে। সে একজন রাজাকারের ছেলে। আমরা তার দৃষ্টান্তমূলক বিচার চাই।

মানববন্ধনে বক্তব্য দেন- বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল মান্নান ঢালী, বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুস সাত্তার, মুক্তিযোদ্ধার সন্তান কাউসার রশিদ বিপ্লব, স্থানীয় ইউপি সদস্য জুলহাস উদ্দিন প্রমূখ।

এর আগে এ ঘটনায় মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল মান্নান ঢালী নরসিংদী জেলা প্রশাসকের কাছে লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন। পুলিশ সুপার, জেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদের কমান্ডার ও নরসিংদী প্রেসক্লাবে এই অভিযোগের অনুলিপি দেওয়া হয়েছে।

এ বিষয়টি মনোহরদীসহ নরসিংদীতে প্রধান আলোচ্য বিষয় হয়ে দাঁড়িয়েছে। বিভিন্ন মহলে তীব্র ক্ষোভের সৃষ্টি হয়েছে। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে অভিযুক্ত সাংবাদিকের বিচার দাবি করেছেন নেটিজেনরা।

অভিযোগে আব্দুল মান্নান ঢালী উল্লেখ করেন, ১৫ জুলাই দুপুরে কাজী শরিফুল ইসলাম শাকিলের ব্যক্তিগত মুঠোফোন থেকে মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল মান্নান ঢালীর মুঠোফোনে একটি কল আসে। এ সময় শাকিল বলে, আপনার (মান্নান ঢালী) বিরুদ্ধে অভিযোগ আছে। আপনার মুক্তিযোদ্ধার সম্মানী ভাতা বন্ধ করে দেওয়া হবে। অতি তাড়াতাড়ি আমার (শাকিল) সঙ্গে দেখা করেন। তার কথা মতো ওই দিন উপজেলা পরিষদের সামনে গিয়ে তাকে ফোন দিলে তিনি নিজেকে সাংবাদিক কাজী শরিফুল ইসলাম শাকিল বলে পরিচয় দেয়। এছাড়া তিনি মনোহরদী প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক বলেও পরিচয় দেন তিনি। এসময় দ্রুত মনোহরদী প্রেসক্লাব কার্যালয়ে গিয়ে তার সঙ্গে দেখা করার জন্য বলা হয়। আমি সেখানে গিয়ে দেখা করার পর তিনি জানান আমি নাকি ভুয়া মুক্তিযোদ্ধা। আমার মুক্তিযোদ্ধার ভাতা বন্ধ করে দিবে বলে হুমকী ও ভয়ভীতি দেখানো হয়। এতে আমি মানষিকভাবে ভেঙে পড়ি।

একটি কুচক্রী মহল সামাজিকভাবে হেয় প্রতিপন্ন করার জন্য আমার বিরুদ্ধে এ ধরণের ষড়যন্ত্র করে আসছে। 

এর আগেও ২০১৭ সালে একই যুবকের বিরুদ্ধে একজন মুক্তিযোদ্ধাকে হয়রানি ও তাঁর কাছে চাঁদা দাবির অভিযোগে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম এবং বিভিন্ন গণমাধ্যমে খবর প্রকাশিত হয়েছিল। ওই সময় তিনি নিজেকে সাংবাদিক, আইনজীবী পরিচয় দিয়ে চালাকচর ইউনিয়নের হাফিজপুর গ্রামের মুক্তিযোদ্ধা মো. সাফিউদ্দিনকে হয়রানি করছেন বলে অভিযোগ রয়েছে।

এ ছাড়াও তার বিরুদ্ধে নানা হয়রানির অভিযোগ এনে থানায় এবং আদালতে একাধিক অভিযোগ করেছিলেন একই উপজেলার খিদিরপুর ইউপি চেয়ারম্যান মাহবুবুর রহমান জামিল ও মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল মতিন।

স্থানীয়রা জানান, শাকিল মাদক ও আইসিটি আইনের দুই মামলায় গ্রেপ্তার হয়ে কিছু দিন কারাগারে ছিলেন।

এ ছাড়া ২০১৪ সালের ৩ সেপ্টেম্বর মনোহরদী থানার সামনে থেকে ডিবি পুলিশ ২৫টি ইয়াবাসহ শাকিলকে গ্রেপ্তার করা হয়েছিল।

পরবর্তী খবর

নোয়াখালীতে অস্ত্র-গুলিসহ কিশোর গ্যাং সদস্য গ্রেপ্তার

নোয়াখালী প্রতিনিধি :

নোয়াখালীতে অস্ত্র-গুলিসহ কিশোর গ্যাং সদস্য গ্রেপ্তার

নোয়াখালীর বেগমগঞ্জ উপজেলা থেকে অস্ত্রসহ কিশোর গ্যাং এর এক যুবককে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। এ সময় তার কাছ থেকে ১টি পাইপ গান, ১ রাউন্ড কার্তুজ, ৯টি কিরিস উদ্ধার করা হয়।

গ্রেপ্তারকৃত নুর উদ্দিন ওরফে আসিফ উপজেলার মুরাদপুর গ্রামের গোলাম মাওলার ছেলে।

বৃহস্পতিবার (২৩ সেপ্টেম্বর) দুপুরে আটককৃত আসামিকে গ্রেপ্তার দেখিয়ে নোয়াখালী ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে সোপর্দ করা হয়েছে। 

রও পড়ুন:


সেই বাংলা ছবি থেকে সানি লিওনের অংশটি বাদ

অনলাইনে পণ্য ডেলিভারির সময় নির্ধারণ করে দিলো মন্ত্রণালয়

ভ্রুন নষ্ট না করলে তালাক দেয়ার হুমকি স্বামীর

মানবতাবিরোধী মামলার আসামি শহীদুল্লাহ ফকির গ্রেপ্তার


এর আগে বুধবার গভীর রাতে উপজেলার শরীফপুর ইউনিয়নের দক্ষিণ খানপুর গ্রাম থেকে তাকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ।

বেগমগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মুহাম্মদ কামরুজ্জামান সিকদার ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেন। তিনি আরও জানান, এ ঘটনায় আটককৃত আসামির বিরুদ্ধে অস্ত্র আইনে মামলা হয়েছে। 

NEWS24.TV / কামরুল

পরবর্তী খবর

ভ্রুন নষ্ট না করলে তালাক দেয়ার হুমকি স্বামীর

নয়ন বড়ুয়া জয়

স্বামীর চাপাচাপিতে ভ্রুণ হত্যার প্রবণতা বাড়ছে। মাতৃত্বের স্বাদ থেকে বঞ্চিত হচ্ছে অসংখ্য নারী। চট্টগ্রামে একের পর এক ভ্রন হত্যার শিকার হয়ে এবার মাতৃত্বের অধিকার রক্ষা করতে এক প্রবাসী স্বামীসহ পরিবারের বিরুদ্ধে স্ত্রীর মামলা। ভ্রুন নষ্ট না করলে তালাক দেয়ার হুমকি স্বামীর।

আদালত মামলাটি আমলে নিয়ে পুলিশকে দ্রুত তদন্তের নির্দেশ দিয়েছেন বিচারক। নাগরিক সমাজের প্রতিনিধিরা বলছেন, আইনের প্রয়োগ সঠিকভাবে হলেই কমে আসবে ভ্রণ হত্যা। 

২০১৬ সালে রাঙ্গুনিয়ার খামারিপাড়া হোসনাবাদ এলাকার কাজী সফিউল আলমের সঙ্গে পারিবারিক পছন্দেই বিয়ে হয় উত্তর পদুয়া পশ্চিম খুরুশিয়ার সাজু আক্তারের। বিয়ের কিছু দিন পরই জানা যায় স্বামীর সঙ্গে পাশের গ্রামের এক নারীর প্রেমের সম্পর্ক রয়েছে। বিয়ের এক মাস পরে বিদেশ পাড়ি দেন স্বামী। 

রও পড়ুন:


জন্মদিনে সৃজিতের কাছে কী চাইলেন মিথিলা?

বায়ু দূষণের তালিকায় বাংলাদেশ প্রথম, ঢাকা তৃতীয়

৪৫ মিনিট পর হাসপাতালে অলৌকিকভাবে বেঁচে উঠলেন নারী!

গাড়ি সাইড দেয়ায় ব্যবসায়ীকে মারধর করলেন এমপি রিমন!


বিদেশ থেকে আসা-যাওয়ার মাঝে স্ত্রী সাজু সন্তান সম্ভবা হয়ে পড়লে  ভ্রুণ হত্যা করার জন্য উঠে পড়ে লাগে স্বামী। পরিবারের চাপে একের পর এক এভাবে ভ্রুণ নষ্ট করার পর এবার স্বামী বিদেশ থেকে আসলে আবারো এই গৃহবধুর পেটে সন্কান আসে। বয়স চারমাস হতেই স্বামী বুঝে যাওয়ায় শুরু হয় ভ্রুণ হত্যার চেষ্টা।

ভ্রুণ নষ্ট না করলে বিদেশে গিয়ে তালাক দেয়ার হুমকি দেয় স্বামী।তাই শেষমেষ আদালতের শরণাপন্ন হয়েছেন এই গৃহবধু।

নাগরিক সমাজের প্রতিনিধিরা বলছেন, ভ্রুণ হত্যা বন্ধে আইনের শাসন আরো কঠোর হওয়া জরুরি।

ভ্রুন হত্যায় জড়িতরা শাস্তির আওতায় না আসায় এখনো এটিকে অপরাধ মনে করেন না অনেকে। অন্তত এ মামালায় আইনের প্রয়োগ হলে একটি উদাহরণ তৈরি হবে বলছেন সমাজবিজ্ঞানীরা।

NEWS24.TV / কামরুল

পরবর্তী খবর

শেরপুরে র‌্যাবের অভিযানে বিদেশি মদসহ যুবক আটক

জুবাইদুল ইসলাম, শেরপুর:

শেরপুরে র‌্যাবের অভিযানে বিদেশি মদসহ যুবক আটক

শেরপুরের নালিতাবাড়িতে ১৬ বোতল বিদেশি মদসহ মো. শাহীন আলম (১৯) নামে এক যুবককে আটক করেছে র‌্যাব-১৪ (জামালপুর-শেরপুর)। 

বুধবার দিবাগত রাতে উপজেলার রাজনগর ইউনিয়নের বেপারীপাড়া এলাকা থেকে তাকে আটক করা হয়। 

আটক শাহীন উপজেলার পোড়াগাঁও ইউনিয়নের ভুরুঙ্গা কালাপানি এলাকার মো. নওশেদ আলীর ছেলে। বৃহস্পতিবার সকালে মাদক আইনের মামলাসহ তাকে আদালতে সোপর্দ করা হয়েছে। 

রও পড়ুন:


জন্মদিনে সৃজিতের কাছে কী চাইলেন মিথিলা?

বায়ু দূষণের তালিকায় বাংলাদেশ প্রথম, ঢাকা তৃতীয়

৪৫ মিনিট পর হাসপাতালে অলৌকিকভাবে বেঁচে উঠলেন নারী!

গাড়ি সাইড দেয়ায় ব্যবসায়ীকে মারধর করলেন এমপি রিমন!


র‌্যাবের প্রেস বিজ্ঞপ্তি সূত্রে জানা যায়, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে বুধবার (২২ সেপ্টেম্বর) দিবাগত রাত সাড়ে ১২টার দিকে র‌্যাব-১৪, সিপিসি-১, জামালপুর ক্যাম্পের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মৃনাল কান্তি সাহার উপস্থিতিতে র‌্যাবের একটি দল শেরপুরের নালিতাবাড়ী উপজেলার রাজনগর বেপারীপাড়া এলাকার জনৈক আব্দুল মজিদের ধানের চাতালের সামনে পাকা রাস্তায় অভিযান চালায়। 

এ সময় ১৬ বোতল বিদেশি মদসহ ও দুইটি মোবাইল ফোনসহ শাহীন আলমকে আটক করে র‌্যাব সদস্যরা। উদ্ধারকৃত বিদেশি মদের মূল্য অনুমান ৮ হাজার টাকা।

এ ব্যাপারে র‌্যাব-১৪, সিপিসি-১, জামালপুর ক্যাম্পের কোম্পানী কমান্ডার স্কোয়াড্রন লিডার আশিক উজ্জামান বলেন, এ ঘটনায় আটক শাহীনের বিরুদ্ধে নালিতাবাড়ী থানায় একটি মাদক আইনের মামলা দায়ের করা হয়েছে।

আটক শাহীন দীর্ঘদিন যাবৎ শেরপুরের বিভিন্ন স্থানে মাদক ক্রয়-বিক্রয় ও সরবরাহ করে আসছিল। মাদকের মতো সামাজিক ব্যাধির বিরুদ্ধে র‌্যাবের অভিযান অব্যাহত থাকবে।

NEWS24.TV / কামরুল

পরবর্তী খবর

নাটোরে ১২ ইমো হ্যাকার আটক

নাটোর প্রতিনিধি:

নাটোরে ১২ ইমো হ্যাকার আটক

প্রতারণা করে প্রবাসীদের কাছ থেকে অর্থ হাতিয়ে নেওয়ার অভিযোগে নাটোরের দুই উপজেলায় অভিযান চালিয়ে ইমো হ্যাকার চক্রের ১২ সদস্যকে আটক করেছে পুলিশ।

গতকাল ও আজ জেলার লালপুর ও বাগাতিপাড়ায় উপজেলায় অভিযান চালিয়ে এসব ইমো হ্যাকার চক্রের ১২ সদস্যকে আটক করা হয়।

রও পড়ুন:


জন্মদিনে সৃজিতের কাছে কী চাইলেন মিথিলা?

বায়ু দূষণের তালিকায় বাংলাদেশ প্রথম, ঢাকা তৃতীয়

৪৫ মিনিট পর হাসপাতালে অলৌকিকভাবে বেঁচে উঠলেন নারী!

গাড়ি সাইড দেয়ায় ব্যবসায়ীকে মারধর করলেন এমপি রিমন!


আজ দুপুরে জেলা পুলিশ সুপারের কার্যালয়ে এক প্রেস ব্রিফিংয়ে পুলিশ সুপার লিটন কুমার সাহা জানান, দীর্ঘ দিন ধরে ইমো হ্যাকার চক্রের সদস্যরা প্রবাসীদের টার্গেট করে ইমো হ্যাক করে প্রতারণার মাধ্যমে টাকা হাতিয়ে নিয়ে আসছিল। বিভিন্ন সময় পুলিশের হাতে আটক হলেও পুণরায় তারা এই কাজে জড়িয়ে পড়ে।

সম্প্রতি বেশ কিছু গণমাধ্যমে ইমো হ্যাক চক্রদের নিয়ে সংবাদ প্রকাশ হলে গত ১৯ সেপ্টেম্বর 
নাটোরের সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আবু সাইদ সংবাদ মাধ্যমে প্রকাশিত সংবাদের সূত্র ধরে স্বপ্রনোদিত হয়ে পুলিশকে মামলা রেকর্ড করে অভিযুক্তদের গ্রেপ্তারের নির্দেশ দেন।

এ প্রেক্ষিতে লালপুর থানার এসআই হাসান তৈফিক বাদী হয়ে পরদিন একটি মামলা রেকর্ড করে 
তথ্য প্রযুক্তির সহায়তায় অভিযান চালিয়ে লালপুর থেকে ৮ জন ও বাগাতিপাড়া উপজেলা থেকে ৪ জনকে আটক করে।

এ সময় বড়াইগ্রাম সার্কেল অতিরিক্ত পুলিশ সুপার খায়রুল আলম, লালপুর থানার ওসি ফজলুর রহমান সহ অন্যন্যরা।

NEWS24.TV / কামরুল

পরবর্তী খবর

পায়রা সেতুর নামকরণ শহীদ আলাউদ্দিনের নামে করার দাবিতে মানববন্ধন

রাহাত খান, বরিশাল:

পায়রা সেতুর নামকরণ শহীদ আলাউদ্দিনের নামে করার দাবিতে মানববন্ধন

বরিশাল-পটুয়াখালী মহাসড়কের লেবুখালীর পায়রা নদীর উপর নব নির্মিত সেতুর নামকরণ ৬৯ এর গণঅভ্যুত্থানে বরিশালে প্রথম শহীদ আলাউদ্দিনের নামে করার দাবিতে মানববন্ধন ও সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়েছে। সমাবেশ শেষে একই দাবিতে জেলা প্রশাসনের মাধ্যমে প্রধানমন্ত্রী বরাবর একটি স্মারকলিপি দেন তারা। 

আজ বৃহস্পতিবার সকাল ১১ টায় নগরীর সদর রোডের অশ্বিনী কুমার হলের সামনে ‘শহীদ আলাউদ্দিন স্মৃতি রক্ষা পরিষদের’ ব্যানারে এক মানববন্ধন ও সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়। 

রও পড়ুন:


জন্মদিনে সৃজিতের কাছে কী চাইলেন মিথিলা?

বায়ু দূষণের তালিকায় বাংলাদেশ প্রথম, ঢাকা তৃতীয়

৪৫ মিনিট পর হাসপাতালে অলৌকিকভাবে বেঁচে উঠলেন নারী!

গাড়ি সাইড দেয়ায় ব্যবসায়ীকে মারধর করলেন এমপি রিমন!


সংগঠনের সভাপতি খান আলতাফ হোসেন ভুলুর সভাপতিত্বে মানববন্ধন ও সমাবেশে বক্তব্য রাখেন পটুয়াখালী প্রেসক্লাব সভাপতি মশিউর রহমান ও সাধারণ সম্পাদক কাইয়ুম উদ্দিন জুয়েল, বরিশাল জেলা মহিলা পরিষদের সাধারণ সম্পাদক পুষ্প রানী চক্রবর্তী, গণফোরাম নেতা হিরন কুমার দাস মিঠু, বিজন সিকদার, জেলা ওয়ার্কার্স পার্টির নেতা নজরুল হক নীলু, গনসংহতি আন্দোলনের নেতা দেওয়ান আব্দুর রশিদ নীলু, বাসদ নেতা ইমরান হাবিব রুমান ও মনিষা চক্রবর্তী। 

মানববন্ধন ও সমাবেশে বক্তারা লেবুখালীর পায়রা নদীর উপর নব নির্মিত সেতুর নাম শহীদ আলাউদ্দিনের নামে করার দাবি জানান।

মানববন্ধন শেষে দাবি সংবলিত একটি স্মারকলিপি জেলা প্রশাসনের মাধ্যমে প্রধানমন্ত্রী বরাবর প্রেরণ করেন ‘শহীদ আলাউদ্দিন স্মৃতি রক্ষা পরিষদের’ নেতৃবৃন্দ। 

NEWS24.TV / কামরুল

পরবর্তী খবর