অঢেল সম্পদের মালিক মডেল পিয়াসা ও মৌ (ভিডিও)

অঢেল সম্পদের মালিক মডেল পিয়াসা ও মৌ (ভিডিও)

Other

দেশের ধনাঢ্য ব্যক্তিদের ফাঁসিয়ে অর্থ আদায় করতেন বিতর্কিত মডেল ফারিয়া মাহাবুব পিয়াসা ও মৌ আক্তার। রিমান্ডে এমন চাঞ্চল্যকর তথ্য পেয়েছে গোয়েন্দা পুলিশ। গোয়েন্দা পুলিশের যুগ্ম কমিশনার হারুন অর রশিদ জানান, আরো অনেক প্রতারক চক্রের নাম জিজ্ঞাসাবাদে জানিয়েছেন তারা।

এছাড়া বিলাশ বহুল অস্ত্র, ইয়াবা, স্বর্ণ বাণিজ্যের সাথে সে জড়িত কিনা তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে বলেও জানান, গোয়েন্দা পুলিশের এই কর্মকর্তা।

নাঈম আল জিকো

চট্টগ্রামের মেয়ে বিতর্কিত মডেল ফারিয়া মাহবুব পিয়াসা। মডেলিংয়ের আড়ালে অপরাধ সাম্রাজ্যে বিচরণ তার। আন্ডারওয়ার্ল্ড কানেকশনে অস্ত্র কারবার থেকে শুরু করে মাদকের জমজমাট বাণিজ্যের অভিযোগ আছে তার বিরুদ্ধে। ধনাঢ্য পরিবারের সন্তানদের নিজের মাদকের আসরে ডেকে আপত্তিকর অবস্থায় গোপন ছবি তুলে ব্ল্যাকমেইল করতেন। রিমান্ডে এমন তথ্য-প্রমাণ পেয়েছে গোয়েন্দা পুলিশ।

বিত্তবানদের রাতের রাণী পিয়াসা, বিলাশ বহুল বিএমডব্লিউটি মার্সিডিজ ব্রান্ডের গাড়ি হাঁকিয়ে ছুটে চলতেন রাজধানীর বার ও নাইট ক্লাবের উদ্দেশে। প্রভাবশালী আর ধনীর দুলালদের সঙ্গে চলতো ডিসকো ড্যান্স। গ্রুপ বেধে সেবন করতেন মাদক। পরে চলে যেতো তার রাজকীয় ফ্ল্যাটে। যেখানে প্রতিটি রুমেই থাকতো গোপন ক্যামেরা। পুলিশ জানায়, পিয়াসার রয়েছে মাদক বাণিজ্যের বড় নেটওয়ার্ক। ওই নেটওয়ার্কে কারা জড়িত সে সম্পর্কে জানতে তাদের জিজ্ঞাসাবাদ চলছে।

এছাড়া পিয়াসার মাধ্যমে যারা ব্ল্যাকমেইলের শিকার হয়েছেন তাদের অনেকে এরই মধ্যে অভিযোগ দিয়েছেন। বৈধ কোনও আয় না থাকলেও এসব দুই লাখ টাকা ভাড়ায় ৫ হাজার স্কয়ার ফিটের ফ্লাট, ৫০ হাজার টাকা বেতনে ব্যক্তিগত সহকারি রাখা এবং দামী গাড়ি পিয়াসা কিভাবে ব্যবহার করতো সে বিষয়েও তদন্ত চলছে বলে জানান তিনি।

এছাড়াও, জিজ্ঞাসাবাদে অভিজাত পাড়ায় এমন আরো অনেকগুলো সক্রিয় চক্রের নামও প্রকাশ করেছে পিয়াসা। পিয়াসার আরেক সহযোগি এবং অস্ত্র, নিষিদ্ধ গাড়ি, স্বর্ণসহ বিভিন্ন অবৈধ ব্যবসার পার্টনার মিশু হাসানকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব।

news24bd.tv/এমিজান্নাত