শুক্রবার, ১৮ অক্টোবর, ২০১৯ | আপডেট ০১ ঘন্টা ২৭ মিনিট আগে

ভারতীয় ট্রাকসহ বিপুল পরিমাণ শাড়ি-থ্রি পিছ আটক

নিউজ টোয়েন্টিফোর ডেস্ক

ভারতীয় ট্রাকসহ বিপুল পরিমাণ শাড়ি-থ্রি পিছ আটক

ভারতীয় একটি ট্রাকসহ অবৈধভাবে আনা ১ কোটি ১৫ লাখ টাকার শাড়ি-থ্রি পিছ আটক করেছে বেনাপোল কাস্টমস।

গোপন সংবাদের ভিত্তিতে কমিশনার বেলাল চৌধুরী অবৈধ এ চালান সম্পর্কে জানতে পারেন। পরে তাৎক্ষণিকভাবে তার নির্দেশে অভিযান চালিয়ে গেল রাতে বিপুল পরিমাণ ভারতীয় পণ্য ট্রাকসহ আটক করেন কাস্টমস কর্মকর্তারা।

জানা গেছে, ফিটকিরি (Alum) ঘোষণা দিয়ে এসব পণ্য বাংলাদেশে আনা হয়েছিল।

খবর পেয়ে কাস্টমস কমিশনার বেলাল চৌধুরীর নির্দেশে এসি উত্তম চাকমার নেতৃত্বে একাধিক টিম বিভিন্ন শেডে গিয়ে অভিযান চালায়।

এরপর কমিশনারের নির্দেশে বন্দরের বাণিজ্যিক পণ্যের শেডগুলোসহ সন্দেহজনক ৩৪ নং শেডের আশেপাশে তল্লাশি অভিযান চলতে থাকে। বিভিন্ন শেডের সামনে আনলোডের অপেক্ষায় থাকা ২৩টি ট্রাক পর্যায়ক্রমে তল্লাশি করা হয়।

রাত ৮টার দিকে বহুল প্রতীক্ষিত ট্রাকের সন্ধান পান কাস্টমস কর্মকর্তারা। ৩৪ নং শেডের পেছনের দক্ষিণ পার্শ্বে WB-23a-3273 নম্বরের ভারতীয় ট্রাকটি আটক করা হয়। আটকের পরপরই ভারতীয় ট্রাকটি কাস্টম হাউসের ভেতরে নিয়ে আসা হয়।

ঢাকার ফারদিন ট্রেড ইন্টারন্যাশনাল নামের একটি প্রতিষ্ঠান ভারত থেকে ৩০০ প্যাকেজ (১৫ মেট্রিক টন) ফিটকিরি আমদানির জন্য গেল ৪ এপ্রিল ব্যাংকে এলসি খোলেন। এলসি নম্বর-১৮৯১১৮০১০০৫৬।

অথচ তিনি রাজস্ব ফাঁকি দিতে অবৈধভাবে ভারতীয় শাড়ি ও থ্রি পিছ নিয়ে আসেন। এসব পণ্যে আমদানির মাধ্যমে তিনি সরকারের প্রায় ৬৪ কোটি টাকা রাজস্ব ফাঁকি দিতে চেয়েছেন।

বেনাপোল কাস্টমসের কমিশনার বেলাল চৌধুরী বলেন, ️ঈদ সামনে রেখে একটি চক্র বেপরোয়া হয়ে এমন জঘন্য অপরাধ ও চোরাচালানের আশ্রয় নিচ্ছে।

কাস্টমস কর্তৃপক্ষের সতর্কতার কারণে তারা সুবিধা করতে পারছে না।

তিনি বলেন, চালানটটি ধরা পড়ার পর থেকে চক্রটি তাদের খরিদকৃত লোকজন দিয়ে কাস্টমস কর্মকর্তাদেরকে নানানভাবে টেলিফোনে ও সাংবাদিক দিয়ে ভয়ভীতিসহ বানোয়াট সংবাদ প্রকাশের হুমকি ধমকি দিয়ে আসছে।

এ ব্যাপারে বেলাল চৌধুরী বলেন, আটককৃত পণ্য ও ভারতীয় ট্রাকটি কাস্টম হাউস চত্বরে রাখা আছে। এখনো কেউ ট্রাক বা পণ্য দাবি করতে আসেনি।

অরিন/নিউজ টোয়েন্টিফোর

মন্তব্য